X
শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ৪ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

মোংলায় করোনা পরীক্ষা করাতে এসে দুজনের মৃত্যু, বিধিনিষেধ উপেক্ষিত   

আপডেট : ১০ জুন ২০২১, ১৫:১৩

মোংলায় করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। এ অবস্থায় বিধিনিষেধ মানার ক্ষেত্রে স্থানীয়দের অনীহা দেখা গেছে। বৃহস্পতিবার (১০ জুন) সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা পরীক্ষা করাতে এসে তহুরুন্নেছা খুকি (৪২) ও মো. ইব্রাহিম (১৬) নামে দুই জন মারা গেছেন।

এছাড়া বুধবার রাতে করোনা পরীক্ষা করাতে এসে মারা যান আম্বিয়া নামে একজন। এদিন খালেক (৬০) ও আসলাম (৪২) নামে আরও দুজন মারা গেছেন। মারা যাওয়া সবাই করোনা আক্রান্ত ছিলেন বলে নিশ্চিত করেছেন হাসাপাতালের চিকিৎসক দেবপ্রসাদ সাহা।

এদিকে দুই দফায় দেওয়া করোনা বিধিনিষেধে পরিস্থিতির উন্নতি হয়নি। এজন্য বৃহস্পতিবার (১০ জুন) ভোর ৬টা থেকে ১৬ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত চলমান কঠোর বিধিনিষেধকে আরও অধিক কঠোরতর করে বিধিনিষেধ জারি করেছে বাগেরহাট জেলা প্রশাসন। নতুন করে জারি করা এ বিধিনিষেধে নদী পারাপার, যান চলাচল, দোকানপাট, পশুর হাট বন্ধের নির্দেশনা রয়েছে। তবে বৃহস্পতিবার ভোর থেকে তা মানতে দেখা যায়নি। নদী পারাপার হতে দেখা গেছে। চলছে যানবাহন, রয়েছে লোকসমাগমও। খোলা রয়েছে দোকানপাট। নিত্যপ্রয়োজনীয় মুদি, কাঁচাবাজার, মাছ ও মাংসের দোকান খোলা স্থানে নেওয়ার নির্দেশনা থাকলেও তা রয়েছে আগের জায়গাতেই। সেখানে স্বাস্থ্যবিধি, সামাজিক দূরত্ব ও মাস্ক ব্যবহারের বালাই নেই। পৌর শহরের প্রবেশমুখগুলোতে পুলিশ-আনসার থাকলেও সেখান থেকে হরহামেশা বিভিন্ন ইউনিয়নের লোকজন ও যানবাহন চলাচল করছে।

স্থায়ী বন্দর এলাকায়ও বাসসহ বিভিন্ন যান ও লোকসমাগম দেখা গেছে। নিষেধাজ্ঞা থাকার পরও ভারতগামী নৌযানের স্টাফরা শহরে নেমে ঘোরাফেরা করছেন। গাদাগাদি করে নদী পারাপার ও নৌযানের স্টাফদের অবাধ চলাচলের বিষয়ে ক্ষোভ জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কমলেশ মজুমদার বলেন, ‘বিধিনিষেধে লোকসমাগম ঠেকাতে আমরা সার্বক্ষণিক মাঠে আছি, রফতানি প্রক্রিয়াজাতকরণ অঞ্চলের (ইপিজেড) শ্রমিকদের নদী পারাপারে জরুরি যান চলাচলের আওতাভুক্ত। তাই স্বল্প পরিসরে নৌ চলাচল খোলা রয়েছে।’

এদিকে এমন পরিস্থিতির মধ্যেও স্বাভাবিক রয়েছে মোংলা বন্দরে পণ্য ওঠানামা ও পরিবহনের কাজ।

 

/এমএএ/

সম্পর্কিত

ইটের কবরে দাফন

ইটের কবরে দাফন

ঢাকায় ৬০ নমুনার ৬৮ শতাংশ ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট!

ঢাকায় ৬০ নমুনার ৬৮ শতাংশ ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট!

