X
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪
১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

সিসিএল ফাইনাল: খেলতে চাইলো দুই দলই, তবু স্থগিত কেন

বিনোদন রিপোর্ট
১৮ অক্টোবর ২০২৩, ১৩:২৯আপডেট : ১৮ অক্টোবর ২০২৩, ১৬:৫৬

শোবিজের সামগ্রিক কোনও আয়োজন ঘিরে সাম্প্রতিক সময়ে এতোটা নাটকীয়তা দেখা যায়নি; যতটা দেখা গেলো সেলিব্রিটি ক্রিকেট লিগ বা সিসিএলে। সেপ্টেম্বরের শেষভাগে শুরু হয়েছিল এই লিগ। সে সময় মারামারির কারণে বাধ্য হয়ে খেলা স্থগিত করে আয়োজক প্রতিষ্ঠান জি-নেক্সট। একই সঙ্গে দোষীদের বিরুদ্ধেও আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

তবে আয়োজনটি অপূর্ণ রাখতে চাননি সংশ্লিষ্টরা। তাই ফের চালু হয় সিসিএল। মঙ্গলবার (১৭ অক্টোবর) বাকি থাকা ম্যাচগুলোর শিডিউল দেন তারা। আর যথারীতি সকাল থেকে মিরপুর শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হতে থাকে একের পর এক ম্যাচ। কিন্তু ফাইনালে এসে ফের গণ্ডগোল। দুই দলের দুজন খেলোয়াড় নিয়ে আপত্তির জেরে বাতিল হয় ম্যাচটি। শুধু তাই নয়, আগামীতে এই ম্যাচ হওয়ার সম্ভাবনাও নেই বলে ইঙ্গিত দিলেন আয়োজকরা।

ছয়টি দলকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিল নির্মাতা সালাহউদ্দিন লাভলুর দল ও নির্মাতা দীপংকর দীপনের দল। চূড়ান্ত ম্যাচটি খেলতে আগ্রহী ছিল দুই দলই। তবু শেষ পর্যন্ত বাতিল হলো। কেন?

দীপংকর দীপনের দল উত্তরটা জানার আগে দুই দলের অধিনায়কের মন্তব্য শোনা যাক। দীপংকর দীপন বললেন, ‘আয়োজকদের কতবার বললাম যে, যত সময় যাচ্ছে, আমাদের প্লেয়াররা টায়ার্ড হয়ে যাচ্ছে, এনার্জি হারিয়ে ফেলছে। সেই সকাল বেলায় এসেছে। ফলে আমদের সেরা খেলাটা দিতে পারবো না। সুতরাং খেলাটা দ্রুত শেষ করুন। যে কোনও খেলায় নিয়ম-কানুন থাকে। এখানে সেই জায়গায় কিছু ফাঁক-ফোকর আছে। সেটার কারণেই বিতর্ক তৈরি হয়েছে। আমরা প্রথম থেকে যেই টিম নিয়ে খেলে এসেছি, সেই টিমই আছে। আমরা ফাইনাল খেলার জন্য প্রস্তুত আছি।’

অন্যদিকে সালাহউদ্দিন লাভলুর ভাষ্য, ‘আমরা জানি না, কর্তৃপক্ষকে জিজ্ঞেস করেন। আমরা অলরেডি ক্রিজে আছি। আমাদের তো খেলতে হবে, এখানে আমরা কমিটেড।’

সালাহউদ্দিন লাভলুর দল দুই অধিনায়কের মন্তব্যে দন্দ্বের কারণ স্পষ্ট না হলেও সেটা পরিষ্কার হলো আয়োজক মাসুদুর রহমানের ভাষ্যে। তিনি বলেছেন, ‘সালাহউদ্দিন লাভলু ভাইয়ের টিমে একজন প্লেয়ার আছে, যার নাম অন্তু; আর দীপংকর দীপন ভাইয়ের টিমে একজন প্লেয়ার আছে, যার নাম রাব্বি। তারা দুজনই অত্যন্ত ভালো খেলে এবং কোনও না কোনও সময়ে তারা কর্পোরেট ম্যাচে খেলেছেন। আগে একটা সিদ্ধান্ত হয়েছিল যে, অন্তু খেলতে পারবে না। কিন্তু এই পর্যায়ে এসে রাব্বির বিষয়টিও জানতে পারেন লাভলু ভাইয়েরা। আমরা বারবার বিষয়টা সমাধান করে আসছিলাম। শেষ যখন সেমিফাইনাল চলে, তখনও আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম যে, কর্পোরেট খেলে আসা প্লেয়াররা খেলতে পারবেন না।’

আয়োজকের মন্তব্যে এটুকু স্পষ্ট, দুজন প্লেয়ারের ইস্যুতে ছাড় দিতে নারাজ দুই দলই। যেটার পরিণতিতে খেলা বাতিলের পর্যায়ে গেছে। সবশেষে নিরাশ হয়ে আয়োজক মাসুদুর রহমান বলেছেন, ‘আমার মনে হয় আয়োজক হিসেবে যত চেষ্টা করেছি, নিশ্চয়ই এর মধ্যে অনেক ব্যর্থতা, ভুল আছে। কিন্তু আর সম্ভব না। আজকে খেলা স্থগিত করতেই হবে। আর কোনও অপশন নেই।’

আয়োজক মাসুদুর রহমান উল্লেখ্য, শোবিজ তারকাদের নিয়ে আয়োজিত এই সিসিএলে মোট আটটি দল অংশ নিয়েছে। এগুলোর অধিনায়ক হিসেবে ছিলেন গিয়াসউদ্দিন সেলিম, সালাহউদ্দিন লাভলু, শিহাব শাহীন, চয়নিকা চৌধুরী, দীপঙ্কর দীপন, সকাল আহমেদ, মোস্তফা কামাল রাজ ও রায়হান রাফী।

/কেআই/
সম্পর্কিত
দীপনের নতুন মিশন ‘ছাত্রী সংঘ’, কুমিল্লায় ঘোষণা!
দীপনের নতুন মিশন ‘ছাত্রী সংঘ’, কুমিল্লায় ঘোষণা!
অন্তর্জালে আসছে ‘অন্তর্জাল’
অন্তর্জালে আসছে ‘অন্তর্জাল’
নারীর বীরত্বগাথা নিয়ে দীপনের নতুন ছবি
নারীর বীরত্বগাথা নিয়ে দীপনের নতুন ছবি
অন্তর্জাল: সাইবার থ্রিলার নিয়ে স্মার্ট ছবি
সিনেমা সমালোচনাঅন্তর্জাল: সাইবার থ্রিলার নিয়ে স্মার্ট ছবি
বিনোদন বিভাগের সর্বশেষ
মায়ের মৃত্যুর পর ধর্মে আস্থা বেড়ে গেছে: জাহ্নবী
মায়ের মৃত্যুর পর ধর্মে আস্থা বেড়ে গেছে: জাহ্নবী
ওটিটিতে আসছে ‘রাজকুমার’
ওটিটিতে আসছে ‘রাজকুমার’
ফাতিমা: সাধারণ এক নারীর ‘অসাধারণ’ সংগ্রামের ছবি
সিনেমা সমালোচনাফাতিমা: সাধারণ এক নারীর ‘অসাধারণ’ সংগ্রামের ছবি
কান নিয়ে হুমার ‘খোঁচা’ ও প্রত্যাশা
কান নিয়ে হুমার ‘খোঁচা’ ও প্রত্যাশা
ফারিয়াকে চমকে দিলো আফ্রিকান ভক্ত
ফারিয়াকে চমকে দিলো আফ্রিকান ভক্ত