মেসি-রোনালদোর দ্বৈরথ দেখার সুযোগ কিন্তু থাকছে!

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ২২:৩২, অক্টোবর ২৮, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৩২, অক্টোবর ২৮, ২০২০

ক্যালেন্ডারের পাতায় অনেকে হয়তো দাগ দিয়ে রেখেছিলেন তারিখটায়। এল ক্লাসিকো এলে তো আর দেখা যায় না, সেই সুযোগ যখন চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বের ড্র ভাগ্য এনে দিয়েছে, তখন ম্যাচটি ঘিরে আলাদা উত্তাপ থাকা স্বাভাবিক। লিওনেল মেসি-ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর দ্বৈরথ বলে কথা। কিন্তু করোনাভাইরাস এভাবে থাবা বসাবে, কে ভেবেছিল! পর্তুগিজ উইঙ্গার কোভিড-১৯ পজিটিভ হওয়ায় আজ (বুধবার) দিবাগত রাতের বার্সেলোনা-জুভেন্টাস লড়াইয়ে দেখা হচ্ছে না মেসি-রোনালদোর দ্বৈরথ।

তাই বলে আশা একেবারে শেষ হয়ে যাচ্ছে না। মেসি-রোনালদোর ব্যক্তিগত লড়াই উপভোগের সুযোগ থাকছে ফুটবলপ্রেমীদের জন্য। আজ জুভেন্টাসের মাঠে আতিথ্য নেবে বার্সেলোনা। ফিরতি লেগ খেলতে ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নরা যখন আবার ন্যু ক্যাম্পে আসবে, তখন সময়ের দুই সেরার প্রতীক্ষিত লড়াই দেখার সুযোগ তৈরি হবে। সেজন্য অবশ্য অপেক্ষায় থাকতে হবে ৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত। ‘জি’ গ্রুপের শেষ ম্যাচে ফিরতি লেগে মুখোমুখি হবে বার্সা-জুভেন্টাস।

২০১৮ সালের গ্রীষ্মের দলবদলে রিয়াল ছেড়ে জুভেন্টাস পাড়ি জমান রোনালদো। সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে গোলের পর গোল করে রেকর্ডের ডালি সাজানো পর্তুগিজ অধিনায়ক তুরিনে গিয়েও আছেন একই ছন্দে। গত আন্তর্জাতিক ফুটবল বিরতিতে জাতীয় দল পর্তুগালের হয়ে খেলতে গিয়ে তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। প্রত্যাশা ছিল, বার্সেলোনা ম্যাচের আগে সুস্থ হয়ে উঠবেন। কিন্তু আবারও পজিটিভ হওয়ায় ছিটকে গেছেন জুভেন্টাস স্টেডিয়ামের ম্যাচ থেকে।

ইউরোপের সেরা দুই ক্লাবের লড়াই হলেও সেখানে মেসি-রোনালদো দুজনে থাকলে নিশ্চিতভাবেই আরও আকর্ষণীয় হয়ে উঠতো ম্যাচটি। তাছাড়া অনেকদিন পর দেখা বলে্ ‍উত্তেজনাও থাকতো অন্য পর্যায়ে। কিন্তু রোনালদোর কোভিড-১৯ পজিটিভ সেই উত্তেজনায় জল ঢেলে দিয়েছে।

মেসি-রোনালদোর সবশেষ দেখা হয়েছিল ২০১৮ সালের মে মাসের এল ক্লাসিকোতে। সবচেয়ে মজার ব্যাপার হলো, ওই ম্যাচেই মেসি পেয়েছিলেন সবশেষ এল ক্লাসিকো গোল। রোনালদো রিয়াল ছাড়ার পর চিরশত্রুদের বিপক্ষে চলছে তার গোলখরা। গত রবিবারের ক্লাসিকোতেও গোল পাননি ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী। রোনালদোকে সামনে পেয়ে তিনি আবার গোল উৎসবে মেতে উঠেন কিনা, সেটা দেখার অপেক্ষায় ছিলেন অনেকেই। যদিও সেটা আপাতত হচ্ছে না।

তবে একেবারে আশাহত হওয়ার কিছু নেই। সময়ের দুই সেরা খেলোয়াড় সুস্থ থাকলে এ বছরই দেখা হবে তাদের দ্বৈরথ। চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বের ফিরতি লেগে হয়তো ফুটবলদেবতা মুখ ফিরিয়ে নেবেন না!

/কেআর/

লাইভ

টপ