X
রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

করোনায় আক্রান্তদের গুয়ানতানামো পাঠাতে চেয়েছিলেন ট্রাম্প

আপডেট : ২২ জুন ২০২১, ১৭:৫৫
image

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মার্কিন নাগরিকদের গুয়ানতানামো বে’তে পাঠানোর কথা বিবেচনা করেছিলেন সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। নতুন একটি বইতে দাবি করা হয়েছে ২০২০ সালের ফ্রেব্রুয়ারিতে সিচুয়েশন রুমে ট্রাম্প কর্মকর্তাদের কাছে জানতে চান, ‘আমাদের কোনও দ্বীপ নেই? গুয়ানতানামোর অবস্থা কী?’ মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্টের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

কিউবার গুয়ানতানামো বে যুক্তরাষ্ট্রের মালিকানাধীন একটি আটক কেন্দ্র। মারাত্মক অপরাধে যুক্ত সন্দেহভাজনদের এখানে আটক রাখা হয়। ৯/১১ হামলায় অভিযুক্তদেরও এখানে আটক রাখা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন দেশের যুদ্ধ বন্দিদের আটক রাখে মার্কিন কর্তৃপক্ষ।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণ মারাত্মক আকার নেওয়ার আগেই ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ‘আমরা পণ্য আমদানি করি। একটা ভাইরাস আমদানি করতে যাবো না।’ পরে নিজেও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন ট্রাম্প।

করোনাভাইরাসের মহামারি মোকাবিলায় পদক্ষেপের কারণে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়ে ট্রাম্প প্রশাসন। জনস হপিকন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য অনুসারে এই মহামারিতে যুক্তরাষ্ট্রের ৬ লাখ এক হাজারেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে চার লাখের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে ট্রাম্পের আমলে।

ওয়াশিংটন পোস্টের খবরে বলা হয়েছে, ট্রাম্প গুয়ানতানামো বে’র প্রসঙ্গ তুললে অবাক হয়ে যান তার কর্মকর্তারা। দ্বিতীয়বার তিনি একই প্রস্তাব তুললে তা বাতিল করে দেন তারা।

নতুন এই বইটি লিখেছেন ওয়াশিংটন পোস্টের দুই সাংবাদিক ইয়াসমিন আবুতালেব এবং দামিয়ান পালেত্তা। ‘নাইটমেয়ার সিনারিও: ইনসাইড দ্য ট্রাম্প অ্যাডমিনিস্ট্রেশন’স রেসপন্সন টু দ্য প্যানডেমিক দ্যাট চেঞ্জ দ্য হিস্টোরি’ শিরোনামের বইটি ট্রাম্পের সাবেক উপদেষ্টা ও স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের সাক্ষাৎকারের ভিত্তিতে লেখা হয়েছে।

গত বছরের ১৮ মার্চ তৎকালীন হেলথ অ্যান্ড হিউম্যান সার্ভিস সেক্রেটারি অ্যালেক্স আজারকে ট্রাম্প বলেছিলেন, ‘পরীক্ষার কারণে আমি মারা যাচ্ছি। পরীক্ষার কারণে নির্বাচনে আমি হারবো! কেন্দ্রীয় সরকার পরীক্ষা করে করছেটা কী?’ তার পাঁচদিন আগে ট্রাম্পের জামাতা জারেড কুশনার যুক্তরাষ্ট্রের পরীক্ষা নীতির দায়িত্ব নেন। সেই দিকে ইঙ্গিত করে আজার জবাব দেন, ‘আপনি কি জারেডকে কিছু বলছেন?’

বইটিতে আরও দাবি করা হয়েছে একটি ক্রুজি শিপে করোনায় আক্রান্ত ১৪ মার্কিন নাগরিককে যুক্তরাষ্ট্রে ফেরার অনুমোদন দেওয়ায় সেই সময় ডিপার্টমেন্ট অব হেলথ অ্যান্ড হিউম্যান সার্ভিসের জরুরি প্রস্তুতি বিষয়ক প্রধান রবার্ট ক্যাডলেক এবং পররাষ্ট্র দফতরের এক সিনিয়র কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করতে চেয়েছিলেন ট্রাম্প। তবে শেষ পর্যন্ত অন্য কর্মকর্তাদের বিরোধিতায় তার সেই চেষ্টা সফল হয়নি।

