X
বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২
২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

নদীতে হাজার হাজার মাছের মৃত্যু কীসের ইঙ্গিত?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
২০ আগস্ট ২০২২, ২০:১৮আপডেট : ২০ আগস্ট ২০২২, ২০:১৮

পোল্যান্ডের পশ্চিমাঞ্চলে উইডুচোয়া গ্রামে ওডের নদীতে হাজার হাজার মাছ মরে গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে ১১ আগস্ট। এই ঘটনায় স্থানীয়রা বুজতে পারছেন জুলাই মাসের শেষের দিকে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল থেকে পরিবেশগত একটি বিপর্যয় বাল্টিক সাগরের দিকে এগিয়ে গেছে।

স্থানীয়রা যখন নদী থেকে মৃত মাছ অপসারণের উপায় খুঁজছিল তখন সরকার সংকটে সাড়া দিতে শুরু করে। বিজ্ঞানীরা বলছেন, এমন পদক্ষেপ অনেক দেরিতে নেওয়া হলো।

উইডুচোয়ার মেয়র পাওয়েল রোবেল বলেন, গত পাঁচদিন ছিল আমার জীবনের কঠিনতম। এমন বিপর্যয় আমি কখনও প্রত্যক্ষ করার কল্পনা করিনি। দুর্যোগের চলচ্চিত্রে কেবল এমন দৃশ্য দেখা যায়।

স্থানীয়দের সহযোগিতায় কয়েক ডজন পিচফর্ক জড়ো করতে সক্ষম হন তিনি। এসব পিচফর্ক আলু উত্তোলনে ব্যবহার করা হতো। এগুলো দিয়ে তারা নদী থেকে মৃত মাছ অপসারণ করতে শুরু করেন।

মেয়র বলেন, আমরা জানতাম না কীভাবে মাছগুলো অপসারণ করা হবে। ভুল থেকে আমরা শিক্ষা নিয়েছি।

১২ আগস্ট প্রধানমন্ত্রী ম্যাথিউজ মোরাওয়েইকি পোল্যান্ডের জাতীয় পানি ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের প্রধান এবং সাধারণ পরিবেশগত পরিদফতরের প্রধানকে বরখাস্ত করেছেন। মৃত মাছের ঘটনায় দ্রুত পদক্ষেপ না নেওয়ার অভিযোগ ছিল তাদের বিরুদ্ধে।

পোল্যান্ড ও বিদেশের গবেষণাগারে একাধিক মাছ ও পানির নমুনার পরীক্ষা করা হয়েছে। এমনকি বিষক্রিয়ার উৎস সম্পর্কে জানাতে ২ লক্ষাধিক ডলার পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। কিন্তু এখনও পোল্যান্ডের দ্বিতীয় বৃহত্তম নদী ওডের-এ বিষক্রিয়ার কারণ অস্পষ্ট রয়ে গেছে।

জলবায়ু মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আলেক্সান্ডার ব্রজোজকা বলেন, একদিকে আমরা যা ঘটেছে তা ঠেকানোতে মনোযোগী। অপরদিকে এই পরিস্থিতির কারণ জানতে চেষ্টা করছি।

জার্মানি ও পোল্যান্ডের জলবায়ু মন্ত্রণালয়ের গবেষকরা ইঙ্গিত দিচ্ছেন যে, বড় বিষাক্ত শ্যাওলার অতিরিক্ত বৃদ্ধির কারণ মাছের মৃত্যুর একটি সম্ভাব্য কারণ হতে পারে।

ব্রজোজকা বলেন, অনুমান হলো একাধিক প্রাকৃতিক কারণে এমনটি ঘটেছে।

স্থানীয়রা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, হাজার হাজার মৃত মাছ অপসারণে সরকার কর্তৃক মোতায়েন করা দমকল ও আঞ্চলিক প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্যরা প্রস্তুত ছিলেন নদীতে তাদের জন্য যা অপেক্ষা করছিল। পানিতে দুর্গন্ধ এত প্রবল ছিল যে, মাছ অপসারণের সময় বেশিরভাগ কর্মী বমি করেছেন।

এই ঘটনায় স্থানীয় বাণিজ্যও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এতে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে সরকার। তবু উইডুচোয়ার বাসিন্দাদের মনে ভয় ও অনিশ্চয়তা বিরাজ করছে।

স্থানীয় মেয়রের স্ত্রী সিলভিয়া পালাজ-রোবেল বলেন, কোথাও ভুল হচ্ছে বলে আমাদের সতর্ক করেছে মৃত মাছগুলো। যখন মাছ থাকবে না তখন কে আমাদের বিপর্যয় সম্পর্কে জানান দেবে? আমরা জানতে চাই এজন্য দায়ী কে।

সূত্র: রয়টার্স

/এএ/
৮ ডিসেম্বর যেভাবে হানাদার মুক্ত হয় কুমিল্লা
৮ ডিসেম্বর যেভাবে হানাদার মুক্ত হয় কুমিল্লা
ইকুরিয়ার নিয়ে এলো ‘ইন্সটা পে’
ইকুরিয়ার নিয়ে এলো ‘ইন্সটা পে’
দুই নদীর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের আদেশ না মানায় ডিসি-ইউএনওকে তলব
দুই নদীর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের আদেশ না মানায় ডিসি-ইউএনওকে তলব
ব্যক্তিগত তথ্যকেন্দ্রিক বিজ্ঞাপন দেখানো নিষিদ্ধ হচ্ছে ফেসবুকে
ব্যক্তিগত তথ্যকেন্দ্রিক বিজ্ঞাপন দেখানো নিষিদ্ধ হচ্ছে ফেসবুকে
সর্বাধিক পঠিত
টানা কর্মসূচিতে যাচ্ছে বিএনপি
নয়াপল্টনে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষটানা কর্মসূচিতে যাচ্ছে বিএনপি
নিষেধাজ্ঞার জাল ভেদ করে কাতার কাঁপানো মিস ক্রোয়েশিয়া!
নিষেধাজ্ঞার জাল ভেদ করে কাতার কাঁপানো মিস ক্রোয়েশিয়া!
নয়াপল্টনে আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে গুলি করা ব্যক্তিটি কে?
নয়াপল্টনে আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে গুলি করা ব্যক্তিটি কে?
বাংলাদেশের প্রতিশ্রুতির কথা স্মরণ করিয়ে দিলেন জাতিসংঘ প্রতিনিধি
বাংলাদেশের প্রতিশ্রুতির কথা স্মরণ করিয়ে দিলেন জাতিসংঘ প্রতিনিধি
সরকার বিট্রে করেছে: মির্জা ফখরুল
ব্যাগ নিয়ে কার্যালয়ে ঢুকে গ্রেফতার দেখাবেসরকার বিট্রে করেছে: মির্জা ফখরুল