X
মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সেকশনস

রাসেলের স্বপ্ন ছিল সেনা কর্মকর্তা হবে: প্রধানমন্ত্রী

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ২১:২৪

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছোট ছেলে রাসেলের জীবনে কোনও দাবি ছিল না বলে জানিয়েছেন তারই বড় বোন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘রাসেলের একটাই স্বপ্ন ছিল, বড় হয়ে সেনা কর্মকর্তা হবে।’

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছোট ছেলে শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ সভায় প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন।

১৫ আগস্ট হত্যাকাণ্ডের বর্ণনা দিতে গিয়ে স্মৃতিকাতর হয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এই দিকে চাচার লাশ, ওই দিকে কামালের লাশ, আব্বার লাশ, মায়ের লাশ। সব মাড়িয়ে ওপরে নিয়ে রাসেলকে সবার শেষে নির্মমভাবে হত্যা করে। অথচ রাসেল ছোটবেলা থেকে এত সহজ-সরল ছিল।’

শেখ রাসেলের স্মৃতিচারণ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘রাসেল আমাদের সবার ছোট। ১৯৬৪ সালে তার জন্ম। বেঁচে থাকলে এখন ৫৭ বছর বয়স হতো। কিন্তু মাত্র ১০ বছরে বয়সে তাকে হারিয়ে যেতে হলো ঘাতকের নির্মম বুলেটের আঘাতে। আমার হাত ধরেই কিন্তু রাসেল হাঁটা শিখে। আমরা পাঁচটা ভাইবোন ছিলাম। সে আমাদের চার জনের অত্যন্ত আদরের, কিন্তু বাবার স্নেহবঞ্চিত।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘যখন বিরোধী দলে ছিলাম তখনও চেষ্টা করেছি, এখনও চেষ্টা করি, এই দেশের শিশুরা তাদের লেখাপড়া, তাদের চিকিৎসা ব্যবস্থা, তারা যেন নিয়মিত স্কুলে যেতে পারে। আজকে যেমন আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ করেছি, সেই ডিজিটাল বাংলাদেশ, সেটা তৈরি করার জন্য তাদের প্রস্তুত করা, তাদের ট্রেনিং দেওয়া, সব রকম ব্যবস্থা করে দিচ্ছি।’

সরকার প্রধান বলেন, ‘শিশুর নিরাপত্তা, শিশু অধিকার আইন তো জাতির পিতা ১৯৭৪ সালে করে দিয়ে গেছেন। প্রাথমিক শিক্ষাটাকে অবৈতনিক করে দিয়ে গেছেন, বাধ্যতামূলক করে দিয়ে গেছেন। কাজেই বাবার আদর্শ নিয়েই আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। আমাদের এই দেশের শিশুরা যেন আর এই নির্মমতার শিকার না হয়।’

‘বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার হবে না’ বলে দেশে আইন হয়েছিল বিষয়টি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সারা বিশ্বে অনেকেই মানবাধিকারের কথা তোলে। আমাকে অনেক সময় মানবাধিকার নিয়ে প্রশ্ন করে। তখন আমার মনে হয়—আমি জিজ্ঞেস করি, তাদের কি অধিকার আছে এ প্রশ্ন করার। যেখানে আমার বাবা, মা, ভাইদের হত্যা করার পর বিচার চাইতে পারিনি।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘পঁচাত্তরের পরে এই দেশে ১৯টা ক্যু হয়েছে। আমি জানি, বিএনপির অনেক নেতা বা বিএনপিতে আগে ছিল, তারা দাবি করেন যে জিয়াউর রহমানের হাতে নাকি সেনাবাহিনী খুব নিয়ম-শৃঙ্খলার মধ্যে ছিল এবং শক্তিশালী হয়েছে। সেখানে আমার প্রশ্ন— ১৯টা ক্যু (১৯৭৫-৮১) হয় যখন একটা দেশে, তাহলে সেই দেশে সেনাবাহিনী শক্তিশালী ও নিয়ম-শৃঙ্খলার মধ্যে থাকে—এই দাবি করে কোন মুখে। এই কথা বলেই বা কোন মুখে?’

