X
শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

আবহাওয়ার উন্নতিতে ফের এলএনজি সরবরাহ শুরু

আপডেট : ১৪ জুন ২০২১, ২০:২২

সাগরে প্রতিকূল আবহাওয়ায় বিঘ্নিত হওয়া তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) সরবরাহ ফের শুরু হয়েছে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, পাইপলাইনে ৭০০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস আসছে। ফলে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে তৈরি হওয়া গ্যাস সরবরাহের ঘাটতি কমে এসেছে।

এর আগে গতকাল রবিবার সকালে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আগামী তিনদিন অর্থাৎ ১৬ জুন পর্যন্ত সাগরে বৈরী আবহাওয়া কারণে এলএনজি সরবরাহে বিঘ্ন ঘটার ফলে গ্যাস সরবরাহে বিঘ্ন বা স্বল্পচাপ বিরাজ করবে। এই অবস্থায় এলএনজি কম আসায় গ্যাস ঘাটতিতে পড়েছিল দেশের বিভিন্ন অঞ্চল। আবাসিক আর বিদ্যুতে অগ্রাধিকার দেওয়া হলেও সিএনজি, শিল্প, সার ও বাণিজ্যিকের গ্যাসের সরবরাহ কমিয়ে দেওয়া হয়েছিল। বিদ্যুৎ সংকট সামাল দিতে তেলচালিত বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলো পূর্ণ ক্ষমতায় চালানো হচ্ছে।

সোমবার (১৪ জুন) রূপান্তরিত প্রাকৃতিক গ্যাস কোম্পানির (আরপিজিসিএল) মহাব্যবস্থাপক রফিকুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, আবহাওয়ার উন্নতি হওয়ায় বিকেল ৪টা থেকে জাহাজ থেকে এলএনজি নামানো শুরু হয়েছে। পাইপলাইনে আমরা এখন ৭০০ মিলিয়ন এলএনজি দিচ্ছি। ফলে গ্যাসের ঘাটতি ধীরে ধীরে কমে আসবে।

প্রসঙ্গত, এলএনজি বড় বড় জাহাজে করে বিদেশ থেকে আমদানি করা হয়। এরপর সেই এলএনজিকে এফএসআরইউ-র (ভাসমান টার্মিনাল) মাধ্যমে গ্যাসে রূপান্তর করে পাইপলাইনে সরবরাহ করা হয়। গতকাল থেকে সাগর উত্তাল থাকায় বড় জাহাজ থেকে এলএনজি খালাস করা যাচ্ছিলো না। সঙ্গত কারণে এফএসআরইউ-র ভেতরে যে পরিমাণ গ্যাস ছিল তা গ্রিডে সরবরাহ করা হচ্ছিলো।

সোমবার দুপুরে পেট্রোবাংলার ওয়েবসাইটে দেখা যায়, এলএনজি থেকে ৪৪৫ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস পাইপলাইনে দেওয়া হচ্ছে। যা গতকাল ছিল ৬৩১ মিলিয়ন ঘনফুট। এর আগে গত ৯ জুন ৮১২ মিলিয়ন ঘনফুট এলএনজি পাইপলাইনে দেওয়া হয়। খালাস না হওয়ায় এই সরবরাহ প্রায় অর্ধেকে নেমে এসেছিলো।

তিতাসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলী ইকবাল মো নুরুল্লাহ বলেন, অন্য বিতরণ কোম্পানিগুলোর তুলনায় আমাদের গ্রাহক বেশি। স্বাভাবিক সময়ে এক হাজার ৭০০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস পেতাম, এখন পাচ্ছি এক হাজার ৪৫০-এর মতো। আবাসিক আর বিদ্যুৎকে অগ্রাধিকার দিয়ে আমরা এখন গ্যাস সরবরাহ স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করছি।

