X
শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ২৫ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

ছোট পরিবহন আর কাঁচাবাজারে বেজায় ভিড় সারাদেশে

আপডেট : ০৫ এপ্রিল ২০২১, ২২:৫০

সরকার ঘোষিত ১৮ দফা নির্দেশনা মানতে সারাদেশে টানা এক সপ্তাহ অঘোষিত লকডাউন চালু করেছে সরকার। সরাসরি লকডাউন হিসেবে কাগজ-কলমে ঘোষণা না থাকলেও ১৮ দফা কঠোরভাবে পালনে সরকারের অন্তত একটি পদক্ষেপ অর্থাৎ যান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করে স্থানীয় মানুষদের ভিন্ন এলাকায় যাতায়াতে বাধা দেওয়ার উদ্যোগ মোটামুটি ফলপ্রসূ হয়েছে। তবে প্রথমদিনে দূরপাল্লার বাস, ট্রেন ও লঞ্চ চলাচল বন্ধ করা সম্ভব হলেও স্থানীয় পর্যায়ে যন্ত্রচালিত ছোট গণপরিবহনগুলো বন্ধ করা সম্ভব হয়নি। এর ফলে সড়ক, মহাসড়কে যানবাহন না পেয়ে লেগুনা ও থ্রি হুইলারগুলোতে যেভাবে গাদাগাদি করে মানুষ যাতায়াত করেছে। সারাদেশেই এমন পরিস্থিতি দেখা যাওয়ায় এই পরিবহন বন্ধ না করে এমন লকডাউন দিয়ে করোনা সংক্রমণ কতটা ঠেকানো যাবে সে প্রশ্নটা উঠছেই।

লকডাউনের শুরুতে মহাসড়কে দোকানপাট বন্ধ থাকলেও গলি ও মহল্লার দোকানপাট সবখানেই খোলা ছিল, জনস্বার্থে কাঁচাবাজার খোলা থাকলেও সেখানে স্বাস্থ্যবিধি মানার কোনও লক্ষণ দেখা যায়নি সারাদেশে। বেশিরভাগ সচেতন ক্রেতা বাজারে মাস্ক পরে গেলেও তাদের অভিযোগ, বিক্রেতাদের বেশিরভাগই ছিলেন মাস্ক ছাড়া; বাজারে ক্রেতাদের অনেককেও মাস্ক ছাড়া গাদাগাদি করে ঘুরতে দেখা গেছে।

তবে বেশিরভাগ জেলায় মাঠে ছিল প্রশাসন ও পুলিশের উপস্থিতি। তারা কোথাও দল বেঁধে নেমে, কোথাও র‌্যালি করে, কোথাও ঘোষণা দিয়ে জনসাধারণকে মাস্ক পরাসহ সরকারি নির্দেশনা মানার আহ্বান জানান। আজ কিছু জেলায় জনসাধারণকে মাস্ক না পরা, দোকান খোলা রাখা বা যানবাহন চালনার কারণে সতর্ক করে দিলেও বেশিরভাগ জেলায় পরিচালনা করা হয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত, দেওয়া হয়েছে অর্থদণ্ড।

বরিশাল শহরে চলছে রিকশা, অটোরিকশাসহ নানা ধরনের ছোট পরিবহন

বরিশাল প্রতিনিধি জানান, ঢিলেঢালাভাবে বরিশালে লকডাউনের প্রথমদিন অতিবাহিত হয়েছে। সোমবার সকাল থেকে বরিশাল লঞ্চঘাট থেকে অভ্যন্তরীণ রুটের কোনও লঞ্চ ছেড়ে যায়নি। একই অবস্থা ছিল বাস টার্মিনালেও। তবে নগরীতে থ্রি হুইলার চলাচল ছিল স্বাভাবিক। সেগুলোতে গাদাগাদি করে যাত্রী ওঠাতে দেখা গেছে। এছাড়া নগরীর অধিকাংশ দোকানপাট বন্ধ থাকলেও রাস্তার পাশে ফেরিওয়ালাদের বেচাবিক্রিতে ভিড় ছিল লক্ষ্যণীয়।

সড়কে মানুষের ভিড় এড়াতেই মূলত এই লকডাউন দেওয়া হলেও এদিন বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রাস্তাঘাটে মানুষের উপস্থিতি ও যাতায়াত বাড়তে থাকে। তাদের অনেকের সঙ্গে কথা হলে তারা বাধ্য হয়ে কাজের জন্য বেড়িয়েছেন বলে জানান। এমন পরিস্থিতি সামাল দিতে এবং করোনা প্রতিরোধে গণসচেতনতা বাড়াতে বেলা ১১টায় নগরীর বিভিন্ন স্থানে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এ সময় মাস্ক না পরায় এবং অযথা ঘরের বাইরে বের হওয়ায় বেশ কয়েকজনকে জরিমানা করেন আদালত।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জানান, লকডাউন কার্যকর করতে তাদের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।

অপরদিকে, করোনা প্রতিরোধে এবং জনসচেতনতা বৃদ্ধি করতে নগরীতে র‌্যালি করেছে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ। পুলিশ কমিশনার শাহাবুদ্দিন খানের নেতৃত্বে বেলা সাড়ে ১১টায় নগরীর জিলা স্কুলের সামনে থেকে এই মোটরসাইকেল র‌্যালি বের হয়ে নগরীর প্রধান প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে।

 

নোয়াখালী প্রতিনিধি জানান, নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে লকডাউনের মধ্যে বাস চলাচল করায় দুটি বাসের ড্রাইভারসহ ২০টি যানবাহন ও ৩৬টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে ৩৯ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আজ সোমবার (৫ এপ্রিল) দিনব্যাপী বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী বাজারে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামছুন নাহার এবং উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা কামরুল হোসাইন চৌধুরী পৃথকভাবে এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, করোনা ভাইরাসের প্রকোপ কমাতে সরকার ঘোষিত নির্দেশনা অমান্য করে চলাচল করায় হিমাচল পরিবহনের একটি বাসকে পাঁচ হাজার টাকা ও চট্টগ্রাম থেকে নোয়াখালীগামী একটি বাসকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়াও লকডাউন না মানায় চৌমুহনী বাজারের ৩৬টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এবং ১৮টি বিভিন্ন ধরনের যানবাহনকে ৩৯ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করা হয়েছে।

বেগমগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামছুন নাহার জানান, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় সহযোগিতা করে বেগমগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ।

বাগেরহাট প্রতিনিধি জানান, বাগেরহাট শহরে ঢিলেঢালাভাবে চলছে লকডাউন। প্রথম দিনে দূরপাল্লার যানবাহন বন্ধ থাকলেও শহরে ইজিবাইক, মাহিন্দ্র ইত্যাদি ছোট যানবাহন চলাচল করেছে স্বাভাবিক অবস্থার মতোই। লকডাউনের প্রথম দিনে শহরের হোটেল, রেস্তোরাঁ ও চায়ের দোকানে লোকজনকে আড্ডা দিতে দেখা গেছে। জরুরি সেবাদানকারী ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি অধিকাংশ দোকানপাট খোলা ছিল। প্রয়োজন অপ্রয়োজন লোকজনকে শহরে ঘুরে ফিরতে দেখা গেছে। করোনা স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না অধিকাংশ মানুষ। তবে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দেখলেই লোকজন অলিতে-গলিতে গা ঢাকা দিয়েছে। আবার তারা চলে গেলেই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়েছে। জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে মোবাইল কোর্ট সচেতনতা বাড়াতে লিফলেট ও মাস্ক বিতরণ করছে।

