কোন পোশাকের যত্ন কীভাবে নেবেন

Send
মেহনাজ বিনতে ওয়াহিদ
প্রকাশিত : ১৯:৩০, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৩০, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২০

সুতি কাপড়ের যত্ন যেভাবে নেবেন, ঠিক সেভাবে কিন্তু সিল্কের যত্ন নিলে চলবে না। সুতি, লিনেন, পলিয়েস্টার, সিল্ক বা উল- বিভিন্ন পোশাকের যত্নের রয়েছে আলাদা আলাদা নিয়ম। জেনে নিন প্রয়োজনীয় টিপস।


সুতি
সুতি পোশাক পানিয়ে ধুলে ছোট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।  ঠাণ্ডা পানিতে পরিষ্কার করুন সুতি পোশাক। জামার লেবেলে যদি বারণ না করা থাকে তাহলে সাদা পোশাকের দাগ ওঠানোর জন্য ক্লোরিন ব্লিচ ব্যবহার করতে পারেন। সুতির জামা ইস্ত্রি করার আগে পানি ছিটিয়ে নিন। এতে কাপড় মসৃণ হবে। অনেকদিন ব্যবহার না করে রেখে দিলে কাপড়ের ভাঁজে ভাঁজে পোকা হয়। তাই আলমারিতে ন্যাপথালিন বা নিমপাতা রাখুন।
সিল্ক
সিল্ক ড্রাই-ক্লিন করতে পারেন অথবা সাধারণভাবে পরিষ্কার করতে পারেন। ঠাণ্ডা পানি ও লিকুইড সাবান বা শ্যাম্পু ব্যবহার করতে পারেন সিল্ক পরিষ্কারের জন্য। রঙিন সিল্কের পোশাক থেকে অনেক সময় রঙ উঠতে পারে। সেরকম পোশাক ড্রাই-ক্লিন করাই ভালো। দাগ তোলার জন্য সিল্কের একটা অংশ কখনওই বেশি করে ঘষবেন না, তাতে রঙ নষ্ট হয়ে যেতে পারে। সিল্কের শাড়ি অনেকদিন রেখে দিলে ভাঁজে ভাঁজে কেটে যায়। কার্ডবোর্ডে শাড়ি রোল করে রেখে দিলে এই সমস্যা আটকানো যাবে।
উল

খুব কড়া ডিটারজেন্ট ব্যবহার করলে উলের পোশাক নষ্ট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। কোমল ডিটারজেন্ট বা লিকুইড সাবান ব্যবহার করুন। শুকনোর সময় সরাসরি সূর্যের তাপ থেকে দূরে সরিয়ে রাখুন

লিনেন

লিনেন পানিতে ধোওয়ার  আগে পোশাকের লেবেলে দেখে নিন ড্রাই-ক্লিন করতে বলা রয়েছে কিনা। পোশাকের রঙ অনুযায়ী পানির তাপমাত্রা ঠিক করুন। লিনেন অন্য কাপড়ের চাইতে বেশি পানি শুষে নেয়, তাই রঙ ওঠে এমন কাপড়ের সঙ্গে ভেজাবেন না। ইস্ত্রি করার সময় পোশাক উল্টো করে করবেন। স্টিম আয়রন লিনেনের জন্য ভালো।
পলিয়েস্টার
বেশিরভাগ পলিয়েস্টারের জামাই ওয়শিং মেশিনে গরম পানি দিয়ে পরিষ্কার করা যায়। প্রয়োজনে ক্লোরিন ব্লিচ ব্যবহার করতে পারেন। তবে টাম্বল ড্রাই করলে সেটা কম তাপমাত্রায় করতে হবে। জামায় ভাঁজ পড়ে যাওয়া আটকাতে অল্প ভেজা অবস্থাতেই ড্রায়ার থেকে বের করে নিন। ইস্ত্রি করতে হলে সবসময়ই কম তাপমাত্রায় করতে হবে, কারণ খুব গরম ইস্ত্রি লাগলেই পলিয়েস্টার নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

/এনএ/

লাইভ

টপ