X

সেকশনস

তাভেল্লা-কুনিও হত্যার তদন্ত শেষ পর্যায়ে, শিগগিরই চার্জশিট

আপডেট : ০৪ জুন ২০১৬, ১৩:১৯

তাভেল্লা সিজার ও ওসি কুনিও ইতালির নাগরিক তাভেল্লা সিজার ও জাপানি নাগরিক ওসি কুনিও হত্যাকাণ্ডের তদন্ত শেষ পর্যায়ে। ইতোমধ্যে দু’টি হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটন ও হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের চিহ্নিত করে কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের অভিযুক্ত করেই শিগগির চার্জশিট দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তদন্তে সংশ্লিষ্টরা।

গত বছরের ২৮ সেপ্টেম্বর রাজধানীর গুলশানে দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত হন ইতালির নাগরিক তাভেল্লা সিজার। এ ঘটনায় সিসিটিভি ফুটেজ ও গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে ঘটনার প্রায় একমাস পর ২৬ অক্টোবর রাসেল চৌধুরী ওরফে কালা রাসেল ওরফে ভাইগ্না রাসেল, তামজীদ আহমেদ রুবেল ওরফে শুটার রুবেল,মিনহাজুল আরিফিন রাসেল ওরফে চাক্কী রাসেল এবং সাখাওয়াত হোসেন শরীফকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ।

গ্রেফতার হওয়ার পর তামজীদ আহমেদ রুবেল ওরফে শুটার রুবেল গুরুত্বপূর্ণ অনেক তথ্য দেন গোয়েন্দাদের। পরে তিনি আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে এ হত্যাকাণ্ডের বিস্তারিত বিবরণ দেন। স্বীকারোক্তিতে তিনি বলেন,তাভেল্লা সিজার হত্যায় তিনি যে অস্ত্রটি ব্যবহার করেছিলেন,সেটি বাড্ডার ভাঙ্গারি সোহেলের। হত্যার পর সেই অস্ত্রটি আবার তাকে ফেরতও দেওয়া হয়। এই অস্ত্রটি আজও  উদ্ধার করতে পারেননি তদন্তে সংশ্লিষ্টরা। এই অস্ত্রটি উদ্ধার না হওয়ার কারণেই চার্জশিট দিতে বিলম্ব হচ্ছে বলে বাংলা ট্রিবিউনকে জানান ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম।

সিজারকে কিভাবে হত্যা করা হয় তার বর্ণনাসহ কারা তাদেরকে বিদেশি নাগরিক হত্যার জন্য ভাড়া করেছিলো সেটিও আদালতে দেওয়া জবানবন্দিতে তুলে ধরেন শুটার রুবেল। কথিত যে ‘বড়ভাই’র নির্দেশে হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয় সেই বড় ভাইয়ের পরিচয়ও আদালতের কাছে তুলে ধরেন। ওই বড় ভাই’র নির্দেশে মিনহাজুল আরিফিন রাসেল ওরফে চাক্কী রাসেল এবং রাসেল চৌধুরী ওরফে কালা রাসেল ওরফে ভাইগ্না রাসেল তাকে বিদেশি হত্যার জন্য ভাড়া করেন।

ওই চারজনকে গ্রেফতারের কয়েকদিন পর গত বছরের ৪ নভেম্বর যশোরের বেনাপোল থেকে খুনিদের সন্দেহভাজন ‘বড় ভাই’ এম এ মতিনকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ। মতিন ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের সাবেক ওয়ার্ড কমিশনার ও বিএনপি নেতা এম এ কাইয়ুমের ছোট ভাই।এরপর সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে গোয়েন্দা পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়,তাভেল্লা সিজার হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতার, মদদ ও অর্থ দাতাদের চিহ্নিত করা হয়েছে। পুরো ঘটনারই রহস্য উন্মোচন করা সম্ভব হয়েছে। তদন্তও শেষ পর্যায়ে রয়েছে। জড়িতদের অভিযুক্ত করে খুব শিগগির চার্জশিট দেওয়া হবে।

অপরদিকে ৩ অক্টোবর রংপুরে জাপানি নাগরিক ওসি কুনিওকে গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় স্থানীয় বিএনপি নেতা বিপ্লব ও জেএমবি নেতা মাসুদ রানাসহ আটজনকে গ্রেফতার করা হয়। এ মামলারও শিগগির চার্জশিট দেওয়া হবে জানিয়ে পুলিশের রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি গোলাম ফারুক বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, হোসি কোনিও হত্যাকাণ্ডে জেএমবির জঙ্গিরা জড়িত। তাদের অর্থ ও মদদাতারাও চিহ্নিত।

