X
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

সাত জেলায় লকডাউন, গার্মেন্টস কারখানা খোলা নিয়ে ধোঁয়াশা

আপডেট : ২১ জুন ২০২১, ১৯:৩১

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে গাজীপুর ও নারায়ণগঞ্জসহ ঢাকার আশপাশের সাত জেলায় লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। তবে লকডাউনের মধ্যে এসব এলাকার রফতানিমুখী তৈরি পোশাক কারখানা চালু থাকবে— তৈরি পোশাক খাতের উদ্যোক্তারা এমনটিই মনে করলেও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রজ্ঞাপনে বিষয়টি উল্লেখ নেই। এ কারণে এখনও গার্মেন্টস কারখানা খোলা রাখা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে।

সোমবার  (২১ জুন) বিকালে  বিজিএমই’র  সভাপতি ফারুক হাসান বলেন, ‘আমরা আশা করেছিলাম— তৈরি পোশাক খাত লকডাউনের আওতার বাইরে থাকবে। তবে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের জারি করা সার্কুলারে গার্মেন্টস কারখানা খোলা রাখার বিষয়টি না থাকায় আমরা সরকারের সঙ্গে এখন আলাপ-আলোচনা চালাচ্ছি।’ কিছুক্ষণের মধ্যেই কারখানা খোলা রাখার বিষয়ে সিদ্ধান্ত পাবেন বলে জানান ফারুক হাসান।

তিনি আশা করেন, সাত জেলা লকডাউনের আওতায় সবকিছু বন্ধ থাকলেও  পোশাক কারখানা খোলা রাখা যাবে।

এদিকে বিকেএমইএ’র সহ-সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম বলেন, ‘সাত জেলায় লকডাউন ঘোষণা করা হলেও গার্মেন্টস কারখানা খোলা থাকবে।’ তিনি উল্লেখ করেন, ক্যাবিনেট সচিব ও মন্ত্রিপরিষদ সচিব তাকে জানিয়েছেন, গার্মেন্টস কারখানা বন্ধ রাখার জন্য কোনও নির্দেশনা দেওয়া হয়নি। ফলে তৈরি পোশাক খাতের কারখানা খোলা থাকবে।

এর আগে সোমবার (২১ জুন) বিকালে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানান, করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে মঙ্গলবার (২২ জুন) সকাল ৬টা থেকে দেশের ৭ জেলায় লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। আগামী ৩০ জুন (বুধবার) রাত ১২টা পর্যন্ত এ সিদ্ধান্ত কার্যকর থাকবে। এই ৯ দিন এসব জেলা একরকম ‘ব্লকড’ থাকবে।

জেলাগুলো হলো— মানিকগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, রাজবাড়ী, মাদারীপুর ও গোপালগঞ্জ। এসব জেলায় ৩০ জুন পর্যন্ত সাধারণ মানুষের চলাচল সম্পূর্ণ বন্ধ থাকবে। গণপরিবহন চলাচল করবে না। বাজার-শপিংমল বন্ধ থাকবে। সরকারি-বেসরকারি অফিসও বন্ধ থাকবে (জরুরি সরকারি অফিস ছাড়া)। এই লকডাউনের সময় কেবল আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিবহন এবং জরুরি পরিষেবায় নিয়োজিত পরিবহন চলাচল করতে পারবে।

/জিএম/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

পুঁজিবাজার বন্ধ থাকবে ১ ও ৪ আগস্ট

পুঁজিবাজার বন্ধ থাকবে ১ ও ৪ আগস্ট

আগামী রবি ও বুধবার ব্যাংক বন্ধ 

আগামী রবি ও বুধবার ব্যাংক বন্ধ 

মানসম্পন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে: বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

মানসম্পন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে: বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

টিসিবির ‘ট্রাকসেল’ সোমবার থেকে ফের শুরু

টিসিবির ‘ট্রাকসেল’ সোমবার থেকে ফের শুরু

ফেসবুকে একইনামে অর্ধশতাধিক পেজ, ‘কুটুমবাড়ি’র সুনাম ক্ষুণ্ণের অভিযোগ

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪:০১

কুটুমবাড়ি রেস্টুরেন্টের নামের সঙ্গে মিল রেখে সারাদেশে খোলা হয়েছে অসংখ্য রেস্টুরেন্ট। আর ফেসবুকে খোলা হয়েছে অর্ধশতাধিক পেজ। এতে করে মূল কুটুমবাড়ি রেস্টুরেন্টের সুনাম ক্ষুণ্ণ হয়েছে বলে অভিযোগ করেছন প্রকৃত কুটুমবাড়ি রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ। কর্তৃপক্ষ সেসব পেজের তালিকা কুটুমবাড়ির ফেসবুক পেজে প্রকাশ করে বিচার চেয়েছেন। 

