X
বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

ভাসানচরে জাতিসংঘের কার্যক্রম দ্রুত দেখতে চায় সরকার

আপডেট : ০৬ জুন ২০২১, ২০:৩৬

আগামী শুকনো মৌসুমে ভাসানচরে ৮০ হাজার রোহিঙ্গাকে স্থানান্তর করতে চায় সরকার। তার আগেই সেখানে জাতিসংঘের সুসংহত কার্যক্রম দেখতে চায় সরকার। একইসঙ্গে মিয়ানমারে যেন দ্রততম সময়ে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন সম্ভব হয়, তার জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের আরও দায়িত্বপূর্ণ আচরণ আশা করে বাংলাদেশ।

রবিবার (৬ জুন) প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের মুখ্য সচিব আহমদ কায়কাউসের সঙ্গে ১০টি পশ্চিমা দেশের রাষ্ট্রদূত ও জাতিসংঘ কর্মকর্তাদের বৈঠকে এই বার্তা দিয়েছে সরকার বলে জানিয়েছে একাধিক সূত্র।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, আমাদের মূল লক্ষ্য হচ্ছে প্রত্যাবাসন এবং ভাসানচরে একটি সাময়িক ব্যবস্থা। আমরা রাষ্ট্রদূতদের জানিয়েছি, রোহিঙ্গারা প্রাণের ভয়ে বাংলাদেশে যখন পালিয়ে আসছিল, তখন আমরা মানবতার খাতিরে সীমান্ত উন্মুক্ত করে দিয়েছি। কক্সবাজারে অত্যন্ত অল্প জায়গায় অনেক বেশি মানুষের অবস্থানের কারণে তাদের ভাসানচরে স্থানান্তর করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বর্তমানে ১৮ হাজারের বেশি রোহিঙ্গা স্বেচ্ছায় সেখানে গেছে। তাদের দেখভাল করার জন্য সেখানে জাতিসংঘের যাওয়াটা জরুরি বলে মনে করে সরকার।

এ বিষয়ে জাতিসংঘের অবস্থান জানতে চাইলে সরকারের আরেকজন কর্মকর্তা বলেন, জাতিসংঘ সদর দফতরের দুই জন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা সম্প্রতি ভাসানচর পরিদর্শন করেছেন। তাদের ইতিবাচক মনোভাবের কথা প্রকাশ্যে তারা বলেছেন। আজকেও ভাসানচরে যাওয়ার কথা পুনর্ব্যক্ত করেছেন। তাদের নিজস্ব প্রক্রিয়া শেষ হলেই তারা সেখানে অল্প সময়ের মধ্যে যাবে।

শিক্ষা, স্বাস্থ্য, জীবিকা ও দক্ষতার ব্যবস্থা নিয়ে সরকারের সঙ্গে জাতিসংঘের অবস্থানের তেমন মতভেদ নেই জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারের কারিকুলামে শিক্ষা দেওয়ার জন্য বলেছি, যাতে  তারা দেশে ফেরত গেলে সহজেই সমাজে অন্তর্ভুক্ত হতে পারে।

রোহিঙ্গাদের জীবিকার বিষয়ে এ কর্মকর্তা বলেন, এটির ক্ষেত্রে আমাদের সীমাবদ্ধতা আছে। কিন্তু এরপরও আমাদের পক্ষে যতটুকু সম্ভব, যেমন- মাছ আহরণ বা সবজি চাষসহ অন্যান্য বিষয়ে আমরা নমনীয়।

দক্ষতার বিষয়ে তিনি বলেন, আমরাও এ বিষয়ে রাজি এবং তাদের ওইসব বিষয়ে দক্ষতা বৃদ্ধি করা হবে, যেগুলো দেশে ফেরত গেলে তাদের কাজে লাগে।

মুখ্য সচিবের সঙ্গে বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, ফ্রান্সসহ অন্যান্য দেশের রাষ্ট্রদূতরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, রোহিঙ্গাদের সাময়িক অবস্থানের জন্য প্রায় তিন হাজার কোটি টাকা খরচ করে ভাসানচরে আশ্রয়ণ প্রকল্প গড়ে তুলেছে সরকার। সেখানে মোট এক লাখ রোহিঙ্গাকে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে।

/এসএসজেড/এপিএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

ডিআইজি প্রিজনস পার্থ গোপাল বণিকের জামিন বাতিল চাইবে দুদক

ডিআইজি প্রিজনস পার্থ গোপাল বণিকের জামিন বাতিল চাইবে দুদক

গাছ না কেটে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রকল্প বাস্তবায়নের অঙ্গিকার

গাছ না কেটে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রকল্প বাস্তবায়নের অঙ্গিকার

লকডাউন নয়, এবার শাটডাউন  চায় জাতীয় কমিটি

লকডাউন নয়, এবার শাটডাউন  চায় জাতীয় কমিটি

শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট সংক্রান্ত তথ্য চেয়েছে সরকার

শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট সংক্রান্ত তথ্য চেয়েছে সরকার

অরিত্রীর আত্মহত্যা মামলা: সাক্ষ্যগ্রহণ ৪ জুলাই

অরিত্রীর আত্মহত্যা মামলা: সাক্ষ্যগ্রহণ ৪ জুলাই

শিক্ষায় ৪২৩ কোটি টাকা সহায়তা দিচ্ছে ইইউ

শিক্ষায় ৪২৩ কোটি টাকা সহায়তা দিচ্ছে ইইউ

ঘাটারচর-কাঁচপুর রুটে সেপ্টেম্বর থেকে বাস চলবে কোম্পানির মাধ্যমে : তাপস

ঘাটারচর-কাঁচপুর রুটে সেপ্টেম্বর থেকে বাস চলবে কোম্পানির মাধ্যমে : তাপস

খুলনায় টানা ৩ দিন সর্বাধিক মৃত্যু

খুলনায় টানা ৩ দিন সর্বাধিক মৃত্যু

এনআইডি ছাড়া টিকার নিবন্ধন করতে পারবেন বিদেশগামী কর্মীরা

এনআইডি ছাড়া টিকার নিবন্ধন করতে পারবেন বিদেশগামী কর্মীরা

আলোচিত সানমুন টাওয়ার নিয়ে তদন্ত করতে বললো সংসদীয় কমিটি

আলোচিত সানমুন টাওয়ার নিয়ে তদন্ত করতে বললো সংসদীয় কমিটি

একদিনে শনাক্ত ফের ৬ হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ৮১

একদিনে শনাক্ত ফের ৬ হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ৮১

নতুন সেনাপ্রধানের দায়িত্বভার গ্রহণ

নতুন সেনাপ্রধানের দায়িত্বভার গ্রহণ

সর্বশেষ

ডিআইজি প্রিজনস পার্থ গোপাল বণিকের জামিন বাতিল চাইবে দুদক

ডিআইজি প্রিজনস পার্থ গোপাল বণিকের জামিন বাতিল চাইবে দুদক

যুদ্ধ জাহাজের ঘটনায় উত্তেজনা বাড়ছে রাশিয়া-ব্রিটেনের

যুদ্ধ জাহাজের ঘটনায় উত্তেজনা বাড়ছে রাশিয়া-ব্রিটেনের

আশরাফুলের তাণ্ডবে ম্লান লিটনের ইনিংস

আশরাফুলের তাণ্ডবে ম্লান লিটনের ইনিংস

গাছ না কেটে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রকল্প বাস্তবায়নের অঙ্গিকার

গাছ না কেটে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রকল্প বাস্তবায়নের অঙ্গিকার

সাদ-বাঁধন কানে উড়াল দিচ্ছেন এই ভোরে

সাদ-বাঁধন কানে উড়াল দিচ্ছেন এই ভোরে

প্রাথমিকে মেন্টরের দায়িত্বে পরিবর্তন

প্রাথমিকে মেন্টরের দায়িত্বে পরিবর্তন

বাংলাদেশ জাতীয় আরকাইভস বিলের রিপোর্ট চূড়ান্ত করেছে সংসদীয় কমিটি

বাংলাদেশ জাতীয় আরকাইভস বিলের রিপোর্ট চূড়ান্ত করেছে সংসদীয় কমিটি

গ্রেফতারের সময় মারা গেলেন ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের সমালোচক

গ্রেফতারের সময় মারা গেলেন ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের সমালোচক

নারী উদ্যোক্তা তৈরিতে শুরু হলো অনলাইন গার্লস ইনোভেশন বুটক্যাম্প

নারী উদ্যোক্তা তৈরিতে শুরু হলো অনলাইন গার্লস ইনোভেশন বুটক্যাম্প

লকডাউন নয়, এবার শাটডাউন  চায় জাতীয় কমিটি

লকডাউন নয়, এবার শাটডাউন  চায় জাতীয় কমিটি

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ফ্রি চিকিৎসা পাচ্ছেন করোনা রোগীরা

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ফ্রি চিকিৎসা পাচ্ছেন করোনা রোগীরা

শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট সংক্রান্ত তথ্য চেয়েছে সরকার

শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট সংক্রান্ত তথ্য চেয়েছে সরকার

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গাছ না কেটে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রকল্প বাস্তবায়নের অঙ্গিকার

গাছ না কেটে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রকল্প বাস্তবায়নের অঙ্গিকার

লকডাউন নয়, এবার শাটডাউন  চায় জাতীয় কমিটি

লকডাউন নয়, এবার শাটডাউন  চায় জাতীয় কমিটি

শিক্ষায় ৪২৩ কোটি টাকা সহায়তা দিচ্ছে ইইউ

শিক্ষায় ৪২৩ কোটি টাকা সহায়তা দিচ্ছে ইইউ

খুলনায় টানা ৩ দিন সর্বাধিক মৃত্যু

খুলনায় টানা ৩ দিন সর্বাধিক মৃত্যু

আলোচিত সানমুন টাওয়ার নিয়ে তদন্ত করতে বললো সংসদীয় কমিটি

আলোচিত সানমুন টাওয়ার নিয়ে তদন্ত করতে বললো সংসদীয় কমিটি

একদিনে শনাক্ত ফের ৬ হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ৮১

একদিনে শনাক্ত ফের ৬ হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ৮১

নতুন সেনাপ্রধানের দায়িত্বভার গ্রহণ

নতুন সেনাপ্রধানের দায়িত্বভার গ্রহণ

চামড়া সিন্ডিকেট রোধে নজরদারি করবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

চামড়া সিন্ডিকেট রোধে নজরদারি করবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

চার বিলে রাষ্ট্রপতির সম্মতি

চার বিলে রাষ্ট্রপতির সম্মতি

সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে না রাখা গেলে ভারতের মতো অবস্থা হবে

সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে না রাখা গেলে ভারতের মতো অবস্থা হবে

© 2021 Bangla Tribune