রংপুরে ওসি কুনিওকে হত্যার মধ্য দিয়েই ওই অঞ্চলে কিলিং মিশন শুরু করে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জেএমবি। এরপর দিনাজপুরের কান্তজির মন্দিরে হামলা, পঞ্চগড়ে পুরোহিত হত্যা ও দিনাজপুরে পেট্রোল পাম্পে ডাকাতিসহ ১২টি অপারেশন চালায় তারা। এর মধ্যে কয়েকজনকে হত্যা করা হয়। এসব ঘটনায় জেএমবির ৩৯ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। ওসি কুনিও হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার বিষয়ে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিও দিয়েছেন মাসুদুর রহমান রানা নামের জেএমবির এক জঙ্গি। তদন্ত শেষ পর্যায়ে জানিয়ে তিনি বলেন, খুব শিগগির এ মামলার চার্জশিট দেওয়া হবে।

ইতালির নাগরিক তাভেল্লা সিজার ও জাপানি নাগরিক ওসি কুনিও হত্যা মামলার চার্জশিট শিগগিরই দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, দুই হত্যা মামলায় গ্রেফতারকৃতরা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী আদালতে চার্জশিট দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন- 

সহিংসতা-খুন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নয়!

ভোটারদের টাকা দেওয়ার অভিযোগে জামায়াতকর্মী গ্রেফতার

/জেইউ/ এমএসএম /

সম্পর্কিত

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

শাজাহান খানের নেতৃত্বে নতুন শ্রমিক সংগঠনের আত্মপ্রকাশ

শাজাহান খানের নেতৃত্বে নতুন শ্রমিক সংগঠনের আত্মপ্রকাশ

বিভিন্ন স্থানে সড়কে নিহত ১৪

বিভিন্ন স্থানে সড়কে নিহত ১৪

অনলাইনে ভোট মিললেই জয় পাবে বাংলাদেশের ‘মাদারস পার্লামেন্ট’

অনলাইনে ভোট মিললেই জয় পাবে বাংলাদেশের ‘মাদারস পার্লামেন্ট’

প্রাথমিকে পেনশন নিষ্পত্তিতে দেরি হলে জবাবদিহি

প্রাথমিকে পেনশন নিষ্পত্তিতে দেরি হলে জবাবদিহি

সর্বশেষ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

কেক কাটা নয়, শুধু দোয়ার আয়োজন করেছি: সম্রাট

শুভ জন্মদিন নায়করাজ রাজ্জাককেক কাটা নয়, শুধু দোয়ার আয়োজন করেছি: সম্রাট

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে প্রস্তুতির নির্দেশনা জারি

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে প্রস্তুতির নির্দেশনা জারি

মাঝপদ্মায় নোঙর করেছে ৪ ফেরি 

মাঝপদ্মায় নোঙর করেছে ৪ ফেরি 

মার্চে হচ্ছে না এশিয়ান চ্যাম্পিয়নস ট্রফি

মার্চে হচ্ছে না এশিয়ান চ্যাম্পিয়নস ট্রফি

সিনেটে ট্রাম্পের অভিশংসন বিচার শুরু আগামী সপ্তাহে

সিনেটে ট্রাম্পের অভিশংসন বিচার শুরু আগামী সপ্তাহে

টেকনাফে ঘর পাচ্ছে ৬০ পরিবার

টেকনাফে ঘর পাচ্ছে ৬০ পরিবার

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

শাজাহান খানের নেতৃত্বে নতুন শ্রমিক সংগঠনের আত্মপ্রকাশ

শাজাহান খানের নেতৃত্বে নতুন শ্রমিক সংগঠনের আত্মপ্রকাশ

অনলাইনে ভোট মিললেই জয় পাবে বাংলাদেশের ‘মাদারস পার্লামেন্ট’

অনলাইনে ভোট মিললেই জয় পাবে বাংলাদেশের ‘মাদারস পার্লামেন্ট’

প্রাথমিকে পেনশন নিষ্পত্তিতে দেরি হলে জবাবদিহি

প্রাথমিকে পেনশন নিষ্পত্তিতে দেরি হলে জবাবদিহি

যশোরে দুই লাখ ডলারসহ ৪ হুন্ডি ব্যবসায়ী আটক

যশোরে দুই লাখ ডলারসহ ৪ হুন্ডি ব্যবসায়ী আটক


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.