X
রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

সেকশনস

আইসল্যান্ড ও নেদারল্যান্ডসে যুক্তরাষ্ট্রের এফ-১৫সি ঈগলস মোতায়েন

আপডেট : ০৩ এপ্রিল ২০১৬, ১৫:২৫

‘মুক্ত’ ও ‘নিরাপদ’ ইউরোপ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আইসল্যান্ড ও নেদারল্যান্ডসে বিমান মোতায়েন করেছে যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার ১২টি এফ-১৫সি ঈগলস ও ৩৫০ বৈমানিক মোতায়েন করার কথা ঘোষণা করে যুক্তরাষ্ট্রের এয়ার ফোর্স। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন খবরটি নিশ্চিত করেছে।

ম্যাসাচুসেটসের বারনেস এয়ার ন্যাশনাল গার্ড বেস থেকে যুক্তরাষ্ট্রের বিমান ইউনিটের ১৩১তম ফাইটার স্কোয়াড্রন এবং ক্যালিফোর্নিয়ার ফ্রেসনো এয়ার ন্যাশনাল গার্ড বেস থেকে ১৯৪তম ফাইটার স্কোয়াড্রন ন্যাটোর অধীনে নজরদারীতে অংশ নেবে এবং নেদারল্যান্ডসে বিমান উড্ডয়ন প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করবে।

ইউরোপে রাশিয়ার আগ্রাসন মোকাবেলা করতে এফ-১৫ই একমাত্র বিমান প্যাকেজ নয়। গত ফেব্রুয়ারি মাসে যুক্তরাষ্ট্র ফিনল্যান্ডে ছয়টি এফ-১৫ নিয়ে অপারেশন আটলান্টিক রিসলভ চালানোর ঘোষণা দেয় যা মূলত শুরু হয়েছিল ২০১৪ সালে, ইউক্রেনে রাশিয়ার সেনা মোতায়েনের পর। সেই বিমানগুলো আগামী মাসে মোতায়েন করা হবে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

উল্লেখ্য, আইসল্যান্ডের ছোট কোস্ট গার্ড থাকলেও, আইসল্যান্ডই হচ্ছে ন্যাটোভুক্ত একমাত্র রাষ্ট্র যাদের কোন সেনাবাহিনী নেই।

স্নায়ুযুদ্ধের সময়ে আইসল্যান্ডে যুক্তরাষ্ট্রের বিমানঘাঁটি ছিল তবে ২০০৬ সালে তা বন্ধ হয়ে যায়।এরপর ২০০৮ সাল থেকেই আইসল্যান্ডের বিমান নিয়ন্ত্রণ ন্যাটোর অধীনে। কিন্তু রাশিয়ার বিমান অভিযান ঠেকাতে পারছে না সেই বিমানবাহিনী।

এয়ার ফোর্স সূত্র জানায়, এফ-১৫ বিমানগুলো যুক্তরাষ্ট্রের থিয়েটার সিকিউরিটি প্যাকেজের অংশ যা ইউরোপে মোতায়েন করা বিমানবাহিনীর শক্তি বৃদ্ধি করতে কাজে লাগে।

ট্রান্সআটলান্টিক সিকিউরিটি ইনিশিয়েটিভ আটলান্টিক কাউন্সিলের পরিচালক ম্যাগনাস নোরডেনমান বলেন, ‘উত্তর আটলান্টিকে রাশিয়ার বিমানবাহিনী, বোমারু বিমান ও ডুবোজাহাজের আনাগোনা এই অঞ্চলের নিরাপত্তা বিষয়ে নতুন করে ভাবতে বাধ্য করছে। ফলে এখানে ন্যাটোর উপস্থিতি কাম্য হয়ে পড়েছে।’

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে, বিশেষত ক্রিমিয়ার ইউক্রেন উপদ্বীপে রাশিয়ার ভূমিকা ও বিদ্রোহীদের সমর্থন পশ্চিমের সঙ্গে রাশিয়ার সম্পর্কে অস্থিরতা তৈরি করেছে। এই বিমানগুলো আগামী সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ওই অঞ্চলে থাকবে বলে জানানো হয়েছে। সূত্র সিএনএন

/ইউআর/বিএ/                

সম্পর্কিত

পুতিনই ঠিক, বললেন বাইডেন

পুতিনই ঠিক, বললেন বাইডেন

চাঁদে জমি বিক্রি করেন তিনি, ক্রেতার তালিকায় মার্কিন প্রেসিডেন্টরাও

চাঁদে জমি বিক্রি করেন তিনি, ক্রেতার তালিকায় মার্কিন প্রেসিডেন্টরাও

‘কংগ্রেসে মুসলিম নারীদের মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নেই’

‘কংগ্রেসে মুসলিম নারীদের মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নেই’

ম্যাক্রোঁর সঙ্গে বিতর্কে জড়ালেন বরিস জনসন

ম্যাক্রোঁর সঙ্গে বিতর্কে জড়ালেন বরিস জনসন

ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টে হুমকির মুখে যুক্তরাজ্যের ‘ফ্রিডম ডে’

ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টে হুমকির মুখে যুক্তরাজ্যের ‘ফ্রিডম ডে’

যে কারণে রানি এলিজাবেথের জন্মদিন দুইটা

যে কারণে রানি এলিজাবেথের জন্মদিন দুইটা

জাতিসংঘে ভোটাধিকার ফিরে পেলো ইরান

জাতিসংঘে ভোটাধিকার ফিরে পেলো ইরান

যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ী হওয়ার সুবিধা বঞ্চিত হচ্ছেন প্রায় ৪ লাখ মানুষ

যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ী হওয়ার সুবিধা বঞ্চিত হচ্ছেন প্রায় ৪ লাখ মানুষ

মেক্সিকো সীমান্তে আবারও দেয়াল নির্মাণ করতে চায় টেক্সাস

মেক্সিকো সীমান্তে আবারও দেয়াল নির্মাণ করতে চায় টেক্সাস

তুরস্কে পাওয়া গেলো ১৮০০ বছর পুরনো নারী ভাস্কর্য

তুরস্কে পাওয়া গেলো ১৮০০ বছর পুরনো নারী ভাস্কর্য

চীনের প্রভাব মোকাবিলায় জি ৭’র বিশাল প্রকল্প

চীনের প্রভাব মোকাবিলায় জি ৭’র বিশাল প্রকল্প

তিমির পেট থেকে জীবিত বেরিয়ে এলেন তিনি!

তিমির পেট থেকে জীবিত বেরিয়ে এলেন তিনি!

সর্বশেষ

৩০ জুন পর্যন্ত বন্ধ ভারতীয় সীমান্ত বন্ধ

৩০ জুন পর্যন্ত বন্ধ ভারতীয় সীমান্ত বন্ধ

স্ত্রী-সন্তানসহ ৩ জনকে হত্যার কারণ অনুসন্ধানে পুলিশ

স্ত্রী-সন্তানসহ ৩ জনকে হত্যার কারণ অনুসন্ধানে পুলিশ

ব্যবসা সহজীকরণের উদ্যোগ চায় বিজিএমইএ

ব্যবসা সহজীকরণের উদ্যোগ চায় বিজিএমইএ

কিস্তি মেয়াদোত্তীর্ণ গ্রাহকরা আমদানি পরবর্তী ঋণ পাবেন না

কিস্তি মেয়াদোত্তীর্ণ গ্রাহকরা আমদানি পরবর্তী ঋণ পাবেন না

পুতিনই ঠিক, বললেন বাইডেন

পুতিনই ঠিক, বললেন বাইডেন

শিশুদের দিয়ে যৌনব্যবসা বন্ধে কঠোর নজরদারি চায় নারী আইনজীবী সমিতি

শিশুদের দিয়ে যৌনব্যবসা বন্ধে কঠোর নজরদারি চায় নারী আইনজীবী সমিতি

তামাকপণ্য সহজলভ্য হলে হুমকির মুখে পড়বে জনস্বাস্থ্য: প্রজ্ঞা

তামাকপণ্য সহজলভ্য হলে হুমকির মুখে পড়বে জনস্বাস্থ্য: প্রজ্ঞা

মুক্তিযুদ্ধের সব দলিল অবমুক্ত করবে ভারত

মুক্তিযুদ্ধের সব দলিল অবমুক্ত করবে ভারত

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বিমান বাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বিমান বাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ

কোলের সন্তানসহ বাবাকে থানায় নিয়ে গেলো পুলিশ

কোলের সন্তানসহ বাবাকে থানায় নিয়ে গেলো পুলিশ

রাজনীতি না চিকিৎসা, কী বেছে নেবেন খালেদা জিয়া

রাজনীতি না চিকিৎসা, কী বেছে নেবেন খালেদা জিয়া

ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে দিলো ইংল্যান্ড

ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে দিলো ইংল্যান্ড

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

পুতিনই ঠিক, বললেন বাইডেন

পুতিনই ঠিক, বললেন বাইডেন

চাঁদে জমি বিক্রি করেন তিনি, ক্রেতার তালিকায় মার্কিন প্রেসিডেন্টরাও

চাঁদে জমি বিক্রি করেন তিনি, ক্রেতার তালিকায় মার্কিন প্রেসিডেন্টরাও

‘কংগ্রেসে মুসলিম নারীদের মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নেই’

‘কংগ্রেসে মুসলিম নারীদের মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নেই’

ম্যাক্রোঁর সঙ্গে বিতর্কে জড়ালেন বরিস জনসন

ম্যাক্রোঁর সঙ্গে বিতর্কে জড়ালেন বরিস জনসন

ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টে হুমকির মুখে যুক্তরাজ্যের ‘ফ্রিডম ডে’

ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টে হুমকির মুখে যুক্তরাজ্যের ‘ফ্রিডম ডে’

যে কারণে রানি এলিজাবেথের জন্মদিন দুইটা

যে কারণে রানি এলিজাবেথের জন্মদিন দুইটা

জাতিসংঘে ভোটাধিকার ফিরে পেলো ইরান

জাতিসংঘে ভোটাধিকার ফিরে পেলো ইরান

যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ী হওয়ার সুবিধা বঞ্চিত হচ্ছেন প্রায় ৪ লাখ মানুষ

যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ী হওয়ার সুবিধা বঞ্চিত হচ্ছেন প্রায় ৪ লাখ মানুষ

মেক্সিকো সীমান্তে আবারও দেয়াল নির্মাণ করতে চায় টেক্সাস

মেক্সিকো সীমান্তে আবারও দেয়াল নির্মাণ করতে চায় টেক্সাস

তুরস্কে পাওয়া গেলো ১৮০০ বছর পুরনো নারী ভাস্কর্য

তুরস্কে পাওয়া গেলো ১৮০০ বছর পুরনো নারী ভাস্কর্য

© 2021 Bangla Tribune