X
বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

বিশ্ব শিশু ক্যানসার দিবস আজ

‘ক্যানসার বড় কঠিন, সব কেড়ে নেয়’

আপডেট : ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৯:০০

গত ৩০ জানুয়ারি নরসিংদীর বাবুরহাট থেকে জাতীয় ক্যানসার ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ইশ্রাফিল। তার আগে চার মাস থাকতে হয়েছিল এই হাসপাতালেই। সঙ্গে আছে মা। বাড়িতে অসুস্থ বাবা আর ছোটবোন। ক্যানসার হাসপাতালে মা-ছেলের সঙ্গে দেখা হয় এ প্রতিবেদকের।

মা মার্জিয়া বেগম বলেন, ‘গত রোজার সময় একদিন দেরি করে ঘুম থেকে ওঠে ইশ্রাফিল। উঠেই জানায় হাতের নিচে কিছু একটা হয়েছে। এলাকার ওষুধের দোকান থেকে ওষুধ এনে দেই। তাতে সারেনি।’

‘চামড়ার ওপর হাত দিলে মনেই হয় না চামড়া। এত পাতলা। নরসিংদীর হাসপাতালে চিকিৎসা হয়। সারে না। আট দিন গেল। আমি মনে করলাম সেরে গেছে। হাসপাতাল থেকে বাড়িতে নিয়ে যাই। আবার ফুলে ওঠে। ছড়িয়ে যায় কয়েক জায়গায়। ডাক্তারের কাছে গেলে ডাক্তারও ফেরত পাঠায়।’

‘পরে ঢাকা মেডিক্যালে গেলাম। সেখানে অপারেশন হয়। বলা হলো, বায়োপসি করতে। তারা বললো এটা ক্যানসার।’

মার্জিয়া বেগম জানালেন, ‘দুই শতক জায়গা ছিল। সেটা বিক্রি করে চিকিৎসা করাচ্ছি। এখন টাকা নাই। গ্রামের মানুষের কাছ থেকে সাহায্য নিয়ে এতদূর। আর পারি না। আল্লাহই জানেন, কিভাবে টাকার যোগাড় হবে। ছেলেকে তো বাঁচানো লাগবে।’

এর আগে হাসপাতালের এক চিকিৎসকের দেওয়া টাকায় ওষুধ এনেছেন। ছেলের মাথায় হাত বোলাতে গিয়ে বলেন, ‘ডাক্তাররা বলেছে ওর অবস্থা নাকি খারাপ। একদিন আনলাম ২২ হাজার টাকার ওষুধ, আরেকদিন ১৭ হাজার টাকার। আমার সামর্থ্য নাই। সব শেষ। এখানে আর কতদিন থাকতে পারবো জানি না।’

সাত বছর আগেই অসুস্থ হয়ে ঘরে বসা ইশ্রাফিলের বাবা। মানুষের বাসায় কাজ করে সংসার চালাতেন। ছেলের চিকিৎসার জন্য শেষ সম্বলটাও বিক্রি করেছেন। এখন অন্যের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন।

মার্জিয়া বেগম আশায় আছেন, যদি কেউ তার ছেলের জন্য এগিয়ে আসে, তবে হয়তো সুস্থ হয়ে উঠবে ইশ্রাফিল। তারপর আবার ঘুরে দাঁড়াতে পারবেন কায়ক্লেশে।

একই হাসপাতালে দেখা হয় সাত বছরের জুনাইদের সঙ্গে। চার মাস চিকিৎসার পর ডাক্তররা জানান জুনাইদ হাড়ের ক্যানসারে আক্রান্ত। চারটি কেমোথেরাপি দেওয়া হয়েছে। দিতে হবে আরও দুটি। তারপর সার্জারি করবে বলে জানিয়েছেন জুনাইদের মা আদুরি বেগম।

চারমাসে কত টাকা খরচ হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘হাসপাতালের পাশেই বাসা ভাড়া করে থাকি। দিনে ৩০০ টাকা করে। সঙ্গে খাওয়া খরচ আছে। চারমাসে প্রায় সাড়ে চার লাখ টাকা খরচ হয়েছে। জমি-জমা কিছু আর নেই। তারপরও যদি ছেলেটাকে বাঁচানো যায়...।’

সাত বছরের আরাফ নয়তলার ওয়ার্ডে। ফরিদপুর থেকে একমাত্র ছেলেকে নিয়ে এসেছেন বাবা-মা। সাত মাস ধরে এই হাসপাতালেই চিকিৎসা চলছে আরাফের। মাঝে মাঝে বাড়ি যাওয়া হয়। আবার আসতে হয় হাসপাতালে।

‘ফরিদপুরে অনেক হাসপাতালে গিয়েছি। কেউ কিছু বলতে পারেনি। পরে সেখানকার এক চিকিৎসকের পরামর্শে ঢাকা মেডিক্যালে নিয়ে আসি। পরীক্ষার পর আরাফের ক্যানসার ধরা পড়ে।’ জানালেন আরাফের মা।

ব্লাড ক্যানসার আক্রান্ত আরাফকে মাঝে মাঝেই রক্ত দিতে হয়। আত্মীয়দের কাছে ধারদেনা চলছে। সাত মাসে প্রায় চার লাখ টাকার বেশি খরচ হয়েছে জানিয়ে মা বলেন, ‘মধ্যবিত্ত সমাজের এই এক দায়- না পারি কারও কাছে চাইতে, না পারি ছেলের অসহায় অবস্থা দেখতে। ক্যানসার বড় কঠিন, সব কেড়ে নেয়।’

/এফএ/

সম্পর্কিত

৭ সরকারি হাসপাতালে আইসিইউ খালি নেই

৭ সরকারি হাসপাতালে আইসিইউ খালি নেই

৯৪ জনই মারা গেছেন হাসপাতালে

৯৪ জনই মারা গেছেন হাসপাতালে

গণমাধ্যম ও জনস্বাস্থ্যবিদদের একহাত নিলেন স্বাস্থ্যের ডিজি

গণমাধ্যম ও জনস্বাস্থ্যবিদদের একহাত নিলেন স্বাস্থ্যের ডিজি

করোনা নেগেটিভ হওয়ার কতদিন পর টিকা, জানালো স্বাস্থ্য অধিদফতর

করোনা নেগেটিভ হওয়ার কতদিন পর টিকা, জানালো স্বাস্থ্য অধিদফতর

বর্জ্যের সাগরে ডুবে আছে হাসপাতাল!

বর্জ্যের সাগরে ডুবে আছে হাসপাতাল!

সারাদেশের জন্য অপেক্ষা করছে করোনার বিপদ

সারাদেশের জন্য অপেক্ষা করছে করোনার বিপদ

সব হাসপাতাল খোলা থাকবে

সব হাসপাতাল খোলা থাকবে

দুই ডোজ মিলিয়ে ৬৪ লাখ টিকা দেওয়া শেষ

দুই ডোজ মিলিয়ে ৬৪ লাখ টিকা দেওয়া শেষ

২৪ ঘণ্টায় আরও ৬৯ মৃত্যু, শনাক্ত ৬০২৮

২৪ ঘণ্টায় আরও ৬৯ মৃত্যু, শনাক্ত ৬০২৮

করোনা বিষয়ে সচেতনতা ও টিকাদানে সহায়তা করবে ফেসবুক

করোনা বিষয়ে সচেতনতা ও টিকাদানে সহায়তা করবে ফেসবুক

‘সর্বাত্মক বিধিনিষেধে’ সংক্রমণ কমবে না, দাবি বিশেষজ্ঞদের

‘সর্বাত্মক বিধিনিষেধে’ সংক্রমণ কমবে না, দাবি বিশেষজ্ঞদের

সর্বনিম্ন ৩ সপ্তাহের লকডাউন দরকার: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

সর্বনিম্ন ৩ সপ্তাহের লকডাউন দরকার: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

সর্বশেষ

চকবাজারে বসেনি ইফতারির বাজার

চকবাজারে বসেনি ইফতারির বাজার

ছাত্রলীগ নেতার কব্জি কর্তন: প্রধান আসামিসহ গ্রেফতার দুই

ছাত্রলীগ নেতার কব্জি কর্তন: প্রধান আসামিসহ গ্রেফতার দুই

শুক্রবার গ্যাস থাকবে না বেশকিছু এলাকায়

শুক্রবার গ্যাস থাকবে না বেশকিছু এলাকায়

আমিরাত উপকূলে হামলার শিকার ইসরায়েলি জাহাজ

আমিরাত উপকূলে হামলার শিকার ইসরায়েলি জাহাজ

করোনা চিকিৎসায় যাচ্ছিলেন ডাক্তার, মামলা দিলো পুলিশ

করোনা চিকিৎসায় যাচ্ছিলেন ডাক্তার, মামলা দিলো পুলিশ

ফেসবুকজুড়ে হোমপেজ হয়ে উঠলো লাল-সাদা

ফেসবুকজুড়ে হোমপেজ হয়ে উঠলো লাল-সাদা

দু পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১৫

দু পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১৫

আল্লামা শফী হত্যার দৃষ্টান্তমূলক বিচার হোক: তথ্যমন্ত্রী

আল্লামা শফী হত্যার দৃষ্টান্তমূলক বিচার হোক: তথ্যমন্ত্রী

শামসুজ্জামান খান : বাঙালি সংস্কৃতির অতন্দ্র প্রহরী

শামসুজ্জামান খান : বাঙালি সংস্কৃতির অতন্দ্র প্রহরী

মাছ-প্রাণিসম্পদ সরবরাহ ও বিপণন চালু রাখার উদ্যোগ

মাছ-প্রাণিসম্পদ সরবরাহ ও বিপণন চালু রাখার উদ্যোগ

সুন্দরবনে বাঘের আক্রমণে মৌয়াল নিহত, আহত ১

সুন্দরবনে বাঘের আক্রমণে মৌয়াল নিহত, আহত ১

ডাকসুর সাবেক সমাজসেবা সম্পাদক আকতার ২ দিনের রিমান্ডে

ডাকসুর সাবেক সমাজসেবা সম্পাদক আকতার ২ দিনের রিমান্ডে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

৯৪ জনই মারা গেছেন হাসপাতালে

৯৪ জনই মারা গেছেন হাসপাতালে

‘সর্বাত্মক বিধিনিষেধে’ সংক্রমণ কমবে না, দাবি বিশেষজ্ঞদের

‘সর্বাত্মক বিধিনিষেধে’ সংক্রমণ কমবে না, দাবি বিশেষজ্ঞদের

অক্সিজেন নিয়ে চলছে কাড়াকাড়ি!

অক্সিজেন নিয়ে চলছে কাড়াকাড়ি!

‘মহামারিকালে দেশে অত্যাবশ্যকীয় স্বাস্থ্যসেবায় ভোগান্তি’

‘মহামারিকালে দেশে অত্যাবশ্যকীয় স্বাস্থ্যসেবায় ভোগান্তি’

অ্যাম্বুলেন্সের লাইন আর স্বজনদের কান্না!

অ্যাম্বুলেন্সের লাইন আর স্বজনদের কান্না!

বয়স্কদের মৃত্যু বাড়ছে, তরুণরা গণহারে আক্রান্ত হচ্ছে

বয়স্কদের মৃত্যু বাড়ছে, তরুণরা গণহারে আক্রান্ত হচ্ছে

রাজধানীর দুই এলাকায় সর্বাধিক সংক্রমণ

রাজধানীর দুই এলাকায় সর্বাধিক সংক্রমণ

করোনামুক্ত মানেই ‘মুক্তি’ নয়

করোনামুক্ত মানেই ‘মুক্তি’ নয়

রিপোর্ট আসতেই সপ্তাহ পার!

রিপোর্ট আসতেই সপ্তাহ পার!

করোনা রোগীদের জন্য বিএসএমএমইউ’র ফিভার ক্লিনিকে ১০০ বেড চালু

করোনা রোগীদের জন্য বিএসএমএমইউ’র ফিভার ক্লিনিকে ১০০ বেড চালু

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune