দাবানলের পর সিগারেটে কঠোর হচ্ছে অস্ট্রেলিয়া

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১০:৫৪, জানুয়ারি ১৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:৫৫, জানুয়ারি ১৭, ২০২০

অস্ট্রেলিয়ায় ভয়াবহ দাবানলের পর জনসমক্ষে ধূমপানের ব্যাপারে কঠোর হচ্ছে দেশটির সরকার। ইতোমধ্যে নিউ সাউথ ওয়েলসে গাড়ি চালানোর সময় জানালা দিয়ে সিগারেট বের করে রাখলে ১১ হাজার ডলার জরিমানার বিধান করা হয়েছে। শুধু চালক নয়, যাত্রীদের ক্ষেত্রেও এ আইন প্রযোজ্য। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা যায়। 

অস্ট্রেলিয়ায় গত সেপ্টেম্বরে শুরু হওয়া দাবানলে এখন পর্যন্ত বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় ৫০ কোটি প্রাণী প্রাণ হারিয়েছে। অসংখ্য গাছ পুড়েছে, হাজার হাজার বনভূমি উজাড় হয়েছে, ভস্মীভূত হয়েছে কয়েক হাজার বাড়িঘর। দেশটির নিউ সাউথ ওয়েলসের মধ্য উপকূলীয় কুলনুরা এলাকায় ১৫৬ লাখ হেক্টর আয়তনের গাছপালা পুড়ে বৃহৎ আকারের খেলার মাঠের মতো ফাঁকা হয়েছে।

এই অবস্থায় আগুন নিয়ে কঠোর অবস্থানে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া সরকার। শুক্রবার (১৭ জানুয়ারি) থেকে শাস্তির বিধান কার্যকর করা হয়েছে। এর আওতায় গাড়িচালকদের জন্য সর্বনিম্ন জরিমানা ৫ ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ হবে। তবে পরিস্থিতি বুঝে ডিমেরিট পয়েন্ট দ্বিগুণও হতে পারে। এছাড়া চালককে ১১ হাজার ডলার পর্যন্ত জরিমানা গুনতে হবে। সেই সঙ্গে শাস্তিস্বরূপ তাৎক্ষণিকভাবে লাইসেন্সও হারাতে পারেন চালক।

ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিউ সাউথ ওয়েলসে কোনও ব্যক্তি যদি রাস্তা বা রাস্তার আশেপাশে সিগারেটের টুকরো ফেলে, তাহলে তাকে ৬৬০ ডলার জরিমানা গুনতে হবে। অনেক ক্ষেত্রে জরিমানা দ্বিগুণও হতে পারে। গত বছর যেখানে সেখানে সিগারেটের টুকরো ফেলার দায়ে ২০০ জনকে আটক করা হয়েছিল।

নিউ সাউথ ওয়েলসের পুলিশ ও জরুরি সেবামন্ত্রী ডেভিড ইলিয়ট বলেন, ‘এ ধরনের অপরাধে এবারই প্রথম ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ করার শাস্তির বিধান আনা হয়েছে। আমাদের এলাকায় গাড়িচালকরা ঘাসের ওপর সিগারেট ফেলার কারণে এ পর্যন্ত তিনবার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।’

স্থানীয় ফায়ার সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের সেক্রেটারি স্টিভ রবিনসন গাড়ির ভেতর থেকে কাউকে সিগারেট বের করে রাখতে দেখলে, কিংবা যেখানে সেখানে সিগারেটের টুকরো ফেলতে দেখলে দ্রুত অভিযোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। 

/এমএইচ/এমএমজে/

লাইভ

টপ