করবিনকে বরখাস্ত করলো লেবার পার্টি

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৪:০৯, অক্টোবর ৩০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:১০, অক্টোবর ৩০, ২০২০

সাবেক দলীয় প্রধান জেরেমি করবিনকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে ব্রিটেনের লেবার পার্টি। অ্যান্টি-সেমিটিজম নিয়ে ইকুয়্যালিটি অ্যান্ড হিউম্যান রাইট কমিশন প্রকাশিত এক প্রতিবেদন নিয়ে মন্তব্যের কারণে তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এখবর জানিয়েছে।

করবিনের নেতৃত্বে ২০১৯ সালের ব্রিটিশ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে লেবার পার্টি। নির্বাচনে পরাজয়ের দায় নিজের কাঁধে নিয়ে দলীয় প্রধানের পদ থেকে সরে দাঁড়ান তিনি। দল হারলেও নর্থ আইলিংটনে করবিন বিশাল ব্যবধানে জয় পেয়েছেন। 

মানবাধিকার নজরদারি সংস্থার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করবিনের সাড়ে বছরের নেতৃত্বের সময়ে লেবার পার্টি বেআইনি হয়রানি ও বৈষম্যের জন্য দায়ী। কিন্তু করবিন বলেছেন, লেবার পার্টির ভেতরে অ্যান্টি-সেমিটিজমের মাত্রা নাটকীয়ভাবে বাড়িয়ে তুলে ধরেছে বিরোধীরা।

লেবার পার্টির একজন মুখপাত্র বলেন, করবিন এই মন্তব্য প্রত্যাহার না করায় তাকে দল থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। তার এই মন্তব্য বিষয়ে তদন্ত চলাকালে এই বহিষ্কারাদেশ বহাল থাকবে।

এই বহিষ্কারাদেশকে ‘রাজনৈতিক’ আখ্যা দিয়ে জেরিমি করবিন বলেছেন, তিনি এর বিরুদ্ধে দৃঢ়ভাবে লড়াই করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

লেবার পার্টির প্রধান স্যার কিয়ার স্টিমার বলেন, ইকুয়্যালিটি অ্যান্ড হিউম্যান রাইট কমিশন প্রকাশিত প্রতিবেদন লেবার পার্টিকে লজ্জায় ফেলেছে।

ইকুয়্যালিটি অ্যান্ড হিউম্যান রাইট কমিশনের অনুসন্ধানে সাড়া দিয়ে করবিন বলেছিলেন, সবধরনের বর্ণবাদ নিশ্চিহ্ন করতে তিনি সব সময় দৃঢ় সংকল্প ছিলেন। তার দল প্রক্রিয়াটি বাধাগ্রস্ত না করে, গতি বাড়ানোর জন্য কাজ করেছে।

 

/এএ/

লাইভ

টপ