X
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৪ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

রোগী বেড়ে গেলে অক্সিজেন চ্যালেঞ্জ হতে পারে: স্বাস্থ্য অধিদফতর

আপডেট : ০৪ জুলাই ২০২১, ১৫:৪১

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ার পাশাপাশি অক্সিজেনের চাহিদা বেড়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। অক্সিজেনের সামগ্রিক সরবরাহ ও উৎপাদনের কোনও সংকট নেই বলে জানানো হয়েছে প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে। তবে রোগীর সংখ্যা বেড়ে গেলে অক্সিজেনের চ্যালেঞ্জ হতে পারে।

আজ রবিবার (৪ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদফতরের ভার্চুয়াল বুলেটিনে এ তথ্য জানান অধিদফতরের মুখপাত্র অধ্যাপক নাজমুল ইসলাম।

অধ্যাপক নাজমুল বলেন, ‘গত সাত দিনের করোনা সংক্রমণের পরিস্থিতি প্রায় কাছাকাছি। সংক্রমণ পরিস্থিতির খুব বেশি উন্নতি হয়নি। ২ জুলাই রোগীর সংখ্যা কিছুটা কমেছিল।’

তিনি আরও বলেন,  ‘অক্সিজেন সিলিন্ডার যখন যেখানে ব্যবহার হয় সেটা আবার রিফিল করার জন্য চলে যায়। সংখ্যাতে সেটা রিজার্ভ হিসেবে জমা থাকে। যখন যেখানে প্রয়োজন সেটি দ্রুত সরবরাহ করা হয়। যে কারণে অক্সিজেন সিলিন্ডারের সংখ্যা মাঝে মাঝে বেড়ে যায়-কমে যায়। তবে বাস্তবেই অক্সিজেন সিলিন্ডারের সংখ্যা বেড়েছে, তার কারণ চাহিদাও বেড়েছে।’

অক্সিজেনের অভাবে কিছু রোগীর মৃত্যু অভিযোগ এসেছে এবং অভিযোগ তদন্ত করার জন্য তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, তদন্ত প্রতিবেদন হাতে এলে এ বিষয়ে বলা যাবে।

তবে “যদিও অক্সিজেনের সামগ্রিক সরবরাহের কোনও সংকট নেই। উৎপাদনেরও এই মুহূর্তে কোনও সংকট নেই বলে জানিয়ে তিনি বলেন, উৎপাদনকারীদের সঙ্গে আমরা প্রতিদিন বৈঠক করছি এবং আমাদের চাহিদা জানিয়ে দিচ্ছি। এই মুহূর্তে কোনও সংকট নেই, তবে রোগীর সংখ্যা বেড়ে গেলে আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জ হতে পারে।

/জেএ/এমএস/

সম্পর্কিত

করোনায় মৃত্যু ২৭ হাজার ছাড়ালো

করোনায় মৃত্যু ২৭ হাজার ছাড়ালো

বেড়েছে মৃত্যু, শনাক্ত ১৮৭১

বেড়েছে মৃত্যু, শনাক্ত ১৮৭১

সংক্রমণ বাড়লে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের মানসিক প্রস্তুতিও রাখতে হবে

সংক্রমণ বাড়লে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের মানসিক প্রস্তুতিও রাখতে হবে

মৃত্যু কমেছে ২৫ শতাংশ

মৃত্যু কমেছে ২৫ শতাংশ

এসএসসি ৫ থেকে ১০ নভেম্বর, এইচএসসি ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:০৯

এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা আগামী ৫ থেকে ১০ নভেম্বর এবং এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে নেওয়ার সম্ভাব্য সূচি তৈরি করেছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব কমিটি। পরীক্ষার শুরুর দুই সপ্তাহ আগে চূড়ান্ত সূচি নির্ধারণ করে তা প্রকাশ করা হবে।

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সোশ্যাল মিডিয়ায় এসএসসি পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ হয়েছে বলে বিভ্রান্তি ছড়ানো হয়। এ ছাড়া অন্যান্য পরীক্ষা (জেএসসি-জেডিসি) নিয়েও বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছিলো।

