X
সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

হাজী দানেশে দ্রুত উপাচার্য নিয়োগের আহ্বান

আপডেট : ১৭ জুন ২০২১, ২৩:৫১

প্রায় সাড়ে চার মাসেও উপাচার্য নিয়োগ না হওয়ায় দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) প্রশাসনিক এবং একাডেমিক কার্যক্রমে স্থবিরতা নেমে এসেছে। এ অবস্থায় দ্রুততম সময়ের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ উপাচার্য নিয়োগের আহ্বান জানিয়েছে হাবিপ্রবির গণতান্ত্রিক শিক্ষক পরিষদ। বৃহস্পতিবার (১৭ জুন ২০২১) গণতান্ত্রিক শিক্ষক পরিষদের সভাপতি প্রফেসর ড. ফাহিমা খানম ও সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর ডা. মো. ফজলুল হক স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ আহ্বান জানানো হয়।

গত জানুয়ারিতে নিয়োগসহ নানা দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি গ্রহণ করেন। সেদিন মধ্যরাতেই (১৩ জানুয়ারি) মেয়াদ শেষ হওয়ার ১৮ দিন আগেই ক্যাম্পাস ত্যাগ করেন সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আবুল কাসেম। এরপর ৩১ জানুয়ারি অধ্যাপক আবুল কাসেমের উপাচার্যের মেয়াদ শেষ হলে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে ২২ ফেব্রুয়ারি রুটিন উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. বিধান চন্দ্র হালদারকে। তখন থেকেই রুটিন উপাচার্য দিয়েই চলছে হাবিপ্রবির একাডেমিক এবং প্রশাসনিক কার্যক্রম। কিন্তু রুটিন উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সব কার্যক্রম সচল রাখতে অপারগ হওয়ায় অনেকদিন ধরেই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপাচার্য নিয়োগের দাবি জানিয়ে আসছিলেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে গণতান্ত্রিক শিক্ষক পরিষদ উল্লেখ করে, ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধে বিশ্বাসী গণতান্ত্রিক শিক্ষক পরিষদের কার্যনির্বাহী কমিটি আজ (বৃহস্পতিবার) দুপুর ১২.৩০ ঘটিকায় একযোগে স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্বশরীরে ও অনলাইন প্লাটফর্মে বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে এক সভার আয়োজন করে। সভায় হাবিপ্রবিতে দ্রতততম সময়ে উপাচার্য নিয়োগের আহ্বান জানিয়ে বলা হয়, এ বিশ্ববিদ্যালয়ে দীর্ঘ প্রায় সাড়ে চার মাস ধরে নিয়মিত উপাচার্য না থাকায় একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম মারাত্মকভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে। এ অবস্থায় গণতান্ত্রিক শিক্ষক পরিষদ বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর চ্যান্সেলর মহামান্য রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর কাছে দ্রততম সময়ে উপাচার্য নিয়োগের জোর আবেদন জানাচ্ছে। উপাচার্য নিয়োগের ক্ষেত্রে সরকারি সিদ্ধান্তকে এ সংগঠন স্বাগত জানাবে। সরকারের নিয়োগ করা উপাচার্যকে সর্বাত্মক সহযোগিতার মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে নিতে গণতান্ত্রিক শিক্ষক পরিষদ বদ্ধপরিকর।’

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ২ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের অধ্যাপক ড. মু. আবুল কাসেমকে চার বছরের জন্য হাবিপ্রবির ষষ্ঠ উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ দেয় সরকার। গত ৩১ জানুয়ারি তার মেয়াদ শেষ হয়। এরপর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়টি ভিসিশূন্য রয়েছে।

 

/এমএএ/

সম্পর্কিত

হাবিপ্রবিতে ছয় মাসের সেমিস্টার শেষ হবে ৪ মাসে 

হাবিপ্রবিতে ছয় মাসের সেমিস্টার শেষ হবে ৪ মাসে 

বেরোবিতে ঢাবির ভর্তিচ্ছুরা, স্বাস্থ্যবিধি মেনে কেন্দ্রে প্রবেশ

বেরোবিতে ঢাবির ভর্তিচ্ছুরা, স্বাস্থ্যবিধি মেনে কেন্দ্রে প্রবেশ

হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই ‘হতাশার দেয়াল’ আর থাকছে না 

হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই ‘হতাশার দেয়াল’ আর থাকছে না 

সম্পাদকের অনুসারীদের হাতে চবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি লাঞ্ছিত

