X
রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪
৮ বৈশাখ ১৪৩১

বাগদাদে মার্কিন ড্রোন হামলায় কাতাইব হিজবুল্লাহ কমান্ডার নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৯:৪৫আপডেট : ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৯:৫৮

এবার ইরাকে ড্রোন হামলা চালালো যুক্তরাষ্ট্র। বাগদাদে মার্কিন হামলায় ইরান-সমর্থিত মিলিশিয়া গ্রুপ কাতাইব হিজবুল্লাহ কমান্ডার ও তার দুই সহযোগী নিহত হয়েছে।

বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সময় রাত সাড়ে নয়টার দিকে বাগদাদের পূর্বাঞ্চলীয় মাশতাল এলাকায় হামলাটি চালানো হয়।  ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে।

এক বিবৃতিতে মার্কিন সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, এই অঞ্চলে মার্কিন সেনাদের ওপর সরাসরি হামলা ও হামলার পরিকল্পনার জন্য দায়ী ওই হিজবুল্লাহ নেতা। যদিও নিহত কমান্ডারের নাম প্রকাশ করা হয়নি।

তবে নাম প্রকাশ না করার শর্তে দুটি নিরাপত্তা সূত্র জানিয়েছে, কমান্ডার ছিলেন আবু বাকির আল সাদি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, রাতের ব্যস্ত সময়ে একটি গাড়ির ওপর হামলাটি চালানো হয়। মুহূর্তেই গাড়িটি জ্বলন্ত ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়। গাড়িতে কমান্ডারের দু’জন সহযোগীও ছিল।

অপর আরেকটি সূত্র জানিয়েছে, ইরাকের জনপ্রিয় রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা সংগঠন  পপুলার মোবিলাইজেশন ফোর্সেস (পিএমএফ)এর গাড়ি লক্ষ্য করে ড্রোনটি ছোড়া হয়েছে।  সংগঠনটি  ইরানের সাথে সংশ্লিষ্ট কয়েক ডজন সশস্ত্র গোষ্ঠীর সমন্বয়ে গঠিত।

কাতাইব হিজবুল্লাহ যোদ্ধা ও কমান্ডাররা পিএমএফের অংশ। জানুয়ারিতে জর্ডান-সিরিয়া সীমান্তের কাছে একটি ড্রোন হামলায় তিন মার্কিন সেনা নিহত হয়। এর জন্য কাতাইব হিজবুল্লাহকে দায়ী করে পেন্টাগন। যদিও দলটি তখন ঘোষণা করেছিল যে, তারা এই অঞ্চলে মার্কিন সেনাদের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান স্থগিত করেছে।

অক্টোবরে গাজা-ইসরায়েল যুদ্ধ শুরুর পর থেকেই,  ইরাক ও সিরিয়ায় ইরান-সমর্থিত সশস্ত্র গোষ্ঠী ও এই অঞ্চলে অবস্থানরত মার্কিন বাহিনীর মধ্যে প্রায় প্রতিদিনই ‘ইটটি মারলে পাটকেলটি খেতে হয়’ ধরনের হামলা চলছে।

গত সপ্তাহেও ইরাক ও সিরিয়ায় ইরান-সমর্থিত গোষ্ঠীগুলিতে হামলা চালিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র,  যা তিন মার্কিন সেনাকে হত্যার প্রতিশোধের শুরু বলে জানিয়েছিল মার্কিন সামরিক বাহিনী।

বুধবারের হামলার পর, বাগদাদে নিরাপত্তা জোরদার করেছে ইরাকি বিশেষ বাহিনী। মার্কিন দূতাবাসসহ আন্তর্জাতিক কূটনৈতিক মিশনের গ্রিন জোনের ভিতরে আরও ইউনিট মোতায়েন করা হয়েছে।

/এস/
সম্পর্কিত
দক্ষিণ গাজায় ইসরায়েলি হামলায় ছয় শিশুসহ নিহত ৯
পশ্চিম তীরে ১০ যোদ্ধাকে হত্যার দাবি ইসরায়েলের
যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্ক পুনর্বিবেচনার হুমকি আব্বাসের
সর্বশেষ খবর
মিয়ানমার নৌবাহিনীর গুলিতে বিদ্ধ বাংলাদেশি ২ জেলে
মিয়ানমার নৌবাহিনীর গুলিতে বিদ্ধ বাংলাদেশি ২ জেলে
‘আহত’ বার্সাকে আরও কোণঠাসা করার লক্ষ্যে নামছে রিয়াল
‘আহত’ বার্সাকে আরও কোণঠাসা করার লক্ষ্যে নামছে রিয়াল
সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার তৃতীয় গ্রুপের ফল প্রকাশ
সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার তৃতীয় গ্রুপের ফল প্রকাশ
জবিতে পরীক্ষা বন্ধ, ক্লাস অনলাইনে
জবিতে পরীক্ষা বন্ধ, ক্লাস অনলাইনে
সর্বাধিক পঠিত
সারা দেশে স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসায় ছুটি ঘোষণা
সারা দেশে স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসায় ছুটি ঘোষণা
সোনার দাম কমেছে, আজ থেকেই কার্যকর
সোনার দাম কমেছে, আজ থেকেই কার্যকর
মুখোমুখি ইরান-ইসরায়েল, পরীক্ষার মুখে মার্কিন সামরিক কৌশল
মুখোমুখি ইরান-ইসরায়েল, পরীক্ষার মুখে মার্কিন সামরিক কৌশল
ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট, হিন্দু মহাজোট ‘নেতা’ পুলিশ হেফাজতে
ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট, হিন্দু মহাজোট ‘নেতা’ পুলিশ হেফাজতে
জানা গেলো বেইলি রোডে আগুনের ‘আসল কারণ’
জানা গেলো বেইলি রোডে আগুনের ‘আসল কারণ’