সেকশনস

চূড়ান্ত পরীক্ষায় ‘৯০ শতাংশ কার্যকর’ ফাইজারের ভ্যাকসিন

আপডেট : ০৯ নভেম্বর ২০২০, ২১:৩২
image

নিজেদের উদ্ভাবিত ভ্যাকসিন ৯০ শতাংশেরও বেশি মানুষকে করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষা দিতে সক্ষম বলে দাবি করেছে ফাইজার ও বায়োনটেক। তৃতীয় ধাপের গবেষণার প্রাথমিক বিশ্লেষণে এমন প্রমাণ পাওয়ার কথা জানিয়েছে তারা। এ মাসের শেষ দিক থেকে ভ্যাকসিনটি ব্যবহারের জন্য এফডিএ’র জরুরি অনুমোদন পেতে আবেদনের পরিকল্পনা করছে ওষুধ কোম্পানিগুলো। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

করোনাভাইরাস মহামারিতে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকার মধ্যেই এগিয়ে চলেছে ভ্যাকসিন উদ্ভাবনের গবেষণা। বিশ্বজুড়ে ১৪০টিরও বেশি গবেষণার কাজ চললেও ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি চূড়ান্ত পরীক্ষার পর্যায়ে রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের খ্যাতনামা ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান ফাইজার এবং জার্মান প্রতিষ্ঠান বায়োনটেক-এর যৌথভাবে উৎপাদিত ভ্যাকসিন এর একটি।

যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, দক্ষিণ আফ্রিকা ও তুরস্ক—এই ছয় দেশের ৪৩ হাজার ৫০০ মানুষের ওপর ভ্যাকসিনটির তৃতীয় ধাপের পরীক্ষা চালানো হয়েছে। দেখা গেছে, ভ্যাকসিনটির দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার সাতদিন পর ৯০ শতাংশের ক্ষেত্রে সুরক্ষা নিশ্চিত হয়েছে।যাদের আগে কখনও করোনা সংক্রমণ হয়নি, এমন মানুষের ওপর চালানো এ পরীক্ষায় দেখা গেছে যে টিকা দেওয়ার পর শরীরে করোনাভাইরাস প্রবেশ করলেও তাদের কোভিড-১৯ হয়নি৷ একে বিজ্ঞান ও মানবতার জন্য ‘এক মহাদিন’ বলে উল্লেখ করেছে ভ্যাকসিনের প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান দুটি।

ফাইজারের চেয়ারম্যান আলবার্ট বুরলা বলেন, ‘এ স্বাস্থ্য সংকটের সমাপ্তি টানতে যুগান্তকারী আবিষ্কারের মধ্য দিয়ে বিশ্ববাসীকে সহযোগিতা করার মাত্র এক কদম দূরে দাঁড়িয়ে আছি আমরা।’

বায়োনটেকের প্রতিষ্ঠাতাদের একজন অধ্যাপক উঘুর সাহিন এ ফলকে ‘মাইলফলক’ বলে উল্লেখ করেছেন।

ফাইজার ও বায়োনটেক মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে টিকা সরবরাহে এরইমধ্যে ১৬ হাজার কোটি টাকারও বেশি অর্থের চুক্তি সই করেছে৷ চুক্তি সই হয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন, যুক্তরাজ্য, কানাডা, জাপানের সঙ্গেও৷ সময় বাঁচাতে এরইমধ্যে শুরু হয়ে গেছে উৎপাদনও৷ ২০২০ সালেই প্রতিষ্ঠান দুটি পাঁচ কোটি ডোজ টিকা উৎপাদন করতে চায়৷ ফাইজারের আশা, এ বছরের শেষ নাগাদ ৫ কোটি ডোজ সরবরাহ করতে সক্ষম হবে তারা। আর ২০২১ সালের শেষ নাগাদ সরবরাহ করা যাবে প্রায় ১৩০ কোটি ডোজ।

অবশ্য, এ ভ্যাকসিনের ক্ষেত্রে লজিস্টিক্যাল চ্যালেঞ্জ রয়েছে। একে মাইনাস ৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার নিচে রাখতে হবে। কতদিন ধরে মানুষের শরীরে ইমিউনিটি বজায় থাকবে তা নিয়েও প্রশ্ন থেকে গেছে। বয়সভেদে ভ্যাকসিনটির কার্যকারিতা কেমন তা স্পষ্ট করেনি ওষুধ কোম্পানিগুলো।

/এফইউ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই কোটি ছাড়ালো

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই কোটি ছাড়ালো

ইসরায়েলে দূতাবাস স্থাপন করবে আমিরাত

ইসরায়েলে দূতাবাস স্থাপন করবে আমিরাত

ইউরোপের সঙ্গে তুরস্কের বরফ গলছে?

ইউরোপের সঙ্গে তুরস্কের বরফ গলছে?

