X
বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২
২২ আষাঢ় ১৪২৯

কেরালার স্কুলে ছাত্র-ছাত্রীদের অভিন্ন পোশাক

আপডেট : ০২ জানুয়ারি ২০২২, ২০:১৯

ভালায়নচিরাঙ্গারা প্রাথমিক বিদ্যালয়। ভারতের কেরালার একটি স্কুল। লিঙ্গ সমতার প্রতি জোর দিয়ে সেখানে ছাত্রছাত্রীদের জন্য অভিন্ন পোশাক চালু রয়েছে তিন বছর ধরে। স্কুলটিতে হাঁটু পর্যন্ত লম্বা প্যান্টের সঙ্গে হাফ শার্ট পরে শিক্ষার্থীরা।

বিদ্যালয় ছুটির পর দেখা যায়, আম গাছ ও তাল গাছের পাশ দিয়ে দৌড়ঝাঁপে ব্যস্ত শিক্ষার্থীরা। একই পোশাকে ছেলেদের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে দৌড় দেয় মেয়েরাও। একসঙ্গেই বাড়ি ফেরে তারা।

ছাত্র ও ছাত্রীদের সমান স্বাধীনতা রয়েছে। পোশাকের ক্ষেত্রেও তাই এমন লিঙ্গ-নিরপেক্ষ ইউনিফর্ম। তবে এমন চিন্তা এখন রাজ্যের অন্যত্রও ছড়িয়ে পড়ছে। দৃশ্যত নীরব একটি বিপ্লবের সূচনা হয়েছে।

সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের সঙ্গে আলাপকালে এই পোশাকে নিজের স্বাচ্ছন্দ্যের কথা জানায় ১০ বছরের শিবানন্দ মহেশ। তার ভাষায়, ‘আমি এই ইউনিফর্মে খুব রোমাঞ্চ ও স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। এটা আমার কাছাকাছি স্কুলে অধ্যয়নরত বন্ধুদের চেয়ে বেশ আলাদা। এই পোশাকে আমি ভালো খেলতে পারি।’

ভালো সাড়া পড়ায় কেরালার একই পথে হাঁটছে রাজ্যের আরও ডজনখানেকেরও বেশি স্কুল। সেগুলোতেও ছাত্র ও ছাত্রীদের জন্য একই পোশাকের ব্যবস্থা করা করা হয়েছে।

এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে নারী অধিকার নিয়ে কাজ করা বেশ কিছু সংগঠন। তাদের মতে, এই ধরনের কমন ইউনিফর্ম লিঙ্গ সমতা তৈরিতে সহায়ক হবে।

কেরালার মুসলিম সংগঠনগুলোর একাংশ অবশ্য এই উদ্যোগের কঠোর বিরোধিতা করছে। তারা স্কুলগুলোকে তাদের শিশুদের ওপর পশ্চিমা পোশাক বাধ্যতামূলক করার অভিযোগ তুলছে। এ নিয়ে প্রতিবাদ সমাবেশের ঘটনাও ঘটেছে। তারা বলছে, বিদ্যালয়গুলো মেয়েদের জন্য তাদের উপযুক্ত মেয়েলি পোশাক পরার অধিকার অস্বীকার করছে। তবে রাজ্যের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টি অব ইন্ডিয়ার পক্ষ থেকেও কেরালাজুড়ে এমন উদ্যোগে সমর্থন দেওয়ার অঙ্গীকার করা হয়েছে।

ভারতে সর্বোচ্চ সাক্ষরতার হার কেরালায়। কিন্তু সেখানে এখনও নারীদের তুলনায় পুরুষদের স্বাক্ষরতার হার বেশি। সমাজ ব্যবস্থাও নারীদের ওপর লিঙ্গগত ও পিতৃতান্ত্রিক প্রত্যাশার বাইরে নয়।

ভালায়নচিরাঙ্গারা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৭৫৬ শিক্ষার্থীর বেশিরভাগই খ্রিষ্টান ও মুসলিম। স্কুলটি বলছে, শুধু একজন অভিভাবক ইউনিফর্মের বিষয়ে আপত্তি করেছিলেন। তবে এই উদ্যোগের সুবিধাগুলো ব্যাখ্যা করার পর সেই আপত্তি তুলে নেওয়া হয়।

স্কুলের সাবেক প্রধান শিক্ষক কে এ ঊষা। তিনি বলেন, 'যখন বিষয়টি সামনে এলো, তখন আমরা শিক্ষার্থীদের বাবা-মায়েদের প্রতিক্রিয়া নিয়ে চিন্তিত ছিলাম, যারা তাদের মেয়েদের স্কার্ট পরার বিষয়টি পছন্দ করেন। কিন্তু আমরা এটিকে সহজে এবং কোনও প্রতিবাদ ছাড়াই বাস্তবায়ন করতে পেরেছি।' সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান।

/এমপি/এমওএফ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
ব্রিটেনের দুই প্রভাবশালী মন্ত্রীর পদত্যাগ, চাপে বরিস জনসন
ব্রিটেনের দুই প্রভাবশালী মন্ত্রীর পদত্যাগ, চাপে বরিস জনসন
পারিবারিক সহিংসতায় বেড়েছে মাদকসেবন ও আত্মহত্যার প্রবণতা: ফ্লাড
পারিবারিক সহিংসতায় বেড়েছে মাদকসেবন ও আত্মহত্যার প্রবণতা: ফ্লাড
বন্যাকবলিত মানুষের পাশে আমিরাত প্রবাসীরা
বন্যাকবলিত মানুষের পাশে আমিরাত প্রবাসীরা
ভিজিএফের চালে পাথর, সুবিধাভোগীদের মাঝে ক্ষোভ
ভিজিএফের চালে পাথর, সুবিধাভোগীদের মাঝে ক্ষোভ
এ বিভাগের সর্বশেষ
মমতাকে বড়দিদির মতো সম্মান করি:  মিঠুন চক্রবর্তী
মমতাকে বড়দিদির মতো সম্মান করি:  মিঠুন চক্রবর্তী
মহাগুরুকে নিয়ে মহাস্বপ্ন দেখছে পশ্চিমবঙ্গ বিজেপি
মহাগুরুকে নিয়ে মহাস্বপ্ন দেখছে পশ্চিমবঙ্গ বিজেপি
পেট্রোলের বাড়তি দামের জন্য তাজমহলকে দায়ী করলেন আসাদউদ্দিন ওয়াইসি
পেট্রোলের বাড়তি দামের জন্য তাজমহলকে দায়ী করলেন আসাদউদ্দিন ওয়াইসি
ভারতের হোটেল ও রেস্টুরেন্টে সার্ভিস চার্জ নিষিদ্ধ
ভারতের হোটেল ও রেস্টুরেন্টে সার্ভিস চার্জ নিষিদ্ধ
বিক্ষোভের মুখে পার্লামেন্ট ছাড়তে বাধ্য হলেন শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট
বিক্ষোভের মুখে পার্লামেন্ট ছাড়তে বাধ্য হলেন শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট