X
বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৭ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

মানুষের সঙ্গে সংঘাতে বিপন্ন বন্য হাতির প্রাণ, উদ্বিগ্ন পরিবেশবিদরা

আপডেট : ০৪ জুলাই ২০২১, ১৫:০০

বিশাল জনগোষ্ঠীর দেশ ভারত। এখানে বন্য হাতির সঙ্গে মানুষের সংঘাতের ঘটনা যেন নিয়মিত। ভারতে সাধারণ মানুষ ও বন্য হাতির মধ্যে প্রতি বছর সংঘাতের চিত্র যেন ক্রমেই বাড়ছে। এতে বছরে পাঁচশ হাতি মারা পড়ছে বলে উদ্বেগ জানিয়েছে অনেকে। এ ধরনের ঘটনা ঠেকাতে সরকারের কার্যকরী পদেক্ষেপ নেওয়ার দাবি তুলেছেন পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা।

এশিয়ার মধ্যে সবচেয়ে ঝুঁকিতে রয়েছে ভারতের বুনো হাতি। এই বন্য হাতির আক্রমণাত্মক আচরণের কারণে সমস্যা দিন দিন আরও জটিল হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে এর পেছনে ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যাকেও দায়ী করছেন বিশেষজ্ঞরা।

এ বিষয়ে সেন্ট্রাল ফর ওয়াইল্ডলাইফ স্টাডিজের নির্বাহী পরিচালক ও বিজ্ঞানী ক্রিথি কারান্থ মনে করেন, সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জের মধ্যে একটি হল আমাদের বন্য প্রাণীর জন্য মাত্র ৫ শতাংশের কম জমি রয়েছে। ওইসব বনাঞ্চলের আশাপাশেই আবার লাখ লাখ মানুষ বসবাস করে আসছেন’। তিনি আরও বলেন, ‘ভারতজুড়ে শতাধিক জাতীয় উদ্যান রয়েছে। যদিও সংরক্ষিত জায়গা একেবারেই পর্যাপ্ত নয়। ভারতে ৩০ হাজারের মতো বন্য হাতি বনের বাইরে থাকছে। প্রাণিগুলো খাবারের খোঁজে প্রতিনিয়ত লোকালয়ে প্রবেশ করছে। আর তখনই মানুষের সঙ্গে সংঘর্ষ সৃষ্টি হচ্ছে’।

একটি ১০ ফুট উচ্চতার হাতি দৈনিক গড়ে ১৫০ কেজি খাবার খেয়ে থাকে। বেশির ভাগই ঘাস, লতা-পাতা এবং বাকল হয়ে কাটায়। তবে তাদের পছন্দের তালিকায় কলা, চাল অথবা আখ জাতীয় কিছু হতে পারে।

বিজ্ঞানী ক্রিথি কারান্থ জানান, ‘দিনে দিনে বনের আয়তন সংকুচিত হয়ে আসছে। হাতিরা খাবারের সন্ধানে রাতে লোকলয়ে প্রবেশ করলে হামলার শিকার হয়। এ ধরনের ঘটনায় আমরা অনেক হাতির মৃত্যুর প্রমাণ পেয়েছি’।

এশিয়ার মধ্যে শুধু ভারতেই ৭০ থেকে ৮০ শতাংশ হাতির মৃত্যুর পেছনে মানুষের সম্পৃক্ততার প্রমাণ পাওয়া গেছে বলে জানান ভারতের এলিফ্যান্ট বিশেষজ্ঞ দলের সন্দীপ কুমার তিওয়ারি।

তিওয়ারি বলেন, বছরে হাতির সংঙ্গে অনাকাঙ্খিত সংঘর্ষে প্রায় পাঁচ লাখ পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। বন্য হাতির দল বহু জমির ফসল নষ্ট করে আসছে। এখানে ৮০ থেকে ১০০ হাতির মৃত্যুর সঙ্গে মানুষের সম্পকৃক্ততা পেয়েছি। কিছু হাতি বৈদ্যুতিক শক এবং বিষ দিয়ে হত্যা করা হয়, কিছু ট্রেনের কাটা পড়ে মারা যায়।