নীলফামারী প্রতিনিধি জানান, লকডাউনে অকারণে ঘোরাঘুরি, মাস্ক না পরা, সরকারি নির্দেশ অমান্য করে দোকান খোলা রাখার দায়ে নীলফামারীর ছয় উপজেলায় ১০টি মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ৬৯ হাজার ৪০০ টাকা জরিমানা আদায় করেছে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় বিভিন্ন অভিযোগে ৬৬টি মামলা দায়ের করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (ইনডিসি) মো. জাহাঙ্গীর হুসাইন।

সোমবার (৫ এপ্রিল) সকাল ১১টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত এ জরিমানা করা হয়। পুলিশের সহায়তায় জেলা শহরের চৌরঙ্গীর মোড়, উকিলের মোড়, কিচেন মার্কেট, বড় বাজার ও ডালপট্টি এলাকায় এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়।
এছাড়াও শহরের বিভিন্ন এলাকায় বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, রিকশাচালক, ভ্যানচালক, মোটরসাইকেলচালক ও আরোহী যারাই মাস্কবিহীন চলাফেরা করছেন তাদের সচেতন করে ও স্বাস্থ্যবিধি মানার পরামর্শ দিয়ে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করা হচ্ছে এবং অনেক ক্ষেত্রে জরিমানাও করা হচ্ছে।
তিনি বলেন, লকডাউনে যারা বিনা কারণে বাইরে ঘোরাঘুরি করছে তাদের সচেতন করা হচ্ছে যাতে তারা সন্ধ্যা ৬টার পরে বাইরে না আসেন। জরিমানা করা জেলা প্রশাসনের উদ্দেশ্য নয়। শুধুমাত্র প্রশাসনের মাধ্যমে করোনা প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টি করা হচ্ছে। করোনা প্রতিরোধে এই কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি জানান, দ্বিতীয় ধাপে করোনার সংক্রমণের ঢেউ সামলাতে সরকার সারাদেশে আজ থেকে ৭ দিনের লক-ডাউন দিলেও খাগড়াছড়িতে পালিত হচ্ছে ঢিলেঢালা ভাবে।

প্রধান সড়কের অধিকাংশ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও অলিগলির দোকানপাট খোলা রয়েছে আগের নিয়মে। সামাজিক ও স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে সাপ্তাহিক হাটবারকে ঘিরে বসতে দেখা গেছে হকারদের।

ক্রেতাদের অনেকে মাস্ক পরলেও বিক্রেতারা এক্ষেত্রে উদাসীন। জেলায় এখন পর্যন্ত সংক্রমণের হার কম থাকলেও এভাবে চলতে থাকলে আবারও তা বেড়ে ভয়াবহ পরিস্থিতি হওয়ার শঙ্কা করছেন অনেকে।

জেলা প্রশাসনের তথ্য মতে, স্বাস্থ্যবিধি না মানায় গতকাল রবিবার জেলার বিভিন্ন স্থানে দেড়শজনকে অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে। প্রতিদিনই চলছে স্থানীয় প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি জানান, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়তে থাকায় ৫-১১ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে সারাদেশে। আর এই লকডাউন কার্যকর করতে মাঠে নেমেছে স্থানীয় প্রশাসন।

সকাল থেকেই কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুবর্ণা রানী সাহা ও থানার ওসি মুহাম্মদ মাহফুজুর রহমান মিয়ার নেতৃত্বে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। স্থানীয় পুলিশ বিভিন্ন বাজারে গিয়ে দোকান-পাট না খোলার জন্য আহ্বান জানাচ্ছেন ব্যবসায়ীদের।

লকডাউনে গণপরিবহন বন্ধ থাকার নির্দেশ থাকলেও কালীগঞ্জ থেকে কোটচাঁদপুরের দিকে একটি যাত্রীবাহী বাস যাত্রী নিয়ে ছেড়ে যাওয়া দেখা গেছে। এদিকে শহরে ইজিবাইক, সিএনজি, লেগুনা আগের মতোই যাতায়াত করতে দেখা গেছে।
কালীগঞ্জ থানার ওসি জানান, লকডাউন কার্যকর করতে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। যাত্রীবাস ছাড়ার ঘটনায় অচিরেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি জানান, লকডাউনের প্রথম দিনে ময়মনসিংহ থেকে সকল রোডে বাস চলাচল বন্ধ থাকলেও চালু রয়েছে সিএনজি, মাহেন্দ্র, ট্রাক ও ব্যক্তিগত গাড়ি। বাস বন্ধের সুযোগ কাজে লাগাচ্ছে সিএনজি ও মাহেন্দ্র’র চালকরা। এজন্য আদায় করা হচ্ছে দ্বিগুণ ভাড়া।

