X
মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

সেকশনস

মৃত্যুর আগে দুই পায়ে দোষীদের নাম লিখে গেলেন টুম্পা

আপডেট : ১০ জুন ২০২১, ১৯:০৬

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার রাজিহার ইউনিয়নের রামান্দেরআক গ্রামে এক সন্তানের মা টুম্পা (৪০) তার আত্মহত্যার জন্য স্বামী, ভাসুর ও জা’কে অভিযুক্ত করেছেন। অভিযুক্তদের নাম মৃত্যুর আগে নিজের দুই পায়ে লিখে রাখে যান টুম্পা। এ ঘটনায় বুধবার (৯ জুন) রাতে টুম্পার বোন কল্পনা অধিকারী বাদী হয়ে টুম্পার স্বামী স্বপন মন্ডল, ভাসুর বিবেক মন্ডল ও জা রীতা রানী মন্ডলকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। ওই রাতেই স্বপনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১০ জুন) দুপুরে স্বপনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। আর ময়নাতদন্ত শেষে বিকালে টুম্পার পরিবারের কাছে তার মরদেহ হস্তান্তর করা হয়।

স্বপন মাদারীপুর জেলার ডাসার থানার নবগ্রাম এলাকার বাসিন্দা মৃত বঙ্কিম মন্ডলের ছেলে। শ্বশুবাড়ির অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে টুম্পা তার স্বামীকে নিয়ে পিতার বাড়িতেই থাকতেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মো. মিশু জানান, টুম্পার সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করার সময় হাঁটুর উপরের অংশে কলম দিয়ে তার মৃত্যুর কারণ ও মৃত্যুর জন্য দায়ী ব্যক্তি স্বামী স্বপন মন্ডল, ভাসুর বিবেক মন্ডল ও বিবেকের স্ত্রী রীতা মন্ডলের নাম লিখে রেখে যান। এছাড়াও তার মায়ের শ্মশানের কাছে সৎকার করার আকুতি জানিয়ে যান টুম্পা।

আগৈলঝাড়া থানার ওসি গোলাম ছরোয়ার মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে জানান, ১১ বছর আগে পারিবারিকভাবে টুম্পার সঙ্গে স্বপনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর স্বামী, ভাসুর ও জা’র শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের কারণে ৭/৮ বছর আগে টুম্পা স্বামীকে নিয়ে বাবার বাড়িতে চলে আসেন। টুম্পা ও স্বপন শ্রমিক হিসেবে কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। তাদের ৮ বছরের ছেলে সন্তান রয়েছে।

তিনি আরও জানান, অভিযোগ পেয়েছি জমিজমা ও পারিবারিক সমস্যা সমাধানের জন্য ৮ জুন সকালে টুম্পা তার শ্বশুরবাড়ি মাদারীপুরের নবগ্রামে যান। পরে ভাসুর বিবেক মন্ডল ও জা রীতা রানী মন্ডল গালমন্দ ও মানসিক নির্যাতন চালিয়ে টুম্পাকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেন। স্বামী, ভাসুর ও জা’র নির্যাতন সইতে না পেরে মঙ্গলবার রাতেই টুম্পা বাবার ঘরে এসে বিষপান করে। বুধবার সকালে খবর পেয়ে পুলিশ টুম্পার মরদেহ উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

 মামলার এক নম্বর আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে, অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান ওসি।

 

/টিটি/এমওএফ/

সম্পর্কিত

২৫ বছরে তিন বিয়ে, স্ত্রীর ওড়না গলায় বেঁধে আত্মহত্যা

২৫ বছরে তিন বিয়ে, স্ত্রীর ওড়না গলায় বেঁধে আত্মহত্যা

ঘুমাতে বলায় শাশুড়িকে কুপিয়ে হত্যা, জামাই গ্রেফতার

ঘুমাতে বলায় শাশুড়িকে কুপিয়ে হত্যা, জামাই গ্রেফতার

করোনার চেয়ে নির্বাচন বেশি গুরুত্বপূর্ণ: সিইসি

করোনার চেয়ে নির্বাচন বেশি গুরুত্বপূর্ণ: সিইসি

একাধিক জাতীয় পরিচয়পত্র ব্যবহার করে প্রতারণা, আটক ১

একাধিক জাতীয় পরিচয়পত্র ব্যবহার করে প্রতারণা, আটক ১

গুপ্তধনের খোঁজে বাড়ির উঠানে খোঁড়াখুঁড়ি

গুপ্তধনের খোঁজে বাড়ির উঠানে খোঁড়াখুঁড়ি

লেবুখালী সেতু ঘোচাবে ঢাকা-কুয়াকাটার দূরত্ব

লেবুখালী সেতু ঘোচাবে ঢাকা-কুয়াকাটার দূরত্ব

‘তত্ত্বাবধায়ক আমলে ক্ষমতার স্বপ্নে দুই দলের অনেকেই বিভোর ছিলেন’

‘তত্ত্বাবধায়ক আমলে ক্ষমতার স্বপ্নে দুই দলের অনেকেই বিভোর ছিলেন’

সাপের বিষ সারাতে ৩৭ হাজার টাকায় ৭ দিনের চুক্তি

সাপের বিষ সারাতে ৩৭ হাজার টাকায় ৭ দিনের চুক্তি

এমপি পংকজ নাথের গাড়ি ভাঙচুরের মামলায় গ্রেফতার ৫

এমপি পংকজ নাথের গাড়ি ভাঙচুরের মামলায় গ্রেফতার ৫

এমপি পংকজ নাথের গাড়ির গ্লাস ভাঙচুরের অভিযোগ

এমপি পংকজ নাথের গাড়ির গ্লাস ভাঙচুরের অভিযোগ

সড়ক থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন করবে সাহানের প্ল্যান্ট