বছরের পর বছর ধরে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে ভারত সরকার ক্ষতিপূরণের আওতায় আনার চেষ্টা করছে। যদিও এটি আমলাতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় পিছয়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছেন কারান্থ।

মানুষের সম্পত্তি বিনষ্ট এবং হাতির প্রাণ হারানোর ঘটনা কোনভাবেই কাম্য নয় বলেও উদ্বেগ প্রকাশ করছেন তিওয়ারি। ভারতের পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় এবং তিওয়ারির সংগঠন ১০১ টি করিডোর চিহ্নিত করেছে। বন্যপ্রাণী সুরক্ষায় বেশ কয়েকটি পরিকল্পনাও নেওয়া হয়েছে। এই পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়ন করা গেলে পরিস্থিতি বদলাতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

/এলকে/

সম্পর্কিত

‘তালেবান শো’ কোনও কাজে আসবে না: জার্মানি

‘তালেবান শো’ কোনও কাজে আসবে না: জার্মানি

মিয়ানমারে ফের সংঘর্ষ, ভারতে পালাচ্ছে মানুষ

মিয়ানমারে ফের সংঘর্ষ, ভারতে পালাচ্ছে মানুষ

২ বছরের দলিত শিশু মন্দিরে প্রবেশ করায় ২৫ হাজার রুপি জরিমানা

২ বছরের দলিত শিশু মন্দিরে প্রবেশ করায় ২৫ হাজার রুপি জরিমানা

‘তালেবান শো’ কোনও কাজে আসবে না: জার্মানি

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২৩:১৫

জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে তালেবানের অংশগ্রহণের প্রস্তাবের বিরোধিতা করেছে জার্মানি। বুধবার দেশটি বলছে, এ ধরনের ‘তালেবান শো’ কোনও কাজে আসবে না। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী হেইকো মাস বলেন, জাতিসংঘে একটি শো-র তারিখ নির্ধারণ করে কোনও লাভ হবে না। বরং মানবাধিকার, বিশেষ করে নারী অধিকার, একটি অন্তর্ভুক্তিমূলক সরকার এবং সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর কাছ থেকে দূরে থাকার মতো বিষয়গুলো গুরুত্বপূর্ণ। শুধু কথার কথা নয়, এগুলোকে কাজে প্রমাণ করতে হবে।

এর আগে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে বিশ্ব নেতাদের সামনে কথা বলতে চেয়েছে তালেবান। গত সোমবার তালেবান সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী চিঠি দিয়ে এই অনুরোধ জানিয়েছেন। এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে জাতিসংঘের একটি কমিটি।

এছাড়া তালেবান তাদের দোহাভিত্তিক মুখপাত্র সুহাইল শাহিনকে জাতিসংঘে আফগানিস্তানের দূত হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে।

/এমপি/

সম্পর্কিত

মিয়ানমারে ফের সংঘর্ষ, ভারতে পালাচ্ছে মানুষ

মিয়ানমারে ফের সংঘর্ষ, ভারতে পালাচ্ছে মানুষ

২ বছরের দলিত শিশু মন্দিরে প্রবেশ করায় ২৫ হাজার রুপি জরিমানা

২ বছরের দলিত শিশু মন্দিরে প্রবেশ করায় ২৫ হাজার রুপি জরিমানা

তালেবানের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষায় সম্মত চীন, রাশিয়া ও পাকিস্তান

তালেবানের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষায় সম্মত চীন, রাশিয়া ও পাকিস্তান

জাতিসংঘ অধিবেশনে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত ব্রাজিলের স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:৩০

ব্রাজিলের স্বাস্থ্যমন্ত্রী মার্সেলো কিরোগার করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দেওয়ার কয়েক ঘণ্টার মাথায় মঙ্গলবার তার কোভিড পজিটিভ রিপোর্ট আসে। প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারোর সফরসঙ্গী হিসেবে তিনি অধিবেশনে যোগ দিয়েছিলেন। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স।

ব্রাজিল সরকারের গণযোগাযোগ দফতরের এক বিবৃতিতে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মার্সেলো কিরোগার করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, কোভিড ধরা পড়ার পর থেকে কিরোগা নিউ ইয়র্কে কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন। তিনি ভালো আছেন।

