X
সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ৬ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

পাঞ্জাবের নারী সুরক্ষা আইনের বিরোধিতায় পাকিস্তানের জামায়াত

আপডেট : ০৩ এপ্রিল ২০১৬, ২০:৩৫

পাঞ্জাবে পাস হওয়া সহিংসতাবিরোধী নারী সুরক্ষা আইন-২০১৫ এর বিরোধিতা করে জাতীয় সংসদে নতুন আইন প্রস্তাব করবে পাকিস্তানের ইসলামি রাজনৈতিক দলগুলো। পাকিস্তান জামায়াতে ইসলামির নেতা লিয়াকত বালুচের নেতৃত্বে ২৪ সদস্যের স্টিয়ারিং কমিটি এ আইন প্রস্তাব করছে। রবিবার পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ডনের এক খবরে বিষয়টি জানা গেছে।

শনিবার মনসুরাতে ৩৫টি ইসলামি দলের নিজাম-ই-মুস্তাফা সম্মেলন শেষে জামায়াত নেতা লিয়াকত বালুচ বলেন, ‘ইসলামের আলোকে পাকিস্তানের নারীদের ক্ষমতায়ন ও সুরক্ষার জন্য এই নতুন আইন প্রস্তাব করা হয়েছে। এই আইনের মধ্য দিয়ে পাঞ্জাব সরকারের গৃহীত ইসলামবিরোধী নারী সুরক্ষা আইন বাতিল হবে।’

বালুচ জানান, স্টিয়ারিং কমিটির সদস্যরা পাঞ্জাবের নারী আইন গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করেছেন। এরপর তারা এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন যে, আইনটিতে সংশোধন প্রয়োজন। তিনি বলেন, সরকারের সামনে একটাই বিকল্প আছে, আগের আইনটি বাতিল করে আমাদের প্রস্তাবিত আইনটি পাস করা।

সম্মেলনে ঘোষণা দেওয়া হয়, পাঞ্জাবের নারী সুরক্ষা আইন বাতিলের বিষয়ে কোনও সমঝোতা হবে না। এটা বাতিলে আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। সম্মেলনে যৌথ ঘোষণায় পাঞ্জাবের নারী সুরক্ষা আইনকে ‘মুসলিম পরিবার রীতিকে আক্রমণ’ করেছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

সম্মেলনের ঘোষণায় আরও বলা হয়েছে, পাকিস্তানের নারীরা ‘সম্পূর্ণভাবে’ পাঞ্জাবে পাস হওয়া আইনটিকে প্রত্যাখ্যান করেছে। এটাকে শরিয়াহ বিরোধী বলেও উল্লেখ করা হয়েছে। সংবিধান অনুসারে শরিয়াহ লঙ্ঘন করার কোনও আইনি সুযোগ নেই।

এর আগে গত মাসে ইসলামি দলগুলো সরকারকে পাঞ্জাবের নারী আইন বাতিলের দাবি জানিয়ে ১৯৭৭ সালের মতো আন্দোলন গড়ে তোলার হুমকি দেয়।

ফেব্রুয়ারি মাসের শেষ সপ্তাহে পাঞ্জাবে উইমেন’স প্রটেকশন অ্যাক্ট (নারীর সুরক্ষাবিষয়ক আইন) নামে নতুন একটি আইন পাস হয়। আইনের আওতায়, পারিবারিক ও মানসিক নির্যাতন এবং যৌন নিপীড়ন থেকে নারীকে আইনি সুরক্ষা দেওয়ার কথা বলা হয়। একইসঙ্গে বিনামূল্যে নির্যাতনের অভিযোগ জানাতে একটি রিপোর্টিং হটলাইন তৈরি এবং নারীদের জন্য আশ্রয়কেন্দ্র প্রতিষ্ঠার কথাও বলা হয় নতুন আইনে। সূত্র: ডন।

/এএ/বিএ/

সম্পর্কিত

আফগানিস্তানে ‘প্রকৃত ইসলামি ব্যবস্থা’ চায় তালেবান

আফগানিস্তানে ‘প্রকৃত ইসলামি ব্যবস্থা’ চায় তালেবান

কাবুল বিমানবন্দরে তুরস্কের উপস্থিতি গুরুত্বপূর্ণ: আফগান কর্মকর্তা

কাবুল বিমানবন্দরে তুরস্কের উপস্থিতি গুরুত্বপূর্ণ: আফগান কর্মকর্তা

রাশিয়া সফরে মিয়ানমারের জান্তাপ্রধান

রাশিয়া সফরে মিয়ানমারের জান্তাপ্রধান

দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন গড়ার অঙ্গীকার রায়িসি-র

দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন গড়ার অঙ্গীকার রায়িসি-র

জাপানের পানিসীমায় চীনা কোস্টগার্ডের জাহাজ

জাপানের পানিসীমায় চীনা কোস্টগার্ডের জাহাজ

পাকিস্তানে সিআইএ ঘাঁটির প্রশ্নই আসে না: ইমরান খান

পাকিস্তানে সিআইএ ঘাঁটির প্রশ্নই আসে না: ইমরান খান

যুক্তরাষ্ট্রে ছড়িয়ে পড়তে পারে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট: সিডিসি

যুক্তরাষ্ট্রে ছড়িয়ে পড়তে পারে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট: সিডিসি