কুটুমবাড়ির ফেসবুক পেজে গিয়ে দেখা যায় (বৃহস্পতিবার দুপুরে) পেজটির ফলোয়ারের সংখ্যা ৫ লাখ ২১ হাজার ৩৯৬।  পেজ থেকে বিভিন্ন সময় ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গকে দৃষ্টি আকর্ষণ করে পোস্ট দিয়েও এর প্রতিকার চাওয়া হয়েছে। 

কুটুমবাড়ি লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক গাজী খালেদ ইবনে মোহাম্মদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, কুটুমবাড়ি রেস্টুরেন্টের কপিরাইট পেয়েছি ২০১২ সালে, ট্রেডমার্ক নিবন্ধন করিয়েছি ২০১৩ সালে। তারপরও কুটুমবাড়ির নামে সারাদেশে রেস্টুরেন্ট চালু করা হয়েছে। সেইসব রেস্টুরেন্টের নামে ফেসবুকে পেজও খোলা হয়েছে। ফেসবুক বরাবর আমরা কপিরাইট, ট্রেডমার্ক নিবন্ধনের কপি পাঠিয়েছি, অভিযোগ করেছি বহুবার। তারপরও ওসব পেজ বন্ধ করা হয়নি।  এতে করে আমার প্রতিষ্ঠানের সুনাম ক্ষুণ্ণ হয়েছে। আর্থিক দিক দিয়ে আমি দারুণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি।  

তিনি আরও জানান, এ পর্যন্ত ফেসবুকে ৬৮টি ভুয়া কুটুমবাড়ি পেজের তালিকা পাঠিয়েছেন। যদিও তার দাবি এ সংখ্যা ৮০ থেকে ৮৫টি। পরবর্তীতে সেসব তালিকাও পাঠানো হবে। 

গাজী খালেদ ইবনে মোহাম্মদের অভিযোগ, তিনি নিয়ম মেনে যথাযথ প্রক্রিয়ায় উপযুক্ত কাগজপত্রসহ একাধিকবার ফেসবুকের কাছে আবেদন করেছেন পেজটি ভেরিফায়েড করার জন্য কিন্তু ফেসবুক তার আবেদনটি মূল্যায়ন করেনি।  পেজটি ভেরিফায়েড হলে গ্রাহকরা বুঝতে পারতো কোনটি আসল। এ কাজটি না করায় ফেসবুক তার বিশাল ক্ষতি করেছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

পরবর্তী পদক্ষেপ হিসেবে তিনি বিষয়টি সুরাহার জন্য আদালতের শরণাপন্ন হবেন বলে জানান। 

জানা গেছে, বর্তমানে কুটুমবাড়ির দুটি শাখা আছে। রাজধানীর লালমাটিয়ার শাখাটি করোনার প্রাদুর্ভাবের পরে ব্যবসায়িক চিন্তাভাবনা থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এর বাইরে কুটুমবাড়ির কোথাও কোনও শাখা নেই। অথচ প্রায় সারাদেশেই কুটুমবাড়ি নামের রেস্টুরেন্ট আছে। 

গাজী খালেদ ইবনে মোহাম্মদ জানান, চট্টগ্রামে কুটুমবাড়ি নামের রেস্টুরেন্টে টয়লেটের সামনে মুরগি প্রসেস করে সেই ছবি ফেসবুক পেজে শেয়ার করেছে। এতে করে গ্রাহকের কাছে কী বার্তা গেলো, যে কুটুমবাড়ি এ ধরনের কাজ করে।  কাজটি করলো অন্যরা আর ক্ষতির শিকার হলাম আমি। এটা তো মেনে নেওয়া যায় না।  

ফেসবুকের বিরুদ্ধে উকিল নোটিশ

এর আগে ব্যবসায়িক ক্ষতির কারণে কুটুমবাড়ি রেস্টুরেন্ট লিমিটেড কর্তৃপক্ষ ফেসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গের কাছে আট লাখ ডলার ক্ষতিপূরণ চেয়ে একটি উকিল নোটিশ পাঠায়। ২০২০ সালের ৭ ডিসেম্বর কুটুমবাড়ির পক্ষে সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী কাজী জয়নাল আবেদীন নোটিশটি পাঠান। ওই নোটিশ পাওয়ার পরে ফেসবুকের পক্ষে ব্যারিস্টার তাজকিয়া লাবিবা করিম চলতি বছরের ২৮ জানুয়ারি জবাব দেন। জবাবে ফেসবুক বলে, ফেসবুক পরিষেবার শর্তাদি, কপিরাইট ও ট্রেডমার্কসহ অন্য কারও ইন্টেলেকচুয়াল সম্পত্তির অধিকার লঙ্ঘন করে এমন পোস্ট করার অনুমতি দেয় না।  

গাজী খালেদ ইবনে মোহাম্মদ বলেন, কিন্তু ওই পর্যন্তই। ফেসবুক কোনও ক্ষতিপূরণ তো দেয়ইনি, ওইসব ভুয়া পেজগুলো বন্ধের কোনও উদ্যোগ নেয়নি। বরং ২০১৪ সালে খোলা তাদের পেজটি এ পর্যন্ত কয়েকবার হ্যাকিংয়ের শিকার হয়েছে।  

 

 

/এইচএএইচ/এনএইচ/   

সম্পর্কিত

পর পর দুই মাস বাড়লো এলপিজি-অটোগ্যাসের দাম

পর পর দুই মাস বাড়লো এলপিজি-অটোগ্যাসের দাম

অনলাইনে ভ্যাট দিতে চায় ফেসবুক

অনলাইনে ভ্যাট দিতে চায় ফেসবুক

ঋণ বিতরণে বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন নির্দেশনা

ঋণ বিতরণে বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন নির্দেশনা

জ্বালানি ১০৪ আর বিদ্যুৎ ৯৭ ভাগ এডিপি বাস্তবায়ন করেছে

জ্বালানি ১০৪ আর বিদ্যুৎ ৯৭ ভাগ এডিপি বাস্তবায়ন করেছে

পর পর দুই মাস বাড়লো এলপিজি-অটোগ্যাসের দাম

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৩:৪৯

আবারও দাম বাড়লো এলপিজি ও অটোগ্যাসের। বেসরকারি পর্যায়ে এলপিজির দাম প্রতিকেজি ৭৭ টাকা ৪০ পয়সা ধরে ১২ কেজি সিলিন্ডারের দাম মূসকসহ ৯৯৩ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। যা জুলাই মাসে ছিল ৮৯১ টাকা এবং জুন মাসে ছিল ৮৪২ টাকা। এদিকে প্রতি লিটার অটোগ্যাসের দাম প্রতি লিটার ৪৪ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৪৮ টাকা ৭১ পয়সা নির্ধারণ করেছে হয়েছে। আগামী ১ আগস্ট থেকে এ দাম কার্যকর হবে।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) অনলাইনে এক সংবাদ সম্মেলনে ভোক্তা পর্যায়ে এলপিজির তৃতীয়বারের মতো দামের এই আদেশ দেয় বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)। এসময় বিইআরসি’র চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল, কমিশনের সদস্য মোহাম্মদ আবু ফারুক, মকবুল-ই এলাহী, বজলুর রহমান, কামরুজ্জামান, সচিব রুবিনা ফেরদৌসীসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এর বাইরে ৫.৫, ১২.৫, ১৫, ১৬, ১৮, ২০, ২৫, ৩০, ৩৩, ৩৫ ও ৪৫ কেজি এলপিজির দামও বিইআরসি আদেশে পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে।

তবে সরকারি পর্যায়ে সাড়ে ১২ কেজি সিলিন্ডারের দাম আগের মতোই ৫৯১ টাকা থাকবে। যেহেতু এই দামের সঙ্গে সৌদি সিপির কোনও সম্পর্ক নেই। যা কমিশনের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।

এদিকে আবাসিক এ শিল্পে কেন্দ্রীয়ভাবে এলপিজির ব্যবহার শুরু হয়েছে। নতুন পদ্ধতিতে একসঙ্গে বাসা বা কারখানার নিচে বা পাশে বড় সিলিন্ডার থেকে এলপি গ্যাস ব্যবহার করা হচ্ছে। এই সিলিন্ডার থেকে পাইপলাইনের মাধ্যমে বাসায় বাসায় বা কারখানায় সরবরাহ করা হচ্ছে গ্যাস। এটির দামও কমিশন পুনর্নির্ধারণ করে।

এই রেটিকুলেটেড সিস্টেমে সরবরাহ করা এলপিজির দাম ভোক্তা পর্যায়ে মূসক ছাড়া প্রতিকেজি ৬৭ টাকা ২৭ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৭৫ টাকা ১৯ পয়সা এবং মূসকসহ ৭১ টাকা ৯৪ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৮০ টাকা ৪৩ পয়সা অথবা লিটার হিসাবে প্রতি লিটার মূসক ছাড়া ০ দশমিক ১৪৯৪ টাকা থেকে বাড়িয়ে ০ দশমিক ১৬৭১ টাকা এবং মূসকসহ প্রতি লিটার ০ দশমিক ১৫৯৭ টাকা থেকে বাড়িয়ে ০ দশমিক ১৭৮৭ টাকা পুনর্নির্ধারণ করেছে কমিশন।

বিইআরসি’র চেয়ারম্যান জানান, বিইআরসি আইনের অনুচ্ছেদ ক অনুযায়ী জুলাই মাসের জন্য সৌদি আরামকো কর্তৃক প্রোপেন ও বিউটেনের ঘোষিত সৌদি সিপি যথাক্রমে প্রতি মেট্রিক টন ৬২০ ডলার এবং ৬২০ ডলার অনুযায়ী প্রোপেন ও বিউটেনের মিশ্রণ অনুপাত ৩৫:৬৫ বিবেচনায় প্রোপেন ও বিউটেনের গড় সৌদি সিপি প্রতি মেট্রিক টন ৬২০ ডলার বিবেচনা করে এই দাম নির্ধারণ করা হয়েছে।

জুন মাসে এই প্রোপেন ও বিউটেনের ঘোষিত সৌদি সিপির দাম ছিল যথাক্রমে প্রতি মেট্রিক টন ৫৩০ ডলার এবং ৫২৫ ডলার। এ অনুযায়ী জুন মাসে প্রোপেন ও বিউটেনের মিশ্রণ অনুপাত ৩৫:৬৫ বিবেচনায় প্রোপেন ও বিউটেনের গড় সৌদি সিপি প্রতি মেট্রিক টন ৫২৬.৭৫ ডলার বিবেচনা করে দাম নির্ধারণ করা হয়েছিল।

প্রসঙ্গত, গত ১২ এপ্রিল প্রথমবারের মতো এলপিজির দাম নির্ধারণের ঘোষণা দেয় কমিশন। সাধারণত সৌদি সিপি (কন্ট্রাক্ট প্রাইস) অনুযায়ী দেশে এলপিজির দাম নির্ধারিত হয়। প্রতি মাসের শেষে যখন সৌদি সিপির দাম পরিবর্তন হয়, তখন কমিশন এলপিজির দাম পরিবর্তনের বিষয়ে নতুন করে আদেশ দেয় কমিশন। 

বিইআরসি’র চেয়ারম্যান বলেন, দাম পূনঃনির্ধারণ করা হলেও গত ১২ এপ্রিল এলপিজির সংক্রান্ত অন্যান্য যেসব আদেশ কমিশন দিয়েছিল তা অপরিবর্তিত থাকবে।

দাম কার্যকরের বিষয়ে তিনি বলেন, আমাদের একটি মাত্র অফিস, জনবল কম। সবার সহযোগিতা ছাড়া এই দাম একা কমিশনের পক্ষে বাস্তবায়ন করা সম্ভব নয়। 

এলপিজি এসোসিয়েশন লোয়াব এই দাম মানতে চায় না। তারা নতুন করে দাম নির্ধারণের আবেদন করেছিল। সে বিষয়ে চেয়ারম্যান বলেন, ২০-২২টি লাইসেন্সি আবেদন করেছে। তা আমরা গ্রহণ করেছি। গ্রহণ করলে শুনানি করতে হয়। আমরা ৭ জুলাই শুনানির তারিখ ঠিক করলেও করোনার পরিস্থিতি বিবেচনা করে শুনানি পেছানো হয়েছে। অনলাইনে করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু আবেদনকারীদের অনেকেই তাতে রাজি হয়নি। এই কারণে গত ২৭ জুলাই মিটিং করেছিলাম। সভায় আগামী ৫ তারিখ লকডাউন শেষ হলে দ্রুত শুনানির তারিখ দিয়ে শুনানি করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। 

 

 

/এসএনএস/এনএইচ/

সম্পর্কিত

ফেসবুকে একইনামে অর্ধশতাধিক পেজ, ‘কুটুমবাড়ি’র সুনাম ক্ষুণ্ণের অভিযোগ

ফেসবুকে একইনামে অর্ধশতাধিক পেজ, ‘কুটুমবাড়ি’র সুনাম ক্ষুণ্ণের অভিযোগ

অনলাইনে ভ্যাট দিতে চায় ফেসবুক

অনলাইনে ভ্যাট দিতে চায় ফেসবুক

ঋণ বিতরণে বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন নির্দেশনা

ঋণ বিতরণে বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন নির্দেশনা

জ্বালানি ১০৪ আর বিদ্যুৎ ৯৭ ভাগ এডিপি বাস্তবায়ন করেছে

জ্বালানি ১০৪ আর বিদ্যুৎ ৯৭ ভাগ এডিপি বাস্তবায়ন করেছে

অনলাইনে ভ্যাট দিতে চায় ফেসবুক

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৩:২৮

অনলাইন পেমেন্ট সিস্টেমের মাধ্যমে মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) প্রদানের অনুমতি দেওয়ার জন্য জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে (এনবিআর) অনুরোধ করেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক। ফেসবুকের স্থানীয় প্রতিনিধির মাধ্যমে পাঠানো এক চিঠিতে এই অনুরোধ করা হয়েছে।

বর্তমানে অনাবাসী বিদেশি সংস্থা হিসেবে তাদের বিদেশি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে সরাসরি কিংবা অনলাইনে অর্থ প্রদানের মাধ্যমে ভ্যাট পরিশোধের অনুমতি নেই।

বিদ্যমান প্রক্রিয়া অনুসারে, করদাতাদের চেকের মাধ্যমে নির্দিষ্ট ব্যাংকে ট্রেজারি চালানসহ ভ্যাট রিটার্ন দাখিল করতে হয়। কোভিড মহামারি পরিস্থিতিতে দীর্ঘ প্রক্রিয়ার বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে অনলাইনে সরাসরি ভ্যাট গ্রহণ করার দাবি করেছে ফেসবুক।

এর আগে গত ১৩ জুন ভ্যাট পরিশোধ ও ভ্যাট রিটার্ন জমা দেওয়াসহ সরাসরি ভ্যাট সংক্রান্ত সেবা পেতে বিজনেস আইডেন্টিফিকেশন নম্বর (বিআইএন) নেয় ফেসবুক। অনলাইনে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ফেসবুক তিনটি পৃথক বিআইএন নিবন্ধন পেয়েছে। যে তিন প্রতিষ্ঠানের নামে নিবন্ধন নিয়েছে সেগুলো হচ্ছে- ফেসবুক টেকনোলজিস আয়ারল্যান্ড লিমিটেড, ফেসবুক আয়ারল্যান্ড লিমিটেড এবং ফেসবুক পেমেন্টস ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড।

বর্তমানে ভ্যাট আইন অনুযায়ী, ভ্যাট পরিশোধের ক্ষেত্রে স্থানীয় ভ্যাট এজেন্টরা দায়বদ্ধ।

/জিএম/এমএস/

সম্পর্কিত

৩৩ লাখ টাকা সরকারি কোষাগারে জমা দিলো টেপটেলস রেস্টুরেন্ট

৩৩ লাখ টাকা সরকারি কোষাগারে জমা দিলো টেপটেলস রেস্টুরেন্ট

দেশে ফেসবুকনির্ভর উদ্যোক্তা ৫০ হাজার: সিপিডি

দেশে ফেসবুকনির্ভর উদ্যোক্তা ৫০ হাজার: সিপিডি

ভ্যাট কমলো রেস্তোরাঁয়

ভ্যাট কমলো রেস্তোরাঁয়

৫ কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগ ‘মেলোনেডস’ এর বিরুদ্ধে

৫ কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগ ‘মেলোনেডস’ এর বিরুদ্ধে

ঋণ বিতরণে বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন নির্দেশনা

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ২৩:১৩

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠান দুর্বল হয়ে যাচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে স্বল্প সংখ্যক গ্রাহকদের মধ্যে কেন্দ্রীভূত না করে ক্ষতিগ্রস্ত অধিক সংখ্যক প্রতিষ্ঠানকে ঋণ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। বুধবার (২৮ জুলাই) বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করা হয়েছে।

সার্কুলারে  বলা হয়েছে, শিল্প ও সার্ভিস সেক্টরের যেসব প্রতিষ্ঠান (সিএমএসএমই ব্যতীত) করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে শুধুমাত্র সেসব প্রতিষ্ঠান এ প্যাকেজের আওতায় সুবিধা প্রাপ্য হচ্ছে। প্যাকেজের আওতায় সীমাতিরিক্ত চাহিদার বিপরীতে ঋণ দেওয়ার ক্ষেত্রে অপেক্ষাকৃত বেশি ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিষ্ঠানকে অগ্রাধিকার দিতে হবে। এছাড়া ক্ষতিগ্রস্ত অধিক সংখ্যক প্রতিষ্ঠান যাতে এ প্যাকেজের আওতায় ঋণ সুবিধা ভোগ করতে পারে সে বিষয়টিকে গুরুত্ব দেওয়ার জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

বিআরপিডি সার্কুলার অনুযায়ী, গ্রাহকের প্রয়োজনীয় ঋণ এক বছরে প্রদান করা সম্ভব না হলে অবশিষ্ট প্রাপ্য অর্থ প্যাকেজের অবশিষ্ট মেয়াদের মধ্যে প্রদানের সুযোগ রয়েছে।

এতে আরও বলা হয়েছে, প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় ২০২১-২০২২ অর্থবছরের জন্য প্রদত্ত ঋণ সুবিধা স্বল্প সংখ্যক গ্রাহকদের মধ্যে কেন্দ্রীভূত না করে ক্ষতিগ্রস্ত অধিক সংখ্যক প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে উক্ত সুবিধা প্রদান নিশ্চিত করার নির্দেশনা প্রদান করা যাচ্ছে। ঋণ সুবিধা প্রদানের ক্ষেত্রে শিল্প ও সার্ভিস সেক্টরের ক্ষতিগ্রস্ত যেসব প্রতিষ্ঠান এ প্যাকেজের আওতায় অদ্যাবধি সুবিধা প্রাপ্ত হয়নি সেসব প্রতিষ্ঠানকে অগ্রাধিকার দিতে হবে।

 

/জিএম/এমআর/

সম্পর্কিত

আগামী রবি ও বুধবার ব্যাংক বন্ধ 

আগামী রবি ও বুধবার ব্যাংক বন্ধ 

দেড় বছর কিস্তি না দিলেও গ্রাহকরা ঋণখেলাপি হবে না

দেড় বছর কিস্তি না দিলেও গ্রাহকরা ঋণখেলাপি হবে না

আর্থিক প্রতিষ্ঠানের এমডিরা দীর্ঘ সময়ের জন্য বিদেশে যেতে পারবেন না

আর্থিক প্রতিষ্ঠানের এমডিরা দীর্ঘ সময়ের জন্য বিদেশে যেতে পারবেন না

ব্যাংক খোলা, লেনদেন দেড়টা পর্যন্ত

ব্যাংক খোলা, লেনদেন দেড়টা পর্যন্ত

জ্বালানি ১০৪ আর বিদ্যুৎ ৯৭ ভাগ এডিপি বাস্তবায়ন করেছে

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ১৯:৫২

২০২০-২১ অর্থবছরে বিদ্যুৎ বিভাগ ৯৭ দশমিক ৭ ভাগ এবং জ্বালানি বিভাগ ১০৪ দশমিক ২৭ ভাগ এডিপি বাস্তবায়ন করেছে। বিদ্যুৎ বিভাগে  আরএডিপিতে ২৪ হাজার ৭৬৮ দশমিক ২২ কোটি টাকা বরাদ্দ ছিল। অর্থ বিভাগ নির্ধারিত ব্যয়সীমা ছিল মোট ২৩ হাজার ৬১৩ দশমিক ২১ কোটি টাকা। জুন পর্যন্ত ব্যয় হয়েছে মোট ২৩ হাজার ৭৯ দশমিক ৬০ কোটি টাকা। একইভাবে জ্বালানিতে বরাদ্দ ছিল ২ হাজার ৯৫৮ দশমিক ৪৬ কোটি টাকা কিন্তু ব্যয় করা হয়েছে ৩ হাজার ৮৪ দশমিক ৭৩ কোটি টাকা।

বুধবার (২৮ জুলাই) অনলাইনে উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর জুলাই ২০২০ থেকে জুন ২০২১ পর্যন্ত বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা সভায় এসব তথ্য জানানো হয়।

বিদ্যুৎ বিভাগের সভায় বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, গ্রাহকসেবা সমৃদ্ধ প্রকল্প গ্রহণ করে দ্রুত বাস্তবায়নে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। উৎপাদন, সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থার মাঝে সমন্বয় করে প্রকল্প গ্রহণ করা উচিৎ। রোডম্যাপ অনুসারে প্রকল্প বাস্তবায়নে তদারকি বাড়ানো প্রয়োজন।