/জেজে/

সম্পর্কিত

ইরাকের মাটিতে মার্কিন সেনার প্রয়োজন নেই: প্রধানমন্ত্রী আল-খাদিমি

ইরাকের মাটিতে মার্কিন সেনার প্রয়োজন নেই: প্রধানমন্ত্রী আল-খাদিমি

দেশে দেশে লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভ

দেশে দেশে লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভ

তালেবানের উত্থান, আফগানিস্তানে কারফিউ জারি

তালেবানের উত্থান, আফগানিস্তানে কারফিউ জারি

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

লকডাউনের বিরোধিতাকারীদের ‘স্বার্থপর’ বললেন অস্ট্রেলীয় প্রধানমন্ত্রী

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ১৮:৪৫

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে জারি করা বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে বিক্ষোভের নিন্দা জানিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার রাজনীতিকরা। শনিবার সিডনিতে কয়েক হাজার মানুষ মিছিল করে লকডাউন প্রত্যাহারের দাবি জানান। ছোট আকারের বিক্ষোভ হয়েছে মেলবোর্ন ও ব্রিসবেনে। বিক্ষোভে অংশ নেওয়ার কারণে অন্তত ৫৭ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ ও পাঁচ শতাধিককে জরিমানা করা হয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এখবর জানিয়েছে।

রবিবার নিউ সাউথ ওয়েলসের প্রিমিয়ার গ্ল্যাডিস বেরেজিকলিয়ান বলেছেন, বিক্ষোভকারীদের লজ্জিত হওয়া উচিত। রাজ্যের লাখ লাখ মানুষ সঠিক কাজ করছেন। এই বিক্ষোভকারীরা নিজেদের নাগরিকদের অবজ্ঞা করায় আমার মন ভেঙে গেছে।

রাজ্যটিতে রবিবার ১৪১ জন নতুন আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে। যা এই বছরের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। শনিবারের বিক্ষোভের পর আক্রান্তের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

কর্তৃপক্ষ চলমান লকডাউনের মেয়াদ আরও বাড়াতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। চলমান লকডাউনের মেয়াদ শেষ হবে ৩০ জুলাই।

সম্প্রতি ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট মোকবিলায় পুনরায় বিধিনিষেধ জারির পর অস্ট্রেলিয়ার প্রায় ১ কোটি ৩০ লাখ মানুষ আবারও লকডাউনের আওতায় পড়েছেন।  

দেশটির মাত্র ১৪ শতাংশের কম মানুষ পুরোপুরি টিকা নিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় দেশগুলোর তুলনায় অস্ট্রেলিয়ায় টিকাদানের হার অনেক কম।

টিকা কর্মসূচি নিয়ে সমালোচনার মুখে থাকা অস্ট্রেলীয় প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন নর্থ সাউথ ওয়েলসকে আরও ডোজ দেওয়ার অঙ্গীকার করেছেন। কিন্তু তিনি বলেছেন, দেশজুড়ে টিকাদানকে বিঘ্নিত কার যাবে না। আক্রান্তের সংখ্যা কমে গেলেই কেবল লকডাউন প্রত্যাহার করা হবে।

শনিবার বিক্ষোভে অংশগ্রহণকারীদের ‘স্বার্থপর’ এবং ‘নিজেরাই-পরাজিত’ বলে উল্লেখ করেছেন। তিনি বলেন, বিক্ষোভের ফলে লকডাউন আরও দীর্ঘায়িত হওয়ার ঝুঁকি বাড়িয়েছে মাত্র।

রবিবার সিডনি পুলিশ জানায়, বিক্ষোভের সময় পুলিশের ঘোড়াকে আঘাতের জন্য দুই ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে। ৩৩ ও ৩৬ বছর বয়সের এই দুই ব্যক্তির আজ আদালতে হাজির হওয়ার কথা।

/এএ/

সম্পর্কিত

যুক্তরাজ্যে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত

যুক্তরাজ্যে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত

দেশে দেশে লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভ

দেশে দেশে লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভ

শীতে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট আসবে! আশঙ্কা ফরাসি বিশেষজ্ঞের

শীতে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট আসবে! আশঙ্কা ফরাসি বিশেষজ্ঞের

ডেল্টার দাপট অস্ট্রেলিয়ায়, জরুরি অবস্থা ঘোষণা

ডেল্টার দাপট অস্ট্রেলিয়ায়, জরুরি অবস্থা ঘোষণা

‘অপ্রতিরোধ্য হামলা’ চালানোর সক্ষমতা রয়েছে রাশিয়ার: পুতিন

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ১৮:১২

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, রুশ নৌবাহিনী যে কোনও শত্রুকে শনাক্ত এবং প্রয়োজনে অপ্রতিরোধ্য হামলা চালানোর সক্ষমতা রয়েছে। মস্কোকে ক্ষুব্ধ করে ব্রিটিশ যুদ্ধজাহাজের ক্রিমিয়া উপদ্বীপ অতিক্রমের কয়েক সপ্তাহ পর রবিবার তিনি এই মন্তব্য করেছেন। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এখবর জানিয়েছে।

সেন্ট পিটার্সবুর্গে নৌবাহিনী দিবসের প্যারেডে পুতিন বলেন, পানির নিচে, উপরে, আকাশে যে কোনও শত্রুকে শনাক্তের সামর্থ্য আমাদের রয়েছে। প্রয়োজন হলে ওই শত্রুর বিরুদ্ধে অপ্রতিরোধ্য হামলা চালানোর সক্ষমতাও রয়েছে।

পুতিনের এই মন্তব্যের আগে জুন মাসে কৃষ্ণ সাগরে ক্রিমিয়ার জলসীমায় রাশিয়া ব্রিটিশ যুদ্ধজাহাজ লক্ষ্য করে সতর্কতামূলক গোলা ও নৌপথে বোমা ফেলে।

ঘটনাটি নিয়ে রাশিয়ার বর্ণনা প্রত্যাখ্যান করেছে ব্রিটেন। তারা জানিয়েছে, গোলাবর্ষণ ছিল রাশিয়ার পূর্বঘোষিত অনুশীলনের অংশ এবং কোনও বোমা নিক্ষেপ করা হয়নি।

২০১৪ সালে ক্রিমিয়াকে ইউক্রেন থেকে বিচ্ছিন্ন করে নিজেদের ভূখণ্ডে অন্তর্ভুক্ত করে রাশিয়া। কৃষ্ণ সাগর উপদ্বীপকে বিশ্বের অধিকাংশ দেশ ইউক্রেনের বলে স্বীকৃতি দিয়েছে।

গত মাসে পুতিন বলেছিলেন, নিজেদের জলসীমায় অবৈধভাবে প্রবেশ করা ব্রিটিশ যুদ্ধজাহাজ এইচএমএস ডিফেন্ডারকে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু না করেই ডুবিয়ে দিতে পারত রাশিয়া। যুক্তরাষ্ট্র এই ঘটনায় উস্কানিদাতার ভূমিকা পালন করেছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

/এএ/

সম্পর্কিত

যুক্তরাজ্যে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত

যুক্তরাজ্যে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত

শীতে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট আসবে! আশঙ্কা ফরাসি বিশেষজ্ঞের

শীতে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট আসবে! আশঙ্কা ফরাসি বিশেষজ্ঞের

ক্ষমা চাইলেন সেই জার্মান সাংবাদিক

ক্ষমা চাইলেন সেই জার্মান সাংবাদিক

জলবায়ু সংকট মোকাবিলায় মুখ্য হিট অফিসার নিয়োগ

জলবায়ু সংকট মোকাবিলায় মুখ্য হিট অফিসার নিয়োগ

যুক্তরাজ্যে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ১৭:৩৯

যুক্তরাজ্যে করোনাভাইরাসের নতুন একটি ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হয়েছে। দেশটির পাবলিক হেলথ ইংল্যান্ড (পিএইচই) জানায়, ভ্যারিয়েন্টটিতে অন্তত ১৬ জন আক্রান্ত হওয়ার পর এটি নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট এখবর জানিয়েছে।

নতুন এই ভ্যারিয়েন্টটি বি.১.৬২১ নামে পরিচিত। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, করোনার এই ভ্যারিয়েন্টটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যায়নি। তবে বুধবার পিএইচই এটিকে আন্ডার ইনভেস্টিগেশন হিসেবে তালিকাভুক্ত করেছে।

ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ আরও জানায়, এটি টিকার কার্যকারিতা কমিয়ে দেয় কিংবা গুরুতর রোগ সৃষ্টি করে এমন কোনও প্রমাণ এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।

খবরে বলা হয়েছে, ব্রিটেনে বি.১.৬২১ নতুন হলেও বিশ্বে একেবারে নতুন নয়। জানুয়ারিতে কলম্বিয়ায় এটি প্রথম শনাক্ত হয়। ব্রিটেনে এই ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্তদের বেশিরভাগের বিদেশ সফরের ইতিহাস রয়েছে এবং যুক্তরাজ্যে স্থানীয়ভাবে সংক্রমণ ছড়ানোর কোনও প্রমাণ এখন পর্যন্ত নেই।

গত কয়েক সপ্তাহে যুক্তরাজ্যের কোভিড পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। বিশেষ করে অতি সংক্রামক ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে মানুষ সংক্রমিত হচ্ছে। আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকলেও এই সপ্তাহে যুক্তরাজ্য করোনার বিধিনিষেধ প্রত্যাহার করেছে। শুক্রবার ব্রিটেনে নতুন আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ৩১ হাজার ৭৯৪ জন।

যুক্তরাজ্যে করোনাভাইরাসের আর রেট ১.২ ও ১.৪। এর অর্থ হলো, একজন আক্রান্ত মানুষ একজনের বেশি মানুষকে আক্রান্ত করতে পারেন।

/এএ/

সম্পর্কিত

‘অপ্রতিরোধ্য হামলা’ চালানোর সক্ষমতা রয়েছে রাশিয়ার: পুতিন

‘অপ্রতিরোধ্য হামলা’ চালানোর সক্ষমতা রয়েছে রাশিয়ার: পুতিন

দেশে দেশে লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভ

দেশে দেশে লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভ

শীতে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট আসবে! আশঙ্কা ফরাসি বিশেষজ্ঞের

শীতে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট আসবে! আশঙ্কা ফরাসি বিশেষজ্ঞের

ইরাকের মাটিতে মার্কিন সেনার প্রয়োজন নেই: প্রধানমন্ত্রী আল-খাদিমি

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ১৭:১৬

ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মুস্তাফা আল-খাদিমি বলেছেন, তার দেশে ইসলামিক স্টেট (আইএস)-এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য মার্কিন সেনাদের কোনও প্রয়োজন নেই। তবে তিনি বলেছেন, এসব বিদেশি সেনাদের পুনরায় মোতায়েনের বিষয়টি নির্ভর করছে এই সপ্তাহে মার্কিন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনার ওপর। মার্কিন বার্তা সংস্থা এসোসিয়েটেড প্রেস (এপি)-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ইরাকে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেছেন। রবিবার সাক্ষাৎকারটি প্রকাশিত হয়েছে।

মুস্তাফা আল-খাদিমি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রকে প্রশিক্ষণ ও সামরিক গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহের জন্য আহ্বান জানাবে ইরাক। কিন্তু যুদ্ধের সেনাদের আনুষ্ঠানিকভাবে প্রত্যাহারের একটি সময়সীমা চাওয়া হবে। এপ্রিলে ওয়াশিংটন ও বাগদাদে আলোচনায় মার্কিন সেনাদের প্রত্যাহারের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছিল।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইরাকের মাটিতে বিদেশি সেনাদের কোনও প্রয়োজন নেই। আইএসবিরোধী যুদ্ধ ও আমাদের সেনাদের প্রস্তুতির বিষয়ের জন্য একটি বিশেষ সময়সীমার প্রয়োজন। ওয়াশিংটনে আলোচনার ওপর তা নির্ভর করছে।

সোমবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে বৈঠক করবেন ইরাকের প্রধানমন্ত্রী। দুই দেশের মধ্যে এটি চতুর্থ ধাপের কৌশলগত আলোচনা। দেশে শিয়া সম্প্রদায়ের পক্ষ থেকে মার্কিন ভূমিকা কমানোর চাপের মুখে হোয়াইট সফরে যাচ্ছেন আল-খাদিমি।

আল-খাদিমি বলেন, ইরাকের সেনাবাহিনীকে প্রশিক্ষণ দেওয়া, তাদের কার্যকারিতা ও সামর্থ্য বৃদ্ধির জন্য আমরা মার্কিন উপস্থিতি চাই। ইরাকে অনেক আমেরিকান অস্ত্র রয়েছে। এগুলো রক্ষণাবেক্ষণ ও প্রশিক্ষণের প্রয়োজন। আমাদের সেনাদের সহযোগিতা ও সামর্থ্য বৃদ্ধিতে মার্কিন পক্ষের কাছে আমরা সহযোগিতা অব্যাহত রাখতে বলব।

/এএ/

সম্পর্কিত

তালেবানের উত্থান, আফগানিস্তানে কারফিউ জারি

তালেবানের উত্থান, আফগানিস্তানে কারফিউ জারি

তিন মাসে ২ বার করোনা আক্রান্ত, হতাশায় দম্পতির আত্মহত্যা

তিন মাসে ২ বার করোনা আক্রান্ত, হতাশায় দম্পতির আত্মহত্যা

মহারাষ্ট্রে টানা ভারী বৃষ্টিতে বন্যা-ভূমিধস, জীবিতদের খোঁজে অভিযান

মহারাষ্ট্রে টানা ভারী বৃষ্টিতে বন্যা-ভূমিধস, জীবিতদের খোঁজে অভিযান

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

মৃত্যুদণ্ড বাতিল করছে সিয়েরা লিওন

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ০৭:৪৯

আফ্রিকার দেশ সিয়েরা লিওনে মৃত্যুদণ্ডের সাজা বাতিলের পক্ষে ভোট দিয়েছেন দেশটির আইনপ্রণেতারা। এই মহাদেশটির ২৩ তম দেশ হিসেবে মৃত্যুদণ্ড বাতিলের পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। সিয়েরা লিওনের পার্লামেন্টের এ সিদ্ধান্তে স্বাগত জানিয়েছে বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন।

শুক্রবার পার্লামেন্টের অধিকাংশ সদস্য মৃত্যুদণ্ডের সাজা বাতিলের বিপক্ষে ভোট দেয়। সিয়েরা লিওনের প্রেসিডেন্ট জুলিয়াস মাদা বাও শিগগিরই এই বিলে স্বাক্ষর করবেন বলে আশা করা যাচ্ছে। প্রেসিডেন্টের স্বাক্ষরের পর বিলটি আইনে পরিণত হবে।

সিয়েরা লিওনে সর্বশেষ মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয় প্রায় ২০ বছর আগে। দেশটিতে ১৯৯৮ সালে সর্বশেষ মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছিল। উপনিবেশিক আমলের আইনে এতদিন মৃত্যুদণ্ডের মতো শাস্তি কার্যকর ছিল। 

সিয়েরা লিওনের প্রেসিডেন্ট, অ্যাটর্নি জেনারেল পার্লামেন্ট ও সুশীল সমাজকে ধন্যবাদ জানান দেশটির ইনস্টিটিউট ফর লিগ্যাল রিসার্চ অ্যান্ড এডভোকেসি ফর জাস্টিস (আইএলআরএজে)-এর প্রতিষ্ঠাতা বাসিতা মাইকেল। মূলত, মানবাধিকার কর্মীদের সমালোচনার মুখেই এই শাস্তি বাতিল হতে যাচ্ছে।

এর আগে আফ্রিকার আরও দুটি দেশ মৃত্যুদণ্ড আইন বাতিল করে। গত এপ্রিলে দক্ষিণ-পূর্ব আফ্রিকার মালাভি মৃত্যুদণ্ড আইন বিলুপ্তর ঘোষণা দেয়। মধ্য আফ্রিকার দেশ চাদও একই ধরনের সিদ্ধান্ত নেয়।
আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের তথ্যমতে, ২০২০ সাল পর্যন্ত বিশ্বের অন্তত ১০৮টি দেশে মৃত্যুদণ্ড আইন বিলুপ্ত হয়েছে।

/এলকে/

সম্পর্কিত

উইঘুর মুসলিম নির্যাতন, চীনের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের কঠোর পদক্ষেপ

উইঘুর মুসলিম নির্যাতন, চীনের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের কঠোর পদক্ষেপ

নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতা প্রতিরোধের চুক্তি থেকে বেরিয়ে গেলো তুরস্ক

নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতা প্রতিরোধের চুক্তি থেকে বেরিয়ে গেলো তুরস্ক