জাতিসংঘের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান মিয়ানমারের

জাতিসংঘের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান মিয়ানমারের

সাইকেল থেকে পড়ে গিয়ে নিজেই বানালেন সেল্ফ ব্যালেন্সিং বাইক

সাইকেল থেকে পড়ে গিয়ে নিজেই বানালেন সেল্ফ ব্যালেন্সিং বাইক

২৫৯ তালেবান সদস্যকে হত্যার দাবি আফগানিস্তানের

২৫৯ তালেবান সদস্যকে হত্যার দাবি আফগানিস্তানের

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ইব্রাহিম রায়িসিকে বিজয়ী ঘোষণা

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ইব্রাহিম রায়িসিকে বিজয়ী ঘোষণা

কাবুলে মার্কিন দূতাবাসে করোনার তাণ্ডব: আক্রান্ত ১১৪

কাবুলে মার্কিন দূতাবাসে করোনার তাণ্ডব: আক্রান্ত ১১৪

সর্বশেষ

৫ লাখ ছাড়ালো ব্রাজিলে করোনায় মৃতের সংখ্যা

৫ লাখ ছাড়ালো ব্রাজিলে করোনায় মৃতের সংখ্যা

রোহিঙ্গা ইস্যুতে পশ্চিমা বিশ্বকে শক্ত বার্তা দিয়েছে বাংলাদেশ

রোহিঙ্গা ইস্যুতে পশ্চিমা বিশ্বকে শক্ত বার্তা দিয়েছে বাংলাদেশ

জাতিসংঘে নিজের বিপক্ষেই ভোট দিয়েছে মিয়ানমার

জাতিসংঘে নিজের বিপক্ষেই ভোট দিয়েছে মিয়ানমার

যুক্তরাষ্ট্রে ঘূর্ণিঝড়ে গাড়ির সংঘর্ষে শিশুসহ নিহত ১০

যুক্তরাষ্ট্রে ঘূর্ণিঝড়ে গাড়ির সংঘর্ষে শিশুসহ নিহত ১০

ফেসবুকে দুই মন্ত্রীর 'দ্বন্দ্ব' বিষয়ক স্ট্যাটাস

ফেসবুকে দুই মন্ত্রীর 'দ্বন্দ্ব' বিষয়ক স্ট্যাটাস

সিডনিতে ‘ধূমকেতু’ ব্যান্ডের সফল কনসার্ট

সিডনিতে ‘ধূমকেতু’ ব্যান্ডের সফল কনসার্ট

মায়ের কপালে চুমু খেয়ে কলেজছাত্রের আত্মহত্যা

মায়ের কপালে চুমু খেয়ে কলেজছাত্রের আত্মহত্যা

ওয়েলসকে হারিয়ে ইতালি গ্রুপ সেরা

ওয়েলসকে হারিয়ে ইতালি গ্রুপ সেরা

কনওয়ের হাফসেঞ্চুরিতে শক্ত অবস্থানে কিউইরা

কনওয়ের হাফসেঞ্চুরিতে শক্ত অবস্থানে কিউইরা

‘রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার রক্ষায় আন্তর্জাতিক মহল অগ্রগামী নয়’

‘রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার রক্ষায় আন্তর্জাতিক মহল অগ্রগামী নয়’

কুষ্টিয়ায় দুই দিনে ১৪ জনের প্রাণ নিলো করোনা

কুষ্টিয়ায় দুই দিনে ১৪ জনের প্রাণ নিলো করোনা

মেক্সিকো-মার্কিন সীমান্ত শহরে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ১৮

মেক্সিকো-মার্কিন সীমান্ত শহরে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ১৮

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

আফগানিস্তানে ‘প্রকৃত ইসলামি ব্যবস্থা’ চায় তালেবান

আফগানিস্তানে ‘প্রকৃত ইসলামি ব্যবস্থা’ চায় তালেবান

কাবুল বিমানবন্দরে তুরস্কের উপস্থিতি গুরুত্বপূর্ণ: আফগান কর্মকর্তা

কাবুল বিমানবন্দরে তুরস্কের উপস্থিতি গুরুত্বপূর্ণ: আফগান কর্মকর্তা

রাশিয়া সফরে মিয়ানমারের জান্তাপ্রধান

রাশিয়া সফরে মিয়ানমারের জান্তাপ্রধান

দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন গড়ার অঙ্গীকার রায়িসি-র

দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন গড়ার অঙ্গীকার রায়িসি-র

জাপানের পানিসীমায় চীনা কোস্টগার্ডের জাহাজ

জাপানের পানিসীমায় চীনা কোস্টগার্ডের জাহাজ

পাকিস্তানে সিআইএ ঘাঁটির প্রশ্নই আসে না: ইমরান খান

পাকিস্তানে সিআইএ ঘাঁটির প্রশ্নই আসে না: ইমরান খান

যুক্তরাষ্ট্রে ছড়িয়ে পড়তে পারে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট: সিডিসি

যুক্তরাষ্ট্রে ছড়িয়ে পড়তে পারে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট: সিডিসি

জাতিসংঘের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান মিয়ানমারের

জাতিসংঘের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান মিয়ানমারের

সাইকেল থেকে পড়ে গিয়ে নিজেই বানালেন সেল্ফ ব্যালেন্সিং বাইক

সাইকেল থেকে পড়ে গিয়ে নিজেই বানালেন সেল্ফ ব্যালেন্সিং বাইক

২৫৯ তালেবান সদস্যকে হত্যার দাবি আফগানিস্তানের

২৫৯ তালেবান সদস্যকে হত্যার দাবি আফগানিস্তানের

© 2021 Bangla Tribune