এদিকে বাখরাবাদ গ্যাস কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক শঙ্কর মজুমদার বলেন, আমাদের চাহিদা ৪০৬ মিলিয়ন ঘনফুটের মতো, স্বাভাবিক সময়ে পাই ৩২০-৩৪০ মিলিয়ন ঘনফুটের মধ্যে। এখন খুব বেশি কমেনি। তাও আমরা সার কারখানাগুলোতে ১০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস কমিয়ে বিদ্যুৎ স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করছি।

/এসএনএস/ইউএস/

সম্পর্কিত

গ্যাস দুর্ঘটনায় আহত-নিহতদের সহায়তা দিতে তহবিল গঠনের পরামর্শ

গ্যাস দুর্ঘটনায় আহত-নিহতদের সহায়তা দিতে তহবিল গঠনের পরামর্শ

ক্রস চেকের মাধ্যমে ডিমান্ড নোটের টাকা ফেরত দেবে তিতাস

ক্রস চেকের মাধ্যমে ডিমান্ড নোটের টাকা ফেরত দেবে তিতাস

আজ গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

আজ গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

আজ গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

আজ গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

নতুন মুদ্রানীতি গতানুগতিক ধারার: ঢাকা চেম্বার

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২৩:০৭

বাংলাদেশ ব্যাংকের ঘোষিত ২০২১-২২ অর্থবছরের  মুদ্রানীতিকে গতানুগতিক ধারার বলে মন্তব্য করেছে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই)। বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নতুন মুদ্রানীতির বিষয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় এমন মন্তব্য করে সংগঠনটি। 

গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে ডিসিসিআই জানায়, বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক ঘোষিত মুদ্রানীতি কিছুটা গতানুগতিক ও ধারাবাহিক। এ নীতিতে বেসরকারি খাতকে উজ্জীবিত করতে উদ্ভাবনী কোনও পদক্ষেপ লক্ষ্য করা যায় না। যদিও সুনির্দিষ্ট কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন, ব্যাংক ও নন-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যকার সমন্বয় এবং কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে তাদের কার্যক্রমের নজরদারি এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। 

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটে নতুন মুদ্রানীতির প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। 

সংবাদ বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ২০২২ সাল নাগাদ সরকারি খাতে ঋণ প্রবাহ প্রাক্কলন করা হয়েছে ৩২.৬ শতাংশ এবং বেসরকারি খাতে ঋণ প্রবাহ ধরা হয়েছে ১৪.৮ শতাংশ, যা কিছুটা আশাবাদী। কোভিডের কারণে আশানুরূপ বিনিয়োগ হচ্ছে না বিধায় ঋণ প্রবাহের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা কষ্টসাধ্য হয়ে দাঁড়াতে পারে। যদি সামগ্রিক অর্থনীতি এবং বেসরকারি খাত ঘুরে দাঁড়াতে না পারে ঋণ প্রবাহের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত নাও হতে পারে।
পুঁজিবাজারের বিনিয়োগকে উৎসাহিত করার লক্ষ্যে বিনিয়োগের রিটার্ন অথবা সঞ্চয়পত্র, পোস্টাল সেভিংস এবং পেনশনার সেভিংস সার্টিফিকেট প্রভৃতির ক্ষেত্রে প্রদেয় সুদের হার যৌক্তিক হারে ব্যাংকিং ইনস্ট্রুমেন্ট যেমন : এফডিআরের ন্যায় ব্যাংক প্রদত্ত সুদের হারের সঙ্গে বা বন্ডের রিটার্নের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে কিছুটা কমানো যেতে পারে। তবে এ বিষয়ক কোনও নির্দেশনা মুদ্রানীতিতে প্রতীয়মান হয়নি বলে মনে করে ডিসিসিআই।

