X
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ৬ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

চোরাই গার্মেন্ট পণ্য রাখতে গোডাউন ভাড়া!

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:৪২

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে আগে থেকেই গোডাউন ভাড়া করে রাখতো গার্মেন্ট পণ্য চোর চক্রের সদস্যরা। পণ্য পরিবহনকারী কাভার্ডভ্যানের চালকদের সঙ্গে যোগসাজশ থাকে এই চক্রের সদস্যদের। পণ্যসহ কাভার্ডভ্যান নিয়ে ওইসব গোডাউনের সামনে যায় চালকরা। শ্রমিকদের মাধ্যমে কাভার্ডভ্যান থেকে পণ্যভর্তি কার্টন নামিয়ে গোডাউনে ঢোকানো হয়। এরপর কার্টন থেকে পণ্য বের করে নেয় তারা।

তবে ওজন ঠিক রাখতে কখনও কখনও কার্টনের ভেতরে ইট-পাথর ঢুকিয়ে দেওয়া হয়। এরপর চালকরা কার্টনগুলো পুনরায় কাভার্ডভ্যানে তুলে চট্টগ্রাম বন্দরের নির্দিষ্ট সিঅ্যান্ডএফের কাছে নিয়ে যায়। অপরদিকে আরেক কাভার্ডভ্যানে করে চোরাই পণ্য নেওয়া হয় ঢাকা অথবা চট্টগ্রামে।

গত ১৫ সেপ্টেম্বর রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানায় নেটওয়ার্ক ক্লোথিং লিমিটেড নামে একটি গার্মেন্ট প্রতিষ্ঠান কাভার্ডভ্যান থেকে তাদের পণ্য চুরির অভিযোগে মামলা দায়ের করে। মামলায় চট্টগ্রামে শিপমেন্ট পাঠানোর পথে কাভার্ডভ্যান থেকে বিপুল পরিমাণ পণ্য চুরি হওয়ার অভিযোগ করা হয়। ওই মামলার তদন্তে নেমে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের তেজগাঁও জোনাল টিম ১৭ সেপ্টেম্বর থেকে ১৯ সেপ্টেম্বর রাজধানী ঢাকা ও ঢাকার বাইরে অভিযান চালিয়ে ৭ জনকে গ্রেফতার করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ চোরাই গার্মেন্ট পণ্য উদ্ধার করা হয়। তাদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে গোয়েন্দা পুলিশ।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের তেজগাঁও জোনের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার শাহাদাত হোসেন সুমা বলেন, ‘চোর চক্রের সদস্যরা অভিনব কায়দায় গার্মেন্ট পণ্য চুরি করে। প্রত্যেকটি চুরির সঙ্গে কাভার্ডভ্যান চালকরা জড়িত। চোর চক্রের একাধিক সিন্ডিকেটের বিষয়ে তথ্য পাওয়া গেছে। তাদের ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে।’

মামলার তদন্ত সংশ্লিষ্টরা জানান, চোর চক্রের সঙ্গে কাভার্ডভ্যান পরিবহন মালিক ও ছোট ছোট কিছু বায়িং হাউজ জড়িত। সংঘবদ্ধ এই চক্রের সদস্যরা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বিভিন্ন এলাকায় আগে থেকেই গোডাউন ভাড়া করে রাখে। চালকের যোগসাজশে গার্মেন্ট প্রতিষ্ঠানের পণ্য পরিবহনের সময় কাভার্ডভ্যান সেই গোডাউনে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কাভার্ডভ্যান থেকে বিদেশে রফতানি করা পণ্য শিপমেন্টের প্যাকেট থেকে সরিয়ে ফেলে চোর চক্রের সদস্যরা।

তদন্ত সংশ্লিষ্ট একজন কর্মকর্তা জানান, জিজ্ঞাসাবাদে চোর চক্রের সদস্যরা জানিয়েছে, তারা পণ্যের প্যাকেটগুলো কাভার্ডভ্যান থেকে নামিয়ে নিচের দিকে কেটে প্রতি প্যাকেট থেকে ৪ থেকে ৬টি করে পোশাক বের করে স্কচটেপ দিয়ে আবার লাগিয়ে দেয়। কখনও কখনও প্যাকেটের ওজন ঠিক রাখতে ভেতরে ইট-পাথরের টুকরা ঢুকিয়ে দেওয়া হয়। সেই প্যাকেট আবারও কাভার্ডভ্যানে তুলে নির্দিষ্ট সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টের কাছে পৌঁছে দেয় তারা।

