ট্রেনের নিচে ফেলে ব্যবসায়ীকে হত্যার অভিযোগে মামলা

Send
বগুড়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১২:৩২, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:৩২, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০

BT-Newবগুড়া সদরের কৈচড় এলাকায় ধাক্কা দিয়ে ট্রেনের নিচে ফেলে আনিসুর রহমান বাবু (৪৫) নামে এক স্টিল ফার্নিচার ব্যবসায়ীকে হত্যার অভিযোগে মামলা হয়েছে। বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বোনারপাড়া থানায় নিহতের স্ত্রী আমেনা বেগম এ মামলা করেন। রেলের বোনারপাড়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) কায়কোবাদ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এজাহারে দুজনের নাম উল্লেখ করে এবং আরও অজ্ঞাত দু-তিন জনকে আসামি করেছেন বাদী। এ ঘটনায় দুজনকে গ্রেফতার করে আদালতে নিয়ে ১০ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে।

পুলিশ জানায়, আনিসুর রহমান বাবু বগুড়া শহরের শিববাটি এলাকার ফজলুর রহমানের ছেলে। তিনি বগুড়া সদরের শহরদীঘি এলাকায় হাজির মিলের কাছে স্টিল ফার্নিচার তৈরি ও বিক্রি করেন। তিনি ফার্নিচার বিক্রি বাবদ কয়েকজনের কাছে মোটা অংকের টাকা পান। বাবু গত ২১ সেপ্টেম্বর বেলা আড়াইটার দিকে কৈচড় এলাকায় রেল লাইনের পাশে বন্ধু কাহালু উপজেলার পিলকুঞ্জ গ্রামের আবদুর রহমানের ছেলে গোলাম রব্বানী (৪০) এবং একই গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে লুৎফর রহমানের (৩৭) সঙ্গে কথা বলছিলেন। এ সময় সান্তাহার ছেড়ে আসা দিনাজপুরগামী দোলনচাঁপা এক্সপ্রেস ট্রেন ওই এলাকা অতিক্রম করছিল। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, তারা বাবুকে ট্রেনের নিচে ধাক্কা দিয়ে দৌড় দেন। এতে ট্রেনের ধাক্কায় ঘটনাস্থলেই বাবুর মৃত্যু হয়। জনগণ দৌড়ে পালাতে দেখে তার বন্ধু রব্বানী ও লুৎফরকে আটক করে রাখেন। পরে তাদের পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

তদন্তকারী কর্মকর্তা রেল পুলিশের এসআই কায়কোবাদ জানান, নিহত বাবুর স্ত্রী বুধবার রেলের বোনারপাড়া থানায় লুৎফর ও রব্বানীর নাম উল্লেখ করে আরও অজ্ঞাত দু-তিন জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেছেন। এজাহারে হত্যার কারণ উল্লেখ না থাকলেও এই কর্মকর্তার ধারণা, পাওনা টাকা চাওয়া নিয়ে এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে। কোনও প্রভাবশালী দেনাদার গ্রেফতার দুজনসহ অন্যদের মাধ্যমে বাবুকে হত্যা করিয়েছে। গ্রেফতার এজাহার নামীয় দু’জনকে বগুড়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে ১০ দিন করে রিমান্ড চাওয়া হয়েছে। দু’একদিনের মধ্যে রিমান্ড শুনানি হবে। আর রিমান্ডে নিলেই এ হত্যাকাণ্ডের প্রকৃত কারণ জানা সম্ভব হবে।

/এমএএ/

লাইভ

টপ