X
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪
২১ ফাল্গুন ১৪৩০

জনতার হাতে ডিবি পুলিশের এএসআই আটক

দিনাজপুর প্রতিনিধি
০৮ আগস্ট ২০২২, ১৮:৫১আপডেট : ০৮ আগস্ট ২০২২, ১৮:৫১

দিনাজপুরের খানসামায় ডলার দেওয়ার নাম করে টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় জনতার হাতে আটক হয়েছেন গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) শাহীন ইসলাম। সোমবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার পাকেরহাট কইনাডুবি ব্রিজ মোড়ে এই ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে তাকে খানসামা থানা পুলিশ শাহীনকে উদ্ধার করে জিজ্ঞাসাবাদ করে।

আটক শাহীন ঠাকুরগাঁও জেলা পুলিশে এএসআই হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। এর আগে তিনি খানসামা থানায় কনস্টেবল পদে কর্মরত ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সোমবার সকালে উপজেলার পাকেরহাট কইনাডুবি ব্রিজ মোড়ে এএসআই শাহীনের কাছ থেকে ডলার কেনার জন্য আসেন দুই যুবক। কিন্তু ডলার না দিয়ে টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন শাহীন। সে সময় ডলার কিনতে এসে প্রতারণার শিকার দুই যুবক চিৎকার করেন। পরে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে পুলিশ পরিচয় দেওয়া ওই শাহীনকে আটক করেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

পরে ডলার ক্রেতা দিনাজপুর সদরের কমলপুর এলাকার যুবক আবদুল হান্নান বাদী হয়ে পুলিশের এএসআই শাহীন ও তার সহযোগী গোয়ালডিহি ইউনিয়নের শিমুলতলী এলাকার জয়নুল আবেদীনের বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা করেন।

এ বিষয়ে খানসামা থানার ওসি চিত্তরঞ্জন রায় বলেন, ‘শাহীনকে আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। পরে ভুক্তভোগী বাদী হয়ে মামলা করেন। এই চক্রকে ধরতে তাকে আরও জিজ্ঞাসাবাদের পর জেল হাজতে পাঠানো হবে।’

/এমএএ/
সম্পর্কিত
চিনিকলের আগুন নিয়ন্ত্রণে, পুরোপুরি নিভতে সময় লাগবে: ফায়ার সার্ভিস
সাত মসজিদ রোডের সব বুফে রেস্তোরাঁ বন্ধ
ঢাকার রেস্টুরেন্টগুলোতে পুলিশের সাঁড়াশি অভিযান, আটক ৩৫
সর্বশেষ খবর
দ্রুত বিচার আইন স্থায়ী করে সংসদে বিল পাস  
দ্রুত বিচার আইন স্থায়ী করে সংসদে বিল পাস  
খালেদা জিয়ার দুই মামলায় অভিযোগ গঠন শুনানি পেছালো
খালেদা জিয়ার দুই মামলায় অভিযোগ গঠন শুনানি পেছালো
১০ পিস সোনার বার নিয়ে ভারত যাচ্ছিলেন ব্যাংকের এজেন্ট
১০ পিস সোনার বার নিয়ে ভারত যাচ্ছিলেন ব্যাংকের এজেন্ট
এসআরএফবি সভাপতি ফারুক, সাধারণ সম্পাদক আফরিন
এসআরএফবি সভাপতি ফারুক, সাধারণ সম্পাদক আফরিন
সর্বাধিক পঠিত
শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি খেলাফত মজলিসের
শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি খেলাফত মজলিসের
বাংলাদেশ ভ্রমণ শেষে ভারতে গিয়েই সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার ব্রাজিলিয়ান তরুণী
বাংলাদেশ ভ্রমণ শেষে ভারতে গিয়েই সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার ব্রাজিলিয়ান তরুণী
ইউক্রেন অবশ্যই রাশিয়ার অংশ: পুতিন মিত্র
ইউক্রেন অবশ্যই রাশিয়ার অংশ: পুতিন মিত্র
ছাত্রকে কেন গুলি করলেন মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষক?
ছাত্রকে কেন গুলি করলেন মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষক?
অবস্থান পাল্টালেন রাঙ্গা, বললেন ‘আর হাসির পাত্র হতে চাই না’
অবস্থান পাল্টালেন রাঙ্গা, বললেন ‘আর হাসির পাত্র হতে চাই না’