জাতিসংঘ সম্মেলনে যোগ দেওয়া ব্রাজিল প্রতিনিধি দলের সবারই কোভিড পরীক্ষা করা হয়েছে। তবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ছাড়া বাকি সবার নেগেটিভ এসেছে বলে জানা গেছে।

এদিকে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দেওয়া সবাইকে টিকা নিতে বলা হলেও সেটি উপেক্ষা করেছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো। টিকা ছাড়াই অধিবেশনে যোগ দিয়েছেন তিনি।

/এমপি/

সম্পর্কিত

উন্নয়নশীল দেশগুলোকে আরও ৫০ কোটি ডোজ টিকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র

উন্নয়নশীল দেশগুলোকে আরও ৫০ কোটি ডোজ টিকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র

নষ্ট হওয়ার পথে ২৪ কোটি ডোজ টিকা

নষ্ট হওয়ার পথে ২৪ কোটি ডোজ টিকা

চীন কখনও কর্তৃত্ব চাইবে না: শি জিনপিং

চীন কখনও কর্তৃত্ব চাইবে না: শি জিনপিং

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

উন্নয়নশীল দেশগুলোকে আরও ৫০ কোটি ডোজ টিকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:২৭

উন্নয়নশীল দেশগুলোকে আরও ৫০ কোটি ডোজ করোনাভাইরাসের টিকা দান করার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশন চলাকালে কোভিড-১৯ বিষয়ক এক ভার্চুয়াল পার্শ্ব সম্মেলনে এই প্রতিশ্রুতির কথা ঘোষণা দেবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। মার্কিন কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে এখবর জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

নতুন করে ফাইজার-বায়োএনটেকের ৫০ কোটি ডোজ দান করার প্রতিশ্রুতির ফলে ১০০ কোটি টিকা দেওয়ার অঙ্গীকার বাস্তবায়ন করবে যুক্তরাষ্ট্র।

মার্কিন কর্মকর্তা বলেছেন, এসব ডোজ বিনামূল্যে দান করা হবে। কোনও শর্তযুক্ত থাকবে না।

বিশ্লেষকরা বলছেন, বিশ্বের মোট জনসংখ্যার অন্তত ৭০ শতাংশকে টিকার আওতায় আনতে ১১০০ কোটি ডোজ প্রয়োজন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ২০২১ সালে বিশ্বের প্রতিটি দেশের ৪০ শতাংশ মানুষকে টিকাকরণের আওতায় আনার নূন্যতম লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে। কিন্তু এই লক্ষ্য অর্জন করার সম্ভাবনা কম।

অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির তথ্য অনুসারে, উচ্চ আয়ের দেশগুলোতে অর্ধেকের বেশি জনসংখ্যা অন্তত একটি ডোজ পেয়েছেন। কিন্তু নিম্ন আয়ের দেশগুলোতে মাত্র ২ শতাংশ প্রথম ডোজ নিতে পেরেছেন।

 

/এএ/

সম্পর্কিত

জাতিসংঘ অধিবেশনে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত ব্রাজিলের স্বাস্থ্যমন্ত্রী

জাতিসংঘ অধিবেশনে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত ব্রাজিলের স্বাস্থ্যমন্ত্রী

এক আলিঙ্গনের জন্য ৫৮ বছর অপেক্ষা

এক আলিঙ্গনের জন্য ৫৮ বছর অপেক্ষা

নষ্ট হওয়ার পথে ২৪ কোটি ডোজ টিকা

নষ্ট হওয়ার পথে ২৪ কোটি ডোজ টিকা

মিয়ানমারে ফের সংঘর্ষ, ভারতে পালাচ্ছে মানুষ

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:২৮

ফের অশান্ত হয়ে উঠছে মিয়ানমার। দেশটির চিন রাজ্যের ভারত সীমান্ত সংলগ্ন থ্যান্টলাং শহরে জান্তাবিরোধী মিলিশিয়াদের সঙ্গে ব্যাপক সংঘাতে জড়িয়েছে সেনাবাহিনী। এ সময় সেনাসদস্যদের গোলার আঘাতে বহু ঘরবাড়ি পুড়ে যায়। ওই সংঘাতের পর ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে বেশিরভাগ মানুষ। নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে তারা ভারতসহ পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন এলাকায় চলে গেছে। বুধবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স।