গোয়েন্দা পুলিশ ও গার্মেন্ট কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বিদেশে রফতানির জন্য পাঠানো তৈরি পোশাক বা গার্মেন্ট পণ্য চুরির বিষয়টি জানা যায় কম। পণ্য বিদেশে নির্দিষ্ট ক্রেতার কাছে পৌঁছানোর পর সংখ্যার গরমিল হওয়ায় গার্মেন্ট কর্তৃপক্ষ বিষয়টি জানতে পারে। এর ফলে বিদেশি ক্রেতারা বাংলাদেশের গার্মেন্ট কর্তৃপক্ষকে দোষারোপ করে। এতে দেশীয় গার্মেন্ট কর্তৃপক্ষের সুনাম নষ্ট হওয়ার পাশাপাশি অনেক সময় বিপুল পরিমাণ জরিমানাও গুনতে হয়।

পণ্য চুরিতে সক্রিয় ১০ চক্র

গোয়েন্দা কর্মকর্তারা বলছেন, গার্মেন্ট পণ্য চুরিতে ঢাকা-চট্টগ্রামকেন্দ্রিক অন্তত ১০টি চক্রের সন্ধান পেয়েছেন। এরমধ্যে অন্যতম একজন হলো সাহেদ ওরফে সিলেটি সাঈদ। সম্প্রতি তাকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। সিলেটি সাঈদ একসময় একাধিক কাভার্ডভ্যানের মালিক ছিল। নিজের কাভার্ডভ্যান দিয়ে গার্মেন্ট পণ্য পরিবহন করতে গিয়ে নিজেই একটি চোর সিন্ডিকেট গড়ে তোলে। অন্তত একযুগ ধরে পণ্য চুরি করে আসছিল এই সিলেটি সাঈদ। চুরির টাকায় কাটাতো বিলাসী জীবনও।

গোয়েন্দা কর্মকর্তারা বলছেন, তারা আরও যেসব চক্রের সন্ধান পেয়েছেন, তার মধ্যে ট্রান্সপোর্ট ব্যবসায়ী ও বায়িং হাউজের কর্ণধারও রয়েছে। চক্রের সদস্যদের গ্রেফতারের স্বার্থে তাদের নাম-পরিচয় প্রকাশ করতে চাননি তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। তারা বলছেন, একাধিক চক্রের সদস্যদের ধরতে গোয়েন্দা নজরদারি ও অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।

হাইওয়ে পুলিশের একজন কর্মকর্তা জানান, গার্মেন্ট পণ্য চুরির সিন্ডিকেটের সদস্যরা নারায়ণগঞ্জ, কাঁচপুর এলাকায় গোডাউন ভাড়া করে রাখে। কুমিল্লা থেকে চট্টগ্রাম পর্যন্ত গোডাউন নেই বললেই চলে। চুরি ঠেকাতে পুলিশের পক্ষ থেকে অনেক উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

/এপিএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

রাজনৈতিক দলগুলো পুরনো অভ্যাসে লিপ্ত, বিবৃতিতে ৪৭ নাগরিক

রাজনৈতিক দলগুলো পুরনো অভ্যাসে লিপ্ত, বিবৃতিতে ৪৭ নাগরিক

হিন্দু পরিষদের শাহবাগ অবরোধ

হিন্দু পরিষদের শাহবাগ অবরোধ

আরও ১২৩ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

আরও ১২৩ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

উপ-রাষ্ট্রপতি ও উপ-প্রধানমন্ত্রীর পদ সৃষ্টির দাবি হিন্দু পরিষদের

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ২১:১৮

জাতীয় সংসদে সংখ্যালঘুদের প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিতকরণে ৬০টি সংরক্ষিত আসন বরাদ্দ এবং একজন উপ-রাষ্ট্রপতি ও একজন উপ-প্রধানমন্ত্রীর পদ সৃষ্টির দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদ। একইসঙ্গে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের সার্বিক নিরাপত্তার লক্ষ্যে সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইন প্রণয়ন এবং জাতীয় সংখ্যালঘু কমিশন গঠনের দাবি তুলেছে সংগঠনটি। শুক্রবার (২২ অক্টোবর) বিকাল থেকে পাঁচটি দাবি নিয়ে রাজধানীর শাহবাগ মোড়ে সড়ক অবরোধ করেন এর নেতাকর্মীরা।

