X
বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২
২৩ আষাঢ় ১৪২৯

সেই পিআইও’র বিরুদ্ধে মামলা, দুদককে তদন্তের নির্দেশ

আপডেট : ২৭ এপ্রিল ২০২২, ১৭:০৬

দরপত্রের প্রকাশিত লটারির ফল বদলে নিজ অফিসের কার্য-সহকারীর ভাইকে কাজ দেওয়ার ঘটনায় কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. সিরাজুদ্দৌলাসহ ছয় জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মামলাটি করেছেন ভুক্তভোগী ঠিকাদার আবু বক্কার সিদ্দিক। 

আদালত মামলাটি গ্রহণ করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) রংপুর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপপরিচালককে তদন্ত করে প্রতিবেদন দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। 

গত বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালত, কুড়িগ্রামের বিচারক মো. আব্দুল মান্নান এ আদেশ দেন। বুধবার (২৭ এপ্রিল) আদালতের বেঞ্চ সহকারী সেলিম জাহাঙ্গীর এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মামলার অপর আসামিরা হলেন দরপত্র মূল্যায়ন কমিটির চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বিপুল কুমার, দরপত্র মূল্যায়ন কমিটির আহ্বায়ক ও উপজেলা প্রকৌশলী সাদেকুল ইসলাম, কমিটির সদস্য ও উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা তারিফুর রহমান সরকার, কমিটির সদস্য ও পিআইও অফিসের উপ-সহকারী প্রকৌশলী দুলাল হোসেন এবং কমিটির অপর সদস্য জনস্বাস্থ্য বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী নিত্যানন্দ বর্মন।

আরও পড়ুন: লটারির প্রকাশিত ফল ‘বদলে দিলেন’ পিআইও

আদালত সূত্র জানায়, মেসার্স অর্ক ট্রেডার্সের মালিক আবু বক্কার সিদ্দিক ২১ এপ্রিল আদালতে মামলার আবেদন করলে পেনাল কোডের ৪২০ ধারাসহ দুর্নীতি প্রতিরোধ আইন, ১৯৪৭-এর ৫ (১) ধারায় মামলাটি গ্রহণ করেন বিচারক। ওই সময় আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করেন। পরে রংপুর দুদকের উপপরিচালককে তদন্ত করে আগামী ২২ মে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ঠিকাদারদের উপস্থিতিতে উপজেলা পরিষদ হলরুমে ‘গ্রামীণ রাস্তার ১৫ মিটার দৈর্ঘ্য পর্যন্ত সেতু/কালভার্ট নির্মাণ’ শীর্ষক প্রকল্পের লটারি অনুষ্ঠিত হয়। লটারিতে পাঁচটি গ্রুপে বিজয়ী ঠিকাদার নির্বাচন করা হয়। এ সময় ১ নম্বর গ্রুপের দরপত্রের লটারিতে অর্ক ট্রেডার্স ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান বিজয়ী হয়। কিন্তু লটারির পর অর্ক ট্রেডার্সের স্বত্বাধিকারী আবু বক্কার সিদ্দিক পিআইও সিরাজুদ্দৌলার সঙ্গে দেখা করে কাজের অগ্রগামী করতে গেলে টালবাহানা শুরু করেন। সেই সঙ্গে ঠিকাদারকে দুই লাখ নিয়ে কাজটি ছেড়ে দেওয়ার প্রস্তাব করেন। এমন প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় পিআইও কাজ বাতিলের হুমকি দেন এবং পরবর্তী সময়ে বিজয়ী ঠিকাদারের নাম পরিবর্তন করে নিজ কার্যালয়ের কার্য-সহকারী আনিছুর রহমান মুকুলের ছোট ভাইয়ের প্রতিষ্ঠান মা এন্টারপ্রাইজকে বিজয়ী দেখিয়ে ফল সিট পরিবর্তন করেন। এ নিয়ে ভুক্তভোগী ঠিকাদার ইউএনও বরাবর দুই দফায় লিখিত অভিযোগ দিলেও কোনও কাজ হয়নি।

এদিকে, লটারি অনুষ্ঠানের একটি ভিডিও চিত্র এই প্রতিবেদকের হাতে এসেছে। ভিডিও চিত্রটি বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, ১ নম্বর গ্রুপ্রের দরপত্রের লটারির গুটি তুলেছেন উলিপুর ইউএনও বিপুল কুমার। এ সময় ইউএনও গুটি তুলে ক্রমিক ঘোষণা দেন ১৬৯। সঙ্গে সঙ্গে পাশে থাকা পিআইও সিরাজুদ্দৌলা কম্পারেটিভ স্টেটমেন্ট (সিএস) দেখে বিজয়ী প্রতিষ্ঠানের নাম অর্ক ট্রেডার্স, নাজিরা, কুড়িগ্রাম ঘোষণা করেন। এ সময় পিআইওকে সিএস কপিতে কলম দিয়ে চিহ্নিত করতেও দেখা গেছে। লটারি অনুষ্ঠানে উলিপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ইউএনও, উলিপুর পৌর মেয়র, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান, পিআইও এবং দরপত্র মূল্যায়ন কমিটির সদস্যসহ সংশ্লিষ্ট ঠিকাদাররা উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন: ভিডিওতে লটারির ফল পরিবর্তনের সত্যতা মিলেছে

ভুক্তভোগী ঠিকাদার আবু বক্কার বলেন, ‘অর্ক ট্রেডার্স বিজয়ী হলেও পিআইওসহ দরপত্র মূল্যায়ন কমিটির সদস্যরা লটারির ফল পরিবর্তন করে জালিয়াতি ও প্রতারণা করেছেন। ইউএনওকে লিখিত অভিযোগ দিয়েও কোনও সমাধান পাইনি। তাই আমি ন্যায় বিচার পাওয়ার জন্য মামলা করেছি।’

অভিযোগকারী ঠিকাদারের আইনজীবী সাইদুর রহমান সাইদ বলেন, ‘আসামিদের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনা হয়েছে তা অত্যন্ত গুরুতর। এ কারণে আদালত তদন্তের যে নির্দেশ দিয়েছেন দুদক তা যথাযথভাবে তদন্ত করে প্রতিবেদন দিলে বাদী ন্যায় বিচার পাবেন বলে আমি মনে করি। এতে করে অন্যরাও এ ধরনের দুর্নীতি করার ক্ষেত্রে সতর্ক হবেন।’

/এএম/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
এআইইউবি চ্যাম্পিয়নস লিগে চ্যাম্পিয়ন এফসি বার্সেলোনা
এআইইউবি চ্যাম্পিয়নস লিগে চ্যাম্পিয়ন এফসি বার্সেলোনা
সংক্ষিপ্ত ভাষণে যা বললেন জনসন
সংক্ষিপ্ত ভাষণে যা বললেন জনসন
জ্যোতি বসু সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড স্টাডিজের শিলান্যাস শুক্রবার
জ্যোতি বসু সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড স্টাডিজের শিলান্যাস শুক্রবার
‘মোটরসাইকেল নিষিদ্ধের কারণে মানুষের ভোগান্তি বাড়বে’
‘মোটরসাইকেল নিষিদ্ধের কারণে মানুষের ভোগান্তি বাড়বে’
এ বিভাগের সর্বশেষ
কামারপাড়ায় বেড়েছে উত্তাপ
কামারপাড়ায় বেড়েছে উত্তাপ
৩৮ মণের ‘মহারাজাকে’ নিয়ে দুশ্চিন্তায় আপেল
৩৮ মণের ‘মহারাজাকে’ নিয়ে দুশ্চিন্তায় আপেল
একটি পুরনো মোবাইলের জন্য যুবককে হত্যা, মায়ের কান্না
একটি পুরনো মোবাইলের জন্য যুবককে হত্যা, মায়ের কান্না
৪ শিক্ষক নিহত, বেপরোয়া গতিতে ট্রাক চালানোর কথা স্বীকার
৪ শিক্ষক নিহত, বেপরোয়া গতিতে ট্রাক চালানোর কথা স্বীকার
ঈদে বাড়ি ফেরার পথে দুর্ঘটনা, মা-বোনের পর মারা গেলো শিশুটিও
ঈদে বাড়ি ফেরার পথে দুর্ঘটনা, মা-বোনের পর মারা গেলো শিশুটিও