বিদ্যুৎ বিভাগে চালু হচ্ছে ইআরপি

Send
বাংলা ট্রিবউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২২:২১, অক্টোবর ২২, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:৪৭, অক্টোবর ২২, ২০১৮

nosrulবিদ্যুৎ বিভাগের সব তথ্য এক জায়গায় আনতে এন্টারপ্রাইজ রিসোর্স প্ল্যানিং (ইআরপি) করা হচ্ছে। সফটঅ্যয়ার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফটের সঙ্গে চুক্তি করেছে বিদ্যুৎ বিভাগ। সোমবার (২২ অক্টোবর) বিকেলে ইআরপির সুফল তুলে ধরতে যৌথভাবে বিদ্যুৎ বিভাগ ও মাইক্রোসফট একটি সেমিনারের আয়োজন করে।

সেমিনারে প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেন, ‘এখন যেভাবে ডিজিটালাইজেশনের নামে আংশিক অন লাইন সেবা দেওয়া হচ্ছে, ইআরপি যেন তেমন না হয়।  সেমিনারে জানানো হয়, প্রথম ধাপের কাজ ৩ মাসের মধ্যে শেষ হবে। আর ইআরপির সব কাজ শেষ করতে সময় প্রয়োজন হবে একবছর। মন্ত্রণালয়গুলোর মধ্যে প্রথম ইআরপির প্রচলন করলো বিদ্যুৎ বিভাগ।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘এখন আমাদের কোম্পানিগুলোতে অনলাইনে বিদ্যুৎ সংযোগের আবেদন করা যায়। কিন্তু এরপরের সব প্রক্রিয়াই সারতে ফের টেবিলে টেবিলে দৌড়াতে হয়। অনলাইন সেবা মানে একজন গ্রাহক অনলাইনেই আবেদন করবেন এবং তার অনুমোদনের সব কাজ অনলাইনেই শেষ করা হবে। এই অনলাইন প্রথা কেমন অনলাইন প্রথা?’ তিনি বলেন, ‘আমরা সাত দিনের মধ্যে যে বিদ্যুৎ সংযোগের কথা বলছি, তা আদৌ সাত দিনে দেওয়া হচ্ছে কিনা, তা বোঝার উপায় থাকছে না।’ ইআরপিতে এসব সমস্যা সমাধানের উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা ই-ফাইলিংয়ের যে প্রচলন করেছি, তাতে আমাদের কাছে কিছু ছবি আসে। আমরা ওই ছবি থেকে বিষয়গুলো জানতে পারি। কিন্তু কোনও পরিবর্তন করতে পারি না। শতভাগ অনলাইননির্ভরতার মানে এমন হতে পারে না।’

মাইক্রোসফট এর পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, ইআরপিতে প্রকল্প ব্যবস্থাপনা, সেবা গ্রহিতা ব্যবস্থাপনা, হিসাব রক্ষণ, মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা, বিক্রয়, সম্পদের হিসাব রক্ষণ, ক্রয় সব তথ্য সন্নিবেশিত থাকবে। এখন যেভাবেই যে তথ্য সংরক্ষণ করা হোক, ইআরপি সফটঅ্যায়ার তা সরাসরি নিয়ে নেবে।’

সেমিনারে বলা হয়, একটি অ্যাপস ডাউনলোড করার মাধ্যমে এই সফটওয়ারের মা্ধ্যমে মোবাইল, ট্যাব এমনকি ডেস্কটপে কাজ করা যাবে। তাতে সময় বাচবে। রাস্তায় বসেই অনেক আপডেট দিয়ে কথা বলা সহজ হবে। এখন শুধু গ্রাহক অনলাইনে আবেদন করে। কিন্তু বাকি কাজ হয় হাতে হাতে।এই সফটওয়ার ইনস্টল করার পর পরের প্রত্যকেটি ধাপের কাজ করতে হবে। অনলাইনে এতে গ্রাহক চাইলে তার কাজের অগ্রগতি জানতে পারবে।

সেমিনারে মাইক্রোসফটের বাংলাদেশ ও শ্রিলঙ্কার প্রিন্সিপল সল্যুশন স্পেশালিস্ট মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন শিকদার বলেন, ‘ইআরপি একটি আধুনিক ধারণা। কোম্পানি পরিচালনায় এটি যুগান্তকারী ভূমিকা পালন করতে পারে। এখানে একসঙ্গে সব তথ্য পাওয়া যাবে। আর তথ্যগুলো কোনও সময় নষ্টও হবে না, সেভাবে সংরক্ষণ করা হবে।’

প্রকৌশলী ইকবাল হাবিব সেমিনারে বলেন, ‘আগে যেমন কোনও তথ্যের জন্য মন্ত্রী এবং সচিব সংশ্লিষ্ট দফতরে তথ্য চেয়ে পাঠাতেন ইআরপি হলে তার আর প্রয়োজন হবে না। তাৎক্ষণিকভাবে  চাইলে মোবাইল ফোনেও তথ্যগুলো দেখতে পারবেন তারা। সিদ্ধান্তগ্রহণকারীদের যা উপকৃত করবো।’

এ সময় অন্যদের মধ্যে বিদ্যুৎ সচিব ড. আহমদ কায়কাউস, পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহম্মদ হোসেইন, পিডিবির চেয়ারম্যান খালেদ মাহমুদসহ বিদ্যুৎখাতের ১৪টি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

 

/এসএনএস/এমএনএইচ/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