X
শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ৫ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

চাকচিক্যের ঘাটতি নেই ৩০০ বছর আগের বজরা শাহী মসজিদে

আপডেট : ০৮ মে ২০২১, ১৩:০৮

বাংলাদেশের যে স্থাপনাশৈলী এখনও বিমোহিত করে চলেছে অগণিত মানুষকে, তার মধ্যে আছে দেশজুড়ে থাকা অগণিত নয়নাভিরাম মসজিদ। এ নিয়েই বাংলা ট্রিবিউন-এর ধারাবাহিক আয়োজন ‘বাংলাদেশের প্রসিদ্ধ মসজিদ’। আজ থাকছে নোয়াখালীর বজরা শাহী মসজিদ।

১৮ শতকে নির্মিত মুঘল আমলের স্থাপত্য নোয়াখালীর ঐতিহ্যবাহী বজরা শাহী মসজিদ। নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়ী উপজেলার বজরা ইউনিয়নে গেলে দেখা যাবে আনিন্দ্য সুন্দর মসজিদটি। নোয়াখালীর ঐতিহাসিক স্থাপনাগুলোর একটি এটি। দিল্লির শাহী মসজিদের আদলে নির্মিত মসজিদটি ১৭৪১ সালে মুঘল সম্রাট মোহাম্মদ শাহের আমলে জমিদার আমান উল্লাহর তদারকিতে নির্মাণ করা হয়।

মনোমুদ্ধকর সুনিপুণ নকশায় ভরপুর বজরা শাহী মসজিদ প্রায় ৩০০ বছর আগে বানানো বজরা শাহী মসজিদটি নোয়াখালীতে আসা পর্যটকদের কাছে বড় আকর্ষণ।

মসজিদটির চারপাশ প্রাচীর দিয়ে বেষ্টিত। প্রবেশপথ পূর্ব দিকে। মসজিদের কাছেই দিঘী। সেটার পশ্চিম পারে উঁচু ভিতের ওপর বানানো হয়েছে এটি। অনন্য স্থাপত্যশৈলীর কারণে প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা এখানে নামাজ পড়তে আসেন। ঘুরতেও আসেন অনেকে।

মনোমুদ্ধকর সুনিপুণ নকশায় ভরপুর বজরা শাহী মসজিদটি আয়তাকার (১৬ মিটার বাই ৭.৩২ মি.)। উত্তর দক্ষিণে লম্বা। বাইরের চার কোনায় অষ্টভূজাকৃতির বুরুজ রয়েছে। পূর্বে তিনটি, উত্তরে ও দক্ষিণে একটি করে মোট পাঁচটি দরজা। দরজার বাইরের দিকে ও দুই পাশে সরু মিনার।

. পূর্বদিকের তিনটি দরজা বরাবর কিবলা দেয়াল। যার ভেতর তিনটি মিহরাব আছে। মাঝের মিহরাবটি অন্য দু’টির চেয়ে বড়। মসজিদের ভেতর দুটি কক্ষ। যা বহুখাঁজবিশিষ্ট আড়াআড়ি খিলান দিয়ে তিনভাগে বিভক্ত।

ছাদের ওপর তিনটি কন্দাকৃতির গম্বুজ আছে। এগুলোর শীর্ষভাগ পদ্ম ও কলস চূড়ার নকশা দ্বারা সজ্জিত।

১৯১১ থেকে ১৯২৮ সালের মাঝামাঝিতে বজরার জমিদার খান বাহাদুর আলী আহমদ ও খান বাহাদুর মুজির উদ্দিন আহমদ মসজিদটি ব্যাপকভাবে মেরামত করেন। রঙবেরঙের সিরামিকের মোজাইক দিয়ে সজ্জিত করেন তারা।

জমিদার আমান উল্যাহ তার বাড়ির সম্মুখে ৩০ একর জমির ওপর উঁচু পাড় যুক্ত দীঘিটি খনন করেন। এ মসজিদটিকে মজবুত করতে মাটির প্রায় ২০ ফুট নিচ থেকে ভিত্তি তৈরি করা হয়।

. গম্বুজগুলোর সৌন্দর্য বাড়ানো হয়েছে মার্বেল পাথর দিয়ে। প্রবেশের জন্য রয়েছে তিনটি ধনুকাকৃতি দরজা। প্রবেশপথের ওপর রয়েছে কয়েকটি গম্বুজ।

কথিত আছে, মুঘল সম্রাট মোহাম্মদ শাহের বিশেষ অনুরোধে পবিত্র মক্কা শরিফের বাসিন্দা, (কারো মতে দিল্লির বাসিন্দা) বুজুর্গ হযরত মাওলানা শাহ আবু সিদ্দিকী এ মসজিদের প্রথম ইমাম নিয়োজিত হন। তার বংশধররা যোগ্যতা অনুসারে আজও এ মসজিদের ইমামের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। বর্তমানে প্রথম ইমামের বংশধর ইমাম হাসান সিদ্দিকী ইমামতি করছেন।

বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বজরা শাহী মসজিদে মানুষ এসে নামাজ আদায় করেন। গত এক যুগ ধরে নারীরাও নামাজ পড়ার সুযোগ পাচ্ছেন এ মসজিদে। সরকারের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ ১৯৯৮ সালে ২৯ নভেম্বর সরকারি গেজেটে মসজিদটিকে প্রত্নসম্পদ হিসেবে ঘোষণা করলেও সরকারের পক্ষ থেকে এখনও মসজিদটি রক্ষণাবেক্ষণে বিশেষ কোনও উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। এতে করে মুঘল আমলে স্থাপনাটি দিন দিন জলুস হারাচ্ছে।