জানতে চাইলে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বলেন, ‘আমরা এসএসসি পরীক্ষা শুরু করতে চাই ৫ থেকে ১০ নভেম্বরের মধ্যে। আর এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার কথা বলা হয়েছে ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে। বোর্ড থেকে এখনও চূড়ান্ত তারিখ নির্ধারণ করা হয়নি।‘

সোশ্যাল মিডিয়ায় পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ হয়েছে বলে প্রচার হচ্ছে- এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘এখনও চূড়ান্ত কোনও তারিখ নির্ধারণ করা হয়নি। পরীক্ষার তারিখ এত অগ্রিম দেওয়া হবে না। চূড়ান্ত তারিখ নির্ধারণ হবে পরীক্ষা শুরুর দুই সপ্তাহ আগে। তাছাড়া আমরা যদি চূড়ান্ত করেও থাকি তারপরও পরীক্ষার দু’একদিন আগেও তারিখ পরিবর্তন হতে পারে। তাই যতক্ষণ পর্যন্ত আমরা প্রকাশ না করবো ততক্ষণ পর্যন্ত আগেই বলার কিছু নেই।’

এর আগে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানিয়েছিলেন, নভেম্বরের মাঝামাঝি এসএসসি ও ডিসেম্বরের শুরুতে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া হবে। পরীক্ষার দুই সপ্তাহ আগে পরীক্ষার তারিখ জানিয়ে দেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, প্রতিবছর ফেব্রুয়ারির শুরুতে এসএসসি এবং এপ্রিলের শুরুতে এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু করোনার কারণে দেড় বছর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়নি। কয়েক দফা ছুটি শেষে গত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শ্রেণি কার্যক্রম শুরু হয়।

/এসএমএ/এনএইচ/

সম্পর্কিত

শিক্ষক ও সহায়ক পদ বাড়ছে প্রাথমিকে, দ্রুত পদোন্নতির সুপারিশ

শিক্ষক ও সহায়ক পদ বাড়ছে প্রাথমিকে, দ্রুত পদোন্নতির সুপারিশ

‘নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে’

‘নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে’

নতুন শিক্ষাক্রমে হিজড়াদের জন্য যা থাকছে

নতুন শিক্ষাক্রমে হিজড়াদের জন্য যা থাকছে

প্রাথমিকে জরুরি নির্দেশনা

প্রাথমিকে জরুরি নির্দেশনা

মাদরাসা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও রেজিস্ট্রারকে তলব

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৫০

জাতীয় শোক দিবসে সরকারি ছুটির দিনে একটি প্রতিষ্ঠানের অ্যাডহক কমিটি করে প্রজ্ঞাপন জারির বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বাংলাদেশ মাদরাসা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও রেজিস্ট্রারকে তলব করেছেন হাইকোর্ট। আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর তাদেরকে হাজির হয়ে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে। একইদিন আদালত এ বিষয়ে পরবর্তী আদেশের দিন নির্ধারণ করেন। 

এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। 

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. হুমায়ুন কবির। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার।

এর আগে বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার গোহাইল শালিখা দাখিল মাদ্রাসার সভাপতি মনোনয়নসহ চার সদস্যের অ্যাডহক কমিটির অনুমোদন দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। গত ১৫ আগস্ট মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানের পক্ষে রেজিস্ট্রারের স্বাক্ষরে এই কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

ওই ঘটনায় গোহাইল শালিখা দাখিল মাদ্রাসার এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক ওমর ফারুক প্রজ্ঞাপন জারির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন।