সড়ক থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন করবে সাহানের প্ল্যান্ট

চলছিলো মেয়ের বিয়ের কথাবার্তা, মা এসে দেখেন ঝুলন্ত লাশ

চলছিলো মেয়ের বিয়ের কথাবার্তা, মা এসে দেখেন ঝুলন্ত লাশ

সর্বশেষ

সন্ত্রাসবাদে অভিযুক্ত কানাডার সেই হামলাকারী

সন্ত্রাসবাদে অভিযুক্ত কানাডার সেই হামলাকারী

গোল মিসের মহড়ায় পয়েন্ট হারালো স্পেন

গোল মিসের মহড়ায় পয়েন্ট হারালো স্পেন

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের ঝুঁকি,  যুক্তরাজ্যে লকডাউন প্রত্যাহার হবে দেরিতে

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের ঝুঁকি, যুক্তরাজ্যে লকডাউন প্রত্যাহার হবে দেরিতে

অবশেষে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ‘তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন’

পরীমণিকে ধর্ষণ-হত্যাচেষ্টাঅবশেষে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ‘তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন’

ইয়াবা-স্বর্ণ ও টাকাসহ তিন রোহিঙ্গা গ্রেফতার

ইয়াবা-স্বর্ণ ও টাকাসহ তিন রোহিঙ্গা গ্রেফতার

বায়ু শক্তিকে উদযাপনের দিন আজ

অপার সম্ভাবনায় গুরুত্ব কমবায়ু শক্তিকে উদযাপনের দিন আজ

স্পর্শকাতর সিদ্ধান্তের মুখে ইসরায়েলের নতুন সরকার

স্পর্শকাতর সিদ্ধান্তের মুখে ইসরায়েলের নতুন সরকার

৩২ লাখ টাকা সহায়তা পেলেন মোংলা বন্দরের শ্রমিক-কর্মচারীরা

৩২ লাখ টাকা সহায়তা পেলেন মোংলা বন্দরের শ্রমিক-কর্মচারীরা

ইউরোর ৬১ বছরের ইতিহাস পাল্টে দিলেন পোলিশ গোলকিপার

ইউরোর ৬১ বছরের ইতিহাস পাল্টে দিলেন পোলিশ গোলকিপার

মতিঝিলে ছিনতাই চক্রের দুই সদস্য গ্রেফতার

মতিঝিলে ছিনতাই চক্রের দুই সদস্য গ্রেফতার

সম্মুখ সারির যোদ্ধাদের কাজী এন্টারপ্রাইজ’র সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

করোনা মোকাবিলাসম্মুখ সারির যোদ্ধাদের কাজী এন্টারপ্রাইজ’র সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

একসঙ্গে চার মেয়ে সন্তানের জন্ম

একসঙ্গে চার মেয়ে সন্তানের জন্ম

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

২৫ বছরে তিন বিয়ে, স্ত্রীর ওড়না গলায় বেঁধে আত্মহত্যা

২৫ বছরে তিন বিয়ে, স্ত্রীর ওড়না গলায় বেঁধে আত্মহত্যা

ঘুমাতে বলায় শাশুড়িকে কুপিয়ে হত্যা, জামাই গ্রেফতার

ঘুমাতে বলায় শাশুড়িকে কুপিয়ে হত্যা, জামাই গ্রেফতার

করোনার চেয়ে নির্বাচন বেশি গুরুত্বপূর্ণ: সিইসি

করোনার চেয়ে নির্বাচন বেশি গুরুত্বপূর্ণ: সিইসি

একাধিক জাতীয় পরিচয়পত্র ব্যবহার করে প্রতারণা, আটক ১

একাধিক জাতীয় পরিচয়পত্র ব্যবহার করে প্রতারণা, আটক ১

গুপ্তধনের খোঁজে বাড়ির উঠানে খোঁড়াখুঁড়ি

গুপ্তধনের খোঁজে বাড়ির উঠানে খোঁড়াখুঁড়ি

লেবুখালী সেতু ঘোচাবে ঢাকা-কুয়াকাটার দূরত্ব

লেবুখালী সেতু ঘোচাবে ঢাকা-কুয়াকাটার দূরত্ব

‘তত্ত্বাবধায়ক আমলে ক্ষমতার স্বপ্নে দুই দলের অনেকেই বিভোর ছিলেন’

‘তত্ত্বাবধায়ক আমলে ক্ষমতার স্বপ্নে দুই দলের অনেকেই বিভোর ছিলেন’

সাপের বিষ সারাতে ৩৭ হাজার টাকায় ৭ দিনের চুক্তি

সাপের বিষ সারাতে ৩৭ হাজার টাকায় ৭ দিনের চুক্তি

এমপি পংকজ নাথের গাড়ি ভাঙচুরের মামলায় গ্রেফতার ৫

এমপি পংকজ নাথের গাড়ি ভাঙচুরের মামলায় গ্রেফতার ৫

এমপি পংকজ নাথের গাড়ির গ্লাস ভাঙচুরের অভিযোগ

এমপি পংকজ নাথের গাড়ির গ্লাস ভাঙচুরের অভিযোগ

© 2021 Bangla Tribune