X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

শেখ রাসেলের মানবিক দিকগুলো শিশু-কিশোরদের কাছে তুলে ধরতে হবে: পলক

আপডেট : ১৮ অক্টোবর ২০২১, ২০:৪০

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, আমাদের তরুণ প্রজন্ম ও শিশু-কিশোরদের সুপ্ত প্রতিভা এবং সাংস্কৃতিক চেতনা জাগ্রত করে বাংলাদেশকে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলায় পরিণত করতে হবে। তিনি বলেন, আর কোনও শিশু হত্যাকাণ্ডের শিকার হবে না, ধর্মীয় পরিচয়ে কাউকে নির্যাতিত হতে হবে না, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জাগ্রত হয়ে এসব নিশ্চিত করতে পারলেই শেখ রাসেলের আত্মা শান্তি পাবে।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শেখ রাসেল দিবস-২০২১ উপলক্ষে ‘শেখ রাসেল দীপ্ত জয়োল্লাস, অদম্য আত্মবিশ্বাস’ শীর্ষক জাতীয় সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

সেমিনারে আরও বক্তব্য রাখেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, শহীদ বুদ্ধিজীবী সন্তান অধ্যাপক ডা. নুজহাত চৌধুরী, এটিএন নিউজের প্রধান নির্বাহী সম্পাদক মুন্নী সাহা, আন্তর্জাতিক শিশু পুরস্কার বিজয়ী সাদাত রহমান। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সাংবাদিক নবনীতা চৌধুরী। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন কবি ও সাংবাদিক আনিসুল হক।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, শেখ রাসেলকে হত্যা করতে যাদের হাত কাঁপেনি তাদের উত্তরসূরিরাই দেশে বর্তমানে অস্থিতিশীল অবস্থা তৈরি করতে চাচ্ছে। তারা বাংলাদেশকে হত্যা করতে চেয়েছে এবং এখনও চেষ্টা করে যাচ্ছে। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের পর অসাম্প্রদায়িক চেতনা নিয়ে দুটি প্রজন্ম কেন বড় হলো না, তার উত্তর আমাদেরই দিতে হবে। শিল্প সাহিত্য দিয়ে মানুষের সুপ্ত প্রতিভা বিকাশ হয়, যা সেই সময় হয়নি।

পলক আরও বলেন, বাংলাদেশসহ পৃথিবীকে আগামী প্রজন্মের সন্তানদের জন্য একটি নিরাপদ বিশ্ব হিসেবে গড়ে তোলার জন্য আমরা সম্মিলিতভাবে কাজ করবো। তিনি শেখ রাসেলের মানবিক দিকগুলো শিশু-কিশোরদের কাছে তুলে ধরতে সবার প্রতি আহ্বান জানান।

/এইচএএইচ/এমএস/এমওএফ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
মাদকবিরোধী অভিযানের খবর শুনে পালাতে গিয়ে সাবেক চেয়ারম্যানের মৃত্যু
মাদকবিরোধী অভিযানের খবর শুনে পালাতে গিয়ে সাবেক চেয়ারম্যানের মৃত্যু
ভাড়া নিয়ে বিতর্কে রিকশাচালকের আঘাতে পুলিশসহ আহত ৪
ভাড়া নিয়ে বিতর্কে রিকশাচালকের আঘাতে পুলিশসহ আহত ৪
১০ মাসে এডিপি বাস্তবায়ন ৫৫ শতাংশ, স্বাস্থ্য সেবায় বাস্তবায়ন ৩৯ শতাংশ
১০ মাসে এডিপি বাস্তবায়ন ৫৫ শতাংশ, স্বাস্থ্য সেবায় বাস্তবায়ন ৩৯ শতাংশ
পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োগে অভিন্ন নীতিমালা তৈরির উদ্যোগ
পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োগে অভিন্ন নীতিমালা তৈরির উদ্যোগ
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত