X
রবিবার, ১৯ মে ২০২৪
৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

রাজশাহীতে দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হলো বিভাগীয় সর্বজনীন পেনশন মেলা

রাজশাহী প্রতিনিধি
২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:১৭আপডেট : ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:১৭

রাজশাহীতে পেনশন কর্মসূচির প্রতি সাধারণ মানুষকে আগ্রহী করে তুলতে প্রথমবারের মতো বিভাগীয় পর্যায়ে সর্বজনীন পেনশন মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) সকালে হাজি মুহাম্মদ মুহসিন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে দিনব্যাপী এ মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্যসচিব তোফাজ্জল হোসেন মিয়া। ‘সর্বজনীন পেনশন স্কিম’ শীর্ষক এক কর্মশালা সকালে রাজশাহী কারা প্রশিক্ষণকেন্দ্রের অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছে। জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ ও রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় যৌথভাবে এর আয়োজন করে।

কর্মশালায় জানানো হয়, সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থাপনা আইন-২০২৩ এর আওতায় জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ গঠিত হয়েছে। ফলে এটি একটি সরকারি বিধিবদ্ধ প্রতিষ্ঠান এবং সর্বজনীন পেনশন স্কিম কর্মসূচি রাষ্ট্রীয়। সরকার আসবে সরকার যাবে, রাষ্ট্র্রীয় কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে। সরকার পরিবর্তন হলেও সর্বজনীন পেনশন স্কিম অব্যাহত থাকবে।

এতে আরও জানানো হয়, এটি রাষ্ট্রীয় গ্যারান্টি যুক্ত স্কিম, তাই এনজিওদের মতো টাকা নিয়ে যাবে না। এমনকি জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ এ টাকা স্পর্শ করতে পারবে না বিনিয়োগ করা ছাড়া। এ স্কিমে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার পর অসুস্থ হলে এক বছরের একটা গ্রেজ টাইম দেওয়া হবে এবং তার পর স্কিম আবার চালু করতে পারবে। ৬০ বছরের আগে মারা গেলে নমিনি টাকা তুলে নিতে পাবরে বা এটা চালিয়ে নিতে পারবে। এখানে এক স্কিম থেকে অন্য স্কিমে যাওয়ারও সুযোগ রয়েছে। নিজেই সিস্টেমে ঢুকে পরিবর্তন করা যাবে। জীবন বীমার পেনশন স্কিম নিলেও সর্বজনীন পেনশনে নিবন্ধন করা যাবে।

কর্মশালায় আরও জানানো হয়, এখন সরকারি প্রতিষ্ঠানে পেনশন তুলতে হয়রানি নেই; আর এটার ক্ষেত্রে তো প্রশ্নই আসে না। এটি আইটি বেজড। সরাসরি ব্যাংকের মাধ্যমে গ্রাহকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা চলে যাবে, কোনও অফিসে যাওয়ার প্রয়োজন নেই।

কর্মশালায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন, রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীর। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষের সদস্য মো. গোলাম মোস্তফা। সূচনা ও সমাপনী বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া।

মুখ্যসচিব বলেন, অর্থ বিভাগ অবকাঠামোগতভাবে সর্বজনীন পেনশন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। কিন্তু তার একার পক্ষে এক্ষেত্রে সফল হওয়া সম্ভব নয়। এটা জনপ্রতিনিধি, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী সবার সম্মিলিত কাজ। তিনি সাধারণ মানুষকে উদ্বুদ্ধ করতে জনপ্রতিনিধিসহ সবাইকে আহ্বান জানান এবং একইসঙ্গে এ বিষয়ে অপপ্রচার প্রতিরোধে এগিয়ে আসতে অনুরোধ করেন।

কর্মশালায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব শেখ মোহাম্মদ সলীম উল্লাহ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক (প্রশাসন) মো. আহসান কিবরিয়া সিদ্দিকি, মাইক্রোক্রেডিট রেগুলেটরি অথরিটির এক্সকিউটিভ ভাইস চেয়ারম্যান মো. ফসিউল্লাহ এবং এনজিও বিষয়ক ব্যুরোর মহাপরিচালক মো. সাইদুর রহমান।

এর আগে জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ ও রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে যৌথ আয়োজনে নগরীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠে বিভাগীয় পেনশন মেলা অনুষ্ঠিত হয়। সর্বজনীন পেনশন স্কিম বিষয়ে জনঅবহিতকরণ এবং এ স্কিমের সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে এর আয়োজন করা হয়।

মেলায় রাজশাহী বিভাগের ৮ জেলার জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন সরকারি দফতরের কর্মকর্তা-কর্মচারী, এনজিও প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। বিভাগের বিভিন্ন সরকারি দফতর, ব্যাংক ও আর্থিকপ্রতিষ্ঠান, এনজিও, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং ইউডিসি’র ১২৫টি স্টল এতে অংশ নেয়।

/আরআইজে/
সম্পর্কিত
‘সর্বজনীন পেনশনের নামে জনগণের কাছ থেকে টাকা তুলে লুটপাট করছে সরকার’
সরকারের সব কর্মসূচি বাস্তবায়িত হলে দেশে গরিব থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী
সর্বজনীন পেনশনে চালু হলো নতুন স্কিম ‘প্রত্যয়’
সর্বশেষ খবর
ভোটকেন্দ্রে আসতে বাধা দিলে ৯৯৯-এ জানালেই নেওয়া হবে ব্যবস্থা
যশোর জেলা প্রশাসনের সংবাদ সম্মেলনভোটকেন্দ্রে আসতে বাধা দিলে ৯৯৯-এ জানালেই নেওয়া হবে ব্যবস্থা
মেট্রোরেলে ভ্যাট বসানো ভুল সিদ্ধান্ত: ওবায়দুল কাদের
মেট্রোরেলে ভ্যাট বসানো ভুল সিদ্ধান্ত: ওবায়দুল কাদের
নির্বাচনে প্রভাব ফেলবে না মার্কিন শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ
গাজায় ইসরায়েলি হামলার প্রতিবাদনির্বাচনে প্রভাব ফেলবে না মার্কিন শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ
বিদায়ের পর চেন্নাই অধিনায়ক বললেন, ‘মোস্তাফিজকে মিস করেছি’
বিদায়ের পর চেন্নাই অধিনায়ক বললেন, ‘মোস্তাফিজকে মিস করেছি’
সর্বাধিক পঠিত
মামুনুল হক ডিবিতে
মামুনুল হক ডিবিতে
৩০ শতাংশ বেতন বৃদ্ধির দাবি তৃতীয় শ্রেণির সরকারি কর্মচারীদের
৩০ শতাংশ বেতন বৃদ্ধির দাবি তৃতীয় শ্রেণির সরকারি কর্মচারীদের
‘নীরব’ থাকবেন মামুনুল, শাপলা চত্বরের ঘটনা বিশ্লেষণের সিদ্ধান্ত
‘নীরব’ থাকবেন মামুনুল, শাপলা চত্বরের ঘটনা বিশ্লেষণের সিদ্ধান্ত
ভারতীয় পেঁয়াজে রফতানি মূল্য নির্ধারণ, বিপাকে আমদানিকারকরা
ভারতীয় পেঁয়াজে রফতানি মূল্য নির্ধারণ, বিপাকে আমদানিকারকরা
মোবাইল আনতে ডিবি কার্যালয়ে মামুনুল হক
মোবাইল আনতে ডিবি কার্যালয়ে মামুনুল হক