শনিবারের এল ক্লাসিকো আরও আকর্ষণীয় ফেসবুকে

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০২:৩১, অক্টোবর ২৩, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:৩৮, অক্টোবর ২৩, ২০২০

এল ক্লাসিকোর অপেক্ষায় ন্যু ক্যাম্প             -এফসি বার্সেলোনাস্পেনের লা লিগা পুরো বিশ্বেই ভীষণ জনপ্রিয়। আর এই উপমহাদেশে মেসিদের খেলা দেখার জন্য ফুটবলমোদীদের ঘুম থাকে না। লা লিগা কর্তৃপক্ষ সারা বিশ্বেই তাদের খেলা ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য নানা আয়োজন করেছে। সেটিরই অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে লা লিগার ভারতীয় উপমহাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসে আন্তোনিও চাচাজা নানাদিক তুলে ধরেন। লা-লিগার ওপর নানা তথ্য-উপাত্ত প্রদর্শন করেছেন উপমহাদেশের প্রতিনিধি গ্যারি উধাওয়ানি।

এখনও পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে শ্বাসরুদ্ধকর সব ম্যাচ লাইভ দেখিয়েছে ১০০টিরও বেশি লা লিগা পার্টনার। আগামী শনিবার  আরেকটি লাইভ ম্যাচ, যেটি সারা বিশ্বেই অতিকাঙ্ক্ষিত। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনা বনাম রিয়াল মাদ্রিদ ম্যাচ- এল ক্লাসিকো। রাত ৮টা থেকে বার্সেলোনার  ন্যু ক্যাম্পে শুরু হবে মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকো। ৯০তম মৌসুমে এসেও বিশ্ব ফুটবলের বিনোদনে এর আকর্ষণ একটুও ম্লান হয়নি।

বিশ্বজুড়ে প্রায় ৬৫ কোটি ভক্তের কাছে এবারের এল ক্লাসিকো দেখার অভিজ্ঞতা হবে অন্য যেকোনও বারের চেয়ে আলাদা। আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (এআই) এবং অগমেন্টেড রিয়্যালিটির (এআর) মাধ্যমে সম্প্রচারের নতুন গ্রাফিক্স এবং ম্যাচ পরিসংখ্যানের মাধ্যমে ভিন্নরকম অথচ পরিপূর্ণ এক অভিজ্ঞতা পেতে যাচ্ছেন ভক্তরা। স্টেডিয়ামে না গিয়েও ভার্চুয়াল ক্রাউড এবং অডিও প্রযুক্তির মাধ্যমে খেলার মাঠের মতোই ভিড় এবং দর্শকদের উত্তেজনা উপলব্ধি করতে পারবেন ঘরে বসেই। ১৪টি লা লিগা সান্তান্দার স্টেডিয়াম এখন এরিয়াল ক্যামেরা ও ড্রোন দিয়ে সজ্জিত। ফলে নতুন নতুন কোণ থেকে খেলা দেখা যাবে যা দেখে মনে হবে একদম চোখের সামনে খেলা হচ্ছে।

ভারতীয় উপমহাদেশে লা লিগার ফেসবুক পেজে সরাসরি বিনামূল্যে দেখা যাবে এল ক্লাসিকো। লা লিগা চালু করেছে ই-স্পেস নামে নতুন এক অ্যাপ। ভক্তদের পছন্দের ক্লাবের রেপ্লিকা জার্সি জেতার সুযোগ করে দিতে একটি বিশেষ অনলাইন ফ্যান জোনও তৈরি করা হয়েছে, যেখানে মজার সব চ্যালেঞ্জ এবং অনলাইন গেমপ্লে অফার করে ম্যাচের সঙ্গে মিল রেখে একটি ব্র্যান্ড নিউ মোবাইল গেম ‘স্কোর ওয়ার্ডস লা লিগা’ চালু করা হবে।

বাংলাদেশে রয়েছে লা লিগার ৫০ লাখ ভক্ত। অদূর ভবিষ্যতে বাংলাদেশে রিয়াল বা বার্সেলোনার কোনও প্রীতি ম্যাচ দেখা যাবে কি না এমন প্রশ্নের উত্তরে হোসে আন্তোনিও চাচাজা বলেছেন, ‘সুযোগ আছে। তবে সেটি খুব কঠিন। বিশ্বের অন্যতম সেরা দুটি দলের সঙ্গে অনেক কিছু জড়িত। তাদের অতি ব্যস্ত সূচির পাশাপাশি ম্যাচ আয়োজন মিলিয়ন মিলিয়ন ইউরোর ব্যাপার। মায়ামিতে ১০ মিলিয়ন ডলার লেগেছিল আয়োজন করতে।’মেসি গেলেও প্রভাব পড়বে না লা লিগায়!            -মেসির টুইটার পেজ

রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো সিরি ‘এ’ তে গেছেন। লিওনেল মেসিও এবার দল ছাড়তে চেয়েছিলেন। ভবিষ্যতে মেসিও চলে গেলে লা লিগায় কেমন প্রভাব পড়বে? জবাবে চাচাজার উত্তর,‘রোনালদোর আগেও অনেক চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছে রিয়াল। ডি স্টেফানো, ক্রুইফ খেলেছেন লা লিগায়। রিয়াল-বার্সায় পেলে ছাড়া সব যুগেই সেরা খেলোয়াড়েরা খেলেছেন। মনে হয় না কোনও খেলোয়াড় চলে গেলে তেমন ক্ষতি হবে। খেলোয়াড়ের চেয়ে ক্লাব বড়।’

 

/টিএ/পিকে/

লাইভ

টপ