জনসন ও বাইডেনের প্রথম ফোনালাপ

জনসন ও বাইডেনের প্রথম ফোনালাপ

ভ্যাকসিন গ্রহণকারীদের মাধ্যমেও ছড়াতে পারে করোনা: ব্রিটিশ চিকিৎসা বিশেষজ্ঞ

ভ্যাকসিন গ্রহণকারীদের মাধ্যমেও ছড়াতে পারে করোনা: ব্রিটিশ চিকিৎসা বিশেষজ্ঞ

ইসরায়েল নয়, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তেল ও নিরাপত্তা সহযোগিতায় রাজি ইরান

ইসরায়েল নয়, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তেল ও নিরাপত্তা সহযোগিতায় রাজি ইরান

মিয়ানমার থেকে চাল কিনবে বাংলাদেশ

মিয়ানমার থেকে চাল কিনবে বাংলাদেশ

১৩ দিন পর চীনের খনি থেকে ১১ শ্রমিক উদ্ধার

১৩ দিন পর চীনের খনি থেকে ১১ শ্রমিক উদ্ধার

কিষাণ প্যারেডে থাকবে ২৫ হাজার ট্রাক্টর: কৃষক ইউনিয়ন

কিষাণ প্যারেডে থাকবে ২৫ হাজার ট্রাক্টর: কৃষক ইউনিয়ন

নিউ জিল্যান্ডে দুই মাস পর প্রথম করোনা আক্রান্ত শনাক্ত

নিউ জিল্যান্ডে দুই মাস পর প্রথম করোনা আক্রান্ত শনাক্ত

সর্বশেষ

ফাইজার ও অ্যাস্ট্রাজেনেকার বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপের হুঁশিয়ারি ইতালির

ফাইজার ও অ্যাস্ট্রাজেনেকার বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপের হুঁশিয়ারি ইতালির

মানসিক চাপ বাড়িয়ে দেয় যেসব খাবার

মানসিক চাপ বাড়িয়ে দেয় যেসব খাবার

শিক্ষকরা দেশের আলোকিত মানবসম্পদ উৎপাদনের কারিগর: চবি উপাচার্য

শিক্ষকরা দেশের আলোকিত মানবসম্পদ উৎপাদনের কারিগর: চবি উপাচার্য

খুবি শিক্ষার্থীদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে ইবিতে মানববন্ধন

খুবি শিক্ষার্থীদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে ইবিতে মানববন্ধন

৬০০ পর্বে ‘চাপাবাজ’

৬০০ পর্বে ‘চাপাবাজ’

অনশনরত শিক্ষার্থীদের ক্ষমা চেয়ে আবেদনের আহ্বান কেসিসি মেয়রের

অনশনরত শিক্ষার্থীদের ক্ষমা চেয়ে আবেদনের আহ্বান কেসিসি মেয়রের

বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেলো স্কুলছাত্রী

বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেলো স্কুলছাত্রী

রায়পুরায় আড়িয়াল খাঁ নদে সেতু নির্মাণের দাবি

রায়পুরায় আড়িয়াল খাঁ নদে সেতু নির্মাণের দাবি

খুবিতে অনশনরত দ্বিতীয় শিক্ষার্থীও হাসপাতালে

খুবিতে অনশনরত দ্বিতীয় শিক্ষার্থীও হাসপাতালে

বাপা’র সভাপতি মাহবুব, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল

বাপা’র সভাপতি মাহবুব, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল

একাদশে আসছে পরিবর্তন, কারা খেলছেন?

একাদশে আসছে পরিবর্তন, কারা খেলছেন?

‘করপোরেট গভর্ন্যান্স এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড’ পেলো গ্রামীণফোন

‘করপোরেট গভর্ন্যান্স এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড’ পেলো গ্রামীণফোন

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই কোটি ছাড়ালো

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই কোটি ছাড়ালো

ইসরায়েলে দূতাবাস স্থাপন করবে আমিরাত

ইসরায়েলে দূতাবাস স্থাপন করবে আমিরাত

ইউরোপের সঙ্গে তুরস্কের বরফ গলছে?

ইউরোপের সঙ্গে তুরস্কের বরফ গলছে?

জনসন ও বাইডেনের প্রথম ফোনালাপ

জনসন ও বাইডেনের প্রথম ফোনালাপ

ভ্যাকসিন গ্রহণকারীদের মাধ্যমেও ছড়াতে পারে করোনা: ব্রিটিশ চিকিৎসা বিশেষজ্ঞ

ভ্যাকসিন গ্রহণকারীদের মাধ্যমেও ছড়াতে পারে করোনা: ব্রিটিশ চিকিৎসা বিশেষজ্ঞ

ইসরায়েল নয়, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তেল ও নিরাপত্তা সহযোগিতায় রাজি ইরান

ইসরায়েল নয়, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তেল ও নিরাপত্তা সহযোগিতায় রাজি ইরান

মিয়ানমার থেকে চাল কিনবে বাংলাদেশ

মিয়ানমার থেকে চাল কিনবে বাংলাদেশ

১৩ দিন পর চীনের খনি থেকে ১১ শ্রমিক উদ্ধার

১৩ দিন পর চীনের খনি থেকে ১১ শ্রমিক উদ্ধার


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.