X
বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ৯ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

টিকা নিয়ে বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক রাজনীতির শিকার: বিএনপির এমপি হারুন

আপডেট : ০৬ জুন ২০২১, ১৪:১৮

করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক রাজনীতির শিকার বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ। চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরের সম্পূরক বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি বলেন, ‘চীন ও রাশিয়া ভ্যাকসিন দেওয়ার প্রস্তাব নিয়ে প্রথমে এসেছিল। তারা ট্রায়াল দিতে চেয়েছিল। কিন্তু আমরা তাদের ট্রায়ালের অনুমতি দেইনি। তাদের প্রস্তাব সেই সময় গ্রহণ করলে এখন আমাদের ভ্যাকসিনের সংকট হতো না। ভ্যাকসিন নিয়ে বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক রাজনীতির শিকার। যে কারণে ভ্যাকসিন নিয়ে চীনের সঙ্গে কথা হলেও ভ্যাকসিন পাবো কিনা তা অনিশ্চিত। আশা করবো, এই অবস্থা থেকে পরিত্রাণে সরকার যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণ করবে।’

বাজেটে ভ্যাকসিনের সুনির্দিষ্ট কোনও গাইডলাইন দেওয়া হয়নি মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘ভ্যাকসিন আমাদের দিতে হবে। দেড়বছর হলো আমরা করোনা প্রাদুর্ভাবে পড়েছি। দুই শতাংশ মানুষকেও আমরা এ সময়ে ভ্যাকসিন দিতে পারিনি।’

সরকার করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট ঠেকাতে ব্যর্থ হয়েছে বলে দাবি করে তিনি বলেন, ‘ভারতের ধরন ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে ব্যবস্থা নিতে সরকার ব্যর্থ হয়েছে। গোটা বাংলাদেশে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়েছে।’

বাংলাদেশে যেন ভারতের পরিস্থিতি সৃষ্টি না হয় সেই কামনা করে তিনি বলেন, ‘করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সারা দেশকে অস্থির করে তুলেছে। রাজশাহী বিভাগে করোনা মারাত্মক পরিস্থিতি ধারণ করছে। মওসুমে আম চাষিরা ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।’

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বাজেট বাস্তবায়নের সক্ষমতা নেই দাবি করে বিএনপির এই সংসদ সদস্য বলেন, ‘স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের জন্য চলতি অর্থবছরে যে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে, তা জনগণের কাজে লেগেছে বা কোভিড নিয়ন্ত্রণে ব্যয় হয়েছে, সরকার তা বলতে পারবে না। কত টাকা কোভিড নিয়ন্ত্রণে ব্যয় হয়েছে সরকারকে তার সঠিক ব্যাখ্যা দিতে হবে।’ এ সময় তিনি যেসব এলাকায় করোনা বেড়েছে সেখানে অন্তত একশ’ বেডের করোনা ইউনিট স্থাপনের দাবি করেন।

স্বাস্থ্য বিভাগকে সংস্কারের দাবি করে তিনি বলেন, ‘সরকারি চিকিৎসকরা সরকারি হাসপাতালে ডিউটি না করে ব্যক্তিগত ক্লিনিকে দায়িত্ব পালন করছেন’

তিনি বলেন, ‘পদ্মা সেতু ও মেট্রোরেল আমরা চাই। কিন্তু তার আগে মানুষকে বাঁচাতে হবে। মানুষ বাঁচলে সবকিছু আসবে। স্বচ্ছ তালিকা করে সামাজিক সুরক্ষা খাতের অর্থ দিতে হবে।’

নতুন অর্থবছরের বাজেটের সমালোচনা করে হারুনুর রশীদ  বলেন, ‘অর্থমন্ত্রীর বাজেটের শিরোনাম শুনতে ভালো লাগে। কিন্তু বাইরে এর প্রতিক্রিয়া ভালো নয়। নতুন অর্থবছরের ছয় লাখ ৩ হাজার কোটি টাকার বাজেটে বৈদেশিক ও অভ্যন্তরীণ ঋণনির্ভর। এই ঋণনির্ভর বাজেট ৫০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। এত ব্যাপক ঋণনির্ভর বাজেট অতীতে কোনও সরকারের আমলে হয়নি। চলতি বছরের বাজেট অবাস্তবায়িত রয়েছে। করোনাকালীন সরকারে যে বাজেট দেওয়া দরকার ছিল, সরকার তা দিতে পারেনি। সরকারের নীতি ও ভুল সিদ্ধান্তের কারণে জনদুর্ভোগ ও মানুষের ভোগান্তি বেড়েছে।’