প্রায় ১০ হাজার মানুষের শহর থ্যান্টলাং। তবে বুধবারের সহিসংতার পর সেখানকার চেহারা বদলে গেছে। এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে বিপুল সংখ্যক মানুষ। সেখানে একটি অনাথ আশ্রমের ২০ শিশুসহ সামান্য কিছু বাড়িঘর অবশিষ্ট রয়েছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয় কমিউনিটি নেতা সালাই থ্যাং বলেন, সেনাবাহিনীর একটি ঘাঁটি বেদখল হলে বিমান হামলা চালানো হয়। জান্তাবিরোধী মিলিশিয়া গোষ্ঠী দ্য চীন ডিফেন্স ফোর্স এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, তারা ৩০ জন সেনাসদস্যকে হত্যা করেছে।

রয়টার্সের পক্ষ থেকে হতাহতের এসব দাবি স্বাধীনভাবে যাচাইয়ের সুযোগ হয়নি। সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকেও এ ব্যাপারে সুস্পষ্ট কোনও মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

এদিকে প্রতিবেশী ভারতের মিজোরাম রাজ্যের সুশীল সমাজের একটি গ্রুপের প্রধান জানান, গত দুই সপ্তাহে রাজ্যের দুই জেলায় মিয়ানমার থেকে সাড়ে পাঁচ হাজার মানুষ পালিয়ে এসেছে। সেনাবাহিনীর ধরপাকড় থেকে বাঁচতে তারা এখানে আশ্রয় নিয়েছে।

বার্মিজ সংবাদমাধ্যম মিয়ানমার নাউ জানিয়েছে, থ্যান্টলাং শহরের একটি বাড়িতে একজন খ্রিস্টান যাজক আগুন নেভানোর চেষ্টা করছিলেন। এ সময় সেনাসদস্যরা তাকে গুলি করে হত্যা করে।

রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম দ্য গ্লোবাল নিউ লাইট অব মিয়ানমার দাবি করেছে, ওই যাজকের হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তদন্ত চলছে।

/এমপি/

সম্পর্কিত

‘তালেবান শো’ কোনও কাজে আসবে না: জার্মানি

‘তালেবান শো’ কোনও কাজে আসবে না: জার্মানি

২ বছরের দলিত শিশু মন্দিরে প্রবেশ করায় ২৫ হাজার রুপি জরিমানা

২ বছরের দলিত শিশু মন্দিরে প্রবেশ করায় ২৫ হাজার রুপি জরিমানা

তালেবানের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষায় সম্মত চীন, রাশিয়া ও পাকিস্তান

তালেবানের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষায় সম্মত চীন, রাশিয়া ও পাকিস্তান

২ বছরের দলিত শিশু মন্দিরে প্রবেশ করায় ২৫ হাজার রুপি জরিমানা

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:৫৩

ভারতের কর্নাটকের কপ্পাল জেলার মিয়াপুর গ্রামের এক দলিত পরিবারকে ২৫ হাজার রুপি জরিমানা করা হয়েছে। তাদের দুই বছরের শিশু একটি মন্দিরে প্রবেশ করায় এই সাজার মুখে পড়তে হলো। বুধবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে এখবর জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, ঘটনাটি ঘটেছে ৪ সেপ্টেম্বর। ওই দিন ছিল শিশুটির জন্মদিন। এই উপলক্ষে মা-বাবা শিশুটিকে নিয়ে মন্দিরে প্রার্থনা করতে চায়। বাবা প্রার্থনায় থাকার সময় ছেলেটি মন্দিরে প্রবেশ করে। মন্দিরের পুজারি ও স্থানীয়রা এতে আপত্তি তুলে এবং ১১ সেপ্টেম্বর এই জরিমানা ধার্য করা হয় মন্দিরের শুদ্ধিকরণ কাজের জন্য।