ঢাকা চেম্বার বলছে, সিএমএসএমই খাতকে পুনরুজ্জীবিত করতে আর্থিক প্রণোদনাসহ অনেক ধরনের নীতি সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। কিন্তু ঘোষিত মুদ্রানীতিতে প্রদত্ত সুবিধাদি কীভাবে বাস্তবায়ন করা হবে সে বিষয়ে সুনির্দিষ্ট দিকনির্দেশনা বা রোডম্যাপ প্রদান করা হয়নি। ডলারের বিপরীতে টাকার বিনিময় হারের বিষয়টি তেমন উদ্বেগজনক নয়, তবে অনেক ক্ষেত্রে টাকার মানের এ হার আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে ইতিবাচক প্রভাব বিস্তারের কার্যকর ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে।

/জিএম/এমআর/

সম্পর্কিত

ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেন অবৈধ

ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেন অবৈধ

রবিবার ও বুধবার  আর্থিক প্রতিষ্ঠানও বন্ধ থাকবে

রবিবার ও বুধবার  আর্থিক প্রতিষ্ঠানও বন্ধ থাকবে

শ্রমিক ছাঁটাই এবং কারখানা লে-অফ ঘোষণা না করার অনুরোধ

শ্রমিক ছাঁটাই এবং কারখানা লে-অফ ঘোষণা না করার অনুরোধ

গতবারের চেয়ে এবার কৃষিঋণ ২০০০ কোটি টাকা বেশি বিতরণ করতে চায় ব্যাংক

গতবারের চেয়ে এবার কৃষিঋণ ২০০০ কোটি টাকা বেশি বিতরণ করতে চায় ব্যাংক

ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেন অবৈধ

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২২:৫৬

বিটকয়েনের মতো ভার্চুয়াল মুদ্রা ‘ক্রিপ্টোকারেন্সি’র মালিকানা, সংরক্ষণ বা লেনদেন অবৈধ বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। শুধু তাই নয়, আর্থিক ও আইনগত ঝুঁকি এড়াতে বিটকয়েনসহ ভার্চুয়াল মুদ্রায় লেনদেন বা সহায়তা প্রদান এবং এর প্রচার থেকে বিরত থাকতে সতর্ক করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) বাংলাদেশ ব্যাংকের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

‘ক্রিপ্টোকারেন্সি’ হলো ইন্টারনেটের মাধ্যমে লেনদেন হওয়া এক ধরনের মুদ্রা। বর্তমানে আট হাজারের বেশি এ ধরনের মুদ্রা রয়েছে। তবে এগুলোর মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় বিটকয়েন। এছাড়া ইথেরিয়াম, রিপল, লিটকয়েন ব্যবহার হচ্ছে বেশি।

ক্রিপ্টোকারেন্সি বিষয়ে বিজ্ঞপ্তিতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক জানায়, ‘সম্প্রতি কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে ভার্চুয়াল মুদ্রা ক্রিপ্টোকারেন্সির বিষয়ে প্রকাশিত রিপোর্ট বাংলাদেশ ব্যাংকের নজরে এসেছে। একটি নির্দিষ্ট মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার গোপনীয় ব্যবহারের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে পত্রের মাধ্যমে প্রেরিত মতামতের অংশবিশেষ কোনও কোনও গণমাধ্যমে খণ্ডিতভাবে উপস্থাপিত হয়েছে যা কোনওক্রমেই সাধারণভাবে প্রচারযোগ্য নয়।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলছে, ‘সম্প্রতি বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম এবং ইন্টারনেট থেকে জানা যায়, অনলাইনভিত্তিক ভার্চুয়াল মুদ্রার (বিটকয়েন, ইথেরিয়াম, রিপল, লিটকয়) বিনিময় বা লেনদেন হচ্ছে। এসব ভার্চুয়াল মুদ্রা কোনও দেশের বৈধ কর্তৃপক্ষ দ্বারা ইস্যুকৃত বৈধ মুদ্রা নয়। তাই এর বিপরীতে কোনও আর্থিক দাবিও স্বীকৃত নয়। এসব মুদ্রায় লেনদেন বাংলাদেশ ব্যাংক বা অন্য কোনও নিয়ন্ত্রক সংস্থা কর্তৃক অনুমোদিত নয়। অনলাইনে নামবিহীন বা ছদ্মনামীয় প্রতিসঙ্গীর সঙ্গে ভার্চুয়াল মুদ্রায় এসব লেনদেন মানি লন্ডারিং ও সন্ত্রাসে অর্থায়ন প্রতিরোধ সম্পর্কিত আইনের লঙ্ঘন হতে পারে।’