তিনি বলেন, ‘ঈদের সময় মানুষের দুর্ভোগ আমরা দেখেছি। ৫শ’ টাকার ভাড়া তিন/চার হাজার টাকা দিতে হয়েছে। ফেরিঘাট থেকে ঢালাওভাবে মানুষ পার হওয়ায় সংক্রমণ বেড়েছে। বেআিইনি স্পিডবোটে পার হতে গিয়ে কতগুলো প্রাণ গেলো। এর দায় সরকারকে নিতে হবে না?’

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার ওপর প্রস্তাবিত ভ্যাট প্রত্যাহার চাই

বাজেটের ওপর আলোচনায় অংশ নিতে হারুন বলে, ‘দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে শিক্ষার কোনও বিকল্প নেই। অথচ দেখলাম— নতুন বাজেটে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিক্যালে ১৫ শতাংশ ভ্যাট আরোপ করা হয়েছে। এটা কোনও কথা হলো?’

তিনি বলেন, ‘আমাদের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো মানসন্মত। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের চেয়ে সেখানে বেশি শিক্ষার্থী পড়াশুনা করে। কেন সেখানে করারোপ করা হলো? এই বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা হচ্ছে। এই কর প্রত্যাহার হওয়া উচিত। সাধারণ বাজেটে এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনার সময় চাই। এই বিষয়গুলো আমরা আলোকপাত করতে চাই।’

/ইএইচএস/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

যশোরে আরও ৮ মৃত্যু, বেড়েছে লকডাউনের মেয়াদ

যশোরে আরও ৮ মৃত্যু, বেড়েছে লকডাউনের মেয়াদ

খুলনা বিভাগে রেকর্ড ৩২ জনের মৃত্যু

খুলনা বিভাগে রেকর্ড ৩২ জনের মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে করোনায় আরও ১৬ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে করোনায় আরও ১৬ মৃত্যু

বিভাগের তিন হাসপাতালে ১৩ মৃত্যু, ৮ জনই খুলনার

বিভাগের তিন হাসপাতালে ১৩ মৃত্যু, ৮ জনই খুলনার

‘কবে একটা সেতু হবে, ঘুষ ছাড়া ভাতা পাবো?’

গ্রামবাসীর প্রশ্ন প্রশাসনের উত্তর‘কবে একটা সেতু হবে, ঘুষ ছাড়া ভাতা পাবো?’

চট্টগ্রামে একদিনের ব্যবধানে বেড়েছে মৃত্যু ও শনাক্ত

চট্টগ্রামে একদিনের ব্যবধানে বেড়েছে মৃত্যু ও শনাক্ত

নোয়াখালীতে শনাক্ত আরও ১১৫, ঢাকাগামী গণপরিবহন চলাচল বন্ধ

নোয়াখালীতে শনাক্ত আরও ১১৫, ঢাকাগামী গণপরিবহন চলাচল বন্ধ

অবশেষে বৈঠকের ব্যাপারে মুখ খুললেন ভুট্টো

অবশেষে বৈঠকের ব্যাপারে মুখ খুললেন ভুট্টো

এলএনজি আমদানিতে তিন বছরে সর্বোচ্চ ভর্তুকি

এলএনজি আমদানিতে তিন বছরে সর্বোচ্চ ভর্তুকি

শেয়ার না কিনলেও মুনাফা পাওয়া যাবে

শেয়ার না কিনলেও মুনাফা পাওয়া যাবে

করোনার টিকাকে বিশ্বব্যাপী জনগণের পণ্য হিসেবে ঘোষণা করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

করোনার টিকাকে বিশ্বব্যাপী জনগণের পণ্য হিসেবে ঘোষণা করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

মানবপাচারের মামলায় তুহিন সিদ্দিকী অমির ৮ সহযোগী রিমান্ডে

মানবপাচারের মামলায় তুহিন সিদ্দিকী অমির ৮ সহযোগী রিমান্ডে

সর্বশেষ

হিলিতে ফের বাড়লো পেঁয়াজের দাম

হিলিতে ফের বাড়লো পেঁয়াজের দাম

কিশোরের পিতৃপরিচয় নিশ্চিত করলো পুলিশ

কিশোরের পিতৃপরিচয় নিশ্চিত করলো পুলিশ

ফেঁসে যাচ্ছেন পরীমণি?

