X
সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪
২ বৈশাখ ১৪৩১

বাবাকে দেখে দৌড়ে রাস্তা পার হতে গিয়ে প্রাণ গেলো শিশুর

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি 
০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২২:১৬আপডেট : ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২২:১৬

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার ধাক্কায় প্রাণ গেলো পাঁচ বছরের শিশু নুসরাতের। সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) বিকালে উপজেলার ভবেরচর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ভবেরচর-গজারিয়া সড়কের ভবেরচর এলাকায় রাস্তার এক পাশ দিয়ে মায়ের হাত ধরে হেঁটে যাচ্ছিল নুসরাত। একই সময় সড়কের অপর পাশ দিয়ে তার বাবা হেঁটে যাচ্ছিলেন। বাবাকে দেখে সে মায়ের হাত ছেড়ে দৌড় দিলে বেপারোয়া গতির ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা সজোরে ধাক্কা দেয়। গুরুতর আহত অবস্থায় নুসরাতকে বাঁচাতে বাবা হাসান মিয়া দ্রুত তাকে নিয়ে যান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।

গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে নাসরিন আক্তার এবং তার মেয়ে নুসরাত জাহানকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। নাসরিনের আঘাত গুরুতর না হওয়ায় তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। নুসরাতের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। কিন্তু সেখানে নেওয়ার পথে সন্ধ্যায় গাড়িতেই মারা যায় নুসরাত। তারা ভবেরচর ইউনিয়নের বাসিন্দা।

ঘটনার সততা নিশ্চিত করে গজারিয়া হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক রিয়াদ হোসেন বলেন, ‘আমরা ঘাতক অটোরিকশা চালককে শনাক্ত করার চেষ্টা করছি।’

বিষয়টি সম্পর্কে গজারিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কোহিনুর আক্তার বলেন, ‘আমি এই উপজেলায় নতুন এসেছি। এই উপজেলার সড়কে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চালকদের অদক্ষতার কারণে প্রায়ই প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে বলে জেনেছি। অদক্ষ চালকদের ব্যাপারে দ্রুতই পদক্ষেপ গ্রহণ করবো।’

/এমএএ/
সম্পর্কিত
পুলিশের তাড়ায় উল্টোপথে সিএনজি নিয়ে পালাতে গিয়ে কারের সঙ্গে ধাক্কায় নারী নিহত
বাসচাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত
সড়কে প্রাণ গেলো ৩ মোটরসাইকেল আরোহী বন্ধুর
সর্বশেষ খবর
টিভিতে আজকের খেলা (১৫ এপ্রিল, ২০২৪)
টিভিতে আজকের খেলা (১৫ এপ্রিল, ২০২৪)
আজ খুলছে সরকারি অফিস
আজ খুলছে সরকারি অফিস
চিলমারী-রৌমারী-রাজিবপুর নৌপথে ভাড়া নৈরাজ্য
চিলমারী-রৌমারী-রাজিবপুর নৌপথে ভাড়া নৈরাজ্য
লম্বা ছুটির পর আজ ব্যাংক খোলা
লম্বা ছুটির পর আজ ব্যাংক খোলা
সর্বাধিক পঠিত
‘যাওয়ার আগে দস্যুদের প্রধান জাহাজের ক্যাপ্টেনের হাতে একটি চিঠি দেয়’
‘যাওয়ার আগে দস্যুদের প্রধান জাহাজের ক্যাপ্টেনের হাতে একটি চিঠি দেয়’
কেন প্রতিরক্ষা সহযোগিতা বাড়াতে চায় বাংলাদেশ?
কেন প্রতিরক্ষা সহযোগিতা বাড়াতে চায় বাংলাদেশ?
মোস্তাফিজের খরুচে বোলিং ছাপিয়ে চেন্নাইয়ের জয়
মোস্তাফিজের খরুচে বোলিং ছাপিয়ে চেন্নাইয়ের জয়
মুক্তিপণের বিনিময়ে মুক্ত হলো এমভি আবদুল্লাহ
মুক্তিপণের বিনিময়ে মুক্ত হলো এমভি আবদুল্লাহ
ইরানের বিরুদ্ধে পাল্টা হামলায় যুক্তরাষ্ট্র জড়াবে না: নেতানিয়াহুকে বাইডেন
ইরানের বিরুদ্ধে পাল্টা হামলায় যুক্তরাষ্ট্র জড়াবে না: নেতানিয়াহুকে বাইডেন