‘কোনও বৈধ সংস্থার স্বীকৃত না হওয়ায় গ্রাহকরা ভার্চুয়াল মুদ্রার সম্ভাব্য আর্থিক ও আইনগত ঝুঁকিসহ বিভিন্ন ঝুঁকির সম্মুখীন হতে পারেন। এ অবস্থায়, আর্থিক ও আইনগত ঝুঁকি এড়াতে বিটকয়েনের ন্যায় ভার্চুয়াল মুদ্রায় লেনদেন থেকে বিরত থাকতে সতর্ক করছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।’ 

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ‘কোনও ভার্চুয়াল মুদ্রা বা ক্রিপ্টোকারেন্সি বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদিত নয়। সম্ভাব্য আর্থিক ও আইনগত ঝুঁকি এড়ানোর লক্ষ্যে যে কোনও ধরনের ক্রিপ্টোকারেন্সি বা ভার্চুয়াল মুদ্রায় (যেমন বিটকয়েন, ইথারিয়াম, রিপল ইত্যাদি) লেনদেন অথবা এরূপ কার্যে সহায়তা প্রদান ও এ সংক্রান্ত প্রচারণা হতে বিরত থাকতে সব ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে পুনরায় নির্দেশ দিচ্ছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

/জিএম/এমআর/

সম্পর্কিত

রবিবার ও বুধবার  আর্থিক প্রতিষ্ঠানও বন্ধ থাকবে

রবিবার ও বুধবার  আর্থিক প্রতিষ্ঠানও বন্ধ থাকবে

ঋণ বিতরণে বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন নির্দেশনা

ঋণ বিতরণে বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন নির্দেশনা

আগামী রবি ও বুধবার ব্যাংক বন্ধ 

আগামী রবি ও বুধবার ব্যাংক বন্ধ 

দেড় বছর কিস্তি না দিলেও গ্রাহকরা ঋণখেলাপি হবে না

দেড় বছর কিস্তি না দিলেও গ্রাহকরা ঋণখেলাপি হবে না

রবিবার ও বুধবার  আর্থিক প্রতিষ্ঠানও বন্ধ থাকবে

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২২:৫২

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ অব্যাহতভাবে বাড়তে থাকায় ব্যাংকের পাশাপাশি আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোও আগামী রবি ও বুধবার (১ ও ৪ আগস্ট) বন্ধ থাকবে।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বাজার বিভাগ এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করেছে। এতে বলা হয়েছে, বিদ্যমান পরিস্থিতি বিবেচনায় আগামী ১ ও ৪ আগস্ট আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ থাকবে। এছাড়া ২, ৩ ও ৫ আগস্ট (সোম, মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার) সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত সীমিত পরিসরে এসব প্রতিষ্ঠান খোলা থাকবে।

এর আগে ১৪ জুলাই জারি করা সার্কুলারের অন্যান্য নির্দেশনা অপরিবর্তিত থাকবে।

আগের নির্দেশনা অনুযায়ী, বিধিনিষেধ চলাকালে গ্রাহকের হিসাবে মেয়াদপূর্তিতে স্থায়ী আমানত নগদায়ন, ঋণের কিস্তি জমা গ্রহণসহ জরুরি কাজ করা যাবে।  অফিস খোলা রাখার ক্ষেত্রে মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে অনুসরণ করে সীমিত সংখ্যক লোকবলের মাধ্যমে সেবাদানের বিষয়টি নিশ্চিত করতে বলেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর সর্বোচ্চ দুটি শাখা (একটি ঢাকায় ও অপরটি ঢাকার বাইরে) এবং প্রধান কার্যালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগ খোলা রাখা যাবে। বিধিনিষেধ চলাকালে কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের চলাচলের সময় নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পরিচয়পত্র বহন করতে হবে। 