তিনি বলেন, ‘জিয়াউর রহমান শুধু জাতির পিতার হত্যার সঙ্গে জড়িত তাই নয়, সে তো সেনাবাহিনীর হাজার হাজার সৈনিক ও কর্মকর্তা হত্যা করেছে। বিমান বাহিনীর কর্মকর্তাদের হত্যা করেছে।’

গণভবন প্রান্ত থেকে আলোচনা সভাটি সঞ্চালনা করেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। বক্তব্য রাখেন— সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, আবদুর রাজ্জাক, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম প্রমুখ।

/পিএইচসি/এপিএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

তিন বছরেও শেষ হয়নি মুজিব কিল্লার কাজ, বাড়ছে মেয়াদ

তিন বছরেও শেষ হয়নি মুজিব কিল্লার কাজ, বাড়ছে মেয়াদ

বাংলাদেশ-ভারত অমীমাংসিত বিষয় নিষ্পন্ন করার তাগিদ

বাংলাদেশ-ভারত অমীমাংসিত বিষয় নিষ্পন্ন করার তাগিদ

‘তিনি’ পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন

‘তিনি’ পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন

নারী উদ্যোক্তাদের তৈরি পণ্যের বাজারজাত করতে হবে: পরিকল্পনামন্ত্রী

নারী উদ্যোক্তাদের তৈরি পণ্যের বাজারজাত করতে হবে: পরিকল্পনামন্ত্রী

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

তিন বছরেও শেষ হয়নি মুজিব কিল্লার কাজ, বাড়ছে মেয়াদ

তিন বছরেও শেষ হয়নি মুজিব কিল্লার কাজ, বাড়ছে মেয়াদ

বাংলাদেশ-ভারত অমীমাংসিত বিষয় নিষ্পন্ন করার তাগিদ

বাংলাদেশ-ভারত অমীমাংসিত বিষয় নিষ্পন্ন করার তাগিদ

‘তিনি’ পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন

‘তিনি’ পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন

নারী উদ্যোক্তাদের তৈরি পণ্যের বাজারজাত করতে হবে: পরিকল্পনামন্ত্রী

নারী উদ্যোক্তাদের তৈরি পণ্যের বাজারজাত করতে হবে: পরিকল্পনামন্ত্রী

নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হতে হবে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী

নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হতে হবে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী

শনাক্ত ও মৃত্যু কমেছে

শনাক্ত ও মৃত্যু কমেছে

ক্যানবেরায় বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী দিবস উদযাপন

ক্যানবেরায় বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী দিবস উদযাপন

ফের একদিনে নতুন রোগী ২৫০ ছাড়িয়ে

ফের একদিনে নতুন রোগী ২৫০ ছাড়িয়ে

বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ককে আরও দৃঢ় করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ককে আরও দৃঢ় করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

সর্বশেষ

চিত্রনায়ক ইমনকে ডিবির জিজ্ঞাসাবাদ

চিত্রনায়ক ইমনকে ডিবির জিজ্ঞাসাবাদ

ডা. মুরাদ ছাত্রদলের প্রচার সম্পাদক ছিলেন, জানালেন সভাপতি-সম্পাদক

ডা. মুরাদ ছাত্রদলের প্রচার সম্পাদক ছিলেন, জানালেন সভাপতি-সম্পাদক

‘ছাত্রনেত্রীদের নিয়ে করা মন্তব্যগুলো বিকৃত মানসিকতার পরিচায়ক’

‘ছাত্রনেত্রীদের নিয়ে করা মন্তব্যগুলো বিকৃত মানসিকতার পরিচায়ক’

মুরাদ হাসানকে গ্রেফতারের দাবি এলডিপির

মুরাদ হাসানকে গ্রেফতারের দাবি এলডিপির

তিন বছরেও শেষ হয়নি মুজিব কিল্লার কাজ, বাড়ছে মেয়াদ

তিন বছরেও শেষ হয়নি মুজিব কিল্লার কাজ, বাড়ছে মেয়াদ

© 2021 Bangla Tribune