X
মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সেকশনস

বাঁচা-মরার ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ওমান

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১১:১৬

মরুর বুকে স্কটিশদের কাছে হেরে ক্ষত-বিক্ষত হতে হয়েছে মাহমুদউল্লাহদের। সেই ক্ষত শুকানোর আগেই বাঁচা-মরার লড়াইয়ে আজ মাঠে নামতে হচ্ছে লাল-সবুজদের। আরব আমিরাতের টিকিট কাটতে হলে প্রথমে ওমান ও পরের ম্যাচে পাপুয়া নিউ গিনির বিপক্ষে জিততেই হবে বাংলাদেশকে। এমন সমীকরণ সামনে রেখেই মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় ওমানের আল আমিরাত ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ওমানের বিপক্ষে মাঠে নামছে মুশফিক-সাকিবরা। ম্যাচটি সরাসরি দেখা যাবে বিটিভি, গাজী টিভি ও টি স্পোর্টসে।

অথচ ওমানে অনুষ্ঠেয় প্রাথমিক রাউন্ড সহজেই টপকে যাওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশের। কিন্তু ব্যাটারদের দীনতায় সেই পথটা এখন দুর্গম! নাহলে ওমানের বিপক্ষে আজকের ম্যাচটি হওয়ার কথা ছিল সুপার-১২ নিশ্চিতের! সেটিতো হয়নি, উল্টো এই ম্যাচটি জিতলেও শঙ্কা থেকে যাচ্ছে পরের রাউন্ডে যাওয়া নিয়ে। কেননা পাপুয়া নিউ গিনির বিপক্ষে বাংলাদেশ জিতলে, ওমানের বিপক্ষে স্কটল্যান্ড হারলে আর পাপুয়া নিউগিনি সব ম্যাচ হেরে গেলে তিন দলের পয়েন্ট হবে সমান। সেক্ষেত্রে নেট রান রেটে এগিয়ে থেকেই কোয়ালিফাই করতে হবে বাংলাদেশকে। জটিল সব সমীকরণ যখন মাথায়, তখন স্বাভাবিক খেলাটা খেলাও বেশ কঠিন।

তারপরও স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখতে হলে নিজেদের সহজাত খেলাটাই খেলতে হবে। ব্যাটিং সহায়ক উইকেটেও ক্রিকেটারদের ধীরগতির ব্যাটিং কোনওভাবেই মেনে নেওয়ার মতো নয়। ওমানের বিপক্ষেও যদি ব্যাটাররা আগের ম্যাচের ভুলগুলো করে, তাহলে ম্যাচে ফেরা কঠিন হবে। স্বাগতিক হয়েও আইসিসির ইভেন্ট বলে হয়তো বাড়তি সুবিধা নিতে পারবে না ওমান। কিন্তু সারাবছর ধরে এই মাঠে খেলেই অভ্যস্ত তারা। সেজন্য এই মাঠ হাতের তালুর মতোই তাদের চেনা। উদ্বোধনী দিনে পাপুয়া নিউ গিনিকে যেভাবে উড়িয়ে দিয়েছে। তাতে করে শঙ্কার কালো মেঘ জমছেই! তবে সব শঙ্কা-ভয় উড়িয়ে দিয়ে বাংলাদেশকে ঘুরে দাঁড়াতেই হবে। হেরে গেলে বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের কালো অধ্যায় রচিত হবে।

অতীতে দুই দলের একবারই দেখা হয়েছিল ২০১৬ সালে ভারতের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে। সেবার বাছাই পর্বে ওমানকে বৃষ্টি আইনে ৫৪ রানে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। ব্যাট হাতে ৬৩ বলে ১০৩ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছিলেন তামিম ইকবাল। কুড়ি ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশের পক্ষে এটিই একমাত্র সেঞ্চুরি। এবার সেই ওমানই সামনে। দলের ব্যাটারদের সামনে সুযোগ তামিমকে অনুসরণ করার। যদিও কাজটা মোটেও সহজ হবে না। বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে পাপুয়া নিউ গিনিকে ১০ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়ে আত্মবিশ্বাসে টগবগ করছে স্বাগতিকরা। এমন আত্মবিশ্বাসী দলের সামনে স্কটিশদের কাছে হোঁচট খেয়ে মনোবল হারানো বাংলাদেশের লড়াইটা কেমন হয় সেটাই এখন দেখার। 

তবে বাংলাদেশের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো আশ্বস্ত করেছেন ওমান বাধা পেরুতে তার শিষ্যরা সবাই আত্মবিশ্বাসী। ম্যাচ পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছেন, ‘ওমানের প্রতি আমাদের দারুণ সম্মান আছে। ছেলেরা আত্মবিশ্বাসী আছে যে আমরা পার হতে পারবো। তাদের প্রতি আমার পূর্ণ আস্থা আছে। গত বছর তারা কঠিন ম্যাচও বের করেছে। ওদের পুরো বিশ্বাস আছে ওমান ও পিএনজি বাধা উতরাতে পারবে এবং মূল পর্বে যেতে পারবে।’

বাংলাদেশের মহাগুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে একাদশে একটি পরিবর্তনের কথা সংবাদ সম্মেলনেই বলে দিয়েছেন রাসেল ডমিঙ্গো। ওপেনার সৌম্য সরকারের বদলে একাদশে ফিরছেন নাঈম শেখ। গত কয়েক ম্যাচ ধরেই ওপেনিংয়ে সুবিধা করতে পারছে না বাংলাদেশ। ওমানের বিপক্ষে নাঈম-লিটন পারুক আর না পারুক। তিন অভিজ্ঞ ক্রিকেটার সাকিব, মুশফিক, মাহমুদউল্লাহকে নিজেদের সেরাটা খেলতেই হবে। সোমবার স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ হারের পেছনে বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান দায় দেখছেন এই তিন ক্রিকেটারের।

যদিও বাংলাদেশের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো এই তিন ক্রিকেটারের দায় দেখছেন না। তার বিশ্বাস দ্রুতই তারা স্বরূপে ফিরবেন, ‘ওরা বিশ্বমানের খেলোয়াড়। জানে যেমনটা খেলেছে, সেটা ওদের আসল মান নয়। তাই সামর্থ্য নিয়ে প্রশ্ন তোলার কোন কারণ নেই। মাত্র ক'মাস আগেই রিয়াদ অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ জিতিয়েছে। প্রস্তুতি ম্যাচগুলো না খেলায় সে একটু জড়তায় ভুগেছে। কিন্তু সামর্থ্য নিয়ে প্রশ্ন তুলতে পারি না। ওদের বড় পারফরম্যান্স এই এলো বলে।’

/এফআইআর/

সম্পর্কিত

শেষ বিকালে লণ্ডভণ্ড বাংলাদেশ

শেষ বিকালে লণ্ডভণ্ড বাংলাদেশ

আইসিসির মাস সেরার তালিকায় বাংলাদেশের নাহিদা

আইসিসির মাস সেরার তালিকায় বাংলাদেশের নাহিদা

সাজিদের স্পিনে খেই হারিয়েছে বাংলাদেশ

সাজিদের স্পিনে খেই হারিয়েছে বাংলাদেশ

মুশফিক ফিরলেও জীবন পেলেন শান্ত

মুশফিক ফিরলেও জীবন পেলেন শান্ত

quiz
সর্বশেষসর্বাধিক
© 2021 Bangla Tribune