X
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪
১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

খেলার মাঠে শিক্ষার্থীদের মারধরের হুমকি জাবি কর্মকর্তার

জাবি প্রতিনিধি
০২ নভেম্বর ২০২২, ১৭:১৯আপডেট : ০২ নভেম্বর ২০২২, ১৭:১৯

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) অনুষ্ঠিত আন্তঃবিভাগ ফুটবল টুর্নামেন্ট চলাকালে রেফারির ভুল সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করায় খেলোয়াড় ও শিক্ষার্থীদের সঙ্গে মারমুখী আচরণের অভিযোগ উঠেছে। শারীরিক শিক্ষা অফিসের উপ-পরিচালক সাবিহা কবির মারমুখী আচরণের পাশাপাশি চড় দিয়ে দাঁত ফেলে দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন বলেও অভিযোগ করেছেন শিক্ষার্থীরা।
 
শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন, মঙ্গলবার (১ নভেম্বর) বিকাল ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগ বনাম ফার্মেসি বিভাগের ম্যাচটি শূন্য-শূন্য সমতায় ছিল। দ্বিতীয়ার্ধের শেষের দিকে একটি বিতর্কিত সিদ্ধান্তে পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেন রেফারি। পরে অতিরিক্ত সময় যুক্ত না করে নির্ধারিত ৪০ মিনিট শেষ হওয়ার ৪/৫ মিনিট আগেই রেফারি খেলা শেষের বাঁশি বাজান। পরে নির্ধারিত সময়ের আগে খেলা মেষ করায় অভিযোগ জানান লোকপ্রশাসন বিভাগের খেলোয়াড়রা। এ সময় হঠাৎ করে ম্যাচ কর্মকর্তা সাবিহা কবির মাঠে প্রবেশ করে খেলোয়াড়দের সঙ্গে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন। উপস্থিত শিক্ষার্থীরা তার আচরণের প্রতিবাদ জানালে তিনি আরও মারমুখী হন। এ সময় তিনি মাঠে উপস্থিত খেলোয়াড় ও সমর্থকদে গালাগালির পাশাপাশি চড় দিয়ে দাঁত ফেলা দেওয়া ও দেখে নেওয়ার হুমকি দেন। পরে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হলে তিনি মাঠ ছাড়েন। ঘটনাস্থলে দুই বিভাগের শিক্ষকরাও উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে নির্দিষ্ট সময়ের আগে খেলা শেষ করা ও শারীরিক শিক্ষা অফিসের উপ-পরিচালক সাবিহা কবিরের মারমুখী আচরণের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়ে আন্তঃবিভাগ ফুটবল প্রতিযোগিতা পরিচালনা কমিটির সভাপতি বরাবর অভিযোগপত্র জমা দিয়েছে লোকপ্রশাসন বিভাগের খেলোয়াড়রা।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত সাবিহা কবিরের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ এবং পক্ষপাতিত্বমূলক খেলা পুনরায় আয়োজনের দাবি উঠেছে। 

এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত কর্মকর্তা সাবিহা কবিরের ফোনে একাধিকবার কল দিয়েও কথা বলা সম্ভব হয়নি। 

জাবি শারীরিক শিক্ষা অফিসের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক বেগম নাছরিন বলেন, ‘একটি অভিযোগপত্র পেয়েছি। আমাদের টেকনিক্যাল কমিটির সবাই মিলে মিটিংয়ে বসবো। আশা করছি দ্রুততম সময়ের মধ্যেই আমরা সমস্যাটি সুরাহা করতে পারবো।’

একজন কর্মকর্তা কি শিক্ষার্থীদের মারধরের হুমকি দিতে পারেন, জানতে চাইলে তিনি আরও বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের মানসিক বিকাশের জন্যই আমরা খেলার আয়োজন করি। সেখানে এমন আচরণ হলে তা কোনোভাবেই কাম্য নয়।’

অভিযোগপত্র পেয়েছেন কিনা জানতে চাইলে আন্তঃবিভাগ ফুটবল প্রতিযোগিতা পরিচালনা কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. বশির আহমেদ বলেন, আমরা ছাত্রদের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেয়েছি। টেকনিক্যাল কমিটির মিটিংয়ে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানান তিনি। 

/টিটি/
সম্পর্কিত
‘সর্বজনীন পেনশনের নামে জনগণের কাছ থেকে টাকা তুলে লুটপাট করছে সরকার’
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের গাছে ঝুলছিল যুবকের লাশ
স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের দাবিতে সারা দেশে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ
সর্বশেষ খবর
সবাই মিলেও পাননি একজনের সমান ভোট, হারাচ্ছেন জামানত
সবাই মিলেও পাননি একজনের সমান ভোট, হারাচ্ছেন জামানত
খারকিভে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় নিহত ৭
খারকিভে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় নিহত ৭
নির্মাণের ২ মাস পর থেকেই বন্ধ চট্টগ্রামের একমাত্র এস্কেলেটর ফুটওভার ব্রিজটি
নির্মাণের ২ মাস পর থেকেই বন্ধ চট্টগ্রামের একমাত্র এস্কেলেটর ফুটওভার ব্রিজটি
সোহাগসহ পাঁচ জনকে ফিফার সাজা
সোহাগসহ পাঁচ জনকে ফিফার সাজা
সর্বাধিক পঠিত
নেপথ্যে ২০০ কোটি টাকার লেনদেন, সিলিস্তাকে দিয়ে হানি ট্র্যাপ
এমপি আজীম হত্যাকাণ্ডনেপথ্যে ২০০ কোটি টাকার লেনদেন, সিলিস্তাকে দিয়ে হানি ট্র্যাপ
পূর্ব তিমুরের মতো খ্রিষ্টান দেশ বানানোর চক্রান্ত চলছে: শেখ হাসিনা
পূর্ব তিমুরের মতো খ্রিষ্টান দেশ বানানোর চক্রান্ত চলছে: শেখ হাসিনা
কবে থেকে পরিকল্পনা ও কেন কলকাতায় হত্যা, জানালো ডিবি
এমপি আনার হত্যাকবে থেকে পরিকল্পনা ও কেন কলকাতায় হত্যা, জানালো ডিবি
বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীদের নিয়ে নতুন ষড়যন্ত্র?
বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীদের নিয়ে নতুন ষড়যন্ত্র?
এখনও বিশ্বাস করতে পারছি না আমার ভাই এমপি হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে: মেয়র সেলিম
এখনও বিশ্বাস করতে পারছি না আমার ভাই এমপি হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে: মেয়র সেলিম