সোমবার ৫ এপ্রিল সকালে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের বাইপাস মোড়ে দেখা যায়, বেশ কয়েকজন যাত্রী সিএনজি মাহেন্দ্র ও ট্রাকে করে ভেঙে ভেঙে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন। তবে তারা দ্বিগুণ বাড়ায় গাড়িতে উঠতে পেরেও খুশি। যদিও অনেকের মধ্যে ছিল না স্বাস্থ্যবিধি মানার কোনও বালাই। এদিকে সকাল থেকেই ময়মনসিংহ নগরীর বৃহৎ কাঁচা বাজার মেছুয়া বাজারে ক্রেতা বিক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় দেখা যায়।

জেলা পুলিশ সুপার আহমার উজ্জামান জানিয়েছেন, লকডাউন বাস্তবায়নে মাঠে পুলিশ কাজ করছে। শহরে কোন ধরনের যানবাহন প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না। প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘর থেকে বের হলেই ব্যবস্থা নেয়া হবে। নিজের ভালোর জন্যই সবাইকে লকডাউন মেনে চলতে হবে।

রাঙামাটি প্রতিনিধি জানান, লকডাউনের প্রথমদিনে রাঙামাটিতে মাঠে ছিল জেলা প্রশাসন।

সোমবার সকাল থেকে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অঞ্জন কুমার দাশের নেতৃত্বে শহরের বিভিন্ন এলাকায় ও বাজারগুলো মনিটরিং করতে দেখা গেছে।

লকডাউনের মধ্যেও খাবারসহ নিত্যপণ্যের দোকান খোলা ছিল এবং কাঁচাবাজারেও মানুষের সমাগম দেখা গেছে। বাজারে লোকসমাগম থাকলেও সামাজিক দূরত্ব মানার ব্যবস্থা চোখে পড়েনি। এখনো খোলা স্থানে বসানো হয়নি কাঁচাবাজার। দূরপাল্লার যানচলাসহ সকল প্রকার গণপরিবহন বন্ধ ছিল।

রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অঞ্জন কুমার দাশ বলেন, প্রথম দিন হিসেবে সবাইকে সচেতন করছি। এছাড়া বিনা প্রয়োজনে কেউ রাস্তায় বের হলে তাদের বাসায় থাকার অনুরোধও করা হচ্ছে।


হিলি প্রতিনিধি জানান, দিনাজপুরের হিলিতে নির্ধারিত সময়ের পরেও দোকান খোলা রাখায়, মাস্ক না পরায় ও স্বাস্থ্যবিধি না মানায় পথচারী, দোকানিসহ ১২ জনকে ১৯ হাজার ১শ’ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সোমবার বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত হিলি বাজার, চারমাথাসহ বিভিন্ন এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অভিযান চালিয়ে হাকিমপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ নূর-এ আলম এই জরিমানা করেন।

