X
বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
৮ ফাল্গুন ১৪৩০

ভর্তি ফি ৮১০০ থেকে হয়ে গেলো ১৫ হাজার টাকা

নাজমুল হুদা, শাবি
২৩ জানুয়ারি ২০২৩, ০৮:০০আপডেট : ২৩ জানুয়ারি ২০২৩, ০৮:০০

এ বছর থেকে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি ফি ৪৬ শতাংশ বৃদ্ধি করে ১৫ হাজার টাকা করা হয়েছে। গত বছর এ ফি ছিল ৮১০০ টাকা। এই নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের  শিক্ষার্থীরা।

রবিবার (২২ জানুয়ারি) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্জুনতলা থেকে এ মিছিল বের করেন ছাত্ররা। মিছিল ক্যাম্পাসের প্রধান সড়কসমূহ প্রদক্ষিণ করে গোল চত্বরে এসে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

মিছিল পরবর্তী সমাবেশে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী মো. তানভীর রহমানের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী ওসমান গণি, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র সজিব আহমেদ জয় ও গণিত বিভাগের সজিব আহমেদ তাহসিন।

সেখানে শিক্ষার্থীরা দাবি করেন, হঠাৎ প্রায় দ্বিগুণ ভর্তি ফি বৃদ্ধি এক ধরনের জুলুম। আকস্মিকভাবে ফি বৃদ্ধিতে অনেক দরিদ্র ও প্রান্তিক অঞ্চলের ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা বিপাকে পড়ছেন। তাদের ওপর চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছে। টাকা যার শিক্ষা তার এ নীতি বাস্তবায়নে নেমেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এর একটা যথাযথ সমাধান দাবি করেন শিক্ষার্থীরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা এ বিষয়ে সমালোচনা ও ক্ষোভ প্রকাশ করছেন।

এদিকে, ফি বৃদ্ধিতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভর্তিচ্ছু একাধিক শিক্ষার্থী। সানী নামে এক ভর্তিচ্ছু বলেন, ‘আমরা মধ্যবিত্ত পরিবারে ছেলে-মেয়েরা কম খরচে সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে চাই, যাতে আমাদের ফ্যামিলিতে প্রেশার কম পড়ে। এরকমভাবে যদি আমাদের ওপর জুলুম করা হয়, তাহলে আমরা মধ্যবিত্তরা কি পড়াশোনাই ছেড়ে দেবো?’

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ভর্তিচ্ছু আরেক শিক্ষার্থী বলেন, ‘চূড়ান্ত ভর্তির সময় সমন্বয় করা হবে বলে জানিয়ে প্রথমে আমাদের কাছ থেকে পাঁচ হাজার টাকা নেওয়া হয়েছে। আমাদেরকে এত মাস ঘরে বসিয়ে রাখছে। তারপর হঠাৎ ভর্তি ফি বাড়ানো হয়েছে। আমরা রীতিমতো অবাক হয়েছি। এটা কখনও শিক্ষার্থীবান্ধব হতে পারে না। আর এত টাকা যখন নেবে, আগে থেকে কর্তৃপক্ষের বলা উচিৎ ছিল।’

গত শুক্রবার প্রাথমিকভাবে ভর্তি নিশ্চিত হওয়া সব শিক্ষার্থীকে মোবাইল ফোনে পাঠানো বার্তায় চূড়ান্ত ভর্তির বিষয়ে জানানো হয়েছে। মেসেজে ভর্তির জন্য সময় নির্ধারণ ও চূড়ান্ত ভর্তি ফি ১০ হাজার টাকা ও মূল সনদপত্র সঙ্গে নিয়ে আসতে বলেছে।

চূড়ান্ত ভর্তির বিষয়ে ভর্তি কমিটির সদস্যরা জানান, আগামী ২৩ জানুয়ারি ২০২১-২২ সেশনের চূড়ান্ত ভর্তি কার্যক্রম শুরু হবে, চলবে ২৫ জানুয়ারি পর্যন্ত। এবারের ভর্তি ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ১৫ হাজার টাকা। এর মধ্যে প্রাথমিক ভর্তিতে গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঁচ হাজার টাকা এবং চূড়ান্ত ভর্তিতে আর ১০ হাজার টাকা নিয়ে আসতে বলা হয়েছে।

ভর্তি ফি বৃদ্ধির বিষয়ে চলমান ২০২১-২২ সেশনের ভর্তি কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. রাশেদ তালুকদার বলেন, ‘ফি বৃদ্ধির বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত হয়েছে। এই বিষয় ভর্তি কমিটির কোনও হাত নেই।’

তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দফতর সূত্রে জানা গেছে, ভর্তি ফি ১৫ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হলেও খাত ওয়ারি ফি নির্ধারণে ভর্তি কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. রাশেদ তালুকদার ও সদস্য সচিব ইশরাত ইবনে ইসমাঈলের নেতৃত্বে কমিটি করে দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া কমিটিতে সদস্য হিসেবে রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. সৈয়দ শামসুল আলম, কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড পলিমার সায়েন্স বিভাগে অধ্যাপক ড. মো. আখতারুল ইসলাম, রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. এস এম সাইফুল ইসলাম ও গণিত বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. সাজেদুল করিম রয়েছেন।

তবে খাত অনুযায়ী ফি নির্ধারণের বিষয়ে কমিটির সভাপতি ড. রাশেদ তালুকদার, সদস্য সচিব ইশরাত ইবনে ইসমাঈলসহ একাধিক সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও সদস্যরা সবাই তথ্য দিতে গড়িমসি করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে রেজিস্ট্রার দফতরের এক নথি অনুযায়ী, ইনস্যুরেন্স ফি ৫০০, ডোপ টেস্ট ফি ৫০০, হল সংযুক্তি ফি ৫০০ ও বিভাগ উন্নয়ন ফি পাঁচ হাজার টাকাসহ অন্যখাতের ফি নির্ধারণে কমিটিকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

খাত ওয়ারি কোন খাতে কত টাকা ফি নির্ধারণ করা হয়েছে? এমন প্রশ্নের জবাবে কমিটির সদস্য অধ্যাপক ড. আখতারুল ইসলাম বলেন, ‘ফি-এর বিষয়টি অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলে পাস হয়েছে। খাত ওয়ারি কত ফি নির্ধারণ করা হয়েছে- এটা তো আমার মুখস্থ নেই।’

তবে ভর্তি কমিটির সভাপতি ও সদস্য সচিবের কাছে এ তথ্য পাওয়া যাবে বলে জানান তিনি। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি কমিটির সভাপতি ও খাত ওয়ারি ভর্তি ফি নির্ধারণ কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. রাশেদ তালুকদারের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ‘ভর্তি ফি নির্ধারণ অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলের কাজ। এ তথ্য আমরা দিতে পারবো না। রেজিস্ট্রার দফতর থেকে সংগ্রহ করেন।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার ও অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলের সদস্য সচিব মো. ফজলুর রহমান কাছে জানতে চাইলে বলেন, ‘আমি সম্প্রতি দায়িত্ব পেয়েছি। এ মুহূর্তে আমার কাছে এ তথ্য নেই। আমাকে ২/১ দিন সময় দিন- আমি খুঁজে বের করতে পারলে এ তথ্য দিতে পারবো।’

তবে ভর্তি যেহেতু সোমবার থেকে শুরু, তাই স্বল্প সময়ে তথ্যের প্রয়োজনীয়তার কথা বলা হলে তিনি কোনও সদুত্তর দিতে পারেননি।

এদিকে, গুচ্ছে গিয়ে শিক্ষার্থী পাচ্ছে না বলেও বিশ্ববিদ্যালয়ে আলোচনা-সমালোচনা চলছে। ভর্তি কমিটি সূত্রে জানা গেছে, অষ্টম পর্যায়ে ভর্তির পরও বিভিন্ন বিভাগের অধীনে ১০৮টি সিট খালি রয়েছে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সিনিয়র শিক্ষক নাম প্রকাশ না করা শর্তে জানান, এ বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্বতা ছিল। ভালো মানের গ্রাজুয়েট পেতো। কিন্তু গুচ্ছভুক্ত হয়ে গত দুই বছর ধরে ভালো মানের শিক্ষার্থী পাচ্ছে না দেশের মধ্যে শীর্ষে থাকা এ বিশ্ববিদ্যালয়। এমনকি বারবার কল করেও শিক্ষার্থী আসছে না ভর্তি হতে।

উল্লেখ্য, গত বছরের খাতের তালিকায় দেখা যায়, ভর্তি ফি ৭০০, বেতন ৪৫০, রেজিস্ট্রেশন ফি ৪৩০, পরিবহন ফি ৫৫০, ইউনিয়ন ফি ১০০, ছাত্র/ছাত্রী কল্যাণ ফি ৩০০, লাইব্রেরি ফি ১৭৫, কম্পিউটার ফি ৩০০, রোভার স্কাউট ফি ২৫, বিএনসিসি ফি ২৫ ও ইনস্যুরেন্স ফি (জীবন বীমা +স্বাস্থ্য বীমা) ২০০ টাকা। এ ছাড়া অন্যান্য ফির মধ্যে রয়েছে পাঠবহির্ভূত কার্যক্রম ১৫০, চিকিৎসা ফি ১২০, উৎসব ফি ১০০, পরিচয়পত্র ফি ১৭৫, সিলেবাস ফি ৪০০, শিক্ষাপঞ্জি ফি ১০০, মাদকাসক্তি ফি ৪০০, বিভাগীয় ফি ৩ হাজার, হল সংযুক্তি ফি ৪০০ টাকাসহ মোট ৮১০০ টাকা ছিল। তবে এ বছরের বৃদ্ধি হওয়া ভর্তি ফি খাত অনুযায়ী তথ্য দিতে লুকোচুরি করছে ভর্তি কমিটি ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

/এফআর/
সম্পর্কিত
আত্মীয় হলেই চাকরি মেলে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে!
বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে শিল্প প্রতিষ্ঠানের চাহিদা অনুযায়ী জলবল তৈরির আহ্বান
গবেষণা-উদ্ভাবনের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের আয় বাড়ানোর পরামর্শ ইউজিসির
সর্বশেষ খবর
উজবেকিস্তানে ভাষা আন্দোলনের গল্প শোনালেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত
উজবেকিস্তানে ভাষা আন্দোলনের গল্প শোনালেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত
বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্কে ‘নতুন অধ্যায়’: কী চায় দুই দেশ?
বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র সম্পর্কে ‘নতুন অধ্যায়’: কী চায় দুই দেশ?
বিশেষ দিনগুলোতে ফুল বিক্রি কমেছে
বিশেষ দিনগুলোতে ফুল বিক্রি কমেছে
সান্ত্বনার জয়ে হোয়াইটওয়াশ এড়িয়েছে আফগানিস্তান 
সান্ত্বনার জয়ে হোয়াইটওয়াশ এড়িয়েছে আফগানিস্তান 
সর্বাধিক পঠিত
কেন বারবার অকেজো হয় মেট্রো স্টেশনের টিকিট মেশিন?
কেন বারবার অকেজো হয় মেট্রো স্টেশনের টিকিট মেশিন?
চার মাস কারও সঙ্গে দেখা করবেন না খন্দকার মোশাররফ
চার মাস কারও সঙ্গে দেখা করবেন না খন্দকার মোশাররফ
আত্মীয় হলেই চাকরি মেলে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে!
আত্মীয় হলেই চাকরি মেলে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে!
বঙ্গবন্ধুর ছবি মুছে ব্যঙ্গচিত্র, জাবি ছাত্র ইউনিয়নের দুই নেতাকে বহিষ্কার
বঙ্গবন্ধুর ছবি মুছে ব্যঙ্গচিত্র, জাবি ছাত্র ইউনিয়নের দুই নেতাকে বহিষ্কার
‘ওমরের বিকল্প’ তৈরির লক্ষ্যে বিএনপিতে নতুন ধর্ম সম্পাদক!
‘ওমরের বিকল্প’ তৈরির লক্ষ্যে বিএনপিতে নতুন ধর্ম সম্পাদক!