‘বিদ্যুৎ বিভাগের উন্নয়ন প্রকল্প সমূহের জুলাই ২০২০ থেকে জুন ২০২১ পর্যন্ত বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা’ সভায় অন্যদের মধ্যে বিদ্যুৎ সচিব মো. হাবিবুর রহমান, পিডিবির চেয়ারম্যান বেলায়েত হোসেন, আরইবির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মঈন উদ্দিন (অব.), পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসেনসহ অন্যান্য দফতর প্রধানরা বক্তব্য রাখেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, পরিস্থিতি বিবেচনায় বিদ্যুৎ বিভাগ এবং জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের অগ্রগতি সন্তোষজনক । মে মাসেই যেন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়—এই রোড ম্যাপ বাস্তবায়ন করতে প্রকল্প সংশ্লিষ্টদের আন্তরিক হয়ে কাজ করা  প্রয়োজন। এডিপি বাস্তবায়নে আরএডিপি বরাদ্দের শতভাগ/সর্বোচ্চ বাস্তবায়নের জন্য সংস্থা প্রধানসহ সকল প্রকল্প পরিচালককে জোরালো প্রচেষ্টা গ্রহণ করতে হবে।

বিদ্যুৎ বিভাগের পক্ষ থেকে সভায় জানানো হয়, তাদের ২০২০-২১ অর্থ বছরের আরএডিপিতে ২৪ হাজার ৭৬৮ দশমিক ২২ কোটি টাকা (জিওবিতে ১০ হাজার ৮০০ দশমিক ১৮ কোটি, পিএ খাতে ১২ হাজার ৯৫৯ দশমিক ৯৯ কোটি ও নিজস্ব অর্থায়নে ১০০৮ দশমিক ০৫ কোটি টাকা ) বরাদ্দ ছিল। অর্থ বিভাগ কর্তৃক নির্ধারিত ব্যয়সীমা জিওবিতে ৯ হাজার ৬৪৫ দশমিক ১৭ কোটি, পিএ খাতে ১২ হাজার ৯৫৯ দশমিক ৯৯ কোটি ও নিজস্ব অর্থায়নে ১ হাজার ৮ দশমিক ০৫ কোটি অর্থাৎ মোট ২৩ হাজার ৬১৩ দশমিক ২১ কোটি টাকা নির্ধারিত ছিল। জুন ২০২১ পর্যন্ত ব্যয়  জিওবিতে ৯ হাজার ৪৯৩ দশমিক ০৪ কোটি, পিএ খাতে ১২ হাজার ৭৭২ দশমিক ৪৫ কোটি ও নিজস্ব অর্থায়নে ৮১৪ দশমিক ১৪ কোটি অর্থাৎ মোট ২৩ হাজার ৭৯ দশমিক ৬০ কোটি টাকা। আরএডিপি বরাদ্দ অনুযায়ী জুন ২০২১ পর্যন্ত ব্যয়ের শতকরা হার ৯৩ দশমিক ১৮ ভাগ আর সিলিং অনুযায়ী জুন ২০২১ পর্যন্ত ব্যয়ের শতকরা হার ৯৭ দশমিক ৭৪ ভাগ। অর্থাৎ আর্থিক অগ্রগতি ৯৭ দশমিক ৭৪ ভাগ।  বিদ্যুৎ বিভাগ চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরে মোট ৯৭টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে । এরমধ্যে বিনিয়োগ ৮২টি, টি.এ ১০ টি ও নিজস্ব অর্থায়নে ৫ টি প্রকল্প রয়েছে।

এদিকে আজ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. আনিছুর রহমানের সভাপতিত্বে ‘জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের আওতাধীন  ২০২০-২১ অর্থ বছরের আরএডিপিতে  জিওবি ও বৈদেশিক সহায়তাপুষ্ট, সংস্থার নিজস্ব অর্থায়ন এবং গ্যাস উন্নয়ন তহবিলভুক্ত প্রকল্পগুলোর জুন ২০২১ পর্যন্ত  বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা’ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় এসব তথ্য জানানো হয়।

জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ জানায়, তাদের ২০২০-২১ অর্থবছরে মোট ৩০টি প্রকল্প বাস্তবায়িত হয়েছে। এর মধ্যে জিওবি ও বৈদেশিক সহায়তাপুষ্ট ৮টি,  নিজস্ব অর্থায়নে ১৬টি ও জিডিএফ (গ্যাস উন্নয়ন তহবিল) ৬টি প্রকল্প ছিল।  ২০২০-২১ অর্থ বছরের জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগে আরএডিপি বরাদ্দ ছিল ২ হাজার ৯৫৮ দশমিক ৪৬ কোটি টাকা কিন্তু ব্যয় করা হয়েছে ৩ হাজার ৮৪ দশমিক ৭৩ কোটি টাকা। অর্থাৎ আর্থিক অগ্রগতি ১০৪ দশমিক ২৭ ভাগ।  যদিও আরএডিপি অনুমোদনের পর আরও ১১টি প্রকল্প অনুমোদিত হয়েছে।

 

/এসএনএস/এমআর/

সম্পর্কিত

ফেসবুকে একইনামে অর্ধশতাধিক পেজ, ‘কুটুমবাড়ি’র সুনাম ক্ষুণ্ণের অভিযোগ

ফেসবুকে একইনামে অর্ধশতাধিক পেজ, ‘কুটুমবাড়ি’র সুনাম ক্ষুণ্ণের অভিযোগ

পর পর দুই মাস বাড়লো এলপিজি-অটোগ্যাসের দাম

পর পর দুই মাস বাড়লো এলপিজি-অটোগ্যাসের দাম

অনলাইনে ভ্যাট দিতে চায় ফেসবুক

অনলাইনে ভ্যাট দিতে চায় ফেসবুক

ঋণ বিতরণে বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন নির্দেশনা

ঋণ বিতরণে বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন নির্দেশনা

সম্পর্কিত

চাঁদপুর হাসপাতালে ৮ ঘণ্টায় ৭ মৃত্যু

চাঁদপুর হাসপাতালে ৮ ঘণ্টায় ৭ মৃত্যু

কুষ্টিয়ায় আরও ১১ মৃত্যু

কুষ্টিয়ায় আরও ১১ মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ২৪ ঘণ্টায় ১৬ মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ২৪ ঘণ্টায় ১৬ মৃত্যু

এখনও ভেঙে ভেঙে রাজধানীতে আসছে মানুষ

এখনও ভেঙে ভেঙে রাজধানীতে আসছে মানুষ

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৭ মৃত্যু 

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৭ মৃত্যু 

শের-ই বাংলা মেডিক্যালে আরও ১২ মৃত্যু

শের-ই বাংলা মেডিক্যালে আরও ১২ মৃত্যু

কুমিল্লায় কাভার্ডভ্যান উল্টে দুই শ্রমিকসহ নিহত ৩ 

কুমিল্লায় কাভার্ডভ্যান উল্টে দুই শ্রমিকসহ নিহত ৩ 

পোশাক কারখানা খোলার দাবিতে মন্ত্রিপরিষদ সচিবের সঙ্গে ব্যবসায়ী নেতাদের বৈঠক

পোশাক কারখানা খোলার দাবিতে মন্ত্রিপরিষদ সচিবের সঙ্গে ব্যবসায়ী নেতাদের বৈঠক

সর্বশেষ

প্রতিদিন দুই ঘণ্টা করে টানা ১০ বছর সম্প্রচার!

প্রতিদিন দুই ঘণ্টা করে টানা ১০ বছর সম্প্রচার!

বীর মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে হত্যা, তিন ছেলেকে কুপিয়ে জখম

বীর মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে হত্যা, তিন ছেলেকে কুপিয়ে জখম

কত প্রকার মাদক আছে দেশে?

মাদক ভয়ংকর-৪কত প্রকার মাদক আছে দেশে?

কিশোরীকে বিভিন্নস্থানে আটকে রেখে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ 

কিশোরীকে বিভিন্নস্থানে আটকে রেখে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ 

'বাঘের জীবন রক্ষায় সুন্দরবন রক্ষা জরুরি'

আজ আন্তর্জাতিক বাঘ দিবস'বাঘের জীবন রক্ষায় সুন্দরবন রক্ষা জরুরি'

চুক্তিতে কিলিং মিশনে কাজ করতো তারা

চুক্তিতে কিলিং মিশনে কাজ করতো তারা

ঘরের আড়ায় ঝুলছিল অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর লাশ 

ঘরের আড়ায় ঝুলছিল অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর লাশ 

ফকিরাপুলে হোটেল থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার

ফকিরাপুলে হোটেল থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

পুঁজিবাজার বন্ধ থাকবে ১ ও ৪ আগস্ট

পুঁজিবাজার বন্ধ থাকবে ১ ও ৪ আগস্ট

আগামী রবি ও বুধবার ব্যাংক বন্ধ 

আগামী রবি ও বুধবার ব্যাংক বন্ধ 

মানসম্পন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে: বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

মানসম্পন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে: বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

টিসিবির ‘ট্রাকসেল’ সোমবার থেকে ফের শুরু

টিসিবির ‘ট্রাকসেল’ সোমবার থেকে ফের শুরু

চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে সরকারের কোনও উদ্যোগই কাজে আসেনি

চালের বাজার নিয়ন্ত্রণে সরকারের কোনও উদ্যোগই কাজে আসেনি

© 2021 Bangla Tribune