এলাকাবাসী জানায়- মসজিদের সৌন্দর্যবর্ধনের জন্য নতুন করে সিরামিক স্থাপন করা হয়েছে। নিরাপত্তার স্বার্থে পুরো মসজিদকে আনা হয়েছে সিসি ক্যামেরার আওতায়।

 

 

 
 
/এফএ/

সম্পর্কিত

ভারত থেকে দেশে প্রবেশকালে ৩০ মামলার আসামি গ্রেফতার

ভারত থেকে দেশে প্রবেশকালে ৩০ মামলার আসামি গ্রেফতার

পাগলা মসজিদের দানবাক্সে পাওয়া গেলো ২ কোটি ৩৩ লাখ টাকা

পাগলা মসজিদের দানবাক্সে পাওয়া গেলো ২ কোটি ৩৩ লাখ টাকা

ওবায়দুল কাদেরের বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস দেওয়ায় নোবিপ্রবির কর্মকর্তা আটক

ওবায়দুল কাদেরের বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস দেওয়ায় নোবিপ্রবির কর্মকর্তা আটক

পাগলা মসজিদের দানবাক্সে পাওয়া গেছে ১২ বস্তা টাকা

পাগলা মসজিদের দানবাক্সে পাওয়া গেছে ১২ বস্তা টাকা

চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন শুরু

চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন শুরু

চট্টগ্রামের রাস্তায় হাঁটুপানি

চট্টগ্রামের রাস্তায় হাঁটুপানি

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ২ মৃত্যু, আক্রান্ত ১৫৭

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ২ মৃত্যু, আক্রান্ত ১৫৭

একে একে ৩ জনকে চাপা দিলো বাসটি

একে একে ৩ জনকে চাপা দিলো বাসটি

চট্টগ্রামে যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২

চট্টগ্রামে যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২

১৩১ জনের মৃত্যুর পরও দ্বিগুণ বসতি

১৩১ জনের মৃত্যুর পরও দ্বিগুণ বসতি

১ টাকার সালামিতে ঘর পাচ্ছে ১০৯ পরিবার

১ টাকার সালামিতে ঘর পাচ্ছে ১০৯ পরিবার

সর্বশেষ

গ্রিজমানের গোলে হার এড়ালো ফ্রান্স

গ্রিজমানের গোলে হার এড়ালো ফ্রান্স

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ইব্রাহিম রায়িসিকে বিজয়ী ঘোষণা

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ইব্রাহিম রায়িসিকে বিজয়ী ঘোষণা

ফতুল্লায় কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় প্রাণ গেলো রিকশার ২ যাত্রীর

ফতুল্লায় কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় প্রাণ গেলো রিকশার ২ যাত্রীর

ফিরোজায় ফিরেছেন খালেদা জিয়া

ফিরোজায় ফিরেছেন খালেদা জিয়া

শার্শায় ৪৩ নমুনা পরীক্ষায় ৩২ জনই আক্রান্ত

শার্শায় ৪৩ নমুনা পরীক্ষায় ৩২ জনই আক্রান্ত

কাবুলে মার্কিন দূতাবাসে করোনার তাণ্ডব: আক্রান্ত ১১৪

কাবুলে মার্কিন দূতাবাসে করোনার তাণ্ডব: আক্রান্ত ১১৪

মায়ের পর দগ্ধ মেয়েরও মৃত্যু

মায়ের পর দগ্ধ মেয়েরও মৃত্যু

ভারতে আসছে করোনার তৃতীয় ঢেউ

ভারতে আসছে করোনার তৃতীয় ঢেউ

ধোনিকে ছাড়িয়ে অধিনায়ক কোহলির রেকর্ড

ধোনিকে ছাড়িয়ে অধিনায়ক কোহলির রেকর্ড

গ্রুপ অ্যাডমিনদের জন্য নতুন ফিচার আনলো ফেসবুক

গ্রুপ অ্যাডমিনদের জন্য নতুন ফিচার আনলো ফেসবুক

বাগেরহাটের রেজাউল হত্যা মামলার দুই আসামি গ্রেফতার

বাগেরহাটের রেজাউল হত্যা মামলার দুই আসামি গ্রেফতার

বাসায় আগুন লেগে মায়ের মৃত্যু, শিশু আইসিইউতে

বাসায় আগুন লেগে মায়ের মৃত্যু, শিশু আইসিইউতে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

দূর থেকেই চোখে পড়ে হলুদ মসজিদটি

বাংলাদেশের প্রসিদ্ধ মসজিদদূর থেকেই চোখে পড়ে হলুদ মসজিদটি

বাঘায় ৫০০ বছর পুরনো মসজিদের দেয়ালে আমের গল্প

বাঘায় ৫০০ বছর পুরনো মসজিদের দেয়ালে আমের গল্প

টেকনাফে কোস্টগার্ডের অভিযানে আন্দামান গোল্ড বিয়ার জব্দ

টেকনাফে কোস্টগার্ডের অভিযানে আন্দামান গোল্ড বিয়ার জব্দ

বাংলাদেশ থেকে এবারও হজে যাওয়া হচ্ছে না

বাংলাদেশ থেকে এবারও হজে যাওয়া হচ্ছে না

এক মসজিদের তিন নাম

বাংলাদেশের প্রসিদ্ধ মসজিদএক মসজিদের তিন নাম

© 2021 Bangla Tribune