X
শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১১ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

৯৭ শতাংশ অভিভাবক স্কুল খোলার পক্ষে: জরিপ

আপডেট : ১০ মে ২০২১, ২২:৫৫

করোনা মহামারির বর্তমান পরিস্থিতিতে দেশের প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের  ৯৭ দশমিক ৭ শতাংশ অভিভাবক তাদের সন্তানদের স্কুলে পাঠাতে চান। আর মাধ্যমিকের ৯৬ শতাংশ অভিভাবক সন্তানদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পাঠানোর পক্ষে মত দিয়েছেন।

দেশে গত বছর করোনা শুরুর পর থেকে বন্ধ রয়েছে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এক বছরের বেশি সময় ধরে প্রতিষ্ঠানের বাইরে শিক্ষার্থীরা। এ অবস্থায় প্রাইমারিতে ১৯ শতাংশ এবং মাধ্যমিকে ২৫ শতাংশ শিক্ষার্থী নিয়মিত পড়াশোনার বাইরে আছে। 

সোমবার (১০ মে) পাওয়ার অ্যান্ড পার্টিসিপেশন রিসার্চ সেন্টার (পিপিআরসি) ও ব্র্যাক ইনস্টিটিউট অব গভর্নেন্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (বিআইজিডি)-এর যৌথ গবেষণা জরিপে এ তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।  অনলাইনে এই অনুষ্ঠানে গবেষণার তথ্য তুলে ধরেন পিপিআরসির নির্বাহী চেয়ারম্যান হোসেন জিল্লুর রহমান এবং বিআইজিডির নির্বাহী পরিচালক ড. ইমরান মতিন।

জরিপে বলা হয়েছে, দেশের ৯৭ দশমিক ৭ শতাংশ প্রাথমিক শিক্ষার্থীর অভিভাবকরা বলছেন, স্কুল খুললে তারা সন্তানদের স্কুলে পাঠাবেন। আর মাধ্যমিকের ৯৬ শতাংশ অভিভাবকও তাদের সন্তানদের স্কুলে পাঠাতে মত দিয়েছেন।

শহর ও মফস্বলের প্রায় ৬ হাজার ৯৯ জন অভিভাবকের ওপর পরিচালিত জরিপের ভিত্তিতে গবেষণাটি করা হয়। গত ১১ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত এ জরিপ চালানো হয়।

গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, করোনা মহামারির কারণে এক বছরেরও বেশি সময় ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের ৫৯ লাখ ২২ হাজার  শিক্ষার্থী ন্যূনতম শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হয়েছে। তাই করোনাভাইরাসের গতিবিধি দেখে পুনরায় স্কুল খোলার দিনক্ষণ ঠিক করতে হবে।

জরিপের ফলাফলে দেখা যায়, ৫১ শতাংশ প্রাথমিক ও ৬১ শতাংশ মাধ্যমিক শিক্ষার্থী পড়াশোনার ক্ষতি এড়াতে কোচিং ও গৃহশিক্ষকের মাধ্যমে পড়ালেখা চালিয়ে নেওয়ার সুযোগ পেয়েছে। মহামারিতে শিক্ষার ব্যয় গ্রামীণ পরিবারে ১১ গুণ ও শহুরে পরিবারে ১৩ গুণ বেড়ে গেছে।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান দীর্ঘদিন বন্ধ থাকায় প্রাথমিকের ১৯ শতাংশ এবং মাধ্যমিকের ২৫ শতাংশ শিক্ষার্থী শিখতে না পারার (লার্নিং লস) ঝুঁকিতে রয়েছে। পুনরুদ্ধার কর্মসূচি হাতে নিয়ে শিক্ষার্থীদের না শেখালে তারা ঝরে পড়বে।

গবেষণা প্রতিবেদনে  বলা হয়েছে, মহামারিতে শহরে বসবাসরত ১০ থেকে ২০ বছর বয়সী শিক্ষার্থীরা (১৫ দশমিক ৭ শতাংশ) গ্রামের (৮ দশমিক ৪ শতাংশ) তুলনায় দ্বিগুণ মানসিক চাপে রয়েছে। অভিভাবকদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এই মানসিক চাপের লক্ষণগুলো হচ্ছে— অধৈর্য ভাব প্রকাশ, রাগ বা উগ্রভাব এবং বাইরে যেতে ভয় পাওয়া। ঘরের বাইরে যেতে ভয় পাওয়ার বিষয়টি গ্রামের চেয়ে শহরের তরুণদের মাঝে বেশি। এই জরিপে পিতামাতার আচরণ ও সম্পৃক্ততাও পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে বলে জানানো হয়।