শিশুটির বাবা চন্দ্রু বলেন, এটি ছিল আমার ছেলের জন্মদিন। আমরা আজানিয়া মন্দিরে প্রার্থনা করতে চেয়েছিলেন। বৃষ্টি শুরু হলে ছেলেটি মন্দিরে প্রবেশ করে। এর বাইরে কিছু ঘটেনি।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, মিয়াপুরার আজানিয়া মন্দিরের মতো এলাকার অনেক মন্দিরেই দলিতদের প্রবেশের অনুমতি নেই।

জরিমানার কথা ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় চান্নাদাসার সম্প্রদায়ের সদস্যরা প্রতিবাদ করেন এবং পুলিশের দ্বারস্থ হন। এই সম্প্রদায়েরই সদস্য চন্দ্রু।  তবে গ্রামে বিশৃঙ্খলার আশায় চন্দ্রু ও তার পরিবার থানায় কোনও লিখিত অভিযোগ দায়ের করতে অস্বীকৃতি জানান।

খবরে আরও বলা হয়েছে, গ্রামের উচ্চ বর্ণের মানুষেরা শুদ্ধিকরণের জন্য দলিত পরিবারের কাছ থেকে অর্থ চাইলেও জেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বিষয়টির সমাধান হয়।

 

/এএ/

সম্পর্কিত

‘তালেবান শো’ কোনও কাজে আসবে না: জার্মানি

‘তালেবান শো’ কোনও কাজে আসবে না: জার্মানি

মিয়ানমারে ফের সংঘর্ষ, ভারতে পালাচ্ছে মানুষ

মিয়ানমারে ফের সংঘর্ষ, ভারতে পালাচ্ছে মানুষ

তালেবানের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষায় সম্মত চীন, রাশিয়া ও পাকিস্তান

তালেবানের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষায় সম্মত চীন, রাশিয়া ও পাকিস্তান

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

‘তালেবান শো’ কোনও কাজে আসবে না: জার্মানি

‘তালেবান শো’ কোনও কাজে আসবে না: জার্মানি

মিয়ানমারে ফের সংঘর্ষ, ভারতে পালাচ্ছে মানুষ

মিয়ানমারে ফের সংঘর্ষ, ভারতে পালাচ্ছে মানুষ

২ বছরের দলিত শিশু মন্দিরে প্রবেশ করায় ২৫ হাজার রুপি জরিমানা

২ বছরের দলিত শিশু মন্দিরে প্রবেশ করায় ২৫ হাজার রুপি জরিমানা

তালেবানের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষায় সম্মত চীন, রাশিয়া ও পাকিস্তান

তালেবানের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষায় সম্মত চীন, রাশিয়া ও পাকিস্তান

মোদির বিমানকে আকাশসীমা ব্যবহারের অনুমতি পাকিস্তানের

মোদির বিমানকে আকাশসীমা ব্যবহারের অনুমতি পাকিস্তানের

জাতিসংঘে ফের কাশ্মির ইস্যু তুললেন এরদোয়ান

জাতিসংঘে ফের কাশ্মির ইস্যু তুললেন এরদোয়ান

নষ্ট হওয়ার পথে ২৪ কোটি ডোজ টিকা

নষ্ট হওয়ার পথে ২৪ কোটি ডোজ টিকা

সর্বশেষ

জ্যাকেটের হাতায় ২৫টি স্বর্ণবার, সৌদি প্রবাসী আটক

জ্যাকেটের হাতায় ২৫টি স্বর্ণবার, সৌদি প্রবাসী আটক

কাভার্ডভ্যানে জিপিএস, মহাসড়কে সিসিটিভি

গার্মেন্টস পণ্য চুরিকাভার্ডভ্যানে জিপিএস, মহাসড়কে সিসিটিভি

গৃহকর্মে নিয়োজিত শিশুদের জন্য নাদিয়া

গৃহকর্মে নিয়োজিত শিশুদের জন্য নাদিয়া

হায়দরাবাদকে হারিয়ে শীর্ষে দিল্লি

হায়দরাবাদকে হারিয়ে শীর্ষে দিল্লি

‘তালেবান শো’ কোনও কাজে আসবে না: জার্মানি

‘তালেবান শো’ কোনও কাজে আসবে না: জার্মানি

© 2021 Bangla Tribune