রাজতন্ত্রবিরোধী আন্দোলনের দায়ে সেই কিশোরকে মৃত্যুদণ্ড দিলো সৌদি

রাজতন্ত্রবিরোধী আন্দোলনের দায়ে সেই কিশোরকে মৃত্যুদণ্ড দিলো সৌদি

সর্বশেষ

লকডাউনের বিরোধিতাকারীদের ‘স্বার্থপর’ বললেন অস্ট্রেলীয় প্রধানমন্ত্রী

লকডাউনের বিরোধিতাকারীদের ‘স্বার্থপর’ বললেন অস্ট্রেলীয় প্রধানমন্ত্রী

বিনা চার্জে বিকাশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ফি

বিনা চার্জে বিকাশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ফি

নুডলস কিনতে গিয়ে নিখোঁজের ৫ দিন পর মিললো শিশুর লাশ

নুডলস কিনতে গিয়ে নিখোঁজের ৫ দিন পর মিললো শিশুর লাশ

প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে নির্মিত শহীদ মিনারের তালিকা চেয়েছে সরকার

প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে নির্মিত শহীদ মিনারের তালিকা চেয়েছে সরকার

বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেফতার ৩

বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেফতার ৩

‘অপ্রতিরোধ্য হামলা’ চালানোর সক্ষমতা রয়েছে রাশিয়ার: পুতিন

‘অপ্রতিরোধ্য হামলা’ চালানোর সক্ষমতা রয়েছে রাশিয়ার: পুতিন

বোলারদের উদারতায় ফুলে-ফেঁপে উঠলো জিম্বাবুয়ের স্কোরবোর্ড

বোলারদের উদারতায় ফুলে-ফেঁপে উঠলো জিম্বাবুয়ের স্কোরবোর্ড

ফের চার বিভাগে দৈনিক শনাক্ত হাজারের বেশি

করোনাভাইরাসফের চার বিভাগে দৈনিক শনাক্ত হাজারের বেশি

গৃহকর্মীর ছদ্মবেশে স্বর্ণালংকারসহ টাকা চুরি, গ্রেফতার নুপুর রিমান্ডে

গৃহকর্মীর ছদ্মবেশে স্বর্ণালংকারসহ টাকা চুরি, গ্রেফতার নুপুর রিমান্ডে

পল্লবীতে কুপিয়ে হত্যা: আসামি বাবু রিমান্ডে

পল্লবীতে কুপিয়ে হত্যা: আসামি বাবু রিমান্ডে

ন্যাপের ৬৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ

ন্যাপের ৬৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ

আশ্রম সেবা কার্যক্রমের বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠিত

আশ্রম সেবা কার্যক্রমের বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠিত

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ইরাকের মাটিতে মার্কিন সেনার প্রয়োজন নেই: প্রধানমন্ত্রী আল-খাদিমি

ইরাকের মাটিতে মার্কিন সেনার প্রয়োজন নেই: প্রধানমন্ত্রী আল-খাদিমি

দেশে দেশে লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভ

দেশে দেশে লকডাউন বিরোধী বিক্ষোভ

তালেবানের উত্থান, আফগানিস্তানে কারফিউ জারি

তালেবানের উত্থান, আফগানিস্তানে কারফিউ জারি

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

চীনকে মাথায় রেখে ভারত আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

চীনকে মাথায় রেখে ভারত আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বৃহস্পতির ‘চাঁদে’ রকেট পাঠাবে নাসা

বৃহস্পতির ‘চাঁদে’ রকেট পাঠাবে নাসা

যুক্তরাষ্ট্রে বিমানযাত্রীর লাগেজে ১৫টি দৈত্যকার শামুক

যুক্তরাষ্ট্রে বিমানযাত্রীর লাগেজে ১৫টি দৈত্যকার শামুক

বিরল রোগে আক্রান্ত সিআইএ-এর শতাধিক কর্মকর্তা!

বিরল রোগে আক্রান্ত সিআইএ-এর শতাধিক কর্মকর্তা!

তালেবানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক বিমান হামলা

তালেবানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক বিমান হামলা

করোনা আতঙ্কে দেড় বছর তাঁবুতে

করোনা আতঙ্কে দেড় বছর তাঁবুতে

© 2021 Bangla Tribune