X
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪
১ আষাঢ় ১৪৩১

রানির অধীনে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন যারা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫:২৪আপডেট : ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫:৩১

সিংহাসনে আরোহনের সাত দশকে ১৫ জন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর আসা যাওয়া দেখেছেন সদ্য প্রয়াত রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ। রয়েছেন উইনস্টন চার্চিল, মার্গারেট থ্যাচার, বরিস জনসনসহ সবশেষ প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পাওয়া লিজ ট্রাস। শনিবার মার্কিন বার্তা সংস্থা এপির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য ওঠে এসেছে।

১৯৫২ সালে রানি যখন সিংহাসনে বসেন, তখন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন কনজারভেটিভ পার্টির নেতা উইনস্টন চার্চিল। ৫২ সালে বাবার মৃত্যুর পর সিংহাসনে বসেন দ্বিতীয় এলিজাবেথ। বয়সে ছোট হওয়ায় সেসময় এলিজাবেথকে শিশু বলে অভিহিত করেছিলেন তিনি। ১৯৫৫ সাল পর্যন্ত ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন চার্চিল।

—  ১৯৫৫-৫৭ সাল পর্যন্ত স্বল্প সময়ের জন্য প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বে থাকেন অ্যান্থনি ইডেন। ১৯৫৬ সালে সুয়েজ ইস্যুতে পদত্যাগ করেন তিনি।

—   ১৯৫৭ থেকে ১৯৬৩ পর্যন্ত যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন হ্যারল্ড ম্যাকমিলান।   

— ১৯৭০-এ উইলসনের স্থলাভিষিক্ত হন কনজারভেটিভ পার্টির নেতা এডওয়ার্ড হিথ। প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন ১৯৭৪ পর্যন্ত।

—  রানি এলিজাবেথের সময় হ্যারল্ড উইলসন দুই মেয়াদে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৬৪-৭০ এবং ১৯৭৪ থেকে ৭৬ সাল পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। রানির শাসনামলে তিনি ছিলেন প্রথম লেবার পার্টির কোনও প্রধানমন্ত্রী। দ্বিতীয় এলিজাবেথের সঙ্গে তার সুসম্পর্ক ছিল বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

—  জেমস ১৯৭৬ থেকে ১৯৭৯ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর পদে ছিলেন। তার সরকারের সময় ব্রিটেনের অর্থনৈতিক মন্দা এবং ইউনিয়নগুলোতে ব্যাপক সমস্যা দেখা দেয়।

— রানি এলিজাবেথের সময়ে ১১ বছর প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন মার্গারেট থ্যাচার। তিনি ১৯৭৯-১৯৯০ সাল পর্যন্ত ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। তবে রানির সঙ্গে থ্যাচারের শীতল সম্পর্ক ছিল বলে গুঞ্জন রয়েছে। 

মার্গারেট থ্যাচার এবং রানি এলিজাবেথ। ছবি: এপি

—  ১৯৯০ সালে এ পদে বসেন জন মেজর। কনজারভেটিভ পার্টির নেতা মেজর ১৯৯০ থেকে ১৯৯৭ সাল পর্যন্ত যুক্তরাজ্যের সরকারপ্রধান ছিলেন।

—  মজার ব্যাপার হচ্ছে টনি ব্লেয়ার হচ্ছেন যুক্তরাজ্যের প্রথম প্রধানমন্ত্রী যিনি রানির শাসনামলে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৯৭ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী ছিলেন টনি।

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের পেছনে টনি ব্লেয়ার

—  টনি ব্লেয়ারের স্থলাভিষিক্ত হন গর্ডন ব্রাউন। লেবার পার্টির নেতা ২০০৭-২০১০ সাল পর্যন্ত যুক্তরাজ্যের সরকারপ্রধান ছিলেন। এরপর কনজারভেটিভ পার্টির ডেভিড ক্যামেরুন ক্ষমতায় ছিলেন ২০১০ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত।

—  পরবর্তীতে ব্রিটিশ সরকারপ্রধানের দায়িত্বে বসেন থেরেসা মে। তিনি ব্রিটেনের দ্বিতীয় নারী প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। ব্রেক্সিট ইস্যুতে ১০ নং ডাউনিং স্ট্রিট থেকে সরে দাঁড়াতে হয় তাকে।

— এরপরই আসেন বরিস জনসন। যিনি ২০১৯-২২ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন। তার আমলেই ব্রেক্সিট ইস্যুটি সমাধান হয়। গত জুলাইয়ে তাকেও পদত্যাগ করতে হয়।

বরিস জনসনের সঙ্গে রানি এলিজাবেথ

সবশেষ ২০২২ সালের সেপ্টেম্বরে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্বে বসেন লিজ ট্রাস। ৬ সেপ্টেম্বর বালমোরালে রানি এলিজাবেথের সঙ্গে দেখা করার পর সরকার গঠনের অনুমতি পান তিনি। এর দু’দিন পরই মারা গেলেন রানি। এর সঙ্গে ব্রিটেনের ইতিহাসে সবচেয়ে দীর্ঘ সময় সিংহাসনের দায়িত্বে থাকা রানির অধ্যায়ের শেষ হলো।

/এলকে/
সম্পর্কিত
গরম থেকে হাজিদের বাঁচাতে যে প্রযুক্তি ব্যবহার করলো সৌদি
তীব্র গরমে আরাফাত ময়দানে জড়ো হচ্ছেন ১৫ লক্ষাধিক হাজি
৯৩ হাজার হজযাত্রীকে স্বাস্থ্যসেবা দিলো সৌদি
সর্বশেষ খবর
গানে ও নাটকে গানচিলের ঈদ উপহার
গানে ও নাটকে গানচিলের ঈদ উপহার
‘বিয়ের পর জানতে পারি স্ত্রীর অন্যত্র সম্পর্ক আছে’
‘বিয়ের পর জানতে পারি স্ত্রীর অন্যত্র সম্পর্ক আছে’
ঈদের জামাতের জন্য প্রস্তুত জমিয়তুল ফালাহ ময়দান
ঈদের জামাতের জন্য প্রস্তুত জমিয়তুল ফালাহ ময়দান
টিভি সিরিজ হলো পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র, মুক্তি ঈদে!
টিভি সিরিজ হলো পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র, মুক্তি ঈদে!
সর্বাধিক পঠিত
অবশেষে বদলি হলেন সাতক্ষীরা পৌরসভার সেই সিইও
অবশেষে বদলি হলেন সাতক্ষীরা পৌরসভার সেই সিইও
সেন্টমার্টিনে খাদ্যসংকট, কক্সবাজার থেকে গেলো পণ্যবোঝাই জাহাজ
সেন্টমার্টিনে খাদ্যসংকট, কক্সবাজার থেকে গেলো পণ্যবোঝাই জাহাজ
রুশ সম্পদ ‘চুরি’র পরিণতি পশ্চিমাদের ভুগতে হবে, হুঁশিয়ারি পুতিনের
রুশ সম্পদ ‘চুরি’র পরিণতি পশ্চিমাদের ভুগতে হবে, হুঁশিয়ারি পুতিনের
ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে ‘পিঁপড়ার গতিতে’ চলছে গাড়ি
ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে ‘পিঁপড়ার গতিতে’ চলছে গাড়ি
যানজট এড়াতে ঘুরতে হচ্ছে ২৯ কিলোমিটার সড়ক
যানজট এড়াতে ঘুরতে হচ্ছে ২৯ কিলোমিটার সড়ক