X
শনিবার, ০১ এপ্রিল ২০২৩
১৮ চৈত্র ১৪২৯

পাহাড় কেটে প্লট বিক্রি করছেন কাউন্সিলর

নাসির উদ্দিন রকি, চট্টগ্রাম
০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১০:০০আপডেট : ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১০:০০

দীর্ঘদিন ধরে পাহাড় কেটে বসতি বানিয়ে প্লট বিক্রি ও বাসা ভাড়া দিচ্ছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. জহুরুল আলম জসিম। নগরীর আকবর শাহ থানার সুপারি বাগান এলাকায় পাহাড় কেটে বসতি গড়ছেন তিনি। এ ঘটনায় জসিমের বিরুদ্ধে দুটি মামলা চলমান। একই অভিযোগে তার স্ত্রী তাছলিমা বেগমের বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে।

সর্বশেষ ২৬ জানুয়ারি কাউন্সিলর জসিমের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির (বেলা) প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান। ওই দিন দুপুরে নগরীর আকবর শাহ থানার সুপারি বাগান এলাকায় পাহাড় কেটে খাল ভরাটের স্থান পরিদর্শনে গিয়ে হামলার শিকার হন রিজওয়ানা হাসান ও তার টিমের সদস্যরা। এ ঘটনায় আকবর শাহ থানায় করা মামলায় জসিম ও তার সহযোগীদের আসামি করা হয়।

চট্টগ্রামের পরিবেশ সাংবাদিক ও বেলার নেটওয়ার্ক মেম্বার আলীউর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘সুপারি বাগান এলাকায় স্থানীয় কাউন্সিলর জহুরুল আলম জসিম পাহাড় কেটে কালিরছড়া খাল ভরাট করে স্থাপনা নির্মাণ করছেন। এই অভিযোগ পেয়ে বেলার প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসানসহ আমাদের একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান। পরিদর্শনের কাউন্সিলর জসিমের লোকজন কিরিচ, লাঠি ও ছুরিসহ ধারালো অস্ত্রের মুখে আমাদের বহনকারী গাড়ি জোরপূর্বক লেকসিটি আবাসিকের অফিসে নিয়ে যান। খবর দেওয়া হলে পুলিশ এসে আমাদের গাড়ি উদ্ধার করে। কাউন্সিলরের লোকজন আমাদের গাড়ি লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছুড়েছেন। এ ঘটনায় আকবর শাহ থানায় মামলা করেছি আমরা।’

নগরীর আকবর শাহ থানার সুপারি বাগান এলাকায় পাহাড় কাটা হচ্ছে

আলীউর রহমান বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে কাউন্সিলর জসিমের হাতে ধ্বংস হচ্ছে আকবর শাহ থানা এলাকার খাড়া পাহাড় এবং সবুজ বনাঞ্চল। তিনি প্রকৃতির সঙ্গে নিষ্ঠুর খেলায় মেতেছেন। প্রকৃতির বিপর্যয় ঘটিয়ে পকেট ভারী করছেন। পাহাড় কাটার ঘটনায় তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় দুটি মামলা করেছে পরিবেশ অধিদফতর। এছাড়া তার বিরুদ্ধে আছে হত্যা মামলাও।’

তিনি আরও বলেন, ‘সুপারি বাগান এলাকায় কাউন্সিলর জসিম পাহাড় কেটে কালিরছড়া খাল ভরাট করে স্থাপনা নির্মাণ করছেন। পরিবেশ অধিদফতরের মামলা ও বাধার মুখেও তার স্থাপনা নির্মাণের কাজ বন্ধ হয়নি।’

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় দুজন বাসিন্দা জানান, বছরের পর বছর পাহাড় কেটে প্লট বিক্রি ও ঘর ভাড়া দিচ্ছেন জসিম। তবে কাউন্সিলর হওয়ার পর তার প্রভাব আরও বেড়েছে। পাহাড় কাটায় তাকে বাধা দেওয়ার কেউ নেই। গত কয়েক বছরে পাহাড় কেটে অনেক প্লট তৈরি করে বিক্রি করেছেন। কখনও স্ত্রী আবার কখনও কেয়ারটেকারের নামে এসব পাহাড় দখল করে দিনরাত কেটে বিক্রি করছেন। আকবর শাহ থানাধীন লেকসিটি আবাসিক এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানের পাহাড় কেটে সমতল করেছেন। তার পাহাড় কাটা দেখে এলাকার অনেকে প্লট বাণিজ্যে জড়িয়েছেন।

সুপারি বাগান এলাকায় পাহাড় কেটে বসতি নির্মাণ

পরিবেশ অধিদফতর সূত্র জানায়, পাহাড় কাটার ঘটনায় ২০২২ সালের ১০ আগস্ট কাউন্সিলর জসিম এবং তার স্ত্রী তাছলিমা বেগমসহ তিন জনের বিরুদ্ধে মামলা করে পরিবেশ অধিদফতর। পরিবেশ অধিদফতর চট্টগ্রাম মহানগর কার্যালয়ের পরিদর্শক মো. সাখাওয়াত হোসাইন নগরীর আকবর শাহ থানায় এ মামলা করেন। এর আগে ২০১৫ সালের ২৮ মে পাহাড় কাটার অভিযোগে কাউন্সিলর জসিমের বিরুদ্ধে মামলা করেছিল অধিদফতর। মামলাটি করেন অধিদফতরের চট্টগ্রাম মেট্রো অঞ্চলের পরিদর্শক নানজীন সুলতানা। এছাড়া পাহাড় কাটার দায়ে ২০২১ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর কাউন্সিলর জসিমের স্ত্রী তাছলিমা বেগমকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছিল পরিবেশ অধিদফতর।

পরিবেশ অধিদফতর চট্টগ্রাম মহানগর কার্যালয়ের উপপরিচালক মিয়া মাহমুদুল হক বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘পাহাড় কাটার ঘটনায় কাউন্সিলর জহুরুল আলম জসিমের বিরুদ্ধে দুটি মামলা চলমান। তার স্ত্রীকেও পাহাড় কাটার ঘটনায় জরিমানা করা হয়েছিল। নতুন করে আবারও পাহাড় কাটছেন তিনি, বিষয়টি আমাদের জানা ছিল না। সম্প্রতি বেলার প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসানের ওপর হামলার পর পাহাড় কাটার বিষয়টি আমাদের নজরে আসে। সরেজমিন পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

সুপারি বাগান এলাকায় পাহাড় কেটে খাল ভরাটের স্থান পরিদর্শনে গিয়ে হামলার শিকার হন রিজওয়ানা হাসান ও তার টিমের সদস্যরা

পাড়ার কাটার বিষয়ে জানতে চাইলে কাউন্সিলর মো. জহুরুল আলম জসিম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘পাহাড় কাটা ও কালিরছড়া খাল ভরাটের সঙ্গে আমি জড়িত নই। এসব আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র। বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির প্রধান নির্বাহীর ওপর হামলায় ঘটনায় আমি জড়িত নই। আমার নেতৃত্বে হামলা হয়েছে, এমন কোনও ছবি কেউ দেখাতে পারবে না। যারা হামলা করেছে, তাদের বিচার চাই। অনেকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আমার বিরুদ্ধে পাহাড় কাটার অভিযোগ করেছেন। এজন্য মামলা হয়েছে।’

এদিকে, নগরের সিটি গেট এবং কাট্টলী এলাকার পানি প্রবাহের একমাত্র মাধ্যম কালিরছড়া খাল উদ্ধারের দাবিতে ১৬ জানুয়ারি চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করা হয়েছে। চট্টগ্রাম নদী ও খাল রক্ষা আন্দোলন, পরিবেশ ফোরাম ও আমরা আকবর শাহবাসী এ মানববন্ধন করেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, সিটি গেটের উজানে আকবর শাহ এলাকায় কালিরছড়া খালের প্রবাহ বন্ধ করে নিজ কার্যালয় ও খামার গড়েছেন কাউন্সিলর জসিম। নগরীর একখণ্ড পার্বত্য চট্টগ্রাম হিসেবে পরিচিত আকবর শাহের বিশাল পাহাড় ও টিলাগুলো কেটে সাবাড় করেছেন তিনি। গত ছয়-সাত বছরে এই অঞ্চলে অন্তত ৪২টি পাহাড় কেটে সাবাড় করা হয়েছে। যার অধিকাংশই সাবাড় করেছেন কাউন্সিলর জসিম।

কালিরছড়া খাল উদ্ধারের দাবিতে মানববন্ধন

বাংলাদেশ পরিবেশ ফোরামের সাধারণ সম্পাদক আলিউর রহমানের সভাপতিত্বে এবং পরিবেশকর্মী মো. শফিকুল ইসলাম খানের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও গেরিলা কমান্ডার ফজল আহমেদ, গ্রীন ফিঙ্গার্স কো-ফাউন্ডার ঋতু ফারাবি ও আবু সুফিয়ান, পরিবেশকর্মী আবসার উদ্দিন অলি ও মো. জাফর ইকবাল।

আকবর শাহ থানা এলাকার বাসিন্দা ও পরিবেশকর্মী মো. নুরুল আবছার বলেন, ‘কাউন্সিলর জসিম দীর্ঘদিন ধরে পাহাড় কেটে প্লট বিক্রি করছেন। কিছু পাহাড় কেটে তৈরি করা বাসা ভাড়া দিয়েছেন। কোনোভাবেই তাকে পাহাড় কাটা থেকে দমানো যাচ্ছে না।’

/এএম/
সম্পর্কিত
পাহাড়ে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত সেনা কর্মকর্তার রংপুরে দাফন
একা পর্বতারোহণে নেপালের নিষেধাজ্ঞা
নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে কেএনএফের গোলাগুলি
সর্বশেষ খবর
বাংলাদেশ বিশ্বের জন্য মডেল: মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী
বাংলাদেশ বিশ্বের জন্য মডেল: মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী
শিক্ষকদের দেশ সম্পর্কে ভাবতে হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
শিক্ষকদের দেশ সম্পর্কে ভাবতে হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
৮০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ের শঙ্কা আগামী ১৮ ঘণ্টায়
৮০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ের শঙ্কা আগামী ১৮ ঘণ্টায়
‘দেশ মানে এক লোকের পাশে অন্য লোক’
‘দেশ মানে এক লোকের পাশে অন্য লোক’
সর্বাধিক পঠিত
সরকারি চাকরির বড় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি
সরকারি চাকরির বড় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি
স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে ‘অসঙ্গতিপূর্ণ’ প্রদর্শন, শিক্ষকের দুঃখ প্রকাশ
স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে ‘অসঙ্গতিপূর্ণ’ প্রদর্শন, শিক্ষকের দুঃখ প্রকাশ
বিভিন্ন পদে চাকরি দিচ্ছে রেলপথ মন্ত্রণালয়
বিভিন্ন পদে চাকরি দিচ্ছে রেলপথ মন্ত্রণালয়
ডিবি কার্যালয়ে হিরো আলম
ডিবি কার্যালয়ে হিরো আলম
আইনের আশ্রয় নেওয়া ছাড়া উপায় দেখছি না: রিয়াজ
রিয়াজের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগআইনের আশ্রয় নেওয়া ছাড়া উপায় দেখছি না: রিয়াজ