/এসএমএ/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০৮ জনের

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০৮ জনের

এইচএসসির ফরম পূরণ ২৯ জুন থেকে শুরু

এইচএসসির ফরম পূরণ ২৯ জুন থেকে শুরু

স্থিতিশীল বঙ্গোপসাগর-ভারত মহাসাগর দেখতে চায় বাংলাদেশ

স্থিতিশীল বঙ্গোপসাগর-ভারত মহাসাগর দেখতে চায় বাংলাদেশ

গোষ্ঠীতান্ত্রিক শাসকগোষ্ঠী দেশ পরিচালনা করছে: আমীর খসরু

গোষ্ঠীতান্ত্রিক শাসকগোষ্ঠী দেশ পরিচালনা করছে: আমীর খসরু

ভূমধ্যসাগরে ভাসমান অবস্থায় ইউরোপগামী ২৬৪ বাংলাদেশি উদ্ধার

ভূমধ্যসাগরে ভাসমান অবস্থায় ইউরোপগামী ২৬৪ বাংলাদেশি উদ্ধার

২০০ বছরের পুরনো হাটে ক্রেতা নেই

২০০ বছরের পুরনো হাটে ক্রেতা নেই

অর্থনৈতিক পরিবর্তনের ‘গিয়ার’ হলো বাজেট: পরিকল্পনামন্ত্রী

অর্থনৈতিক পরিবর্তনের ‘গিয়ার’ হলো বাজেট: পরিকল্পনামন্ত্রী

পুলিশ পরিচয়ে বড় ভাইয়ের সামনে থেকে তুলে নিয়ে কিশোরীকে নির্যাতন

পুলিশ পরিচয়ে বড় ভাইয়ের সামনে থেকে তুলে নিয়ে কিশোরীকে নির্যাতন

করোনা নিয়ন্ত্রণে গোঁজামিল

করোনা নিয়ন্ত্রণে গোঁজামিল

সর্বশেষ

স্বচ্ছ যুব নেতৃত্ব তৈরিতে কাজ করছি: নিখিল

স্বচ্ছ যুব নেতৃত্ব তৈরিতে কাজ করছি: নিখিল

মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

অ্যাপ থেকে ১৬ প্রেক্ষাগৃহে উঠলেন শাকিব খান

অ্যাপ থেকে ১৬ প্রেক্ষাগৃহে উঠলেন শাকিব খান

বাবা হওয়ার পর কতটা বদলেছেন এড শিরান?

বাবা হওয়ার পর কতটা বদলেছেন এড শিরান?

বেলারুশের সেই সাংবাদিক এখন গৃহবন্দি

বেলারুশের সেই সাংবাদিক এখন গৃহবন্দি

দাঁড়ানো ট্রাকের পেছনে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় ২ আনসার সদস্য নিহত

দাঁড়ানো ট্রাকের পেছনে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় ২ আনসার সদস্য নিহত

টিকা নেওয়া মানুষেরা ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত হচ্ছেন: ইসরায়েল

টিকা নেওয়া মানুষেরা ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত হচ্ছেন: ইসরায়েল

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০৮ জনের

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০৮ জনের

এইচএসসির ফরম পূরণ ২৯ জুন থেকে শুরু

এইচএসসির ফরম পূরণ ২৯ জুন থেকে শুরু

বাক-বুদ্ধি প্রতিবন্ধীকে বাড়িতে ডেকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ১

বাক-বুদ্ধি প্রতিবন্ধীকে বাড়িতে ডেকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ১

চীনের মার্শাল আর্ট স্কুলে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ১৮, বেশিরভাগই শিশু

চীনের মার্শাল আর্ট স্কুলে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ১৮, বেশিরভাগই শিশু

বাংলাদেশে ভালো খেললে জায়গা মিলবে অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ দলে

বাংলাদেশে ভালো খেললে জায়গা মিলবে অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ দলে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

এইচএসসির ফরম পূরণ ২৯ জুন থেকে শুরু

এইচএসসির ফরম পূরণ ২৯ জুন থেকে শুরু

নজরদারির দুর্বলতায় ছাপাখানায় জাল রেভিনিউ স্টাম্প তৈরি

নজরদারির দুর্বলতায় ছাপাখানায় জাল রেভিনিউ স্টাম্প তৈরি

ইউজিসির সাবেক সদস্য মোহাম্মদ আলীর মৃত্যুতে শোক

ইউজিসির সাবেক সদস্য মোহাম্মদ আলীর মৃত্যুতে শোক

পোশাক শ্রমিককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় ২ জনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

পোশাক শ্রমিককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় ২ জনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

আইনজীবীদের টিকা দেওয়া নিয়ে রুলের শুনানি ২৭ জুন

আইনজীবীদের টিকা দেওয়া নিয়ে রুলের শুনানি ২৭ জুন

নাশকতার মামলায় বৈমানিককে জামিন দেননি হাইকোর্ট

নাশকতার মামলায় বৈমানিককে জামিন দেননি হাইকোর্ট

৪ মাস পর হাসপাতাল ছাড়লেন ৮০ বছরের রাবেয়া বেগম

৪ মাস পর হাসপাতাল ছাড়লেন ৮০ বছরের রাবেয়া বেগম

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য: তারেকের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবেদন ২৮ জুন

বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য: তারেকের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবেদন ২৮ জুন

‘সুপার নিউমারারি’ পদোন্নতি চান প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষকরা

‘সুপার নিউমারারি’ পদোন্নতি চান প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষকরা

© 2021 Bangla Tribune