কুড়িগ্রামে দ্রুত বাড়ছে সংক্রমণ

কুড়িগ্রামে দ্রুত বাড়ছে সংক্রমণ

খুলনা অঞ্চলে এক মাসে অক্সিজেনের চাহিদা দ্বিগুণ বেড়েছে

খুলনা অঞ্চলে এক মাসে অক্সিজেনের চাহিদা দ্বিগুণ বেড়েছে

যশোর হাসপাতালে করোনা রোগী রাখার জায়গা নেই

যশোর হাসপাতালে করোনা রোগী রাখার জায়গা নেই

যুক্তরাষ্ট্রে করোনার উৎস অনুসন্ধানের আহ্বান চীনের

যুক্তরাষ্ট্রে করোনার উৎস অনুসন্ধানের আহ্বান চীনের

নোয়াখালীতে তৃতীয় দফায় বাড়লো বিশেষ লকডাউন

নোয়াখালীতে তৃতীয় দফায় বাড়লো বিশেষ লকডাউন

হটলাইনে কল দিলেই বাসায় পৌঁছে যাবে অক্সিজেন

হটলাইনে কল দিলেই বাসায় পৌঁছে যাবে অক্সিজেন

এবার পুরো কুড়িগ্রাম পৌর এলাকায় কঠোর বিধিনিষেধ

এবার পুরো কুড়িগ্রাম পৌর এলাকায় কঠোর বিধিনিষেধ

আইসিইউ সরঞ্জাম বাক্সবন্দি,  সেবাবঞ্চিত মুমূর্ষু শ্বাসকষ্টের রোগীরা 

আইসিইউ সরঞ্জাম বাক্সবন্দি, সেবাবঞ্চিত মুমূর্ষু শ্বাসকষ্টের রোগীরা 

সর্বশেষ

সপ্তাহের সেরা চাকরির বিজ্ঞাপন

সপ্তাহের সেরা চাকরির বিজ্ঞাপন

মাসে ৫৭ হাজার টাকা আয় করা প্রবাসী দেশে এসে সাহায্য চান

মাসে ৫৭ হাজার টাকা আয় করা প্রবাসী দেশে এসে সাহায্য চান

টিকা নিলেই মুরগি উপহার

টিকা নিলেই মুরগি উপহার

পরীক্ষা বাড়ালেই রোগী বাড়ে

পরীক্ষা বাড়ালেই রোগী বাড়ে

সুইস ব্যাংকে বাংলাদেশিদের ৫২৯১ কোটি টাকা

সুইস ব্যাংকে বাংলাদেশিদের ৫২৯১ কোটি টাকা

অশ্রুবিন্দুর মতো স্পষ্ট ও নিঃসঙ্গ

পাখিদের নির্মিত সাঁকোঅশ্রুবিন্দুর মতো স্পষ্ট ও নিঃসঙ্গ

শুরুতে কত ছিল বিদ্যার পারিশ্রমিক?

শুরুতে কত ছিল বিদ্যার পারিশ্রমিক?

রোনালদোদের বোতল সরাতে নিষেধ করেছে উয়েফা

রোনালদোদের বোতল সরাতে নিষেধ করেছে উয়েফা

চট্টগ্রামে পৌঁছেছে সিনোফার্মের ৯১ হাজার ডোজ টিকা

চট্টগ্রামে পৌঁছেছে সিনোফার্মের ৯১ হাজার ডোজ টিকা

শুটারগানসহ কেরানীগঞ্জ থেকে মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

শুটারগানসহ কেরানীগঞ্জ থেকে মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

আসছে মন পড়তে পারা হেলমেট

আসছে মন পড়তে পারা হেলমেট

সিআইডি প্রধানের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের সুপারিশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের

সিআইডি প্রধানের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের সুপারিশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ইটের কবরে দাফন

ইটের কবরে দাফন

কুড়িগ্রামে দ্রুত বাড়ছে সংক্রমণ

কুড়িগ্রামে দ্রুত বাড়ছে সংক্রমণ

খুলনা অঞ্চলে এক মাসে অক্সিজেনের চাহিদা দ্বিগুণ বেড়েছে

খুলনা অঞ্চলে এক মাসে অক্সিজেনের চাহিদা দ্বিগুণ বেড়েছে

যশোর হাসপাতালে করোনা রোগী রাখার জায়গা নেই

যশোর হাসপাতালে করোনা রোগী রাখার জায়গা নেই

নোয়াখালীতে তৃতীয় দফায় বাড়লো বিশেষ লকডাউন

নোয়াখালীতে তৃতীয় দফায় বাড়লো বিশেষ লকডাউন

হটলাইনে কল দিলেই বাসায় পৌঁছে যাবে অক্সিজেন

হটলাইনে কল দিলেই বাসায় পৌঁছে যাবে অক্সিজেন

এবার পুরো কুড়িগ্রাম পৌর এলাকায় কঠোর বিধিনিষেধ

এবার পুরো কুড়িগ্রাম পৌর এলাকায় কঠোর বিধিনিষেধ

আইসিইউ সরঞ্জাম বাক্সবন্দি,  সেবাবঞ্চিত মুমূর্ষু শ্বাসকষ্টের রোগীরা 

আইসিইউ সরঞ্জাম বাক্সবন্দি, সেবাবঞ্চিত মুমূর্ষু শ্বাসকষ্টের রোগীরা 

© 2021 Bangla Tribune