রংপুর প্রতিনিধি জানান, লকডাউনের প্রথম দিনে সোমবার বিভাগীয় নগরী রংপুরে ফ্রি স্টাইলে চলাচল করেছে অটোরিকশা, মাইক্রোবাসসহ বিভিন্ন যানবাহন। শুধু তাই নয় নগরীর প্রবেশ দ্বার মর্ডান মোড় এলাকা দিয়ে চলাচল করেছে যাত্রীবাহী বাস ও মাইক্রোবাস।
এ ব্যাপারে রংপুর মেট্রোপলিটান পুলিশের সহকারী কমিশনার ফরহাদ জানান লকডাউন পুরোপুরি বাস্তবায়ন করতে কাজ করছে পুলিশ।
অন্যদিকে, নগরীর প্রধান পাইকারি বাজার বেতপট্টিতে বেশিরভাগ দোকান একটি করে শার্টার খুলে মালামাল বিক্রি করতে দেখা গেছে। লকডাউন প্রতিরোধে সেখানে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কোনও তৎপরতা লক্ষ্য করা যায়নি। দোকানদাররা নানান অজুহাত দেখিয়ে দোকান খোলা রাখার বৈধতা দেখাতে চেষ্টা করেছেন।
অপরদিকে নগরীর পায়রা চত্বরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রায়হানুল ইসলামের নেতৃত্বে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করতে দেখা গেলেও দেদারসে চলাচল করতে ইজিবাইকসহ যানবাহন। দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জানান, মাস্ক ছাড়া চলাচলকারীদের জরিমানা করা হচ্ছে।
এদিকে নগরীর ধর্মদাস এলাকায় সামাজিক দূরত্ব উপেক্ষা করে গাদাগাদি ভাবে দাঁড়িয়ে খাদ্য বিভাগের ন্যায্যমূল্যের দোকানে চাল আটা কিনতে দেখা গেছে। সেখানেও লোকজনের মুখে মাস্ক দেখা যায়নি।

/টিএন/

সম্পর্কিত

ভারত থেকে ফিরলেন আড়াই হাজার বাংলাদেশি, পজিটিভ ১৪ জন

ভারত থেকে ফিরলেন আড়াই হাজার বাংলাদেশি, পজিটিভ ১৪ জন

আ.লীগ নেতার গাড়িতে মাদক পাচারচেষ্টা, চালক গ্রেফতার

আ.লীগ নেতার গাড়িতে মাদক পাচারচেষ্টা, চালক গ্রেফতার

হেফাজতের তাণ্ডব: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আরও ৯ জন গ্রেফতার

হেফাজতের তাণ্ডব: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আরও ৯ জন গ্রেফতার

কাল মোংলা বন্দরে আসছে মেট্রোরেলের দ্বিতীয় চালান

কাল মোংলা বন্দরে আসছে মেট্রোরেলের দ্বিতীয় চালান

মাইক্রোবাস চাপায় ব্যবসায়ী নিহত

মাইক্রোবাস চাপায় ব্যবসায়ী নিহত

বিদেশে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে হানিফের শঙ্কা

বিদেশে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে হানিফের শঙ্কা

আরও দুই জনের শরীরে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত

আরও দুই জনের শরীরে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত

খালেদা জিয়া দেশে সর্বোচ্চ চিকিৎসা সুবিধা পাচ্ছেন: ড. হাছান মাহমুদ

খালেদা জিয়া দেশে সর্বোচ্চ চিকিৎসা সুবিধা পাচ্ছেন: ড. হাছান মাহমুদ

‌'বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জেরেই খুন হন আলমগীর'

‌'বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জেরেই খুন হন আলমগীর'

চবিতে আবেদনের রেকর্ড, এক আসনের বিপরীতে ৪০ শিক্ষার্থী

চবিতে আবেদনের রেকর্ড, এক আসনের বিপরীতে ৪০ শিক্ষার্থী

কাদের মির্জার অনুসারীদের বিরুদ্ধে মামলা, আটক ৩

কাদের মির্জার অনুসারীদের বিরুদ্ধে মামলা, আটক ৩

সর্বশেষ

ঘুরে দাঁড়াতে সহায়তা চায় দেশি এয়ারলাইন্স, আশ্বাস প্রতিমন্ত্রীর

ঘুরে দাঁড়াতে সহায়তা চায় দেশি এয়ারলাইন্স, আশ্বাস প্রতিমন্ত্রীর

‘মানবিক কারণে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের চাকরি দিয়েছি’

