শান্তি আলোচনার মধ্যে আফগানিস্তানে সবচেয়ে রক্তক্ষয়ী দিন

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৩:৪৯, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১১:২১, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০

কাতারের রাজধানী দোহায় আফগানিস্তান সরকার ও বিদ্রোহী তালেবানের মধ্যে শান্তি আলোচনা শুরুর পর রবিবার সবচেয়ে বেশি রক্তক্ষয়ী দিন পার করেছে দেশটি।  রাতভর তালেবান যোদ্ধাদের সঙ্গে সংঘর্ষে আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর অন্তত ৫৭ সদস্য নিহত এবং আরও অনেকে আহত হয়েছে। তালেবানদের তরফে কোনও হতাহতের কথা স্বীকার না করলেও তিনটি প্রদেশে গোষ্ঠীটির ৫৪ সদস্য নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে আফগান সেনা। পৃথক আরেকটি প্রদেশে ২৬ তালেবান যোদ্ধা নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে সেখানকার প্রাদেশিক সরকার। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।শান্তি আলোচনার পাশাপাশি আফগানিস্তানে লড়াইও চলছে

নানা টানাপোড়েন আর অনিশ্চয়তার পর গত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে দোহায় শুরু হয়েছে আফগান সরকার ও তালেবান প্রতিনিধিদের মধ্যকার শান্তি আলোচনা। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তালেবানদের স্বাক্ষরিত চুক্তি অনুযায়ী এই আলোচনা শুরু হলেও এখন পর্যন্ত এতে অগ্রগতি হয়েছে খুব সামান্যই, বিশেষ করে যুদ্ধবিরতি ইস্যুতে। প্রায় প্রতিদিনই আলোচনা চললেও বেশিরভাগ বিষয়েই ঐক্যমত প্রতিষ্ঠা থেকে বহু দূরে অবস্থান করছে উভয় পক্ষ।

এমন প্রেক্ষাপটে রবিবার রাতে আফগানিস্তানের মধ্যাঞ্চলীয় প্রদেশ উরুজগানে উভয় পক্ষ সংঘাতে জড়ায়। প্রদেশটির ডেপুটি গভর্নর সৈয়দ মোহাম্মদ সাদাত জানান, নিরাপত্তা চেকপয়েন্টে তালেবান যোদ্ধারা হামলা চালালে আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর ২৪ সদস্য নিহত হয়।

এছাড়াও বাঘলান, তাকহার, হেলমান্দ, কাপিসা, বলখ, ময়দান ওয়ারদাক ও কুন্দুজ প্রদেশে সংঘাত ও হতাহতের ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন প্রাদেশিক কর্মকর্তারা।

বলখ প্রদেশের গভর্নরের মুখপাত্র মনির আহমাদ ফরহাদ জানান, সেখানে আফগান গোয়েন্দা সংস্থার তিন সদস্যকে জিম্মি করেছে তালেবান।

তালেবানদের তরফে হতাহতের কোনও তথ্য প্রকাশ করা না হলেও আফগান সেনাবাহিনীর এক মুখপাত্র জানান, কুন্দুজ, তাকহার এবং বাঘলান প্রদেশে সংঘাতে সশস্ত্র গোষ্ঠীটির ৫৪ যোদ্ধা নিহত হয়েছে। এছাড়া ময়দান ওয়ারদাক প্রাদেশিক সরকারের এক মুখপাত্র জানান, সেখানে ২৬ তালেবান যোদ্ধা নিহত হয়েছে।

আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র তারিক আরিয়ান জানিয়েছেন, গত দুই সপ্তাহে ২৪টি প্রদেশে তালেবানদের হামলায় ৯৮ বেসামরিক নাগরিক নিহত এবং অপর ২৩০ জন আহত হয়েছে। গত শনিবার উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ কুন্দুজে এক তালেবান ঘাঁটিতে চালানো আফগান বিমান হামলায় অন্তত ১২ জন বেসামরিক মানুষ নিহত হন। আফগান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা ওই বিমান হামলায় ৪০ তালেবান যোদ্ধা নিহতের কথা জানালেও তারা বেসামরিক নাগরিক হতাহতের বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারেনি।

/জেজে/বিএ/

লাইভ

টপ