সেকশনস

রাবিতে আইইআর পরিচালকের হঠাৎ পদত্যাগ

আপডেট : ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১৮:৫১

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইআর) পরিচালক পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন অধ্যাপক গোলাম কবীর।  বুধবার (২৫ নভেম্বর ) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বরাবর এই পদত্যাগ পত্র জমা দেন তিনি।

পদত্যাগের বিষয়টি নিশ্চিত করে  অধ্যাপক গোলাম কবীর বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমি দীর্ঘদিন সার্ভিস দিয়েছি। অনেকগুলো তদন্ত কমিটিতে ছিলাম। এখন আর এসব কমিটিতে থাকতে অনিচ্ছুক। এখন বিভাগে ফিরে যেতে চাই। তাই গতকাল (২৪ নভেম্বর)  উপাচার্য বরাবর পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছি। আজ রেজিস্ট্রার বরাবর পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছি।

তবে পদত্যাগের পেছনে অন্য কোনও কারণ রয়েছে কিনা সে বিষয়ে মন্তব্য করতে রাজি হননি তিনি।

এদিকে, আইইআর পরিচালকের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করা হয়েছে কিনা সে বিষয়ে জানতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এম এ বারীকে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

প্রসঙ্গত, চলতি বছর মার্চে ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে পদত্যাগ করেন আইইআরের নবম পরিচালক অধ্যাপক আবুল হাসান চৌধুরী। তারপর উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক গোলাম কবিরকে আইইআরের পরিচালক পদে নিয়োগ দেওয়া হয়।  নিয়োগের ৯ মাস না যেতেই তিনিও পদত্যাগ করলেন।

রাবি উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহানের ঘনিষ্ঠ হিসাবে পরিচিত অধ্যাপক গোলাম কবীরের হঠাৎ পদত্যাগ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন সিনিয়র অধ্যাপকের কাছে জানতে চাইলে তারা প্রতিক্রিয়া জানান।

তারা জানান,  অধ্যাপক আব্দুস সোবাহান দ্বিতীয় মেয়াদে উপাচার্যের দায়িত্ব নেওয়ার পর  রাবি স্কুল অ্যান্ড কলেজে শিক্ষক হিসাবে নিয়োগ পান বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন দফতরের সাবেক প্রশাসক ও উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী  অধ্যাপক এফ এম হায়দারের স্ত্রী। এর আগে তিনি  দীর্ঘদিন একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেছেন। কিন্তু, নিয়ম অনুযায়ী আগের চাকরি থেকে ছাড়পত্র জমা দেওয়া বাধ্যতামূলক হলেও তিনি তা এখনও বিশ্ববিদ্যালয়কে জমা দেননি। এছাড়া পদোন্নতির জন্য ওই নারী শিক্ষিক আগের সার্ভিস গণ্য করার আবেদন করেন। তবে বিষয়টি নিয়ম বহির্ভূত হওয়ায় আবেদনটি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার, আইইআরের আগের পরিচালক ও বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলের অধ্যক্ষ নাকচ করে দেন।

সম্প্রতি, ফের ওই শিক্ষককে পদোন্নতি দিতে তোড়জোড় শুরু হয়। উপাচার্য আইইআরের পরিচালক অধ্যাপক গোলাম কবীরের কাছ থেকে নথিপত্র চেয়ে পাঠান। এই নিয়ে এফএম আলী হায়দারের সঙ্গে আইইআরের পরিচালকের উচ্চবাচ্য হয়। তাকে পদোন্নতির আবেদনে অনুমোদন দিতে চাপ প্রয়োগ করায় অধ্যাপক গোলাম কবীর পদত্যাগ করেন।

তবে প্রসঙ্গটি এড়াতে গিয়ে উচ্চবাচ্যের বিষয়টি অস্বীকার করেন অধ্যাপক গোলাম কবীর। তিনি বলেন, এ ধরনের কোনও ঘটনা ঘটেনি।

অধ্যাপক এম আলী হায়দারের স্ত্রী নিয়োগ পাওয়ার সময় আইইআর এর পরিচালক ছিলেন অধ্যাপক আবুল হাসান চৌধুরী। আগের চাকরি থেকে ছাড়পত্র জমা না দেওয়া সত্ত্বেও নিয়োগ পাওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ওই শিক্ষিকা পরে ছাড়পত্র জমা দেবেন বলে জানিয়েছিলেন। পরে একাধিকবার তাকে ছাড়পত্রের জন্য তাগাদা দেওয়া হলেও তিনি বিভিন্ন অজুহাতে এখনও ছাড়পত্র এনে জমা দেননি।

পদোন্নতির আবেদনের বিষয়ে তিনি বলেন,  আইন সম্মত না হওয়ায় তার আবেদন নাকচ করা হয়।

চাপ প্রয়োগের বিষয়ে জানতে চাইলে উপাচার্য  অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাকে কোনও চাপ প্রয়োগ করা হয়নি। তিনি নিজ থেকে পদত্যাগ করেছেন। এছাড়া আমার কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেওয়ার বিষয়টিও অসত্য। আমি এখনও পদত্যাগপত্র পাইনি।

পদোন্নতির ফাইল চাওয়ার বিষয়টিও অসত্য বলে দাবি করে উপাচার্য বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম আছে, কেউ যদি ১০ বছরের বেশি সময় কোথায়ও চাকরি করার পর এখানে যোগ দেন এবং তার  বেতনের ১০ শতাংশ এখানে জমা দেন তবে বিগত চাকরির সময়কাল এখানে গণ্য হবে। সেক্ষেত্রে হায়দার সাহেবের স্ত্রী যদি যথাযথ প্রক্রিয়ায় আবেদন করেন তাহলে পাবেন অন্যথায় পাবেন না। এখানে চাপ প্রয়োগের কোনও প্রশ্নই আসে না।

উপাচার্য আরও বলেন, ‘‘সম্প্রতি গোলাম কবীর আমাকে ফোন করে জানান, ‘আইইআরের অধীনে তিনটি প্রতিষ্ঠান রয়েছে , এগুলো দেখভাল করতে পারছেন না।’ তিনি একবার স্ট্রোক করে হাসপাতালে ছিলেন। কথার এক ফাঁকে গোলাম কবীর আমাকে (উপাচার্য) বলেন, ‘পারিবারিকভাবেও অশান্তি হচ্ছে, তার মেয়ের জামাইয়ের চাকরি স্থায়ী হয়নি, এসব কারণে তিনি এখন আর আইইআর পরিচালক পদে থাকতে রাজি নন।’’

তবে নিজের মেয়ের জামাতার চাকরির স্থায়ী হওয়ার সঙ্গে পদত্যাগের বিষয়টি সম্পর্কিত নয় বলে দাবি করেন অধ্যাপক গোলাম কবীর।  তিনি বলেন, ‘আমি পদত্যাগ করেছি ভিন্ন গ্রাউন্ডে, এর সঙ্গে জামাতার চাকরির কোনও সম্পর্ক নাই।’

/টিএন/

সম্পর্কিত

পাবনায় ১৭ আ.লীগ নেতাকে শোকজ, সদরের ছাত্রলীগ কমিটি বিলুপ্ত

দলীয় প্রার্থীর বিরোধিতাপাবনায় ১৭ আ.লীগ নেতাকে শোকজ, সদরের ছাত্রলীগ কমিটি বিলুপ্ত

কওমি শিক্ষার্থীদের বিদেশে উচ্চশিক্ষা সহজ করতে ৬ দাবি

কওমি শিক্ষার্থীদের বিদেশে উচ্চশিক্ষা সহজ করতে ৬ দাবি

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্বাস্থ্যসম্মত করা হচ্ছে কিনা জানতে চেয়েছে সরকার

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্বাস্থ্যসম্মত করা হচ্ছে কিনা জানতে চেয়েছে সরকার

খুবি প্রশাসনের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবিতে ৬ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন

খুবি প্রশাসনের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবিতে ৬ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন

নির্মাণ ও সংস্কারের জন্য প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তথ্য চেয়েছে সরকার

নির্মাণ ও সংস্কারের জন্য প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তথ্য চেয়েছে সরকার

খুবি কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়ের ফটকে মানববন্ধন

খুবি কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে বঙ্গবন্ধু বিশ্ববিদ্যালয়ের ফটকে মানববন্ধন

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখতে সরকারকে আইনি নোটিশ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখতে সরকারকে আইনি নোটিশ

যে কারণে ব্রোকলিতে আগ্রহ বাড়ছে চাষিদের

যে কারণে ব্রোকলিতে আগ্রহ বাড়ছে চাষিদের

প্রাথমিকের তদন্ত দায়সারা, কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণের উদ্যোগ

প্রাথমিকের তদন্ত দায়সারা, কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণের উদ্যোগ

কাউন্সিলর সাত্তার কারাগারে, পিবিআই’র রিমান্ড আবেদন

যুবলীগ নেতা জিল্লুর হত্যাকাউন্সিলর সাত্তার কারাগারে, পিবিআই’র রিমান্ড আবেদন

সর্বশেষ

পাবনায় ১৭ আ.লীগ নেতাকে শোকজ, সদরের ছাত্রলীগ কমিটি বিলুপ্ত

দলীয় প্রার্থীর বিরোধিতাপাবনায় ১৭ আ.লীগ নেতাকে শোকজ, সদরের ছাত্রলীগ কমিটি বিলুপ্ত

৩৪ জেলায় করোনার টিকা পাঠানো শুরু

৩৪ জেলায় করোনার টিকা পাঠানো শুরু

হ্যান্ড স্যানিটাইজারের আরও ব্যবহার

হ্যান্ড স্যানিটাইজারের আরও ব্যবহার

মসজিদে হামলার ষড়যন্ত্রের অভিযোগে সিঙ্গাপুরে কিশোর আটক

মসজিদে হামলার ষড়যন্ত্রের অভিযোগে সিঙ্গাপুরে কিশোর আটক

চিকিৎসকের অবহেলায় নার্সের বাবার মৃত্যুর অভিযোগ, তদন্ত কমিটি

চিকিৎসকের অবহেলায় নার্সের বাবার মৃত্যুর অভিযোগ, তদন্ত কমিটি

বাংলাদেশ-ভারত পররাষ্ট্র সচিব বৈঠকে প্রাধান্য পাবে অর্থনৈতিক সম্পর্ক

বাংলাদেশ-ভারত পররাষ্ট্র সচিব বৈঠকে প্রাধান্য পাবে অর্থনৈতিক সম্পর্ক

রাবাদার ২০০

রাবাদার ২০০

গোপালগঞ্জে আরও ৫টি ‘অবৈধ’ ইটভাটায় পরিবেশ অধিদফতরের অভিযান

গোপালগঞ্জে আরও ৫টি ‘অবৈধ’ ইটভাটায় পরিবেশ অধিদফতরের অভিযান

চট্টগ্রামে নির্বাচনি সহিংসতায় আইন ও সালিশ কেন্দ্রের উদ্বেগ

চট্টগ্রামে নির্বাচনি সহিংসতায় আইন ও সালিশ কেন্দ্রের উদ্বেগ

ইশতেহারে টাঙ্গাইল পৌরসভাকে ‘জনমুখী’ করার ঘোষণা

ইশতেহারে টাঙ্গাইল পৌরসভাকে ‘জনমুখী’ করার ঘোষণা

বাসচাপায় বাইসাইকেল আরোহী নিহত, সড়ক অবরোধ

বাসচাপায় বাইসাইকেল আরোহী নিহত, সড়ক অবরোধ

কওমি শিক্ষার্থীদের বিদেশে উচ্চশিক্ষা সহজ করতে ৬ দাবি

কওমি শিক্ষার্থীদের বিদেশে উচ্চশিক্ষা সহজ করতে ৬ দাবি

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

স্মার্টফোন কিনতে লোন পাচ্ছেন ববি’র ৩২২ শিক্ষার্থী

স্মার্টফোন কিনতে লোন পাচ্ছেন ববি’র ৩২২ শিক্ষার্থী

'ড্রাগ প্রতিরোধী সংক্রমণে বছরে ১০ মিলিয়নের বেশি মানুষ মারা যায়'

'ড্রাগ প্রতিরোধী সংক্রমণে বছরে ১০ মিলিয়নের বেশি মানুষ মারা যায়'

খুবির অস্থিতিশীল পরিবেশ প্রসঙ্গে সাবেক ২৭৩ শিক্ষার্থীর উদ্বেগ

খুবির অস্থিতিশীল পরিবেশ প্রসঙ্গে সাবেক ২৭৩ শিক্ষার্থীর উদ্বেগ

একাডেমিক দৃষ্টিকোণ থেকে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিশেষ সংখ্যা ইডিইউ’র

একাডেমিক দৃষ্টিকোণ থেকে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিশেষ সংখ্যা ইডিইউ’র

মুজিববর্ষ উপলক্ষে পাবনায় বিএনসিসি’র লিফলেট ও মাস্ক বিতরণ

মুজিববর্ষ উপলক্ষে পাবনায় বিএনসিসি’র লিফলেট ও মাস্ক বিতরণ


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.