/বিআই/এনএইচ/

সম্পর্কিত

গাজীপুরের জেলা রেজিস্ট্রার ও তার স্ত্রীর সম্পদ অনুসন্ধান করছে দুদক 

গাজীপুরের জেলা রেজিস্ট্রার ও তার স্ত্রীর সম্পদ অনুসন্ধান করছে দুদক 

সাজা প্রদানের নীতিমালা প্রণয়ন কেন নয়: হাইকোর্ট

সাজা প্রদানের নীতিমালা প্রণয়ন কেন নয়: হাইকোর্ট

কাউন্সিলর সেন্টুর সম্পদের তথ্য জানতে চেয়েছে দুদক

কাউন্সিলর সেন্টুর সম্পদের তথ্য জানতে চেয়েছে দুদক

গেঞ্জিতে লেখার সূত্র ধরে হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচন

গেঞ্জিতে লেখার সূত্র ধরে হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচন

দ্রুতই মালয়েশিয়ায় ফিরতে পারছেন না ছুটিতে থাকা প্রবাসীরা

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৪৭

দেশে ছুটিতে থাকা প্রবাসীরা দ্রুতই মালয়েশিয়ায় ফিরতে পারছেন না। করোনার সময়ে যেসব কর্মীরা ছুটিতে বৈধভাবে নিজ নিজ দেশে ছুটিতে এসেছিলেন তারা ২০২১ সালের ভেতর পুনরায় মালয়েশিয়ায় ফিরতে পারছেন না। 

টানা ৪ মাস লকডাউনের পর ইতোমধ্যে সরকার শর্তসাপেক্ষে কিছু বিধিনিষেধ শিথিল করেছে। এই পরিস্থিতিতে আশা করা হয়েছিল ২০২১ সালের শেষের দিকে সীমান্ত খুলে দিলে ছুটিতে থাকা কর্মীরা দেশটিতে ফিরে কাজে যোগ দিতে পারবেন। 

তবে রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় গণমাধ্যমে এক বিবৃতিতে দেশটির মানবসম্পদমন্ত্রী দাতোক সেরী এম সারাভানান বলেছেন, বিদেশি কর্মীদের মালয়েশিয়ায় পুনরায় প্রবেশের নিষেধাজ্ঞা আবার বাড়ানো হবে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। তিনি বলেন, ছুটিতে থাকা বিদেশি সাধারণ শ্রমিক ও গৃহপরিচারিকা (মেইড) কখন ফিরতে পারবেন সে বিষয়ে মালয়েশিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিল, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় আলোচনা করে পরবর্তী নেবে।

বিবৃতিতে আরও বলেন, আমাদের দ্বারা নিবন্ধিত ও লাইসেন্সপ্রাপ্ত বেসরকারি কর্মসংস্থান সংস্থাগুলোকে অনুরোধ করছি উৎস দেশ থেকে গৃহকর্মীদের প্রবেশের বিষয়ে নিয়োগকর্তাদের বিভ্রান্ত করে আমাদের পরামর্শ ছাড়া এমন কোনও বিবৃতি বা বিজ্ঞাপন দেবেন না। মালয়েশিয়ায় সবচেয়ে বেশি ইন্দোনেশিয়ার গৃহকর্মী বা গৃহপরিচারিকা কাজ করে থাকেন। তাই মন্ত্রণালয়গুলো ইন্দোনেশিয়ার সরকারের সঙ্গে গৃহপরিচারিকা নিয়োগের বিষয়ে একটি সমঝোতা স্বারক (এমওইউ) চূড়ান্ত করার জন্য আলোচনার পর্যায়ে রয়েছে। 

উল্লেখ্য, বৈশ্বিক করোনা মহামারি শুরু হওয়ার পর ২০১৯ সালের ১৮ মার্চ থেকে শুরু হয় দেশটিতে সর্বাত্মক লকডাউন। এই সময় থেকে শুরু করে বিভিন্ন সময়ে যে সমস্ত কর্মী ছুটিতে কিংবা জরুরি প্রয়োজনে নিজ নিজ দেশে গিয়েছিলেন তারা এখনও আটকা পড়ে আছেন। ২০২০ এর নভেম্বর থেকে শুরু ২০২১ এর জুন মাসের আগ পর্যন্ত মাই ট্রাভেল পাস (এমটিপি) নামে একটি অনলাইন অ্যাপের মাধ্যমে আবেদন করে মালয়েশিয়াতে কিছু কিছু ছুটিতে থাকা কর্মী প্রবেশ করেছিল। কিন্তু চলতি বছরের জুন মাস থেকে কঠোর লকডাউন শুরু হয়ে যাওয়ায় এমটিপি'র মাধ্যমে আবেদন করে মালয়েশিয়ায় প্রবেশ সম্পূর্ণভাবে বন্ধ হয়ে যায়। দেশে আটকা পড়া অসংখ্য কর্মী যাদের বৈধ ভিসা ও পারমিট রয়েছে তারা কখন মালয়েশিয়ায় ফিরতে পারবেন বিষয়টি নির্ভর করছে মালয়েশিয়ার সরকার কখন অনুমতি দেবে। 

/এনএইচ/

সম্পর্কিত

গ্রিসে ই-পাসপোর্ট সেবা চালু

গ্রিসে ই-পাসপোর্ট সেবা চালু

মেক্সিকোর স্বাধীনতা প্যারেডে বাংলাদেশের মনোমুগ্ধকর প্রদর্শনী

মেক্সিকোর স্বাধীনতা প্যারেডে বাংলাদেশের মনোমুগ্ধকর প্রদর্শনী

জার্মানিতে হামবুর্গে বাংলাদেশ সমিতির আনন্দমেলায় প্রবাসীদের ঢল

জার্মানিতে হামবুর্গে বাংলাদেশ সমিতির আনন্দমেলায় প্রবাসীদের ঢল

পুলিশ পাহারায় বাংলাদেশিদের পাসপোর্ট দিচ্ছে মালয়েশিয়া

পুলিশ পাহারায় বাংলাদেশিদের পাসপোর্ট দিচ্ছে মালয়েশিয়া

ডেঙ্গু আক্রান্ত আরও ২৪১ জন হাসপাতালে ভর্তি

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৪৭

ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে নতুন ভর্তি রোগীর সংখ্যা ২৪১ জন। এর মধ্যে ঢাকায় ১৮৪ জন এবং ঢাকার বাইরে ৫৭ জন নতুন রোগী ভর্তি হয়েছে। তাছাড়া এখন পর্যন্ত ডেঙ্গুতে মারা গেছেন ৫৯ জন। আর এই মাসে রোগী ভর্তি হয়েছেন ৫ হাজার ৩৪৫ জন।

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের দেওয়া তথ্য থেকে এসব জানা যায়। 

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, সারাদেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে বর্তমানে ১ হাজার ১০৭ জন রোগী ভর্তি আছে। এর মধ্যে ঢাকাতেই আছে ৯০০ জন, আর বাকি ২০৭ জন ঢাকার বাইরে অন্য বিভাগে। এই বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ১৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১৫ হাজার ৭০১ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন এবং ছাড়া পেয়েছেন ১৪ হাজার ৫৩৫ জন।

/এসও/এমএস/

সম্পর্কিত

‘১২-১৭ বছর বয়সীদের টিকার সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি’

‘১২-১৭ বছর বয়সীদের টিকার সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি’

চিকিৎসকসহ সাড়ে ৯ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

চিকিৎসকসহ সাড়ে ৯ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

৫ লাখেরও বেশি টিকা দেওয়া হয়েছে আজ 

৫ লাখেরও বেশি টিকা দেওয়া হয়েছে আজ 

গাজীপুরের জেলা রেজিস্ট্রার ও তার স্ত্রীর সম্পদ অনুসন্ধান করছে দুদক 

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৩৭

গাজীপুরের জেলা রেজিস্ট্রার অহিদুল ইসলাম ও তার স্ত্রী খুজিস্তা আক্তারের অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে অনুসন্ধান শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সম্প্রতি দুদকের পক্ষ থেকে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি পাঠানো হয়েছে। দুদকের জনসংযোগ শাখার উপ-পরিচালক মুহাম্মদ আরিফ সাদেক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

দুদক সূত্র জানায়, অহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত স্বনামে-বেনামে বিপুল পরিমাণ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ রয়েছে। প্রাথমিক অনুসন্ধানের ভিত্তিতে দুর্নীতি দমন কমিশন অহিদুল ইসলাম ও তার স্ত্রী খুজিস্তা আক্তার বানুকে তাদের  নিজের, তাদের ওপর নির্ভরশীল ব্যক্তিদের স্বনামে/বেনামে অর্জিত যাবতীয় স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি, দায়-দেনা, আয়ের উৎস এবং তা অর্জনের বিস্তারিত বিবরণী আগামী ২১ (একুশ) কার্যদিবসের মধ্যে নির্ধারিত ছকে দাখিল করতে নির্দেশ দিয়েছে দুদক। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সম্পদ বিবরণী দাখিল করতে ব্যর্থ হলে অথবা মিথ্যা বিবরণী দাখিল করলে আইন মোতাবেক তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে কমিশন। 

/এনএল/এমআর/

সম্পর্কিত

মাদরাসা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও রেজিস্ট্রারকে তলব

মাদরাসা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও রেজিস্ট্রারকে তলব

সাজা প্রদানের নীতিমালা প্রণয়ন কেন নয়: হাইকোর্ট

সাজা প্রদানের নীতিমালা প্রণয়ন কেন নয়: হাইকোর্ট

কাউন্সিলর সেন্টুর সম্পদের তথ্য জানতে চেয়েছে দুদক

কাউন্সিলর সেন্টুর সম্পদের তথ্য জানতে চেয়েছে দুদক

গেঞ্জিতে লেখার সূত্র ধরে হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচন

গেঞ্জিতে লেখার সূত্র ধরে হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচন

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

করোনায় মৃত্যু ২৭ হাজার ছাড়ালো

করোনায় মৃত্যু ২৭ হাজার ছাড়ালো

বেড়েছে মৃত্যু, শনাক্ত ১৮৭১

বেড়েছে মৃত্যু, শনাক্ত ১৮৭১

সংক্রমণ বাড়লে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের মানসিক প্রস্তুতিও রাখতে হবে

সাক্ষাৎকারে ডা. এ বি এম আব্দুল্লাহসংক্রমণ বাড়লে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের মানসিক প্রস্তুতিও রাখতে হবে

মৃত্যু কমেছে ২৫ শতাংশ

মৃত্যু কমেছে ২৫ শতাংশ

দেশে পৌঁছালো ফাইজারের ১০ লাখ ডোজ টিকা

দেশে পৌঁছালো ফাইজারের ১০ লাখ ডোজ টিকা

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মৃত্যু নিয়ে শেষ হলো আগস্ট

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ মৃত্যু নিয়ে শেষ হলো আগস্ট

১০ শতাংশে নামলো শনাক্তের হার

১০ শতাংশে নামলো শনাক্তের হার

ঢাকার ৬৫ শতাংশ বেড ও অর্ধেকের বেশি আইসিইউ খালি

ঢাকার ৬৫ শতাংশ বেড ও অর্ধেকের বেশি আইসিইউ খালি

মৃত্যু ছাড়ালো ২৬ হাজার

মৃত্যু ছাড়ালো ২৬ হাজার

নভেম্বরে খুলছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান?

নভেম্বরে খুলছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান?

সর্বশেষ

এসএসসি ৫ থেকে ১০ নভেম্বর, এইচএসসি ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে

এসএসসি ৫ থেকে ১০ নভেম্বর, এইচএসসি ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে

ই-কমার্স চালু করলো বেসিস

ই-কমার্স চালু করলো বেসিস

ইসলামী ব্যাংকের বোর্ড সভা অনুষ্ঠিত

ইসলামী ব্যাংকের বোর্ড সভা অনুষ্ঠিত

বাংলাদেশিদের জন্য ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের ঘোষণা জাপানের

বাংলাদেশিদের জন্য ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের ঘোষণা জাপানের

জীবিত থেকেও এক জেলার শতাধিক মানুষ ‘মৃত’

জীবিত থেকেও এক জেলার শতাধিক মানুষ ‘মৃত’

© 2021 Bangla Tribune