কর্মসূচিতে পেশ করা সংগঠনের বাকি তিনটি দাবি হলো-শারদীয় দুর্গাপূজায় তিন দিনের সরকারি ছুটি ও নিম্ন মাধ্যমিক পর্যায়ে সংস্কৃত শিক্ষা পুনরায় চালু করা, সরকারি চাকরিতে ২০ শতাংশ কোটা পদ্ধতি চালুসহ হিন্দু ধর্মীয় শিক্ষার্থীদের জন্য সব মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে হিন্দু ধর্মীয় শিক্ষক নিয়োগ নিশ্চিত করা এবং বেদখলকৃত সব দেবোত্তর সম্পত্তি স্ব স্ব মঠ-মন্দিরে হস্তান্তরসহ বন্ধ জাদুঘরের পরিবর্তে উদ্ধারকৃত হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রতিমা মঠ-মন্দিরের কাছে ফেরত দেওয়া।

শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নেয় বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদ। দেশের বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক হামলায় জড়িতদের বিচার এবং সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা চেয়ে রাজধানীর শাহবাগে সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ করেন সংগঠনের নেতাকর্মীরা। ট্রাইব্যুনাল গঠন করে দ্রুত সাম্প্রদায়িক হামলার বিচার, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে ৫০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ, সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইন প্রণয়ন এবং জাতীয় সংখ্যালঘু কমিশন গঠনের দাবি জানান তারা। অবরোধ পরবর্তী সময়ে সন্ধ্যা ৬টার দিকে মশাল মিছিল নিয়ে জাতীয় প্রেসক্লাব অভিমুখে রওনা দেন আন্দোলনকারীরা।

রাজধানীর শাহবাগে সড়ক অবরোধ করে বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদ

অবরোধ কর্মসূচিতে বাংলাদেশ হিন্দু আইনজীবী পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুমন কুমার রায় বলেন, ‘আপনারা জানেন দেশব্যাপী সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ওপর কী নারকীয় হামলা চালানো হয়েছে। প্রশাসন এক্ষেত্রে তাদের দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ। রাষ্ট্র সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ। সাম্প্রদায়িক হামলায় জড়িতরা বারবার পার পেয়ে যাচ্ছে। এর আগেও সাম্প্রদায়িক হামলায় সংখ্যালঘুরা বিচার পায়নি। হামলার কুশীলবরা ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে যায়। আমরা চাই, হামলার নেপথ্যে যারা জড়িত তাদেরও যেন বিচারের আওতায় আনা হয়।’

জাতীয় হিন্দু সমাজ সংস্কার সমিতির সভাপতি অধ্যাপক নীরেন্দ্রনাথ বিশ্বাসের মন্তব্য, ‘দেশে সংখ্যালঘুদের ওপর এতো হামলা হলেও কোনও বিচার হয় না। বিচার হয় না বলে এর স্থায়ী প্রতিকার দেখা যায় না। হামলাকারীকে বের করে গ্রেফতার করা চূড়ান্ত সমাধান নয়। মূলহোতাকে গ্রেফতার করা হোক এবং শাস্তি দেওয়া হোক।’

হিন্দু-মুসলিম সম্প্রীতি আবারও ফিরিয়ে আনতে সরকারকে মুখ্য ভূমিকা পালনের আহ্বান জানায় জাতীয় হিন্দু সমাজ সংস্কার সমিতি।

/জেএইচ/

সম্পর্কিত

ক্যান্সার আক্রান্তদের চিকিৎসার ব্যয়ভার সরকারিভাবে বহনের দাবি

ক্যান্সার আক্রান্তদের চিকিৎসার ব্যয়ভার সরকারিভাবে বহনের দাবি

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

করোনাতে মৃত্যুহীন ৬০ জেলা

করোনাতে মৃত্যুহীন ৬০ জেলা

রন্ধনশৈলী একটি সৃজনশীল শিল্পকর্ম: শিক্ষামন্ত্রী

রন্ধনশৈলী একটি সৃজনশীল শিল্পকর্ম: শিক্ষামন্ত্রী

ক্যান্সার আক্রান্তদের চিকিৎসার ব্যয়ভার সরকারিভাবে বহনের দাবি

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ২০:০১

ক্যান্সার আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার ব্যয় সরকারিভাবে বহনের দাবি জানিয়েছে রোগী কল্যাণ সোসাইটি।

শুক্রবার (২২ অক্টোবর) রাজধানীর মগবাজার এলাকায় বাংলাদেশ রোগী কল্যাণ সোসাইটির উদ্যোগে অসহায় ও দুস্থ মানুষের মাঝে বিনামূল্যে ওষুধ বিতরণ কর্মসূচিতে এ দাবি জানানো হয়।

