বার্তোমেউকে ‘ফুটবল জ্ঞানহীন’ বললেন লা লিগা সভাপতি

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ২০:১৪, অক্টোবর ২৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:২৬, অক্টোবর ২৮, ২০২০

সদ্য সাবেক বার্সা সভাপতি জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউ ও লা লিগা সভাপতি হাভিয়ের তেবাসসিংহাসন আঁকড়ে ধরে রাখার চেষ্টার কমতি রাখেননি। অনাস্থা ভোট কিংবা সমর্থকদের ‘হটাও’ স্লোগানও গদি থেকে নামাতে পারছিল না জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউকে। দিন দুয়েক আগেও এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন, সভাপতি পদ ছাড়বেন না তিনি। কিন্তু মঙ্গলবার রাতে আচমকাই পদত্যাগের ঘোষণা দেন বার্তোমেউ। অনেক বিতর্কের জন্ম দেওয়া সদ্য সাবেক হওয়া বার্সা সভাপতি বিদায়বেলাতেও উসকে দিয়ে গেছেন নতুন বিতর্ক!

ইউরোপে নতুন ফুটবল প্রতিযোগিতার আয়োজনের আলোচনা চলছে। ‘ইউরোপিয়ান সুপার লিগ’ নামে গুঞ্জনের পালে হাওয়া লাগানো বিতর্কিত এই প্রতিযোগিতায় খেলতে নাকি সম্মতি জানিয়েছে বার্সেলোনা। পদত্যাগের ঘোষণা দেওয়ার সময় তেমনটাই জানিয়েছেন বার্তোমেউ। যে প্রতিযোগিতা নিয়ে ফিফা থেকে শুরু করে উয়েফা কঠোর অবস্থানে, সেখানে সম্মতি জানানো কতটা বুদ্ধিমানের মতো কাজ, সেদিকে আঙুল তুলেছেন লা লিগা সভাপতি হাভিয়ের তেবাস। তার কাছে, শেষ সময়ে বার্তোমেউ প্রমাণ করে গেছেন তিনি কতটা ‘ফুটবল জ্ঞানহীন’।

১৮ দল নিয়ে ইউরোপিয়ান সুপার লিগ আয়োজনের পরিকল্পনা। যার অর্থায়ন করছে আমেরিকার জেপি মরগান ব্যাংক। ইউরোপের বড় বড় ক্লাবগুলো নিয়ে প্রস্তাবিত প্রতিযোগিতার বাজেট ৫ বিলিয়ন ইউরো। বার্সেলোনার সঙ্গে লা লিগার রিয়াল মাদ্রিদ ও আতলেতিকো মাদ্রিদও নাকি নতুন প্রতিযোগিতায় খেলতে চায়। তাছাড়া দিনকয়েক আগেই শোনা গেছে, লিভারপুল ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডও নাকি সম্মতি জানিয়েছে।

মঙ্গলবার বোর্ডের সব সদস্যের সঙ্গে পদত্যাগ করেছেন বার্তোমেউ। তার আগের দিন সোমবার সবাই মিলে ‘বিদ্রোহী লিগে’ খেলার সম্মতি জানায় তারা। বার্সেলোনার সভাপতি পদ ছাড়ার ঘোষণায় বার্তোমেউ জানিয়ে গেছেন কাতালানদের অংশ নেওয়ার কথা, ‘আমি দারুণ একটি খবর দিতে যাচ্ছি, যাতে আমাদের আর্থিক অবস্থা পুরো পাল্টে দেবে। আমরা ইউরোপিয়ান সুপার লিগ ফুটবলে খেলার সম্মতি জানিয়েছি।’

বার্তোমেউয়ের সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ লা লিগা সভাপতি। সাবেক বার্সা সভাপতিকে ‘মূর্খ’ উল্লেখ করে তেবাসের টুইট, ‘দুর্ভাগ্যবশত বার্তোমেউ তার শেষ দিনে বার্সেলোনার একটি দুর্বল ও কাল্পনিক প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার কথা বলেছেন, যেটি তাদের ধ্বংস করে দিতে পারে। এটাই নিশ্চিত করে তার ফুটবল অজ্ঞতা। সাফল্য ও শেষ দিকে অনেক ভুল করা একজন সভাপতির দুঃখজনক বিদায়।’

এই টুইটেই কিন্তু তেবাস প্রথমবার আলোচনার টেবিলে থাকা ইউরোপিয়ান সুপার কাপকে ধুয়ে দেননি। এর আগেও ইএসপিএনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্রতিযোগিতাকে ‘অযৌক্তিক’ দাবি করেছিলেন স্প্যানিশ লিগের প্রধান।

/কেআর/

লাইভ

টপ