ফেঁসে যাচ্ছেন পরীমণি?

শিরোপা লড়াই থেকে ছিটকে গেলো সাকিবের মোহামেডান

শিরোপা লড়াই থেকে ছিটকে গেলো সাকিবের মোহামেডান

যশোরে আরও ৮ মৃত্যু, বেড়েছে লকডাউনের মেয়াদ

যশোরে আরও ৮ মৃত্যু, বেড়েছে লকডাউনের মেয়াদ

ডিউটিভ্যানেই মারা গেলেন পুলিশ কনস্টেবল

ডিউটিভ্যানেই মারা গেলেন পুলিশ কনস্টেবল

ফ্রান্স-পর্তুগাল ম্যাচ কখন, দেখবেন কোথায়  

ফ্রান্স-পর্তুগাল ম্যাচ কখন, দেখবেন কোথায়  

১২ বছর পর তাদের জন্মঘরে ফেরা

১২ বছর পর তাদের জন্মঘরে ফেরা

মোহাম্মদপুরে রিকশাচালকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

মোহাম্মদপুরে রিকশাচালকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

হাতে তৈরি ইনকিউবেটরে অজগরের ২৮ বাচ্চা

হাতে তৈরি ইনকিউবেটরে অজগরের ২৮ বাচ্চা

নাসির ও অমির ১০ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

পরীমণিকে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার মামলানাসির ও অমির ১০ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ

রাজধানীর ফুটপাত থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

রাজধানীর ফুটপাত থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কবেই পদত্যাগ করা উচিত ছিল: মির্জা ফখরুল

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কবেই পদত্যাগ করা উচিত ছিল: মির্জা ফখরুল

খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসার ব্যবস্থা নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান বিএনপির

খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসার ব্যবস্থা নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান বিএনপির

ওয়াসার এমডিকে অপসারণের দাবি

ওয়াসার এমডিকে অপসারণের দাবি

মেগা প্রকল্প নিয়ে মেগা মিথ্যাচার করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

মেগা প্রকল্প নিয়ে মেগা মিথ্যাচার করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

‘মাদক নির্মূলে কয়েকশ’ বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হলেও কাজের কাজ হয়নি’

‘মাদক নির্মূলে কয়েকশ’ বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হলেও কাজের কাজ হয়নি’

আগামী নির্বাচনের জন্য দলকে প্রস্তুত করতে হবে: ওবায়দুল কাদের

আগামী নির্বাচনের জন্য দলকে প্রস্তুত করতে হবে: ওবায়দুল কাদের

সম্পূর্ণ সুস্থ হননি খালেদা জিয়া, উন্নত চিকিৎসার পরামর্শ

সম্পূর্ণ সুস্থ হননি খালেদা জিয়া, উন্নত চিকিৎসার পরামর্শ

দেশের উন্নয়ন-অর্জনই বিএনপির গাত্রদাহের কারণ: ওবায়দুল কাদের

দেশের উন্নয়ন-অর্জনই বিএনপির গাত্রদাহের কারণ: ওবায়দুল কাদের

খালেদা জিয়া কোন দেশে যেতে চান ফখরুল তা বলছেন না: হানিফ

খালেদা জিয়া কোন দেশে যেতে চান ফখরুল তা বলছেন না: হানিফ

গণতান্ত্রিক-প্রগতিশীল শক্তির আন্দোলনে ঐক্য দরকার: সাইফুল হক

গণতান্ত্রিক-প্রগতিশীল শক্তির আন্দোলনে ঐক্য দরকার: সাইফুল হক

© 2021 Bangla Tribune