/জিএম/এমআর/

সম্পর্কিত

ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেন অবৈধ

ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেন অবৈধ

ঋণ বিতরণে বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন নির্দেশনা

ঋণ বিতরণে বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন নির্দেশনা

আগামী রবি ও বুধবার ব্যাংক বন্ধ 

আগামী রবি ও বুধবার ব্যাংক বন্ধ 

দেড় বছর কিস্তি না দিলেও গ্রাহকরা ঋণখেলাপি হবে না

দেড় বছর কিস্তি না দিলেও গ্রাহকরা ঋণখেলাপি হবে না

শ্রমিক ছাঁটাই এবং কারখানা লে-অফ ঘোষণা না করার অনুরোধ

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২১:০৩

করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সরকার কঠোর বিধি-নিষেধ আরোপ করেছে। এই বিধিনিষেধের আওতায় সকল প্রকার কল-কারখানা বন্ধ রয়েছে। এই দুর্যোগ মুহূর্তে কোনও শ্রমিক ছাঁটাই এবং কোনও শিল্প-কলকারখানা লে-অফ ঘোষণা না করতে মালিকদের প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানিয়েছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) শ্রম মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক বিবৃতিতে প্রতিমন্ত্রী এ আহবান জানিয়েছেন। 

বিবৃতিতে প্রতিমন্ত্রী আরএমজি এবং নন আরএমজিসহ সকল প্রকার শিল্প এবং কল-কারখানা মালিক এবং ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের প্রতি এ অনুরোধ জানান। 

তিনি বলেন, করোনা মহামারি শুধু বাংলাদেশ নয় সারাবিশ্বের জন্য দুর্যোগ। দেশ ও জাতির বৃহত্তর স্বার্থে সবাই মিলে একসাথে এই দুর্যোগ মোকাবিলা করে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে।

/এসআই/এমআর/

সম্পর্কিত

নতুন মুদ্রানীতি গতানুগতিক ধারার: ঢাকা চেম্বার

নতুন মুদ্রানীতি গতানুগতিক ধারার: ঢাকা চেম্বার

ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেন অবৈধ

ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেন অবৈধ

রবিবার ও বুধবার  আর্থিক প্রতিষ্ঠানও বন্ধ থাকবে

রবিবার ও বুধবার  আর্থিক প্রতিষ্ঠানও বন্ধ থাকবে

গতবারের চেয়ে এবার কৃষিঋণ ২০০০ কোটি টাকা বেশি বিতরণ করতে চায় ব্যাংক

গতবারের চেয়ে এবার কৃষিঋণ ২০০০ কোটি টাকা বেশি বিতরণ করতে চায় ব্যাংক

গতবারের চেয়ে এবার কৃষিঋণ ২০০০ কোটি টাকা বেশি বিতরণ করতে চায় ব্যাংক

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৫:৩৪

দারিদ্র্য বিমোচন, ক্ষুধামুক্তি এবং গ্রামীণ অর্থনীতির উন্নয়নের উদ্দেশ্যে পল্লী অঞ্চলে পর্যাপ্ত কৃষি ঋণ প্রবাহ বৃদ্ধির মাধ্যমে কৃষি উৎপাদন বাড়াতে চায় বাংলাদেশ ব্যাংক। 

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) নতুন কৃষিঋণ নীতিমালা ঘোষণা করেছে। নতুন এই মুদ্রানীতিতে এই তিনটি বিষয়কে সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

নতুন অর্থবছরের জন্য কৃষি ও পল্লী ঋণ নীতিমালায় চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরে কৃষকদের জন্য ২৮ হাজার ৩৯১ কোটি টাকা ঋণ বরাদ্দ রেখেছে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো। যা আগের অর্থবছরের বরাদ্দের চেয়ে প্রায় দুই হাজার কোটি টাকা বেশি।

