X
বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪
৯ শ্রাবণ ১৪৩১

সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৪ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

ঝালকাঠি প্রতিনিধি
১২ জুন ২০২৪, ২১:১৪আপডেট : ১২ জুন ২০২৪, ২১:১৪

ঝালকাঠিতে সাঈদুল ইসলাম নামে এক যুবককে হত্যার দায়ে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানসহ চার জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. রহিবুল ইসলাম আসামিদের উপস্থিতিতে বুধবার দুপুরে এই রায় ঘোষণা করেন।

রায়ে দণ্ডপ্রাপ্ত চার জনকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক বছর করে কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়। মামলায় চার্জশিটভুক্ত অপর ১০ আসামিকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

ঝালকাঠি জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর রাষ্ট্রপক্ষের কৌসুলি অ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান রসুল রায় ঘোষণার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলো– জেলার নলছিটি উপজেলার মোল্লারহাট ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান কবির হোসেন এবং তার ভাই দেলোয়ার হোসেন হাওলাদার, তাদের ভাগনে সাঈদুল ইসলাম (৩০) ও ফারুক মল্লিক (৪৫)।

কবির ও দেলোয়ার ঝালকাঠির সাবেক এমপি মকিম হোসেন হাওলাদারের ছেলে। তারা নলছিটি উপজেলার দক্ষিণ কামদেবপুর গ্রামের বাসিন্দা। ফারুক মল্লিক পশ্চিম কামদেবপুর গ্রামের সুলতান মল্লিক এবং সাইদুল ইসলাম খান উপজেলার মধ্য কামদেবপুর গ্রামের মনিরুল খানের ছেলে।

আদালতের নথি সূত্রে জানা গেছে, ২০১৯ সালের ২৩ মার্চ দুপুর ১টায় নাচনমহল ব্রিজের ঢালে মামলার বাদী নলছিটি উপজেলার নাচনমহল গ্রামের কৃষক আব্দুল আজিজ তালুকদারের ছেলে সাইদুল ইসলাম তালুকদারকে (৩৫) দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা কুপিয়ে হত্যা করে। একই সময় নিহত সাঈদুলের বোন আকলিমা বেগম ও ভাগ্নে রুম্মানকে কুপিয়ে আহত করা হয়। এ ঘটনায় নিহত সাঈদুলের বাবা আব্দুল আজিজ তালুকদার (৮৫) বাদী হয়ে ১৪ জনকে আসামি করে নলছিটি থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ঝালকাঠি সিআইডি পুলিশের পরিদর্শক মং চেনলা ২০২০ সালের ২৮ মার্চ ১৪ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। আদালত ১৮ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করে এ রায় ঘোষণা করেন।

সিআইডি পুলিশ অভিযোগপত্রে উল্লেখ করে, নিহত সাইদুল এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ছিল এবং একসময় সাবেক চেয়ারম্যান কবির হোসেন হাওলাদারের অনুসারী ছিল।

সরকার পক্ষে পিপি অ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান রসুল এবং আসামিপক্ষে অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন কবির মামলা পরিচালনা করেন।

/এমএএ/
সম্পর্কিত
সাতক্ষীরায় স্ত্রীকে হত্যায় স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড
জমি নিয়ে বিরোধে কবিরাজকে হত্যা: চার জনের মৃত্যুদণ্ড, একজনের যাবজ্জীবন
মাদক মামলায় সাবেক কৃষক লীগ নেতার যাবজ্জীবন
সর্বশেষ খবর
কূটনীতিকরা স্তম্ভিত, বলেছেন বাংলাদেশের পাশে আছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
কূটনীতিকরা স্তম্ভিত, বলেছেন বাংলাদেশের পাশে আছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
সংঘাতে ডিএনসিসির ২০৫ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি
সংঘাতে ডিএনসিসির ২০৫ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি
নাটকীয় হারে আর্জেন্টিনার অলিম্পিক যাত্রা শুরু
নাটকীয় হারে আর্জেন্টিনার অলিম্পিক যাত্রা শুরু
‌‌‘আন্দোলনকে ঢাল হিসেবে নিয়ে নারকীয় ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে বিএনপি-জামায়াত’
‌‌‘আন্দোলনকে ঢাল হিসেবে নিয়ে নারকীয় ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে বিএনপি-জামায়াত’
সর্বাধিক পঠিত
ধারণা ছিল একটা আঘাত আসবে: প্রধানমন্ত্রী
ধারণা ছিল একটা আঘাত আসবে: প্রধানমন্ত্রী
চাকরিতে কোটা: প্রজ্ঞাপনে যা আছে
চাকরিতে কোটা: প্রজ্ঞাপনে যা আছে
কোটা নিয়ে রায় ঘোষণার আগে যা বলেছিলেন প্রধান বিচারপতি
কোটা নিয়ে রায় ঘোষণার আগে যা বলেছিলেন প্রধান বিচারপতি
কোটা আন্দোলন: প্রধানমন্ত্রীর বর্ণনায় ক্ষয়ক্ষতির চিত্র 
কোটা আন্দোলন: প্রধানমন্ত্রীর বর্ণনায় ক্ষয়ক্ষতির চিত্র 
কারফিউ বা সান্ধ্য আইন কী 
কারফিউ বা সান্ধ্য আইন কী