X
বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
১৬ ফাল্গুন ১৪৩০

পাইকারিতে বিদ্যুতের দাম বাড়লো প্রায় ২০ শতাংশ

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
২১ নভেম্বর ২০২২, ১২:২৭আপডেট : ৩১ জানুয়ারি ২০২৩, ১১:৩২

বিদ্যুতের পাইকারি দাম বাড়লো ১৯ দশমিক ৯২ শতাংশ। ইউনিট প্রতি ৫ টাকা ১৭ পয়সা থেকে বেড়ে ৬ টাকা ২০ পয়সা নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন-বিইআরসি। আগামী বিল মাস ডিসেম্বর থেকেই নতুন এই মূল্য কার্যকর হবে বলেও জানিয়েছে কমিশন।

কমিশন জানিয়েছে, এই দাম পুনর্নির্ধারণের ক্ষেত্রে ভর্তুকি ধরা হয়েছে ১৭ হাজার কোটি টাকা। অর্থাৎ দাম বাড়ানোর পরও বিদ্যুতের উৎপাদন পর্যায়ে ভর্তুকি ১৭ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দেবে সরকার।

জানা গেছে, এই দাম বৃদ্ধির ফলে এখনই গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বাড়ছে না। তবে নতুন দাম বিবেচনায় শিগগিরই বিতরণ কোম্পানিগুলো কমিশনের কাছে দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দেবে। 

সোমবার (২১ নভেম্বর) অনলাইনে এক সংবাদ সম্মেলনে পাইকারিতে বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর এই আদেশ দিয়েছে কমিশন। এ সময় কমিশনের চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল, সদস্য আবু ফারুক, সদস্য মকবুল ই ইলাহী, সদস্য বজলুর রহমানসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। 

এক মাস আগেও বিদ্যুতের পাইকারি দাম না বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছিল কমিশন। তবে সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে আজ সোমবার দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিলো কমিশন। 

প্রসঙ্গত, পিডিবি গত ১২ জানুয়ারি বিদ্যুতের পাইকারি দাম পুনর্নির্ধারণের প্রস্তাব জমা দেয়। এরপর ১৮ মে তাদের প্রস্তাবের ওপর গণশুনানি করা হয়েছে। এরপর ১৩ অক্টোবর দাম না বাড়ানোর ঘোষণা দেয় কমিশন। তবে কমিশন সে সময় এই প্রস্তাবের বিপরীতে প্রস্তাবের বিষয়ে রিভিউ করার সুযোগ রেখে দেয় পিডিবির জন্য। আর সেই সুযোগটিই নিয়েছে পিডিবি। গত সপ্তাহের সোমবার রিভিউ আপিল করে তারা। এক সপ্তাহের যাচাই-বাছাই শেষে আজ নতুন সিদ্ধান্ত জানানো হলো।

প্রসঙ্গত, গত ১৮ মে পিডিবি গণশুনানিতে পাইকারি বিদ্যুতের দাম ৬৫ দশমিক ৫৭ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব দেয় এবং বিইআরসির কারিগরি মূল্যায়ন কমিটি ভর্তুকি না দিলে ৫৭ দশমিক ৮৩ শতাংশ বাড়ানোর সুপারিশ করেছিল। আর ভর্তুকি দিলে বাড়ানোর প্রয়োজন নেই বলেও তারা সুপারিশ করে। 

বিইআরসি সর্বশেষ ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে বিদ্যুতের পাইকারি দর ইউনিট প্রতি ৫ টাকা ১৭ পয়সা নির্ধারণ করে।

/এসএনএস/ইউএস/
সম্পর্কিত
বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি প্রত্যাহারের দাবি চুন্নুর
বাড়ছে বিদ্যুতের দাম, মার্চ থেকে কার্যকর
রংপুর নগরীঠেকানো যাচ্ছে না বিদ্যুতের তার চুরি, রাত জেগে পাহারা
সর্বশেষ খবর
প্রতিবেদন নিয়ে বিতর্ক, তদন্ত করবে উচ্চতর কমিটি
ভিকারুনিসায় যৌন হয়রানি:প্রতিবেদন নিয়ে বিতর্ক, তদন্ত করবে উচ্চতর কমিটি
রাজধানীর বেরাইদে বাবা- ছেলের মরদেহ উদ্ধার
রাজধানীর বেরাইদে বাবা- ছেলের মরদেহ উদ্ধার
ভারতে এক ট্রেনে আগুন আতঙ্ক, অন্য ট্রেনের নীচে কাটা পড়ে দুইজন নিহত
ভারতে এক ট্রেনে আগুন আতঙ্ক, অন্য ট্রেনের নীচে কাটা পড়ে দুইজন নিহত
সাকিব-তামিম ভুয়া হলে আমাদের মাটির ভেতরে ঢুকে যাওয়া উচিত: মুশফিক
সাকিব-তামিম ভুয়া হলে আমাদের মাটির ভেতরে ঢুকে যাওয়া উচিত: মুশফিক
সর্বাধিক পঠিত
শবে বরাত নিয়ে আপত্তিকর বক্তব্য: সেই ইসলামি বক্তার বিরুদ্ধে আরেক মামলা
শবে বরাত নিয়ে আপত্তিকর বক্তব্য: সেই ইসলামি বক্তার বিরুদ্ধে আরেক মামলা
রমজানে সরকারি অফিসের নতুন সময়সূচি ঘোষণা
রমজানে সরকারি অফিসের নতুন সময়সূচি ঘোষণা
ভর্তি পরীক্ষার খাতার নিচে মোবাইল রেখে গুগল থেকে উত্তর লিখছিলেন শিক্ষার্থী
ভর্তি পরীক্ষার খাতার নিচে মোবাইল রেখে গুগল থেকে উত্তর লিখছিলেন শিক্ষার্থী
রমজানে বড় ইফতার পার্টি করা যাবে না
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনারমজানে বড় ইফতার পার্টি করা যাবে না
পাহাড়ের বুক চিরে ৫২ বছরের কষ্ট চাপা দেবেন তারা
পাহাড়ের বুক চিরে ৫২ বছরের কষ্ট চাপা দেবেন তারা