এ সময় সংগঠনের পক্ষ থেকে তুলে ধরা প্রস্তাবনায় বলা হয়- বায়ু দূষণ বন্ধ ও মেডিক্যালের বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় আধুনিকায়ন ব্যবস্থা জোরদার করতে হবে। বিভাগীয়ভাবে ক্যান্সার গবেষণা ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা এবং সরকারি হাসপাতালে শূন্যপদে ডাক্তার নিয়োগ সম্পন্ন করতে হবে। স্বাস্থ্য বিমা বাধ্যতামূলক করার জন্য রাষ্ট্রীয়ভাবে উদ্যোগ এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করার কথাও এসময় বলা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বাপ্পি সরদার তার বক্তব্যে বলেন, বর্তমান সময়ে উদ্বেগজনকহারে ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। যদিও প্রথম ও দ্বিতীয় স্তরে ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসার গবেষণা সারা পৃথিবীজুড়ে অনেকটা সফল হলেও শেষ স্তরের চিকিৎসা এখনও আলোর মুখ দেখেনি। এই ক্ষেত্রে সম্প্রতি বর্তমান সরকার ক্যান্সার গবেষণা ইনস্টিটিউট চালু করতে যাচ্ছে। তবে ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসার ব্যয়ভার সরকারিভাবে বহন করলে সাধারণ মানুষ উপকৃত হবে।

ডা. মাহতাব হোসাইন মাজেদ বলেন, চিকিৎসা খাতে আরও বেশি গবেষণা জোরদার করা দরকার। উন্নত গবেষণার মাধ্যমে টেকসই চিকিৎসা ব্যবস্থা বাস্তবায়ন করা সম্ভব। পাশাপাশি সরকারি হাসপাতালগুলো দুর্নীতি বন্ধ ও চিকিৎসার মান উন্নত করতে পারলে রোগীরা সঠিক সেবা পাবে।

নুরুল আফসার বিএসসির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সবুজ আন্দোলনের পরিচালনা পরিষদের চেয়ারম্যান বাপ্পি সরদার। কর্মসূচি উদ্বোধন করেন গণআজাদী লীগের মহাসচিব মুহাম্মদআতা উল্লাহ খান। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ রোগী কল্যাণ সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা ও কো-চেয়ারম্যান ডা. মুহাম্মদ মাহতাব হোসাইন মাজেদ, কুটির শিল্প ও কারিগরি প্রকল্পের নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ শফিউল আলম, রোগী কল্যাণ সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য মো. সাইফুল ইসলাম, এইচএম সালাউদ্দিন কাদের।

/এসএস/এমএস/

সম্পর্কিত

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

রবিবার দেশে জলবায়ু ধর্মঘট পালন করবেন পরিবেশবাদীরা

রবিবার দেশে জলবায়ু ধর্মঘট পালন করবেন পরিবেশবাদীরা

রাজধানীতে ট্রেন লাইনচ্যুত: সাড়ে তিন ঘণ্টা পর চলাচল স্বাভাবিক

রাজধানীতে ট্রেন লাইনচ্যুত: সাড়ে তিন ঘণ্টা পর চলাচল স্বাভাবিক

কাওরান বাজারে মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত

কাওরান বাজারে মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ১৯:৩৩

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে কাওরান বাজার এলাকায় দুইজন এবং বনানীর সৈনিক ক্লাব এলাকায় একজন প্রাণ হারিয়েছেন। শুক্রবার (২২ অক্টোবর) দিনের বিভিন্ন সময়ে এসব দুর্ঘটনা দেখা দেয়। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহগুলো আইনি প্রক্রিয়া শেষে ঢামেক মর্গে পাঠিয়েছে ঢাকা রেলওয়ে পুলিশ।

রেলওয়ে পুলিশের এএসআই সাকলাইন জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে সৈনিক ক্লাব এলাকা থেকে জিন্স প্যান্ট ও শার্ট পরা এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তার বয়স আনুমানিক ২৪ বছর। তবে পরিচয় জানা যায়নি। রেলওয়ে পুলিশের তথ্যানুযায়ী, কমলাপুরগামী সোনার বাংলা এক্সপ্রেস ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু হয়েছে তার।