নী‌তিমালায় বলা হয়, করোনা মহামারির কারণে সৃষ্ট আর্থিক সংকট মোকাবিলায় এবং সরকারের কৃষি ও কৃষকবান্ধব নীতির সঙ্গে সঙ্গতি রেখে দেশের টেকসই উন্নয়নের নির্ধারিত লক্ষ্যের কৃ‌ষি ও পল্লীঋণ নীতিমালায় তিনটি বিষয় জোর দেওয়া হয়েছে। এগুলো হলো দারিদ্র্য বিমোচন, ক্ষুধামুক্তি এবং গ্রামীণ অর্থনীতির উন্নয়নের উদ্দেশ্যে পল্লী অঞ্চলে পর্যাপ্ত কৃষিঋণ প্রবাহ বৃদ্ধির মাধ্যমে কৃষি উৎপাদন বাড়ানো। 

চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশ ব্যাংকের বার্ষিক কৃষি ও পল্লীঋণ বিতর‌ণের লক্ষ্য ঠিক ক‌রে‌ছে ২৮ হাজার ৩৯১ কোটি টাকা। যা গত অর্থবছরের চেয়ে ৭ দশমিক ৯৮ শতাংশ বেশি। গত অর্থবছর কৃষিঋণের লক্ষ্য ছিল ​২৬ হাজার ২৯২ কোটি টাকা।

এ নীতিমালায় আওতায় সোনালি মুরগী ও মহিষ এবং গাড়ল পালনের জন্য ঋণ দেওয়া হবে। কৃষিঋণের সুদহার ৮ শতাংশ।

নীতিমালায় বলা হয়েছে, কৃষি ও পল্লী ঋণের ক্রমবর্ধমান চাহিদা বিবেচনায় চলতি অর্থবছরে রাষ্ট্র মালিকানাধীন বাণিজ্যিক ও বিশেষায়িত ব্যাংকসমূহের জন্য ১১ হাজার ৪৫ কোটি টাকা এবং বেসরকারি ও বিদেশি বাণিজ্যিক ব্যাংকসমূহ ১৭ হাজার ৩৪৬ কোটি টাকা কৃষি ও পল্লীঋণ বিতরণ করবে।  

গত ২০২০-২১ অর্থবছরে ব্যাংকসমূহ ২৫ হাজার ৫১১ কোটি ৩৫ লাখ টাকা কৃষি ও পল্লীঋণ বিতরণ করেছে। যা লক্ষ্যমাত্রা ২৬ হাজার ২৯২ কোটি টাকার ৯৭ দশমিক শূন্য ৩ শতাংশ।

গত অর্থবছরে মোট ৩০ লাখ ৫৫ হাজার ১৬৬ জন কৃষিঋণ পেয়েছেন। যার মধ্যে ব্যাংকসমূহের নিজস্ব নেটওয়ার্ক ও এমএফআই লিংকেজের মাধ্যমে ১৬ লাখ পাঁচ হাজার ৯৪৭ জন নারী প্রায় নয় হাজার ২৮৭ কোটি ৯৬ লাখ টাকা কৃষি ও পল্লীঋণ পেয়েছেন। একই অর্থবছরে ২২ লাখ ৪৫ হাজার ৫১২ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক চাষি বিভিন্ন ব্যাংক থেকে প্রায় ১৭ লাখ ৬৩৯ কোটি ৯৩ লাখ টাকা ঋণ নিয়েছেন এবং চর, হাওর প্রভৃতি অনগ্রসর এলাকার সাত হাজার ৭৯৬ জন কৃষক প্রায় ৩৩ কোটি ৯৬ লাখ টাকা কৃষি ও পল্লীঋণ পেয়েছেন।

 

/জিএম/এনএইচ/

সম্পর্কিত

নতুন মুদ্রানীতি গতানুগতিক ধারার: ঢাকা চেম্বার

নতুন মুদ্রানীতি গতানুগতিক ধারার: ঢাকা চেম্বার

ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেন অবৈধ

ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেন অবৈধ

রবিবার ও বুধবার  আর্থিক প্রতিষ্ঠানও বন্ধ থাকবে

রবিবার ও বুধবার  আর্থিক প্রতিষ্ঠানও বন্ধ থাকবে

শ্রমিক ছাঁটাই এবং কারখানা লে-অফ ঘোষণা না করার অনুরোধ

শ্রমিক ছাঁটাই এবং কারখানা লে-অফ ঘোষণা না করার অনুরোধ

সম্পর্কিত

গ্যাস দুর্ঘটনায় আহত-নিহতদের সহায়তা দিতে তহবিল গঠনের পরামর্শ

গ্যাস দুর্ঘটনায় আহত-নিহতদের সহায়তা দিতে তহবিল গঠনের পরামর্শ

ক্রস চেকের মাধ্যমে ডিমান্ড নোটের টাকা ফেরত দেবে তিতাস

ক্রস চেকের মাধ্যমে ডিমান্ড নোটের টাকা ফেরত দেবে তিতাস

তিতাসের ৫ হাজার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

তিতাসের ৫ হাজার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

বিল বকেয়া ৯৮ কোটি টাকা, সিনহা গ্রুপের গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

বিল বকেয়া ৯৮ কোটি টাকা, সিনহা গ্রুপের গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন

গ্যাস সংযোগ না পেলে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ

গ্যাস সংযোগ না পেলে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ

৮শ’ অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন, একজনের কারাদণ্ড

৮শ’ অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন, একজনের কারাদণ্ড

আজ গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

আজ গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

আজ গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

আজ গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

সর্বশেষ

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১৯ কোটি ৭২ লাখ ছাড়িয়েছে

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১৯ কোটি ৭২ লাখ ছাড়িয়েছে

কিউবায় আটক বিক্ষোভকারীদের মুক্তি দাবি ইউরোপীয় ইউনিয়নের

কিউবায় আটক বিক্ষোভকারীদের মুক্তি দাবি ইউরোপীয় ইউনিয়নের

তিউনিসিয়াকে গণতান্ত্রিক পথে ফেরার আহ্বান যুক্তরাষ্ট্রের

তিউনিসিয়াকে গণতান্ত্রিক পথে ফেরার আহ্বান যুক্তরাষ্ট্রের

অগ্নিকাণ্ডের ১৫ দিনেও চালু হয়নি আইসিইউ

অগ্নিকাণ্ডের ১৫ দিনেও চালু হয়নি আইসিইউ

মেঘনায় ট্রলারডুবিতে একজনের মৃত্যু, জীবিত উদ্ধার ১১

মেঘনায় ট্রলারডুবিতে একজনের মৃত্যু, জীবিত উদ্ধার ১১

সংঘর্ষে নিহত নন, তালেবানের হাতে ‘খুন’ হয়েছেন দানিশ সিদ্দিকি

সংঘর্ষে নিহত নন, তালেবানের হাতে ‘খুন’ হয়েছেন দানিশ সিদ্দিকি

হেলেনা জাহাঙ্গীর আটক

হেলেনা জাহাঙ্গীর আটক

রামেবির প্রতিষ্ঠাকালীন উপাচার্য মাসুম হাবিব আর নেই

রামেবির প্রতিষ্ঠাকালীন উপাচার্য মাসুম হাবিব আর নেই

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গ্যাস দুর্ঘটনায় আহত-নিহতদের সহায়তা দিতে তহবিল গঠনের পরামর্শ

গ্যাস দুর্ঘটনায় আহত-নিহতদের সহায়তা দিতে তহবিল গঠনের পরামর্শ

ক্রস চেকের মাধ্যমে ডিমান্ড নোটের টাকা ফেরত দেবে তিতাস

ক্রস চেকের মাধ্যমে ডিমান্ড নোটের টাকা ফেরত দেবে তিতাস

আজ গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

আজ গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

আজ গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

আজ গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

আজ ৯ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

আজ ৯ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

© 2021 Bangla Tribune