X
শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪
১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

প্রেমিকাকে হত্যা মামলায় প্রেমিকের মৃত্যুদণ্ড

মাদারীপুর প্রতিনিধি
১৫ নভেম্বর ২০২২, ১৬:৫৯আপডেট : ১৫ নভেম্বর ২০২২, ১৬:৫৯

মাদারীপুরে ফরিদা বেগম নামের এক নারীকে হত্যার ঘটনায় ১৪ বছর পরে প্রেমিক শহিদুল মোল্লাকে (৪২) মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) বিকালে জেলার অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালতের বিচারক লায়লাতুল ফেরদৌস এ রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত শহিদুল সদর উপজেলার ঝাউদি ইউনিয়নের ব্রাহ্মণদী এলাকার মোহাম্মদ মোল্লার ছেলে।

মামলার বিবরণ ও আদালত সূত্র জানা গেছে, তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল মহিষেরচর এলাকার আব্দুল করীম ক্কারীর মেয়ে ফরিদা বেগমের। ২০০৮ সালের ৬ মে সকালে ফরিদা বেগম শহিদুল মোল্লার সঙ্গে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি। পর দিন ৭ মে সকালে কালকিনি উপজেলার দক্ষিণ ধুয়াসার এলাকার কাদের কবিরাজের পেঁপে বাগান থেকে ফরিদার লাশ উদ্ধার করে কালকিনি থানা পুলিশ। এ ঘটনায় নিহতের ভাই হান্নান ক্কারী একই দিনে বিকালে শহিদুল মোল্লা ও অজ্ঞাত আরও কয়েকজনকে আসামি করে কালকিনি থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

পরে এই ঘটনায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা তৎকালীন কালকিনি থানার এসআই মোহাম্মদ হারুনর রশীদ ঘটনার তদন্তের পর ২০০৯ সালের ২২ জুন আসামি শহিদুলকে একমাত্র অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন। এরপর আদালত  মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তাসহ ১২ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করেন। পরে বিচারিক আদালতে দীর্ঘ ১৪ বছর যুক্তিতর্ক শেষে উপযুক্ত সাক্ষ্য ও প্রমাণের ভিত্তিতে এই আসামিকে মৃত্যুদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেন বিচারক।

মামলার বাদী নিহতের ভাই হান্নান ক্কারী বলেন, আজ ১৪ বছর পর আমার বোন হত্যা মামলার রায় পেলাম। এ রায়ে আমরা সন্তুষ্ট। আদালতের কাছে একটাই দাবি, এ রায় যেন দ্রুত কার্যকর করা হয়।

আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) মো. সিদ্দিকুর রহমান সিং বলেন, আসামি শহিদুল মোল্লা প্রতারণার মাধ্যমে ওই নারীকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েও বিয়ে করেনি। পরে তাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে হত্যা করে। আমরা রাষ্ট্রপক্ষ প্রমাণ করতে পেরেছি, শহিদুল মোল্লা তার প্রেমিকাকে হত্যা করেছে। আজ আদালত আসামি শহিদুল মোল্লাকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছে। এ রায়ে আমরা সন্তুষ্ট। 

এ বিষয়ে আসামিপক্ষের আইনজীবী রেজাউল করিম বলেন, আমরা ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হয়েছি। এই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করবো।

/এফআর/
সম্পর্কিত
‘বিচারকরা কোর্টে অলস সময় কাটান না, তারপরও মামলা শেষ হচ্ছে না’
যুবলীগ নেতা হত্যার দায়ে ১০ জনের মৃত্যুদণ্ড, যাবজ্জীবন ৮
ফেব্রুয়ারিতে ২৬ মেয়ে শিশুসহ ৪২ ধর্ষণ: মহিলা পরিষদ
সর্বশেষ খবর
বেইলি রোডে অগ্নিকাণ্ডে বিসিবির শোক
বেইলি রোডে অগ্নিকাণ্ডে বিসিবির শোক
টেক্সাসের ইতিহাসে ভয়াবহ দাবানল
টেক্সাসের ইতিহাসে ভয়াবহ দাবানল
ইমারত বিধিমালা ন্যক্কারজনকভাবে লঙ্ঘন করা হচ্ছে: মেয়র তাপস
ইমারত বিধিমালা ন্যক্কারজনকভাবে লঙ্ঘন করা হচ্ছে: মেয়র তাপস
মেহমানদের নিয়ে খেতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন মা ও দুই শিশুসন্তান
মেহমানদের নিয়ে খেতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন মা ও দুই শিশুসন্তান
সর্বাধিক পঠিত
বাংলাদেশ থেকে যাওয়া হিন্দুদের নাগরিকত্ব দিতে নতুন পোর্টাল করছে ভারত
বাংলাদেশ থেকে যাওয়া হিন্দুদের নাগরিকত্ব দিতে নতুন পোর্টাল করছে ভারত
দুই ছেলের আবদার মেটাতে গিয়ে লাশ হলেন মা’সহ ৩ জনই
দুই ছেলের আবদার মেটাতে গিয়ে লাশ হলেন মা’সহ ৩ জনই
আগুন কেড়ে নিলো ইতালি প্রবাসী মোবারকের পরিবারের সবাইকে
আগুন কেড়ে নিলো ইতালি প্রবাসী মোবারকের পরিবারের সবাইকে
বিপিএলে চ্যাম্পিয়ন দল কত টাকা পাবে জানালো বিসিবি
বিপিএলে চ্যাম্পিয়ন দল কত টাকা পাবে জানালো বিসিবি
বেইলি রোডের আগুনে অন্তত ৪৪ জনের মৃত্যু
বেইলি রোডের আগুনে অন্তত ৪৪ জনের মৃত্যু