X
বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২
২২ আষাঢ় ১৪২৯

ওমানে ঘূর্ণিঝড়ে মৃত ৩ জনের লাশ পাওয়ার আকুতি পরিবারের

আপডেট : ০৯ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৪১

ওমানে ঘূর্ণিঝড় ‌‘শাহিন’-এর আঘাতে লক্ষ্মীপুরের একই পরিবারের তিন জন মারা গেছেন। গত বুধবার তাদের লাশ শনাক্ত করে ওমান পুলিশ। খবর পাওয়ার পর মৃতদের পরিবারে চলছে শোকের মাতম। যেকোনোভাবে তাদের লাশ ফিরে পেতে চান স্বজনরা।

মৃতরা হলেন—লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার পাবর্তীনগর ইউনিয়নের আব্দুল করিম চেরাঙ্গ বাড়ির মৃত নুরুল আমিনের ছেলে শামছুল ইসলাম (৫৫), চাঁন কাজী বাড়ির মো. লুৎফর রহমানের ছেলে জিল্লুর রহমান (৪৫) ও মিঝি বাড়ির আব্দুস শহিদের ছেলে আমজাদ হোসেন হৃদয় (২৫)। জিল্লাল শামছুলের চাচাতো ভাই। আর শামছুল ও আমজাদ সম্পর্কে মামা-ভাগিনা।

জিল্লুর রহমানের বাবা লুৎফুর রহমান আকুতি বলেন, ‘আমার ছেলে বিদেশে ছিল। আল্লাহ তাকে নিয়ে গেছে। আর ফিরে পাবো না। কিন্তু লাশও কি ফিরে পাবো না?’ সরকারের কাছে আকুতি জানাচ্ছি, আমার ছেলে, ভাতিজা ও নাতির লাশ ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করে দিক। তাদেরকে যেন নিজ হাতে কবর দিতে পারি। 

কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন, ‘আমার ছেলের পাঠানো টাকা দিয়ে আমি ও আমার স্ত্রীর ওষুধ খরচ চলতো। তার চারটি শিশু সন্তান ও স্ত্রী রয়েছে। সবাই তার দিকে চেয়ে থাকতাম। এখন আমাদের কি হবে?’

ঘূর্ণিঝড়ে মৃত ৩ জনের লাশ পাওয়ার আকুতি পরিবারের

আমজাদের বাবা শহিদ উল্যা বলেন, ‘ধারদেনা করে গত বছরের এপ্রিলে ছেলেকে ওমানে পাঠিয়েছি। এখন সে নাই, এ কথা ভাবতেই পারি না। দূর দেশে সে মারা গেছে। আমরা তার লাশটা কি পাবো?’ 

শামছুল ইসলামের জামাতা সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘আমার শ্বশুরের এক মাস পর ছুটিতে দেশে আসার কথা ছিল। এখন সে লাশ হয়ে দেশে আসবে।’

ওমানের থাকা মো. স্বপন নামে এক প্রবাসী মোবাইল ফোনে বলেন, ‘তিন জনের মৃত্যুর বিষয়টি তাদের কোম্পানিকে জানানো হয়েছে। লাশ দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে।’

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ওমানে এক বাসায় বসবাস করতেন তারা। একে অপরকে শ্রমিক ভিসার মাধ্যমে সেখানে যাওয়ার ব্যবস্থা করেন। গত ৩ অক্টোবর রাতে ওমানে ঘুর্ণিঝড়ের আঘাতে তিন জনের মৃত্যু হয়। পরে ভিন্ন ভিন্ন সময় বিভিন্ন এলাকা থেকে লাশ চিহ্নিত করেন তাদের সহকর্মীরা। লাশ এখন ওমানের একটি হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। ওমানে থাকা অন্য প্রতিবেশীদের মাধ্যমে তাদের পরিবার মৃত্যুর খবর পায়।

প্রতিবেশীরা জানান, তিন জনের মধ্যে দুই জন দীর্ঘদিন প্রবাসে থাকলেও তাদের আর্থিক অবস্থা তেমন ভালো না। তাদেরকে হারিয়ে পরিবারের সদস্যরা এখন শোকে কাতর। এর মধ্যে লাশ ফিরিয়ে আনার  শঙ্কায় আছেন তারা।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. মামুনুর রশিদ বলেন, প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে লাশ দেশে আনার ব্যবস্থা করা হবে। এ ছাড়া তাদের পরিবারের জন্য প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে আর্থিক অনুদানেরও ব্যবস্থা করা হবে।

/এসএইচ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
সচিব হলেন তিন কর্মকর্তা
সচিব হলেন তিন কর্মকর্তা
যানবাহন উঠলেই কেঁপে ওঠে সেতু
যানবাহন উঠলেই কেঁপে ওঠে সেতু
বার্সেলোনা জানিয়ে দিলো, ডি ইয়ং ‘বিক্রির জন্য নয়’
বার্সেলোনা জানিয়ে দিলো, ডি ইয়ং ‘বিক্রির জন্য নয়’
টেকনাফে ৫ দিনে ৪৭ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত
টেকনাফে ৫ দিনে ৪৭ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত
এ বিভাগের সর্বশেষ
টেকনাফে ৫ দিনে ৪৭ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত
টেকনাফে ৫ দিনে ৪৭ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত
সীতাকুণ্ডে অগ্নিকাণ্ডের জন্য মালিকপক্ষ দায়ী
সীতাকুণ্ডে অগ্নিকাণ্ডের জন্য মালিকপক্ষ দায়ী
একটি পুরনো মোবাইলের জন্য যুবককে হত্যা, মায়ের কান্না
একটি পুরনো মোবাইলের জন্য যুবককে হত্যা, মায়ের কান্না
পদ্মা সেতুর আদলে হবে নতুন কালুরঘাট সেতু
পদ্মা সেতুর আদলে হবে নতুন কালুরঘাট সেতু
সীতাকুণ্ডে আগুন: মিললো আরও এক দেহাবশেষ
সীতাকুণ্ডে আগুন: মিললো আরও এক দেহাবশেষ