রাবির সদ্য বিদায়ী উপাচার্যের দাবি‘মানবিক কারণে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের চাকরি দিয়েছি’

বিশ্বায়ন প্রসঙ্গে অর্থনীতি সমিতির ওয়েবিনার

বিশ্বায়ন প্রসঙ্গে অর্থনীতি সমিতির ওয়েবিনার

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর আরেকটি ঘাঁটি দখল করলো কারেন বিদ্রোহীরা

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর আরেকটি ঘাঁটি দখল করলো কারেন বিদ্রোহীরা

একচেটিয়া বাজার ভাঙতে পেরেছে ‘নগদ’: বিটিআরসি চেয়ারম্যান

একচেটিয়া বাজার ভাঙতে পেরেছে ‘নগদ’: বিটিআরসি চেয়ারম্যান

ঈদযাত্রা রোধে দুই ফেরিঘাটে বিজিবি’র পাহারা

ঈদযাত্রা রোধে দুই ফেরিঘাটে বিজিবি’র পাহারা

‘গ্যাস ঘাটতি মেটাতে পার্বত্য চট্টগ্রামে অনুসন্ধান শুরু করতে হবে’

‘গ্যাস ঘাটতি মেটাতে পার্বত্য চট্টগ্রামে অনুসন্ধান শুরু করতে হবে’

ভারত থেকে ফিরলেন আড়াই হাজার বাংলাদেশি, পজিটিভ ১৪ জন

ভারত থেকে ফিরলেন আড়াই হাজার বাংলাদেশি, পজিটিভ ১৪ জন

বিদ্যুৎ বিতরণে শিল্প মালিকদের আস্থায় আনার নির্দেশ

বিদ্যুৎ বিতরণে শিল্প মালিকদের আস্থায় আনার নির্দেশ

অবৈধভাবে যাত্রী পারাপার করায় পদ্মায় ৬ ট্রলার জব্দ

অবৈধভাবে যাত্রী পারাপার করায় পদ্মায় ৬ ট্রলার জব্দ

ট্রাকের তেলের ট্যাংকিতে মিললো ১০ হাজার ইয়াবা

ট্রাকের তেলের ট্যাংকিতে মিললো ১০ হাজার ইয়াবা

পিএসজিকেই ভালোবাসলেন নেইমার

পিএসজিকেই ভালোবাসলেন নেইমার

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ভারত থেকে ফিরলেন আড়াই হাজার বাংলাদেশি, পজিটিভ ১৪ জন

ভারত থেকে ফিরলেন আড়াই হাজার বাংলাদেশি, পজিটিভ ১৪ জন

আ.লীগ নেতার গাড়িতে মাদক পাচারচেষ্টা, চালক গ্রেফতার

আ.লীগ নেতার গাড়িতে মাদক পাচারচেষ্টা, চালক গ্রেফতার

হেফাজতের তাণ্ডব: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আরও ৯ জন গ্রেফতার

হেফাজতের তাণ্ডব: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আরও ৯ জন গ্রেফতার

কাল মোংলা বন্দরে আসছে মেট্রোরেলের দ্বিতীয় চালান

কাল মোংলা বন্দরে আসছে মেট্রোরেলের দ্বিতীয় চালান

মাইক্রোবাস চাপায় ব্যবসায়ী নিহত

মাইক্রোবাস চাপায় ব্যবসায়ী নিহত

বিদেশে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে হানিফের শঙ্কা

বিদেশে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে হানিফের শঙ্কা

আরও দুই জনের শরীরে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত

আরও দুই জনের শরীরে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত

খালেদা জিয়া দেশে সর্বোচ্চ চিকিৎসা সুবিধা পাচ্ছেন: ড. হাছান মাহমুদ

খালেদা জিয়া দেশে সর্বোচ্চ চিকিৎসা সুবিধা পাচ্ছেন: ড. হাছান মাহমুদ

‌'বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জেরেই খুন হন আলমগীর'

‌'বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জেরেই খুন হন আলমগীর'

© 2021 Bangla Tribune