আপডেট : ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৯:২৮

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আল-আমিন রিমন সাধারণ সম্পাদকের অনুসারীদের লাঞ্ছিত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। সভাপতি ও সম্পাদক গ্রুপের উত্তেজনাকে কেন্দ্র করে তাকে মারধরের চেষ্টা করা হয় বলে জানিয়েছেন সভাপতি পক্ষের নেতাকর্মীরা। রবিবার (১৭ অক্টোবর) সন্ধ্যার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আমানত হলের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় দুই পক্ষ মুখোমুখি অবস্থান নেয়। রিমন শাখা সভাপতি রেজাউল হক রুবেলের অনুসারী। 

শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি রেজাউল হক রুবেল বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, সাবেক সহ-সভাপতি আল-আমিন রিমনকে পেয়ে সম্পাদক গ্রুপের কর্মীরা মারধরের চেষ্টা চালায়। এ সময় পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। তিনি এখন সুস্থ আছেন। 

এ বিষয়ে জানতে সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপুর মোবাইলফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়া বলেন, ছাত্রদের দুই পক্ষে একটু ঝামেলা হয়েছিল। এখন পরিস্থিতি শান্ত আছে। ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। 

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) সন্ধ্যায় সম্পাদকের অনুসারী এক ছাত্রলীগ কর্মীকে মারধরের জেরে পরদিন সভাপতির অনুসারী এক কর্মীকে মারধর করা হয়। পরে সভাপতির অনুসারীরা সম্পাদক গ্রুপের দুই জনকে কুপিয়ে জখম করেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

সম্পাদক গ্রুপের হাতে চবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি লাঞ্ছিত

সম্পাদক গ্রুপের হাতে চবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি লাঞ্ছিত

চবিতে ১৯ অক্টোবর ক্লাস শুরুর পর ১৬ দিনের ছুটি

চবিতে ১৯ অক্টোবর ক্লাস শুরুর পর ১৬ দিনের ছুটি

কুবি শিক্ষার্থীর চোখে মরিচের গুঁড়া দিয়ে ফেলে যায় ছিনতাইকারীরা    

কুবি শিক্ষার্থীর চোখে মরিচের গুঁড়া দিয়ে ফেলে যায় ছিনতাইকারীরা    

চবিতে সন্তানদের চাকরি চান কর্মকর্তা-কর্মচারীরা

চবিতে সন্তানদের চাকরি চান কর্মকর্তা-কর্মচারীরা

সম্পাদক গ্রুপের হাতে চবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি লাঞ্ছিত

আপডেট : ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২২:২৫

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আল-আমিন রিমনকে লাঞ্ছিত করেছে সাধারণ সম্পাদকের অনুসারীরা। সভাপতি ও সম্পাদক গ্রুপের উত্তেজনাকে কেন্দ্র করে তাকে মারধরের চেষ্টা করা হয়েছে। এ ঘটনায় ক্যাম্পাসে উত্তেজনা বিরাজ করছে। 

রবিবার (১৭ অক্টোবর) বিকাল ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শাহ আমানত হলের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় দুই পক্ষ মুখোমুখি অবস্থান নেয়। আলামিন রিমন শাখা সভাপতি রেজাউল হক রুবেলের অনুসারী। 

শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি রেজাউল হক রুবেল বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, সাবেক সহ-সভাপতি আল-আমিন রিমনকে পেয়ে সম্পাদক গ্রুপের কর্মীরা মারধরের চেষ্টা করেছে। এ সময় পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। তিনি এখন সুস্থ আছেন। 

তবে সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপুর সঙ্গে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার বক্তব্য পাওয়া সম্ভব হয়নি। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়া বলেন, ছাত্রদের দুই পক্ষে একটু ঝামেলা হয়েছিল। সমাধানের চেষ্টা চলছে। এখন পরিস্থিতি শান্ত আছে। ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। 

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) সন্ধ্যায় সম্পাদকের অনুসারী এক ছাত্রলীগ কর্মীকে মারধরের জেরে পরদিন সভাপতির অনুসারী এক কর্মীকে মারধর করা হয়। পরে সভাপতির অনুসারীরা সম্পাদক গ্রুপের দুই জনকে কুপিয়ে জখম করে।

/এএম/

সম্পর্কিত

সম্পাদকের অনুসারীদের হাতে চবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি লাঞ্ছিত

সম্পাদকের অনুসারীদের হাতে চবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি লাঞ্ছিত

