X
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২
১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে ব্যাপক অশান্তি কলকাতায়

রক্তিম দাশ, কলকাতা
১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২০:৪৪আপডেট : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২০:৪৬

মমতা সরকারের বিরুদ্ধে বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগ এনে বিজেপির নবান্ন অভিযানকে ঘিরে ব্যাপক অশান্তি ছড়িয়েছে কলকাতায়। পুলিশের লাঠিচার্জ আর কাঁদানে গ্যাসের আঘাতে আহত হয়েছেন একাধিক বিজেপি নেতা-কর্মী। অপরদিকে বিজেপি কর্মীদের ইটের আঘাতে একাধিক পুলিশ সদস্য আহতের খবর পাওয়া গেছে। বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে ব্যাপক অশান্তি কলকাতায়

বিজেপির এই নবান্ন অভিযান ঘিরে উত্তপ্ত হয়ে উঠে গঙ্গার দুই পাড়। হাওড়া-কলকাতার একাধিক জায়গায় পুলিশের সঙ্গে যেন খণ্ডযুদ্ধ শুরু হয় বিজেপি সমর্থকদের। এদিনের নবান্ন অভিযানে সাঁতরাগাছি থেকে মিছিলের নেতৃত্বে থাকার কথা ছিল শুভেন্দুর। সকালে পিটিএস থেকে সাঁতরাগাছির দিকে যাচ্ছিলেন তিনি, সঙ্গে ছিলেন লকেট চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু এই চত্বরে পুলিশ আটকে দেয় তাদের। সেখানে ছিল পুলিশের ব্যারিকেড। পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বচসা শুরু হয় শুভেন্দুর। বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে ব্যাপক অশান্তি কলকাতায়

‘আমাকে গ্রেফতার করুন’ বলে শুভেন্দু কার্যত পুলিশের দিকে তেড়ে যান। এরপর নারী পুলিশ সদস্যরা তাকে আটকাতে এলে বলেন, ‘ডোন্ট টাচ মাই বডি।’ এরপর প্রতিরোধ তো দূরে থাক, হেঁটে নিজেই প্রিজন ভ্যানে উঠে যান। এরপর গোটা দিন লালবাজারের অন্দরেই ছিলেন তিনি। বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে ব্যাপক অশান্তি কলকাতায়

কলেজ স্কয়ারের মিছিলের নেতৃত্বে ছিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ। কলেজ স্কয়ার থেকে বিনা বাধায় মিছিল পৌঁছে যায় হাওড়া ব্রিজে। কিন্তু সেখানে মিছিল আটকে দেয় পুলিশ। বাধা সরিয়ে নবান্নের দিকে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন দিলীপ ঘোষ এবং বিজেপি নেতা-কর্মীরা। তখন জলকামান দিয়ে মিছিল ছত্রভঙ্গ করে দেয় পুলিশ। বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে ব্যাপক অশান্তি কলকাতায়

রণক্ষেত্র হাওড়া ময়দানের মিছিলের পুরোভাগে ছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। বঙ্গবাসী মোড়ে সেই মিছিল আটকে দেয় পুলিশ। সেখানে প্রায় ৪৫ মিনিট বসে বিক্ষোভ দেখান সুকান্ত-অগ্নিমিত্রারা। পুলিশের সঙ্গে বচসায় জড়ান তারা। এমনকি সুকান্তর মিছিল থেকে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়। বিজেপির দাবি, পুলিশ বোমা ছুড়েছে। সেটা অবশ্য অস্বীকার করেছে পুলিশ। পরে হাওড়া ময়দান থেকে সুকান্ত-অগ্নিমিত্রাকে আটক করা হয়। হাওড়া ময়দান থেকে গ্রেফতার হয় ১৪ বিজেপি কর্মী। বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে ব্যাপক অশান্তি কলকাতায়

সাঁতরাগাছিতে মারমুখী বিজেপির প্রতি পাল্টা লাঠিচার্জ করে পুলিশ। মাঝে বেশ কিছুক্ষণ রাস্তাতেই পড়েছিলেন আহত বেশ কয়েকজন। কোনা এক্সপ্রেসওয়ে কার্যত কুরুক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছিল। কড়া নিরাপত্তা বেষ্টনি ভেঙে এগোনোর চেষ্টা করতেই বিজেপি কর্মীদের উদ্দেশে ছুটে আসে জলকামান। পুলিশকে লক্ষ্য করে ক্রমাগত ইট-পাথরবৃষ্টি হয়। পাল্টা লাঠিচার্জ, জলকামান, কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটায় পুলিশ। পরিস্থিতি সামাল দিতে ব্যারাকপুর কমিশানারেট থেকে অতিরিক্ত বাহিনী যায় সাঁতরাগাছিতে। বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে ব্যাপক অশান্তি কলকাতায়

অপরদিকে শুভেন্দুর মুক্তির দাবিতে বিজেপির ‘নবান্ন অভিযান’ কার্যত ‘লালবাজার অভিযানে’ পরিণত হয়। লালবাজারের কাছেই এমজি রোডে পুলিশের একটি গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। তিন মিছিলেই অনেক বিজেপি কর্মী এবং পুলিশ সদস্য জখম হয়। বিজেপি সদর দফতর মুরলিধর সেন লেনের সামনে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। পুলিশের সঙ্গে তুমুল বচসা হয় তাদের। বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে ব্যাপক অশান্তি কলকাতায়

বিজেপির নবান্ন অভিযানকে কেন্দ্র করে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি তৈরি হয় মধ্য কলকাতার রবীন্দ্র সরণীতে। লালবাজারের কাছেই পেট্রোল ঢেলে জ্বালিয়ে দেওয়া হয় কলকাতা পুলিশের পিসিআর ভ্যান। প্রথমে ইট ছুড়ে ভেঙে দেওয়া হয় গাড়ির কাচ ও হেড লাইট। পরে গাড়ির ওপর উঠে ভাঙা হয় লাল, নীল রঙের হুটার। এখানেই শেষ নয়। ট্রাম লাইনের উপর দাঁড়িয়ে থাকা সাদা স্করপিওতে পেট্রোল ঢেলে অগ্নিসংযোগ করা হয়। তারপর, নিমেষেই দাউদাউ জ্বলে উঠে সেই পিসিআর ভ্যান। যদিও বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার আগেই দমকল বাহিনী এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। পুলিশের তৎপরতায় অল্পের জন্য বিরাট ক্ষতির মুখ থেকে রেহাই পায় লালবাজার চত্বরের ব্যবসায়ীর দোকানও।

বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে ব্যাপক অশান্তি কলকাতায়

পুলিশি হামলায় আহত হয়েছেন রাজ্যসভার সাবেক সদস্য স্বপন দাশগুপ্ত, কলকাতা পৌরসভার সাবেক ডেপুটি মেয়র মীনাদেবী পুরোহিত। বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে ব্যাপক অশান্তি কলকাতায়

বিজেপি নেতা শিশির বাজোরিয়ার টুইট করা ছবিতে দেখা গেছে, প্রবীণ নেতা স্বপনের পাঞ্জাবিতে কাদার দাগ। স্বপন জানান, শান্তিপূর্ণ মিছিলে বিনা প্ররোচনায় হামলা চালিয়েছে পুলিশ। হাতে-পায়ে চোটও পেয়েছেন বলে দাবি তার। বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে ব্যাপক অশান্তি কলকাতায়

স্বপন বলেন, ‘পুলিশ প্রথমে জলকামান ব্যবহার করলো। তারপর লাঠিচার্জ হলো। ছোড়া হলো কাঁদানে গ্যাসও। আমাদের সরে যাওয়ার কোনও সময়ই হয়নি। শান্তিপূর্ণ মিছিলে এভাবে আক্রমণ করা হলো।’ তিনি জানান, পুলিশের লাঠিচার্জের ফলে তার হাতে এবং শরীরের একাধিক অংশে কালশিটে পড়েছে।

বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে ব্যাপক অশান্তি কলকাতায়

অন্যদিকে দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে কলেজ স্কয়ার থেকে নবান্ন অভিমুখী মিছিলে ছিলেন কলকাতা পৌরসভার ২২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মীনাদেবী পুরোহিত। ওই মিছিলেও অশান্তি হয়। কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটায় পুলিশ। লাঠিচার্জও করে তারা। কয়েকটি দোকানে বিজেপি কর্মীরা ঢুকে পড়েছে, এই অভিযোগে পুলিশ বেশ কয়েকটি দোকান বন্ধ করে দেয়। ওই সময়ই আহত হন মীনা দেবী পুরোহিত। কিভাবে তিনি আহত হলেন তা পরিষ্কার নয়। তবে বিজেপির অভিযোগ, পুলিশের লাঠির আঘাতেই আহত হয়েছেন মীনা দেবী।

/এমপি/
আমাদের সমাজে মিস ওয়ার্ল্ডের কি দরকার আছে?
আমাদের সমাজে মিস ওয়ার্ল্ডের কি দরকার আছে?
ককটেল বিস্ফোরণ: বিএনপির শতাধিক নেতাকর্মীর নামে পুলিশের মামলা
ককটেল বিস্ফোরণ: বিএনপির শতাধিক নেতাকর্মীর নামে পুলিশের মামলা
১৮৭ রানের জবাবে চাপে বাংলাদেশ
১৮৭ রানের জবাবে চাপে বাংলাদেশ
‘জানুয়ারি থেকে স্কুলে কোডিং, ডিজাইন ও অ্যানিমেশন শেখানো হবে’
‘জানুয়ারি থেকে স্কুলে কোডিং, ডিজাইন ও অ্যানিমেশন শেখানো হবে’
সর্বাধিক পঠিত
১১ মাসে নাগরিকত্ব ছাড়লেন ৪০১ বাংলাদেশি
১১ মাসে নাগরিকত্ব ছাড়লেন ৪০১ বাংলাদেশি
মেসি-আলভারেজের গোলে কোয়ার্টার ফাইনালে আর্জেন্টিনা
মেসি-আলভারেজের গোলে কোয়ার্টার ফাইনালে আর্জেন্টিনা
‘পুলিশ প্রটোকলে’ বিদায় নিলেন রাঙ্গাবালীর ইউএনও
‘পুলিশ প্রটোকলে’ বিদায় নিলেন রাঙ্গাবালীর ইউএনও
হাসপাতালে কী হয়েছিল মাইশার সঙ্গে?
আঙুলের অপারেশন করতে গিয়ে মৃত্যুহাসপাতালে কী হয়েছিল মাইশার সঙ্গে?
সাবেক স্পিকার জমির উদ্দিনের তোলা বিল ৬ মাসের মধ্যে ফেরত দেওয়ার নির্দেশ
সাবেক স্পিকার জমির উদ্দিনের তোলা বিল ৬ মাসের মধ্যে ফেরত দেওয়ার নির্দেশ