X
শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
২১ মাঘ ১৪২৯

‘ড্রোন দিয়ে মিয়ানমার সীমান্তে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ হচ্ছে’

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮:২৬আপডেট : ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ২০:২৭

মিয়ানমার সীমান্ত এলাকার পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে ড্রোন ব্যবহার করা হচ্ছে। এ জন্য কোস্টগার্ডের সেন্টমার্টিন স্টেশনে একটি অত্যাধুনিক ড্রোন প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বর্ডার গার্ডকেও ড্রোন সমৃদ্ধ করা হচ্ছে।

রবিবার (৪ ডিসেম্বর) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়।

কমিটির আগের বৈঠকে বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্ত এলাকার পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য ড্রোন ব্যবহার করা যায়  কিনা— তা খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়েছিল। রবিবারের বৈঠকে ওই সুপারিশের অগ্রগতি জানানো হয়। এতে বলা হয়—সীমান্তে নজরদারি এবং সার্বিকভাবে সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (বিজিবি)-তে ড্রোন/ইউএভি সংযোজনের বিষয়ে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম চলমান। এতে আরও জানানো হয়, বাংলাদেশ কোস্টগার্ড এ বছরের জুন মাসে দুটি অত্যাধুনিক ও উন্নত ফিচার সমৃদ্ধ ফটোগ্রাফি ড্রোন উইথ অ্যাসোসিয়েটেড অ্যাক্সেসরিজ কিনেছে। বর্তমান এর একটি ড্রোন ভাসানচরে, অপরটি বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তে উদ্ভূত পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য কোস্টগার্ড স্টেশন, সেন্টমার্টিনে মোতায়েন করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কমিটির সভাপতি বেনজীর আহমেদ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমরা সীমান্তে ড্রোন দিয়ে নজরদারি করার সুপারিশ করেছিলাম। মন্ত্রণালয়ও এ বিষয়ে একমত আছে। বর্তমান ভাসানচরসহ রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকায় ড্রোন নজরদারি চলছে। বিজিবির মাধ্যমে সীমান্ত এলাকায় ড্রোন ব্যবহার করে নজরদারি করা হবে বলে জানিয়েছে।

কমিটির আগের বৈঠকে সদস্য সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ, পীর হাবিবুর রহমান বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী মিয়ানমার ভূখণ্ডে নিয়মিত গোলাগুলি ও বিভিন্ন সময়ে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে মর্টারশেল পড়ার প্রসঙ্গ তোলেন। সুলতান মনসুর বলেন, ‘এই ঘটনার জন্য চট্টগ্রামের সীমান্তবর্তী জনসাধারণের মনে আতঙ্ক বিরাজ করছে। পর্যটকরাও ওই অঞ্চলে যেতে ভয় পাচ্ছেন।’ তিনি আপস চিন্তা বাদ দিয়ে কাউন্টার গুলির মাধ্যমে নিজেদের শক্তিমত্তার জানান দেওয়ার কথা বলেন।

পরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী, এখন মিয়ানমার সীমান্ত থেকে কাউকে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না দেওয়ার সিদ্ধান্ত কঠোরভাবে বাস্তবায়ন হচ্ছে।’ মন্ত্রী মিয়ানমার সীমান্তে গোলাগুলি নিয়ে উদ্বিগ্ন না হওয়ার আহ্বানও জানান।

প্রসঙ্গত, গত সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে মিয়ানমার-বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকার আকাশে সকাল-সন্ধ্যায় ড্রোন ও হেলিকপ্টার উড়তে দেখা গেছে। বাংলাদেশ সীমান্তে নজরদারি করতে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ ড্রোন ও হেলিকপ্টার টহল দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। বিষয়টি বাংলাদেশের তরফ থেকে মিয়ানমার সরকারকে জানানোও হয়। নভেম্বরে মিয়ানমারে অনুষ্ঠিত দুই দেশের সীমান্ত সম্মেলনের আলোচনায় উঠ আসে। পরে দুই সীমান্তরক্ষী বাহিনী ও সীমান্তবর্তী জনগণের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি এবং বিভ্রান্তি এড়াতে মিয়ানমার তাদের ড্রোন, হেলিকপ্টার ও বিমান চলাচলের আগাম তথ্যসহ সীমান্তে গোলাগুলি-বিস্ফোরণ ও নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযান পরিচালনার তথ্য আদান-প্রদান করতে সম্মত হয়েছে বলেও জানানো হয়।