তেজগাঁও থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রিয়াজ মাহমুদ জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার রাতে তেজগাঁও রেলস্টেশন ও কাওরান বাজারের মাঝামাঝি রেলগেট এলাকায় কমলাপুরগামী ট্রেনে কাটা পড়ে প্রাণ হারায় সবুজ শার্ট ও কালো প্যান্ট পরা এক ব্যক্তি। তার বয়স আনুমানিক ৪০ বছর। তবে পরিচয় জানা যায়নি।

এসআই রিয়াজ মাহমুদ জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে কাওরান বাজার কাঠপট্টি এলাকায় একটি মোবাইল ফোন দেখে আরেকটি মোবাইল ফোনে নম্বর তোলার সময় টঙ্গীগামী ট্রেনের ধাক্কায় মনসুর হেলাল (২৫) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। আশেপাশের লোকজন ট্রেন আসছে দেখে তাকে ডাকলেও তিনি বুঝতে পারেননি।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃত তরুণ একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন। তার গ্রামের বাড়ি টাঙ্গাইলে। মিরপুরের একটি মেসে থাকতেন তিনি।

/এআইবি/আরটি/জেএইচ/

সম্পর্কিত

ক্যান্সার আক্রান্তদের চিকিৎসার ব্যয়ভার সরকারিভাবে বহনের দাবি

ক্যান্সার আক্রান্তদের চিকিৎসার ব্যয়ভার সরকারিভাবে বহনের দাবি

রাজনৈতিক দলগুলো পুরনো অভ্যাসে লিপ্ত, বিবৃতিতে ৪৭ নাগরিক

রাজনৈতিক দলগুলো পুরনো অভ্যাসে লিপ্ত, বিবৃতিতে ৪৭ নাগরিক

রবিবার দেশে জলবায়ু ধর্মঘট পালন করবেন পরিবেশবাদীরা

রবিবার দেশে জলবায়ু ধর্মঘট পালন করবেন পরিবেশবাদীরা

রাজধানীতে ট্রেন লাইনচ্যুত: সাড়ে তিন ঘণ্টা পর চলাচল স্বাভাবিক

রাজধানীতে ট্রেন লাইনচ্যুত: সাড়ে তিন ঘণ্টা পর চলাচল স্বাভাবিক

করোনাতে মৃত্যুহীন ৬০ জেলা

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ১৯:২৯

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন চারজন। যা গত ১৭ মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন। এর আগে গত বছরের ৬ মে তিনজনের মৃত্যুর কথা জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদফতর।

শুক্রবার (২২ অক্টোবর) স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনা বিষয়ক বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় (বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত) মারা যাওয়া এই চারজনের মৃত্যু হয়েছে দেশের ৬৪ জেলার মধ্যে চারটি জেলায়। বাকি ৬০ জেলায় করোনাতে কারও মৃত্যু হয়নি।

মারা যাওয়া চারজনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের মুন্সিগঞ্জ ও টাঙ্গাইল, চট্টগ্রাম বিভাগের চট্টগ্রাম ও বরিশাল বিভাগের বরিশাল জেলায় চারজনের মৃত্যু হয়েছে।

/জেএ/এমএস/

সম্পর্কিত

আরও ১২৩ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

আরও ১২৩ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

এক সপ্তাহে ৪ কোটি শিশু পাবে কৃমির ওষুধ

এক সপ্তাহে ৪ কোটি শিশু পাবে কৃমির ওষুধ

সাড়ে সাত লাখ টিকা দেওয়া হয়েছে আজ

সাড়ে সাত লাখ টিকা দেওয়া হয়েছে আজ

করোনায় মৃত্যুহীন ৫৬ জেলা

করোনায় মৃত্যুহীন ৫৬ জেলা

রন্ধনশৈলী একটি সৃজনশীল শিল্পকর্ম: শিক্ষামন্ত্রী

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ১৮:০৩

রান্নাকে একটি সৃজনশীল শিল্পকর্ম হিসেবে উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেন, ‘রন্ধনশিল্পীরা বাঙালির ঐতিহ্যবাহী রান্নার স্বাদ ও বৈচিত্র্যে নিত্য নতুন উদ্ভাবনার মধ্য দিয়ে দেশের সীমানা ছাড়িয়ে বিশ্বের ভোজন-রসিকদের কাছে পৌঁছে দিচ্ছেন।

শুক্রবার (২২ অক্টোবর) মহাখালী ডিওএইচএসে রাওয়া ক্লাব মিলনায়তনে ‘লবী রহমান'স কুকিং ফাউন্ডেশনের রান্নার রেসিপি বই ‘রসনা শৈলী'র মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, রান্নায় দেশ-বিদেশের প্রণালী ও পদ্ধতির সংমিশ্রণ করে রন্ধনশিল্পে তাদের মেধা ও নিষ্ঠার পরিচয় দিচ্ছেন।

দেশের প্রখ্যাত রন্ধন বিশেষজ্ঞ লবী রহমানের তত্ত্বাবধানে সারা দেশের প্রায় দেড়শ রন্ধনশিল্পীর পাঠানো রেসিপি সম্পাদন করে এই বইটি প্রকাশ করেছে মুক্তধারা নিউইয়র্ক-ঢাকা প্রকাশনা সংস্থা।

মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিরা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত রন্ধনশিল্পীরা।

মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য মো. শহীদুজ্জামান খোকন এবং আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন শেফ টনি খান ও বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী আবিদা সুলতানা।

/এসএমএ/এমআর/

সম্পর্কিত

কারিগরি শিক্ষার প্রসারে বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান

কারিগরি শিক্ষার প্রসারে বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান

সিলেবাস আর সংক্ষিপ্ত করার সুযোগ নেই: শিক্ষামন্ত্রী

সিলেবাস আর সংক্ষিপ্ত করার সুযোগ নেই: শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত সূচিতেই এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা হবে: শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত সূচিতেই এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা হবে: শিক্ষামন্ত্রী

যত্রতত্র অনার্স-মাস্টার্স খুলে সনদ দেওয়া হয়েছে: শিক্ষামন্ত্রী

যত্রতত্র অনার্স-মাস্টার্স খুলে সনদ দেওয়া হয়েছে: শিক্ষামন্ত্রী

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

রাজনৈতিক দলগুলো পুরনো অভ্যাসে লিপ্ত, বিবৃতিতে ৪৭ নাগরিক

রাজনৈতিক দলগুলো পুরনো অভ্যাসে লিপ্ত, বিবৃতিতে ৪৭ নাগরিক

হিন্দু পরিষদের শাহবাগ অবরোধ

হিন্দু পরিষদের শাহবাগ অবরোধ

আরও ১২৩ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

আরও ১২৩ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

জলবায়ু পরিবর্তন রোধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি

জলবায়ু পরিবর্তন রোধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি

নতুন কুঁড়িসহ শিশুতোষ অনুষ্ঠানগুলো আবারও চালু করা হবে: হাছান মাহমুদ

নতুন কুঁড়িসহ শিশুতোষ অনুষ্ঠানগুলো আবারও চালু করা হবে: হাছান মাহমুদ

প্রেমিক থেকে ধর্ষণ মামলার আসামি

প্রেমিক থেকে ধর্ষণ মামলার আসামি

দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের জন্য মক্কার দুই মসজিদে ব্রেইল কোরআন শরিফ

দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের জন্য মক্কার দুই মসজিদে ব্রেইল কোরআন শরিফ

সিউলে বাংলাদেশ দূতাবাসে ই-পাসপোর্ট কার্যক্রমের উদ্বোধন

সিউলে বাংলাদেশ দূতাবাসে ই-পাসপোর্ট কার্যক্রমের উদ্বোধন

‘বিচার বিলম্ব হওয়ায় মৌলবাদী শক্তি সাহস পাচ্ছে’

‘বিচার বিলম্ব হওয়ায় মৌলবাদী শক্তি সাহস পাচ্ছে’

সর্বশেষ

জামায়াতের অফিসে আগাছা, দলীয় কর্মকাণ্ড নেতাদের বাসায়

২০ দলীয় জোটজামায়াতের অফিসে আগাছা, দলীয় কর্মকাণ্ড নেতাদের বাসায়

লম্বা চুল নিষিদ্ধের প্রতিবাদে আদালতে শিক্ষার্থীরা

লম্বা চুল নিষিদ্ধের প্রতিবাদে আদালতে শিক্ষার্থীরা

বোয়ালমারীতে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেলো অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী

বোয়ালমারীতে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেলো অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী

উইঘুর ইস্যুতে চাপ বাড়ছে চীনের ওপর

উইঘুর ইস্যুতে চাপ বাড়ছে চীনের ওপর

পূজামণ্ডপে হামলার চেষ্টা: যুব পরিষদের ৭ নেতাকর্মী রিমান্ডে 

পূজামণ্ডপে হামলার চেষ্টা: যুব পরিষদের ৭ নেতাকর্মী রিমান্ডে 

© 2021 Bangla Tribune