চবিতে ১৯ অক্টোবর ক্লাস শুরুর পর ১৬ দিনের ছুটি

চবিতে ১৯ অক্টোবর ক্লাস শুরুর পর ১৬ দিনের ছুটি

চবিতে সন্তানদের চাকরি চান কর্মকর্তা-কর্মচারীরা

চবিতে সন্তানদের চাকরি চান কর্মকর্তা-কর্মচারীরা

১৮ অক্টোবর চবির হল খোলা নিয়ে অনিশ্চয়তা

১৮ অক্টোবর চবির হল খোলা নিয়ে অনিশ্চয়তা

ইউএপি ‘ল’ ফটোগ্রাফি ক্লাব আয়োজিত ইন্টার ডিপার্টমেন্ট ফটো এক্সিবিশনের ফলাফল

আপডেট : ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২৩:০২

এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইউএপি) ‘ল’ ফটোগ্রাফি ক্লাব আয়োজিত ইন্টার ডিপার্টমেন্ট ফটো এক্সিবিশনের ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। অনলাইনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে রবিবার (১৭ অক্টোবর) এই ফল ঘোষণা করা হয়। 

প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অর্জন করেছেন  ইংলিশ বিভাগের  ফাবিয়া আক্তার,  দ্বিতীয় হয়েছেন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং  বিভাগের মোয়াজ্জিন আহমেদ সম্রাট, তৃতীয়  হয়েছেন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং  বিভাগের  মোহাম্মদ তাসনিমুল আরসাদ রাফিউ। বিশেষ পুরস্কার পেয়েছেন ফার্মাসি বিভাগের হাসান জাহান খান ও আইন ও মানবাধিকার বিভাগের আব্দুল্লা আল লিমন।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. সুলতান মাহমুদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন এশিয়া প্যাসিফিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ ও ছাত্র কল্যাণ অধিদফতরের পরিচালক এয়ার কমোডর ইশফাক ইলাহী চৌধুরী, আইন ও মানবাধিকার বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. চৌধুরী ইশরাক আহমেদ সিদ্দিকী এবং ক্লাব কনভেনার নাজিয়া ওয়াহাব ও ক্লাব প্রেসিডেন্ট শাহরিয়ার ইসলাম শোভন।

প্রতিযোগিতার বিচারক মণ্ডলীদের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন সাজ্জাদ হোসেন।

এক্সিবিশনে মিডিয়া পার্টনার হিসেবে ছিল বাংলা ট্রিবিউন। 

প্রথম হওয়া ফাবিয়া আক্তারের ছবি

দ্বিতীয় স্থান লাভ করেন মোয়াজ্জিন আহমেদ সম্রাট তৃতীয় মোহাম্মদ তাসনিমুল আরসাদ রাফিউ’র ছবি বিশেষ পুরস্কার পেয়েছে হাসান জাহান খানের তোলা ছবি বিশেষ পুরস্কার পেয়েছেন আব্দুল্লা আল লিমনের এই ছবিটিও

/এমআর/

সম্পর্কিত

সম্পাদকের অনুসারীদের হাতে চবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি লাঞ্ছিত

সম্পাদকের অনুসারীদের হাতে চবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি লাঞ্ছিত

সম্পাদক গ্রুপের হাতে চবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি লাঞ্ছিত

সম্পাদক গ্রুপের হাতে চবি ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি লাঞ্ছিত

শুভেচ্ছা জানানোকে কেন্দ্র করে জবিতে ছাত্রদল-ছাত্রলীগ হাতাহাতি

শুভেচ্ছা জানানোকে কেন্দ্র করে জবিতে ছাত্রদল-ছাত্রলীগ হাতাহাতি

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় উপস্থিতির হার ৯০ শতাংশ

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় উপস্থিতির হার ৯০ শতাংশ

শুভেচ্ছা জানানোকে কেন্দ্র করে জবিতে ছাত্রদল-ছাত্রলীগ হাতাহাতি

আপডেট : ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৫০

গুচ্ছ পরীক্ষার প্রথম দিন ভর্তিচ্ছুদের শুভেচ্ছা জানানোকে কেন্দ্র করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) শাখা ছাত্রদল ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ছাত্রদলের দুই নেতা আহত হয়েছেন।

রবিবার (১৭ অক্টোবর) গুচ্ছ পদ্ধতির এ ইউনিটের (বিজ্ঞান) ভর্তি পরীক্ষা শুরুর আগে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩ নম্বর গেটের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ভর্তি পরীক্ষা দিতে আসা পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩ নং গেটে শিক্ষার্থীদের ফুল ও কলম দিচ্ছিলেন ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। সেখানে উপস্থিত ছিলেন ছাত্রদলের নেতাকর্মী হিমেল, তাজ, রাতুল, নাহিদ, নাসিম, জামাল, শাহরিয়ার, মাহাবুব, আজিজ মোহাম্মদ, আলামিন, সরন ও ইমরানসহ কয়েকজন। একপর্যায়ে শাখা ছাত্রলীগের কর্মী মফিজুর রহমান হামিম, শেখ রাসেল, নাজমুল হাসান মুন্না, মেহেদী হাসান, নওশের বিন আলম ডেভিডসহ বেশ কয়েকজন তাদের ধাওয়া দেয়। এ নিয়ে তাদের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়। এতে আহত হন ছাত্রদলের নেতা মেহেদী হাসান হিমেল ও শাহরিয়ার হোসেন।

শাখা ছাত্রদলের আহ্বায়ক প্রার্থী তাজ বলেন, আমরা ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের ফুল ও কলম বিতারণ করছিলাম। ছাত্রলীগ আমাদের ওপর হামলা করে। আমার দুই সহকর্মী হিমেল ও শাহরিয়ার আহত হয়। পরে ন্যাশনাল মেডিক্যালে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়।

শাখা ছাত্রলীগের পদপ্রত্যাশী জামাল উদ্দীন বলেন, ছাত্রদলের কিছু নেতাকর্মী পরীক্ষা চলাকালীন বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করেছিল, আমরা তাদের সরিয়ে দিয়েছি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মোস্তফা কামাল বলেন, ক্যাম্পাসের ভেতরে এমন কোনও ঘটনা ঘটেনি। কেউ এমন অভিযোগও করেনি।

/এএম/

সম্পর্কিত

জবিতে ‘এ’ ইউনিটের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত 

জবিতে ‘এ’ ইউনিটের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত 

জবির মাঠ রক্ষায় প্রগতিশীল ছাত্রজোটের সমাবেশ 

জবির মাঠ রক্ষায় প্রগতিশীল ছাত্রজোটের সমাবেশ 

বাড়ির পাশে গাছে ঝুলছিল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর লাশ

বাড়ির পাশে গাছে ঝুলছিল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর লাশ

খেলার মাঠ রক্ষার দাবিতে জবি শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ

খেলার মাঠ রক্ষার দাবিতে জবি শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় উপস্থিতির হার ৯০ শতাংশ

আপডেট : ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১৬:৫৫

ময়মনসিংহের ত্রিশালের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের এ ইউনিটের (বিজ্ঞান) ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। পরীক্ষায় উপস্থিতির হার ছিল শতকরা প্রায় ৯০ শতাংশ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবন, বিজ্ঞান ভবন, ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদ ভবন ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ ভবনের ১২৩ কক্ষে ভর্তি পরীক্ষায় সাত হাজার ৬৮৮ পরীক্ষার্থীর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ছয় হাজার ৯১৪ পরীক্ষার্থী। অনুপস্থিত ছিলেন ৭৭৪ জন।

ভর্তি পরীক্ষা শুরু হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান কেন্দ্রের বিভিন্ন কক্ষ পরিদর্শন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ভিজিল্যান্স উপ-কমিটির সদস্য ট্রেজারার ড. জালাল উদ্দিন, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ড. মো. নজরুল ইসলাম, কলা অনুষদের ডিন ড. আহমেদুল বারী, এআইএস বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. সুব্রত কুমার দে, দর্শন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান (অতিরিক্ত দায়িত্ব) ড. মুশাররাত শবনম, কৃষিবিদ ড. হুমায়ুন কবীর, শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মুহাম্মদ এমদাদুর রাশেদ, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ভারপ্রাপ্ত) মো. আব্দুল হালিম ও কর্মকর্তা পরিষদের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন।

২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৮ কেন্দ্রে গুচ্ছ পদ্ধতির এই ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়। এবারের ভর্তি পরীক্ষায় ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২২ হাজার আসনের বিপরীতে দুই লাখ ৩২ হাজার ৪৫৫ পরীক্ষার্থী আবেদন করেছেন। এর মধ্যে এ ইউনিটে আবেদন করেছেন এক লাখ ৩১ হাজার ৯০১, বি ইউনিটে আবেদন করেছেন ৬৭ হাজার ১১৭ ও সি ইউনিটে আবেদন করেছেন ৩৩ হাজার ৪৩৭ পরীক্ষার্থী। 

বি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২৪ অক্টোবর (দুপুর ১২টা থেকে-১টা), সি ইউনিটের (বাণিজ্য) ভর্তি পরীক্ষা ১ নভেম্বর (দুপুর ১২টা থেকে-১টা) অনুষ্ঠিত হবে।

/এএম/

সম্পর্কিত

জবিতে ‘এ’ ইউনিটের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত 

জবিতে ‘এ’ ইউনিটের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত 

‘এ’ ইউনিটে প্রতি আসনে লড়বেন ১১ শিক্ষার্থী

‘এ’ ইউনিটে প্রতি আসনে লড়বেন ১১ শিক্ষার্থী

যবিপ্রবিতে ‘এ’ ইউনিটে আসন পড়েছে ৬ হাজার শিক্ষার্থীর

যবিপ্রবিতে ‘এ’ ইউনিটে আসন পড়েছে ৬ হাজার শিক্ষার্থীর

রাবির ‘বি’ ইউনিটের সংশোধিত ফলেও ‘সমস্যা’

রাবির ‘বি’ ইউনিটের সংশোধিত ফলেও ‘সমস্যা’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

হাবিপ্রবিতে ছয় মাসের সেমিস্টার শেষ হবে ৪ মাসে 

হাবিপ্রবিতে ছয় মাসের সেমিস্টার শেষ হবে ৪ মাসে 

বেরোবিতে ঢাবির ভর্তিচ্ছুরা, স্বাস্থ্যবিধি মেনে কেন্দ্রে প্রবেশ

বেরোবিতে ঢাবির ভর্তিচ্ছুরা, স্বাস্থ্যবিধি মেনে কেন্দ্রে প্রবেশ

হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই ‘হতাশার দেয়াল’ আর থাকছে না 

হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই ‘হতাশার দেয়াল’ আর থাকছে না 

বৃত্তিপ্রাপ্তদের দিতে হবে না ক্রেডিট ফি  

বৃত্তিপ্রাপ্তদের দিতে হবে না ক্রেডিট ফি  

প্রতি সেমিস্টারে ৫ হাজার টাকা গুনতে হয় হাবিপ্রবির শিক্ষার্থীদের 

প্রতি সেমিস্টারে ৫ হাজার টাকা গুনতে হয় হাবিপ্রবির শিক্ষার্থীদের 

হাবিপ্রবির স্থগিত পরীক্ষা কাল বুধবার থেকে অনলাইনে শুরু

হাবিপ্রবির স্থগিত পরীক্ষা কাল বুধবার থেকে অনলাইনে শুরু

ঈদে হাজী দানেশের বিদেশি শিক্ষার্থীদের ভিন্নরকম অভিজ্ঞতা

ঈদে হাজী দানেশের বিদেশি শিক্ষার্থীদের ভিন্নরকম অভিজ্ঞতা

প্রথম দিনেই সেশনজট নিরসনে জোর দিলেন হাবিপ্রবি উপাচার্য

প্রথম দিনেই সেশনজট নিরসনে জোর দিলেন হাবিপ্রবি উপাচার্য

সর্বশেষ

মেগা প্রকল্পের সুফল মিলবে আগামী বছর

মেগা প্রকল্পের সুফল মিলবে আগামী বছর

ভক্তদের ‘সারপ্রাইজ’ দিতে চান আইয়ুব বাচ্চুর স্ত্রী

ভক্তদের ‘সারপ্রাইজ’ দিতে চান আইয়ুব বাচ্চুর স্ত্রী

ছাত্রলীগ নেতা রকি হত্যা: প্রধান আসামিসহ গ্রেফতার ২

ছাত্রলীগ নেতা রকি হত্যা: প্রধান আসামিসহ গ্রেফতার ২

আফগানিস্তান ইস্যুতে আলোচনায় পাকিস্তানসহ পাঁচ দেশকে আমন্ত্রণ ভারতের

আফগানিস্তান ইস্যুতে আলোচনায় পাকিস্তানসহ পাঁচ দেশকে আমন্ত্রণ ভারতের

ফেনীতে বিশৃঙ্খলার ঘটনায় দুই মামলায় ৪০০ অজ্ঞাতনামা আসামি

ফেনীতে বিশৃঙ্খলার ঘটনায় দুই মামলায় ৪০০ অজ্ঞাতনামা আসামি

© 2021 Bangla Tribune