ওই বৈঠকে র‌্যাবের মহাপরিচালক এম খুরশীদ হোসেন শিশুদের বয়সসীমা কমানোর প্রস্তাব করেন। তিনি বলেন, ‘দেশের আইন অনুযায়ী, ১৮ বছরের নিচের সবাইকে কিশোর হিসেবে গণ্য করা হয়ে থাকে। কিন্তু বর্তমানে ১২-১৩ বছরের কিশোররা খুন, ধর্ষণসহ নানাবিধও অপরাধে জড়িত হয়ে পড়েছে।’ র‌্যাবের ডিজি তার বক্তব্যে কিশোর হিসেবে গণ্য করার জন্য ১৮ বছরের বয়সসীমা আরও কমানোর পক্ষে মত দেন।

কমিটির আগের বৈঠকে ৩০০ ফুট (পূর্বাচল রোডে) এলাকায় ডাকাতি হয় উল্লেখ করে সন্ত্রাসীদের আনাগোনা বন্ধে ওই অঞ্চলের কাশবন ও জঙ্গল পরিষ্কার করার সুপারিশ করে। ওই সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে ইতোমধ্যে কাশবনসহ জঙ্গল ইতোমধ্যে পরিষ্কার করে ডাকাতি বন্ধে টহল বাড়ানো হয়েছে বলে রবিবারের বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। 

এদিকে রবিবারের বৈঠকে ‍টুরিস্ট পুলিশ বা শিল্প পুলিশের আদলে একটি পূর্ণাঙ্গ সাইবার ক্রাইম ইউনিট খোলার সুপারিশ করা হয়েছে।

/ইএইচএস/এপিএইচ/
সর্বশেষ খবর
আজকের নির্বাচিত বই
অমর একুশে গ্রন্থমেলাআজকের নির্বাচিত বই
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটরিয়াম উদ্বোধনের আগেই ভাড়া
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটরিয়াম উদ্বোধনের আগেই ভাড়া
শোক সংবাদে শুরু, নবীন শিল্পীদের অপূর্ব পরিবেশনায় শেষ
‘কর্মশালা ও সংগীতে নবীনবরণ’শোক সংবাদে শুরু, নবীন শিল্পীদের অপূর্ব পরিবেশনায় শেষ
‘১৪ বছরে মালয়েশিয়া-সিঙ্গাপুরসহ ২৫ দেশকে পেছনে ফেলেছি আমরা’
‘১৪ বছরে মালয়েশিয়া-সিঙ্গাপুরসহ ২৫ দেশকে পেছনে ফেলেছি আমরা’
সর্বাধিক পঠিত
দিনদুপুরে তালা ভেঙে ব্যাংক থেকে ৪ লাখ টাকা লুট
দিনদুপুরে তালা ভেঙে ব্যাংক থেকে ৪ লাখ টাকা লুট
ক্রাইম প্যাট্রল থেকে কৌশল শিখে ৫ কিশোরের এক রোমহর্ষক কিলিং মিশন
ক্রাইম প্যাট্রল থেকে কৌশল শিখে ৫ কিশোরের এক রোমহর্ষক কিলিং মিশন
শাকিব ও জোভান প্রসঙ্গে মুখ খুললেন পূজা!
শাকিব ও জোভান প্রসঙ্গে মুখ খুললেন পূজা!
রডের টন লাখ ছুঁই ছুঁই
রডের টন লাখ ছুঁই ছুঁই
সড়কে লাশ হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী
সড়কে লাশ হলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী